32 C
Dhaka
Wednesday, September 28, 2022

ইন্টেল Core i5 10600k, সেরা গেমিং প্রসেসর?

- Advertisement -
ইন্টেল রিলিজ করেছে তাদের ১০ম জেনারেশনের Core i5 প্রোসেসর i5 10600k।
এটি মুলত আসছে হাই লেভেল এর রাইজেন ৫/7 প্রসেসর যেমন ৩৬০০এক্স ও রাইজেন ৭ ৩৭০০এক্স এর মত প্রসেসর এর বিরুদ্ধে লড়াই করতে। এর দাম ২৬২ ডলার।  যা বাংলাদেশে হয়তো আমরা একে ২৭/২৮ হাজার টাকার মধ্যে পাব। (এবং F ভার্সন বা ইন্টারনার্ল জিপিউ ছাড়া ভার্সনটা আমরা ২৩৭ ডলার ,বাংলাদশে ২৫ হাজার টাকার মধ্যে পেতে পারি।
মিড রেঞ্জের পরেই এটি একটি গুরুত্বপুর্ণ রেঞ্জ যেই রেঞ্জে ভারী প্রোডাক্টিভিটির কাজের জন্য ও ইন্টেন্স গেমিং কিংবা উভয় কাজের জন্য প্রসেসর কিনে থাকেন ইউজার রা।

সংক্ষিপ্ত স্পেসিফিকেশনসঃ

Cores/threads Frequency Cache Memory Lithography PCie TDP Price
6/12 4.1/4.8 12MB 14nm 3.0 125W 262$

 

কি কি থাকছে এতে?

ইন্টেল core i5 10600k তে দেওয়া হয়েছে 6cores, 12 threads , 12 MB cache memory । ক্লক স্পিড আমরা দেখতে পাচ্ছি অনেক হাই, base clock 4.1 ghz ও সেটা বুস্ট করার সুযোগ থাকছে 4.8ghz পর্যন্ত।TDP 125 watt.  এই প্রসেসরটিও ইন্টেল 14 ন্যানোমিটার আর্কিটেকচার এর উপর তৈরি করেছে।

ডিটেইলস বেঞ্চমার্কিংঃ

একটা প্রসেসর কাগজে কলমে কতটা শক্তিশালী তা আমরা ২ ধরনের টেস্টে জানতে পারি, এই দুই টেস্টকে আমরা গেমিং ও প্রোডাক্টিভিটি , মোটা দাগে এই ২ ভাগে ভাগ করে থাকি।
প্রথমে আসবো প্রোডাক্টিভিটি যেখানে আমরা ভিডিও, ছবি রেন্ডারিং, ভিডিও এক্সপোর্ট,এডিটিং, কম্প্রেসিং, ডিকম্প্রেসিং, কোড কম্পাইলিং, লোগো বানানো এসব কাজ সংশ্লিষ্ট সফটওয়্যার এ কত দ্রুত হয় বাঁ কত বেশি স্কোর হয় তার মাধ্যমে আইডিয়া নিতে পারি যে কাজটা কত ভালো ভাবে করতে পারে প্রসেসর।

প্রোডাক্টিভিটি পারফর্মেন্সঃ

- Advertisement -

Cinebench R20: (multicore):

c
Cinebench R20(multicore)

r7 3700x এর 4844, r5 2700x এর 3956, r5 3600 এর 3746 স্কোর এর বিপরীতে 10600k এর স্কোর এখানে 3566।

Singlecore:

Cinebench R20(single core)
- Advertisement -

এখানে দেখা যাচ্ছে r5 3600 থেকে ইন্টেলের এই নতুন প্রসেসর সামান্য পিছিয়ে ও 3700x থেকে অনেক পিছিয়ে। এমনকি প্রায় অর্ধেক দামে রিলিজ হওয়া ryzen 3 3300x এর স্কোর ও এখানে বেশি intel core i5 10600k থেকে।

r5 3600 এর 487,r3 3300x এর 504 ও r7 3700x এর 510 স্কোর এর বিপরীতে ইন্টেল এর নতুন প্রসেসর করতে পেরেছে 483 । শুরুটা ভালো হলো না।

7-ZIP(decompression):

