31 C
Dhaka
Saturday, July 13, 2024

45000 Tk Budget PC Build Guide 2022 ft. Ryzen 5 5600G

- Advertisement -

জিপিইউ প্রাইস ঠিকঠাক থাকলে ৪৫ হাজারে ঠেলাঠেলি করে GTX 1650 বা 1650 Super দিয়ে হয়তো বিল্ড করা সম্ভব হতো। কিন্ত বর্তমান পরিস্থিতিতে তা এক প্রকার অসম্ভবই বলতে হবে। সেজন্যই কিছুদিন আগে আমরা 12th gen core i5 12400 দিয়ে ৪৫ হাজারের একটি বাজেট বিল্ড নিয়ে এসেছিলাম আপনাদের  জন্য।  আজ আরো একটি dGPU-less ৪৫ হাজার বাজেট রেঞ্জের বিল্ড গাইড নিয়ে হাজির হলাম আমরা। এবারের বিল্ড টি ফিচার করছে Ryzen 5 5600G প্রসেসরটি।

প্রসেসরঃ Ryzen 5 5600G: 24000 Tk~

আগেই বলেছি প্রসেসর হিসেবে আমরা ব্যবহার করছি AMD Ryzen 5 5600G। এতে রয়েছে VEGA 7 iGPU। প্রসেসরটির মুল্য ২৪০০০ টাকা। এটি একটি 6 cores 12 thread APU ,এতে রয়েছে ১৬ মেগাবাইটের ক্যাশ মেমোরি। প্রসেসরটির TDP 65 W ও  Boost clock 4.4 Ghz.

- Advertisement -

এই প্রসেসরটির raw CPU Performance যথেষ্ট ভালো। তবে এর থেকে ৩ হাজার টাকা কমে Core i5 12400  রয়েছে বা ১৮০০০ হাজার টাকায় 11400 রয়েছে, উভয়ই CPU Based workload গুলোতে এই 5600G থেকে ভালো পারফর্ম করে।কিন্ত যেহেতু এই বিল্ডটি একটি GPU-LESS বিল্ড, সেক্ষেত্রে GPU-based workload ও টুকটাক গেমিং, উভয় ক্ষেত্রেই বড় ব্যবধানে এগিয়ে থাকবে 5600G তার VEGA 7 iGPU এর জন্য। ইন্টেলের 11400 বা 12400 এর উভয় প্রসেসরেরই UHD 730 iGPU এর এবিলিটি অত্যন্ত কম VEGA 7 এর তুলনায়।

সাথে আরেকটি বিষয় ও এসে যায়, 11400 ও 12400 এ রয়েছে power limit জনিত কিছু জটিল বিষয় যার কারণে এন্ট্রি লেভেলের 510/610 ,560,660 বোর্ড গুলোতে এই প্রসেসরগুলো বেশ অনেকটাই underperform করে থাকে।

- Advertisement -

এবং দামে 5600G কিছুটা বেশি হলেও এর একটি বড় সুবিধা হচ্ছে মাদারবোর্ড এর দাম। AM4 platform এর মাদারবোর্ড এর দাম অত্যন্ত কম হওয়ায় এখানে ইন্টেল সিস্টেমের তুলনায় অনেকটাই খরচ কমে আসবে। B450 বা A520/B550 হোক, এন্ট্রি লেভেল বা ডিসেন্ট মাদারবোর্ড গুলো ৬৫০০ থেকে ৯৫০০ এর মধ্যেই পাওয়া সম্ভব যেগুলো কি না 5600G কে খুব সহজেই হ্যান্ডেল করতে পারবে।

অন্যদিকে ইন্টেলের অনেক H510,610 মাদারবোর্ডগুলোর দাম ৮-৯/১১ হাজার টাকা থেকে শুরু ও ভালো মানের B560,660M মাদারবোর্ডের জন্য আপনাকে ১৩-১৬ হাজার টাকা খরচ করতেই হবে না হলে আপনার প্রসেসরটি থেকে full potential হয়তো বা পাওয়া নাও যেতে পারে।

- Advertisement -

আর ইন্টেল প্রসেসর এর দাম কম হলেও শেষমেশ মাদারবোর্ডের উচ্চমুল্যের কারণে সম্মিলিত খরচ একই পরিমাণে গিয়ে পৌছে।বরং ইন্টেল বিল্ডের খরচ বেড়ে যায়। এদিকে ২৪ হাজার টাকার প্রসেসর এর সাথে ৬-৮ হাজার টাকার মাদারবোর্ড , ওদিকে ১৮-২১ হাজার টাকার প্রসেসর এর সাথে ১৩-১৬ হাজার টাকার মাদারবোর্ড।

মাদারবোর্ডঃ MSI A520-A PRO: 6300 Tk

মাদারবোর্ড হিসেবে আজকের বিল্ডে থাকছে MSI A520-A PRO। একটি বাজেট বিল্ডের জন্য এই বোর্ডটি যথেষ্ট ও আমাদের আজকের বিল্ডের প্রসেসরটিকে সহজেই হ্যান্ডেল করতে পারবে এই মাদারবোর্ডটি। 520 চিপসেট হওয়ায় এটিতে আমরা যদিও ওভারক্লকিং এর সুবিধা পাব না,একই সাথে থাকছে না PCIe4 এর সাপোর্ট, তবে বিল্ড ও দাম বিবেচনায় এগুলোকে cons হিসেবে ধরা যাচ্ছে না। যেহেতু মাত্র ৬৫০০ টাকাতেই আমরা একটি ডিসেন্ট বোর্ড পেয়ে যাচ্ছি যেখানে পর্যাপ্ত পরিমাণ i/o ports, PCIe Slot,SATA 3 ports রয়েছে।