7-ZIP(decompression)
- Advertisement -

core i5 10600k এখানে বেশ বড় ব্যবধানে r5 3600 থেকে পিছিয়ে ,বলতে গেলে ধারে কাছেও আসতে পারেনি, এবং Ryzen 5 2600 থেকেও কম স্কোর।আর রাইভাল 3700x থেকে লজ্জাজনক প্রায় 40% পিছনে আছে।

r7 3700x এর 93422, r7 2700x এর  77098 ও r5 3600 এর 70989 স্কোরের বিপরীতে মাত্র 56649 করতেই সমর্থ হয়েছে ।

compression:

7-ZIP(Compression)

এখানে কিছুটা উন্নতি দেখা যাচ্ছে।এবার কিন্ত সামান্য স্কোর করেছে 2700x থেকে(51875) কিন্ত r5 3600 কে এখনো বিট করতে পারেনি(55796) ও 3700x(71351) থেকে এখানেও অনেক পিছিয়ে।(51968)

SISOFT-SANDRA: MULTITHREAD:
SiSoft Sandra
এখানে কিন্ত দেখা যাচ্ছে r5 3600 থেকে অনেক বড় ব্যবধানে পিছনে পড়ে আছে আমাদের নতুন ইন্টেল প্রসেসরটি। সদ্য লঞ্চ হওয়া ১২/১৩ হাজার এর 3300x এর স্কোর ও এখানে এর থেকে বেশি।
3300x করেছে 14.70(gb/s), r5 2600 করেছে 16.97(gb/s), r5 3600 করেছে 17.28(gb/s) এবং r7 3700x করেছে 20.07(gb/s) । সেখানে ইন্টেলের স্কোর ‘মাত্র’ 13.04(gb/s)
Blender open beta:
Blender Open Beta
এই প্রথমবার আমরা দেখতে পেলাম যে আমাদের আন বিটেবল ryzen 5 3600 কে প্রথমবার এর মত পিছনে ফেলেছে ইন্টেল কোর আই ফাইভ। যদিও 3700x, 2700x থেকে পিছনে।। টাস্ক শেষ করতে 3600 সময় নিয়েছে 1338s, সেখানে intel core i5 10600k সময় নিয়েছে 1282 সেকেন্ড। 3700x ও 2700x এর সময় যথাক্রমে 972s ও 1132s
Vray benchmark:
V-Ray Benchmark
এখানে কিন্ত অনেকগুলা ryzen প্রসেসর কে পিছনে ফেলেছে ইন্টেলের এই দশম জেনারেশনের খেলোয়াড়। দেখা যাচ্ছে 10366 স্কোরের বিপরীতে 3600, 3300x এর স্কোর 10k ও 8000,7000 এর ঘরে।  যদিও 3700x এর স্কোর 13494
Corona benchmark:
Corona 1.3 Benchmark
এখানেও ১০ সেকেন্ড এগিয়ে আছে r5 3600 থেকে i5 10600k
কিন্ত প্রাইস অনুসারে কম্পিটিটর ryzen 7 3700x থেকে এখানেও উল্লেখযোগ্য ব্যবধানে পিছিয়ে।
Code compile:
Chromium Code Compile
এখানে r5 3600কে বিট করতে পারেনি এটা। প্রায় ১০০০ সেকেন্ড পিছিয়ে। 3700x থেকেও 2500 সেকেন্ড পিছিয়ে। Core i5 10600k এর সময় লেগেছে এই টেস্টে 8544seconds
Davinci studio:
Davinci Resolve Studio 16
3700x ,2700x,3600 কে এখানেও পিছনে ফেলতে ব্যর্থ। 3700x এর স্কোর 1062,2700x এর স্কোর 979,3600 এর স্কোর 961. যেখানে 10600k করেছে 909

Adobe Benchmark:আমরা সাধারণত জানি Adobe তে ইন্টেল প্রসেসর ভালো পারফর্ম করে থাকে এবং এটা রাইজেন এর একটা দুর্বলতার জায়গা।। দেখা যাক তা এখানে প্রমাণিত হয় কি না।

premier pro:standard media pugit system:

Premiere Pro
এখানে দেখা যাচ্ছে r5 3600 থেকে কম স্কোর করেছে ইন্টেল।। এবং বলার অপেক্ষা রাখে না , পিছিয়ে আছে বেশ বড় ব্যবধানে । 3700x,2700x এর স্কোর ৭০০ এর ঘরে । সেখানে ইন্টেল করেছে ৬৪০ এর ও কম। r5 3600 এর স্কোর 670+ যার দাম কিন্ত ৭/৮হাজার টাকা কম।
Adobe Photoshop:
Adobe Photoshop
এখানেও ঠিক একই রকম স্কোর, তাই আর লিখলাম না।। 2700x কে পিছনে ফেললেও বাকি দের থেকে পিছিয়ে। ব্যবধান যতই হোক।
after effect:
After effects 2020
এখানে 2700x এর সমান স্কোর করেছে ও 3700x,3600 থেকে পেছনে।
সিস্টেম পাওয়ার কনসাম্পশনঃ
System Power Consumption
এএমডির ও ইন্টেল এর অনেক প্রসেসর থেকে অনেক অনেক বেশি পাওয়ার ইউজ করতে দেখা যাচ্ছে একে ব্লেন্ডার বেঞ্চমার্ক এ । 3300x,3600,7700k,2600,3700x, 8700k,9700k এর থেকেও বেশি পাওয়ার ইউজ করছে।।
মনে হচ্ছে অনেক বড় পাওয়ার সাপ্লাই লাগবে আমাদের এটা হ্যান্ডেল করতে।।
উপসংহারঃ দামটা বিবেচনা করলে ও এই দামে AMD এর প্রসেসর গুলোর পারফর্মেন্স দেখলে অবশ্যই বলতেই হয় খুবি হতাশা জনক স্কোর করেছে ৯০% ক্ষেত্রেই Intel core i5 10600k । Ryzen 7 2700x, ryzen 7 3700x এর থেকে অনেক বেশি পিছিয়ে ছিল অনেক গুলা টেস্ট এ।।
এবং হতাশার ব্যাপার হচ্ছে Ryzen 5 3600 , যার দাম এর থেকে অনেক অনেক কম। সেই প্রসেসর কেও বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই পিছনে ফেলা দুরে থাক লেভেল এর স্কোর ও করতে পারেনি ইন্টেল। পিছিয়ে ছিল বেশিরভাগ টেস্ট এই।।
আরেকটি বিষয়, এডোবি এর পারফরমেন্স আমরা জানি একটি শক্তিশালী জায়গা ইন্টেল প্রসেসর এর, কিন্ত এখানেও ryzen 5 3600 এর থেকে পিছনে ছিল ।। 3700x অনেক বেশি ব্যবধানে এগিয়ে ছিল।।
প্রোডাক্টিভিটি যদি হয় আপনার প্রধান ও একমাত্র উদ্দেশ্য, তাহলে মোটেও ভালো চয়েস বলা যাচ্ছে না এই প্রসেসর কে।। ইন্টেল কামব্যাক করতে পারলো??? এখন পর্যন্ত উত্তর না।। দেখতে থাকুন গেমিং বেঞ্চমার্ক।