যদি কেও একান্তই ওভারক্লক করতে চান এই প্রসেসর ও এটির iGPU, সেক্ষেত্রে বাজেট সামান্য বাড়িয়ে B450M বা 550M বোর্ডগুলো নিতে পারেন।

র‍্যামঃ Corsair Vengeance LPX 8GB 3200 Mhz (x2) 6400 Tk

র‍্যাম হিসেবে আজকের বিল্ডে আমরা ব্যবহার করছি জাতীয় র‍্যাম এর খেতাবপ্রাপ্ত Corsair Vengeance LPX DDR4 8GB  3200 Mhz CL16 এর দুইটি স্টিক। অর্থাৎ ডুয়াল চ্যানেল মোডে আমরা র‍্যামগুলোকে ব্যবহার করতে পারবো। দুটি র‍্যাম এর প্রত্যেকটির মুল্য ৩২০০ টাকা করে।

পাওয়ার সাপ্লাই: Corsair CV450 450W PSU

আজকের বিল্ডকে পাওয়ার আপ করতে ব্যবহার করা হয়েছে Corsair CV450 450W পাওয়ার সাপ্লাইটি। এই সিস্টেমের জন্য যা যথেষ্ট। এটির দাম ৩২৫০ টাকা।

স্টোরেজ:

স্টোরেজ হিসেবে আমরা আমাদের কোনো বিল্ডেই কোনো নির্দিষ্ট স্টোরেজ এর পরামর্শ দি না ও বাজেটেও উল্লেখ করি না কারণ ব্যক্তি থেকে ব্যক্তি, স্টোরেজ এর চাহিদা,পছন্দ,প্রয়োজন হয় একেবারেই ভিন্ন ভিন্ন, কারো কারো ক্ষেত্রে ৩/৪ টেরাবাইটের হার্ড ড্রাইভ লাগে, সাথে একটি ২৫০/১২০ জিবির এসএসডি সিস্টেম ড্রাইভ হলেই হয়, কারো ক্ষেত্রে এক টেরাবাইটের হার্ড ড্রাইভের সাথে একটি ২৫০ জিবি এসএসডিই যথেষ্ট হয়, আবার এমন ও পিসি বিল্ডার আছেন যাদের দরকার হয় ২/৩ টেরাবাইট এর NVMe/SATA SSD। এজন্যই আমাদের বিল্ড গুলোতে আমরা নির্দিষ্ট কোনো ফর্ম ফ্যাক্টর ও সাইজ এর স্টোরেজ এর নাম উল্লেখ করি না।

যাই হোক,আজকের বিল্ড গাইডে সিস্টেম ড্রাইভ হিসেবে ব্যবহ্বত হয়েছে Kingston 120GB SATA3 SSD যার দাম ২১০০ টাকা মাত্র।

কুলার:

এই বিল্ডের জন্য সত্যি বলতে কোনো aftermarket cooler এর দরকার নেই, বরং বক্সে আসা AMD এর Wraith Stealth Cooler টিই এই প্রসেসর এর তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখতে যথেষ্ট। তবে Aesthetics এর কথা মাথায় রেখে,বিল্ডটিকে একটি সুন্দর লুক দেওয়ার জন্য আমরা ব্যবহার করেছি Red Dragon Effect এয়ার কুলার টি,যার দাম ২৪৫০ টাকা।

 

কেসিং: Value Top VT-B701 2450 Tk

আজকের বিল্ডের কেস গরীবের বন্ধু খ্যাত Value Top এর VT-B701 কেসিংটি যেটির দাম ২৪৫০ টাকা। এটিকে আমরা কাস্টোমাইজ করে ভেনম থিম দেওয়ার চেষ্টা করেছি। বিল্ডটিতে একটি stealth,bold লুক দেওয়ার চেষ্টা ছিল আমাদের, কিন্ত কেসিং এর ৩টি  rainbow Fixed RGB ফ্যান এর জন্য সেই উদ্দেশ্য শেষ পর্যন্ত পুরণ হয়নি। Red Dragon Effect Cooler এর সাথে আমাদের প্রসেসর এই কেসিং এ কতটুকু গরম হয় তা আমরা একটু পর দেখবো।

পারফর্মেন্স ও Thermal:

এই বিল্ডে আমরা বেশ কয়েকটি গেম টেস্ট করেছি। যেহেতু কোনো গ্রাফিক্স কার্ড ছিল না, তাই এখান থেকে খুব বেশি আশা করা বোকামি। তবে Fifa,PES, Valorent,Apex Legends,CSGO,DOTA এর মত esports গেম গুলো বেশ ভালোভাবেই খেলা যাবে। আমাদের টেস্ট করা Metro-Exodus,Cyberpunk 2077,Assassin’s Creed Valhalla.Valorant এর বেঞ্চমার্কের রেজাল্ট ছবি  থেকেই দেখে নিন। বেসিক ভিডিও এডিটিং,ফটো এডিটিং এর কাজ অবশ্য মোটামুটি চালিয়ে নেওয়া যাবে।

প্রসেসরটির তাপমাত্রা স্ট্রেস টেস্টের সময় ৭৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত উঠেছিল ও গেমিং এর সময় গড় তাপমাত্রা ছিল ৬৭ ডিগ্রী সেলসিয়াস।

 

- Advertisement -

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here