গেমিং পারফরমেন্সঃ

গেমিং এর রিভিউটিতে ব্যাখাতে আমি একটু বেশি ই জোর দিব কারণ মাল্টিটাস্কিং এ স্কোর এর ডিফারেন্স যতটা ইম্পর্ট্যান্ট, গেমিং এ ফ্রেমরেট এর ডিফারেন্স অনেক বেশি ইম্পর্ট্যান্ট। স্পেশালি কম্পিটিটিভ গেমার দের জন্য ১০ এফপিএস ও অনেক কিছু ম্যাটার করে।। যাই হোক।
রিভিউ এ ১০৮০পি ও ১৪৪০পি দুইটা রেজুলেশন কভার করা হয়েছে।
Test bench: RTX 2080ti, 32gb CL 14 DDR4 Ram.
ব্যাটেলফিল্ড ৫ (১০৮০পি):
Battlefield V (1080p)
একটা ২০৮০টিআই এর সাথে ইন্টেলের নতুন প্রসেসরটি ১৬৭ এফপিএস দিচ্ছে। 1%লো ও অনেক ইম্প্রেসিভ ১২৫ এফপিএস ।(1% লো হচ্ছে আপনি ওভারল কতটা ভালো এক্সপেরিয়েন্স পাচ্ছেন সেটার ধারণা দিতে অনেক গুরুত্বপুর্ণ ভুমিকা পালন করে যে ল্যাগ স্টাটার অথবা ফ্রেমড্রপ হচ্ছে কি না, কতটা পরিমাণ হচ্ছে, কতক্ষণ পরপর হচ্ছে)
এবং এই ১৬৭ এফপিএস এর মাধ্যমে এটা r5 3600 কে ১৩ এফপিএস পিছনে ফেলছে ও 1% লো তে ১৭ এফপিএস পিছনে ফেলছে। Ryzen 7 3700x কেও ১১ এফপিএস পিছনে ফেলেছে এভারেজে।
মজার ব্যাপার হলো কোর আই নাইন ৯৯০০কে এর সমান এই ১৬৭ এফপিএস।
১৪৪০পিঃ
Battlefield V(1440p)
এখানে কিন্ত বলা যায় আমরা অনেকটাই জিপিইউ বটলনেকডঃ এখানে ১৩৫ এফপিএস এভারেজ ও ১০৮ এফপিএস ১% লো । যা ৩৬০০ থেকে ৭ এফপিএস বেশি।
তবে এই লিস্টে ইন্টেল ই উপরের দিকে আছে।
১৩০ থেকে ১২২ এফপিএস পর্যন্ত আছে রাইজেন নাইন ৩৯০০এক্স থেকে শুরু করে রাইজেন ৫ ২৬০০, আমাদের ইন্টেল প্রসেসর এর থেকে ডিফারেন্স ৫ থেকে ১৩ এফপিএস পর্যন্ত। তবে ১% লো তে ২৬০০ ই একমাত্র প্রসেসর যা ৮০ এফপিএস দিচ্ছে যা বাকি সব গুলা প্রসেসর অনেক ভালো করছে , ১০০ এর উপরে।
ফার ক্রাই new dawn:
Far Cry New Dawn (1080p)
আমরা জানি এটা কিন্ত অলওয়েজ ইন্টেল ফেভার্ড টাইটেল ।
১০৮০পি আল্ট্রাঃ ১২১ এফপিএস এভারেজ ও ৯৭ ১% লো।
যা ৩৬০০ থেকে এভারেজ ও ১% দুই ক্ষেত্রেই ১০ এফপিএস করে বেশি।।
3700x থেকে এগিয়ে আছে 7এফপিএস করে এভারেজ ও ১% লো দুই ক্ষেত্রেই।
যাই হোক , আই ফাইভের নিচে থাকা প্রসেসর গুলার মধ্যে সবচেয়ে নিচে আছে ২৬০০ যার ১% ও এভারেজ এর এফপিএস ডিফারেন্স দুই ক্ষেত্রেই ৩০! যা অনেক ।।
এবং আরেকটি ব্যাপার লক্ষনীয় যে ১% ডিফারেন্স কিন্ত এভারেজ এর থেকে বেশি থাকছে অনেক ক্ষেত্রেই।
১৪৪০পিঃ
Far Cry New Dawn(1440p)
ইন্টেল এর আধিপত্য এখানেও বজায় আছে। ১১৭ এফপিএস এভারেজ ও ৯৭ এফপিএস ১% লো এর মাধ্যমে ১০৬০০কে পিছনে ফেলছে বরাবরের মতই ৩৯০০এক্স,৩৭০০এক্স, ৯৬০০কে, ৭৭০০কে কে।। এফপিএস ডিফারেন্স ৭-৯, কিন্ত ১% লো এর দিকে তাকালে আমরা বুঝব আসলেই ইন্টেল বেটার এক্সপেরিয়েন্স দিবে ,ল্যাগ স্টাটার কম দিবে,।। রাইজেন ৩৯০০ থেকে ৩৬০০ এর ১% লো স্কোর আর আই ফাইভের ডিফারেন্স ১৩
Gears tactics:
Gears Tactics (1080p)
এখানেও কোর আই নাইনের সমান ফ্রেমরেট দিচ্ছে নতুন আই ফাইভ। ১৩৮ ও ১০৫ যথাক্রমে ১% ও এভারেজ।। বরাবরের মত রাইজেন অনেক দূরে। সবথেকে নিকটে আসা রাইজেন নাইন ৩৯০০ ১০ এফপিএস পিছিয়ে। ১% এও একই অবস্থা। Ryzen 7 3700x ১৩ এফপিএস পিছনে আছে এভারেজ ও ১% লো এর ক্ষেত্রে।
৩৬০০?? ৩৬০০ এখানে পিছিয়ে আছে এভারেজে ১৪ এফপিএস ও ১% এও ১৪ এফপিএস ।
১৪৪০পিঃ
Gears Tactics (1440p)
এখানে গ্যাপ কমে এসেছে, ২৬০০ ছাড়া সবগুলার ১% লো পার্ফরমেন্স প্রায় সেম ১/২ এফপিএস কম বেশি।
তবে এভারেজে কিন্ত এখনো ৬/১০ এফপিএস বেশি পাচ্ছে ইন্টেল।
রেইনবো সিক্সঃ
Tom Clancy’s Rainbow Six Siege(1080p)
২৭৬ ও ১% ২১৬ এফপিএস নিয়ে 3700x থেকে এভারেজে ১০ এফপিএস এগিয়ে আছে। ৩৬০০ থেকে এভারেজে ১১ এফপিএস এগিয়ে আছে এখানে ইন্টেল। তবে এই টাইটেল এ আমরা একটা ইন্টারেস্টিং ব্যাপার লক্ষ করছি।। রাইজেন এর ৩৯০০এক্স, ২৭০০এক্স ও ৩৬০০ কিন্ত ১% লো তে অনেক অনেক এগিয়ে আছে আই ফাইভ থেকে ।।
যদিও এভারেজে পিছিয়ে।
১৪৪০পিঃ
Rainbow Six Siege (1440p)
এখানে বেশি কিছু বলার নাই, জিপিউ লিমিটেড। সবার ই প্রায় সেম ফ্রেমরেটঃ ১% ও প্রায় সেম .১/২ এফপিএস কম বেশি।। ১০/১২ টা গ্রাফিক্স কার্ড এর ফ্রেমরেট ডিফারেন্স ৩/১ /২।
Ghost recon breakpoint:
Ghost Recon Breakpoint(1080p)
এখানে এগিয়ে আছে ইন্টেল ,137 FPS,112 FPS দেখতে পাচ্ছি আমরা এখানে। 3700x,3600 এর এফপিএস 131 ও 108
যদিও লিস্টের প্রথম ১০/১২টা প্রসেসর সবই ইন্টেল।
১৪৪০পিঃ
Ghost Recon Breakpoint(1440p)
এখানে বেশি জিপিইউ লিমিটেড আমরা।
9900k,9700k,8700k, 9600k, এর এভারেজ ও ১% সব সেম। ১১১ ও ৯৪।
একটু পিছনে ৩৬০০ আছে ১০৪ এফপিএস ও ৯০ এফপিএস নিয়ে ।
Shadow of the tomb raider:
Shadow of the Tomb Raider(1440p)
১২৬ এফপিএস দিয়ে এখানে ৩৯০০এক্স, ৩৭০০এক্স এর সাথে প্রায় টাই অবস্থায় আছে ইন্টেল। ৩৬০০ এর এফপিএস ১২০।
১৪৪০পিঃ
Shadow Of the Tomb Raider(1440p)
এখানে আমরা জিপিউ লিমিটেডঃ সব ই প্রায় একই ফ্রেমরেট দিচ্ছে। ১/২ এফপিএস ডিফারেন্স।।
3600, 10600k সমান এখানে। ১% এ ২এফপিএস বেশি ইন্টেল।
Red dead redemption 2:
Red Dead Redemption 2(1080p)
3900x,3700x কিন্ত একদম প্রায় সমান পারফর্মেন্স করছে এখানে ইন্টেল এর । Intel এর স্কোর এখানে ১০৩ এফপিএস এভারেজ ও ৭৮ এফপিএস ১%।
উল্লেখিত দুইটা প্রসেসর ২ এফপিএস পিছিয়ে আছে।
r5 3600 এখানে এভারেজে ৯ এফপিএস ও ১% এ ৬ এফপিএস পিছনে।।
১৪৪০পিঃ
Red Dead Redemption 2(1440p)
এখানে আমরা লিমিটেডঃ ১৪ টা প্রসেসর এর প্রথম ও শেষ জনের এফপিএস ডিফারেন্স মাত্র ৬, ১% এর ক্ষেত্রে মাত্র ৭ ।
ইন্টেল 10600k রাইজেন থেকে ১ এফপিএস এগিয়ে আছে ।
এবার আসা যাক এই ৭টা গেমের এভারেজেঃ
1080p 7 games average
১০৮০পি তে আই ফাইভ ১৫৩ এফপিএস এভারেজ ও ১১৯ এফপিএস ১% দিচ্ছে।3700x এর ফ্রেমরেট এখানে 145,115। যেখানে ৩৬০০ দিচ্ছে ১৪৩ ও ১১২ ।
1440p:
1440p 7 games average
1440p তে সামান্য এগিয়ে আছে 10600k।
উপসংহারঃগেমিং এ আমরা কোন কম্পিটিশন ই দেখতে পাইনি।। একটা কথা প্রচলিত আছে ইন্টেল গেমিং এ বস।। সেটা যেন আজকালকার ভাষায় রিমাস্টার করে আনলো ইন্টেল।। এখানে রাইজেন এর কোন প্রসেসর পাত্তাই পায়নি, এফপিএস এর ডিফারেন্স যতই হোক না কেন, সবসময় ই ইন্টেল উপরে দেখা গেছে। এবং প্রতিদ্বন্দ্বীকে তো গুড়িয়ে দিয়েছেই, সাথে আগের জেনারেশন এর কোর আই নাইন, গেমিং যা ছিল সবথেকে পাওয়ারফুল, তার সমতুল্য পারফরমেন্স সত্যিই অসাধারণ ব্যাপার।

কারা কিনবেন/আপগ্রেড করবেনঃ

খুবই হার্ডকোর গেমার, শুধু গেমিং ই করেন, এফপিএস অনেক গুরুত্বপুর্ণ আপনার কাছে, আপনার বাজেট ও intel core i5 10600k এর সাথে মিলে যায় । আপনার জন্য সেক্ষেত্রে খুবই সুন্দর অপশন হতে পারে intel core i5 10600k । কোন দ্বিধা ছাড়াই এটা আপনি পছন্দ করতে পারেন। যারা গেমিং সেন্ট্রিক মাল্টিটাস্কিং পিসি বিল্ড করতে চাচ্ছেন যে গেমটাই মুখ্য ,সাথে অন্যন্য কাজ করবেন মাঝেমধ্যে হালকাপাতলা, তাদের জন্য পারফেক্ট চয়েস। কোর আই নাইন এর সমতুল্য গেমিং পারফর্মেন্স ২৭/৩০ হাজার এর প্রসেসর এ সত্যিই অবিশ্বাস্য। এই বাজেটে দ্বিতীয় কোন প্রতিদ্বন্দ্বী নেই core i5 10600k এর।

আপগ্রেডের জন্য অবশ্যই আপনাকে কিছু বিষয় মাথায় রাখতে হবে যে বর্তমানে যদি আপনি 8700k অথবা ryzen 5 3600 ইউজার হন, আপনার কিন্ত খুব বেশি এফপিএস বাড়বে না। এবং মাথায় রাখবেন টেস্ট করা হয়েছে rtx 2080ti দিয়ে। 5600xt/2060/super  দিয়ে টেস্ট করলে এখানে যতটা পার্থক্য দেখা যাচ্ছে তা অবশ্যই থাকবে না।। এবং রাইজেন প্লাটফর্ম থেকে আসলে আপনার মাদারবোর্ড কেনার ও একটা আলাদা খরচ থাকবে যা আপনাকে অবশ্যই গুরুত্বের সাথে বিবেচনা করতে হবে। সেক্ষেত্রে পুরাতন মাদারবোর্ড বিক্রি করার মত ঝামেলা তেও হয়তো আপনাকে যাওয়া লাগতে হতে পারে। যারা 8400/7500k, i5 6th gen, i3 3rd gen ,i7 6th জেন, ryzen 5 1600/2600 এর মত প্রসেসর ইউজ করছেন বাজেট ৩০ হাজার এর মত থাকলে সেরা পছন্দ হতে পারে আপগ্রেড এর জন্য এটি।

তবে 10600KF হয়তো বা একটূ ভালো অপশন হতেও পারে।

কারা কিনবেন না/আপগ্রেড করবেন নাঃ

লাইট গেমিং করেন সাথে প্রোফেশনাল ভিডিও এডিটর /মাল্টিটাস্কিং করেন অথবা গেমিং একদমই করেন না শুধুই অন্যন্য এই সমস্ত কাজ করে থাকেন । কিংবা যারা মাল্টিটাস্কিং মুখ্য উদ্দেশ্য সাথে দ্বিতীয় গুরুত্ব গেমিং  সেক্ষেত্রে এটি না নিয়ে অন্য কিছু অপশন আছে আপনার জন্য।। মাল্টিটাস্কিং এ রাইজেন এর অলরাউন্ডার 3600 যার দাম কিনা ১৮ হাজার (প্রাইস আরো কম থাকতে পারে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে) তার থেকেও কম পারফর্মেন্স দিচ্ছে যা উপরে বেঞ্চমার্কিং থেকে দেখেছেন। এবং এর বাজেটে কম্পিটিটর যেমন 3700x,2700x থেকেও অনেক পিছিয়ে, সুতরাং এটি মোটেও নেওয়া যুক্তিসংগত হবেনা।

হেভি ইউজার না হলে বরং ryzen 5 3600 নিয়ে সাথে অন্যন্য পার্টস আপগ্রেড করে ফেলুন, Ram বাড়িয়ে নিন ভালো হবে। জিপিউ তে এক্সট্রা ৮/১০ হাজার টাকা দিন।

আপগ্রেডের তো প্রশ্নই উঠেনা। কারণ আপনি আশানুরুপ পারফর্মেন্স পাবেন না, সাথে নতুন মাদারবোর্ড নেওয়ার ঝামেলা রয়েছেই। একটি আপগ্রেডের জন্য বর্তমান বিল্ড থেকে যে পরিমান উন্নত পারফরমেন্স পেলে আপগ্রেড যুক্তিসঙ্গত হয়

আর AMD Ryzen 4000 সিরিজ এর জন্য ও অপেক্ষা করতে পারেন।

শেষ কথাঃ

সাধারণ গেমার, হার্ডকোর প্রোফেশনাল গেমার দের জন্য দশম জেনারেশন এর সেরা গেমিং প্রসেসর বলা চলে core i5 10600k কে। core i9 এর মত প্রসেসর এর সমান গেমিং পারফর্মেন্স প্রাইস টু পারফর্মেন্স এর বিচারে অন্য এক লেভেলে নিয়ে গেছে এই প্রসেসর কে। মাল্টিটাস্কিং এ বাজেট অনুসারে আশানুরুপ ফল না দিতে পারলেও গেমিং ভিত্তিক বিল্ডের জন্য বর্তমানে এই বাজেটে অন্যরকম একটি জায়গা করে নিলো core i5 10600k

 

Specifications source: ark.intel.com Benchmark source:Hardware Unboxed

বেঞ্চমার্কিং এর জন্য Hardware unboxed বেছে নেওয়ার কারণ তাদের graph গুলো একটু সাদামাটা,ক্লিয়ার। এবং ব্যাখা ও সাধারণ ইউজার দের জন্য অনেক সহজ করে দেওয়া হয়।

কয়েকমাসের মাঝে ১১/১২ হাজার রেঞ্জে নতুন প্রসেসর নেওয়ার ইচ্ছা থাকলে AMD এর নতুন রিলিজ করা প্রসেসর Ryzen 3 3100 এবং 3300x হতে পারে আপনার জন্য সুন্দর পছন্দ, স্পেসিফিকেশনস ও ডিটেইলস গেমিং ও প্রোডাক্টিভিটি বেঞ্চমার্ক দেখে নিন এই আর্টিকেল থেকে।

বাজেট রেঞ্জে এএমডির নতুন দুই খেলোয়াড়! 3100 & 3300x কারা কিনবেন ? কেন কিনবেন ??

কোয়ালিটি সেম রেখে AVI ফাইলের সাইজ কমানোর টেকনিক দেখে নিন নিচের লিংক থেকেঃ

কোয়ালিটি প্রায় শতভাগ এক রেখে AVI ভিডিও ফাইলের সাইজ কমিয়ে নিন সহজেই

 

 

- Advertisement -
Soaad Bin Zaman Shoron
Soaad Bin Zaman Shoron
Gamer | Memer | Tech Enthusiast | Food Hunter | JUST PHYSICS 2018

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here