দশম জেনারেশন এর প্রসেসর লাইনআপে একদম মিড বাজেট (160-190$) এ ইন্টেল লঞ্চ করেছে intel core i5 10400 (দুটি ভ্যারিয়েন্ট) মুলত অন্য ভ্যারিটেন্টটিতে আমরা IGPU দেখতে পাবো না ও বাকি সব আসলে একই এবং দাম ২৫-৩৫ ডলার মত ডিফারেন্স থাকবে। দেশের বাজারে হয়তো পরিস্থিতি ভেদে আমরা ১৭/১৯ হাজার এর মধ্যেই পাব। গ্রাফিক্স ছাড়া ভার্সনটা আরেকটু কম হয়তো ১৬ হাজার বা এর একটু কম বেশি দামে পেয়ে যাব। সঠিক দাম দেশে আসলেই জানা যাবে।

এই প্রাইসরেঞ্জ টা আমাদের দেশের প্রেক্ষাপটে খুবই গুরুত্বপুর্ণ, বিশেষত গত দুই তিন বছরে এই রেঞ্জের প্রসেসর ব্যবহার করে মাল্টিটাস্কিং বা গেমিং দুই উদ্দেশ্যেই প্রচুর পরিমান পিসি বিল্ড হয়েছে এবং বলার অপেক্ষা রাখেনা বেশ কিছু রাইজেন প্রসেসর এর দেখা পাই আমরা এই বাজেটে এবং বিশ্বজুড়ে ও দেশের বাজারে এগুলোর জনপ্রিয়তা তুঙ্গে। ইন্টেল ও যোগ দিলো এই রেঞ্জে তাদের i5 10400/f এর মাধ্যমে। অনেকদিনের হারানো বাজার দখল করার উদ্দেশ্যে।

সংক্ষিপ্ত স্পেসিফিকেশনঃ

Cores/threads Base clock/Boost Clock (Ghz) lithography Cache Memory Type TDP Price
6/12 2.9/4.3 14nm 12MB DDR4 (2666Mhz) 65 W 182$ with IGPU (155$ without IGPU Version)

 

কি কি থাকছেঃ

intel core i5 10400 এ থাকছে ৬ টি কোর ও ১২ টি থ্রেড। বেস ক্লক স্পিড 2.9 Ghz এবং বুস্ট ক্লক 2.9 Ghz পর্যন্ত। দশম জেনারেশনের অন্যন্য প্রসেসরগুলোর মত এটিও ১৪ ন্যানোমিটার আর্কিটেকচার এর উপর তৈরী করা । Cache Memory থাকছে ১২ মেগাবাইট এর । ৬৫ ওয়াট টিডিপি দেওয়া হয়েছে। 10400 পাওয়া যাবে 182$ এ ও 10400f পাওয়া যাবে 155$ এ ।

 

প্রোডাক্টিভিটি বেঞ্চমার্কঃ

***এই বাজেটে এই প্রসেসর এর সবথেকে বড় প্রতিদ্বন্দ্বী হলো ryzen 5 3600 সুতরাং আমাদের ও মুল আলোচনা থাকবে এই দুইটি নিয়ে, কিন্ত সম্প্রতি Ryzen 3 3330x লঞ্চ হয়েছে যার দাম ও ১২/১৩ হাজার এর মধ্যে থাকবে আমাদের দেশে এবং যার পারফর্মেন্স যথেষ্ট ভালো (পোস্টের নিচে লিংক থেকে দেখে নিবেন) সেজন্য বারবার পারফর্মেন্স নিয়ে ryzen 3 3300x এর নাম ও আসবে বিভিন্ন স্থানে।***

***যেহেতু Intel core i5 10400 অফিশিয়ালি 2666 mhz সাপোর্ট করে সেজন্য সেই স্পিড এর র‍্যাম দিয়ে টেস্ট তো অবশ্যই করা হয়েছে সাথে সাথে হাই কোয়ালিটি ও হাই স্পিড র‍্যাম দিয়েও টেস্ট করা হয়েছে যাতে একটি আইডিয়া পাওয়া যায় যে কমদামী মাদারবোর্ড ও কম স্পিডের র‍্যামে কিরকম পারফর্মেন্স পাওয়া যাবে ও দামী মাদারবোর্ড ও হাই স্পিড র‍্যামের পারফর্মেন্স ই বা কেমন হবে কতটুক পার্থক্য হবে***

Cinebench R20 (multicore):

Cinebench (multicore)

Ryzen 5 3600(3746) থেকে প্রায় ১৫% পেছনে আছে Core i5 10400 (3188) তবে ryzen 3 3300x থেকে প্রায় একই ব্যবধানে এগিয়ে আছে। যদিও ২৬৬৬, ৩২০০ মেগাহার্টজ দুই ধরনের র‍্যামেই একই স্কোর পাওয়া গেছে।

Cinebench R20 (Singlecore):

Cinebench (Singlecore)

এখানে Ryzen 5 3600 ১৩% এগিয়ে আছে ও এখানেও আমরা দেখতে পাচ্ছি র‍্যাম স্পিড এর একদমই প্রভাব নেই সিনেবেঞ্চ এর টেস্ট এ।

7-Zip(Compression):

7-ZIP(Compression)

সেভেন জিপের কম্প্রেশন টেস্ট এ কিন্ত দেখা যাচ্ছে র‍্যাম স্পিড ২৫% বাড়িয়ে প্রসেসর এর পারফর্মেন্স ৫% বেড়েছে (যদিও বাস্তব জীবনে এই সংখ্যাটা খুবই সামান্য) । Ryzen 5 3600 এর সমান স্পিডের র‍্যাম ব্যবহার করে ৮% স্লো পারফর্ম করছে এখানে core i5 10400.  এবং স্লো স্পিড র‍্যাম দিয়ে সেই শতকরা হার বেড়ে দাড়াচ্ছে ১২% এ।  তবে Ryzen এর কমদামী 3300x থেকে ও বেশ ব্যবধানে এগিয়ে আছে দুই ক্ষেত্রেই।

7-Zip(Decompression):

7-Zip(Decompression)

এখানে দেখা যাচ্ছে Ryzen 5 3600 থেকে ২২% স্লো পারফর্ম করছে 10400, এবং র‍্যাম স্পিড এর হ্রাস বৃদ্ধিতে পারফরমেন্স এর উন্নতি ও খুবই সামান্য। এখানে Ryzen 5 1600AF,2600 থেকেও স্লো পারফর্ম করতে দেখা যাচ্ছে Core i5 10400 কে।

Adobe Photoshop:

Adobe Photoshop

2666 mhz এর র‍্যাম ও 3200 mhz এর র‍্যাম ব্যবহার করে এখানে বেশ উল্লেখ্যযোগ্য পারফর্মেন্স এর উন্নতি দেখা গেছে। ১০% উন্নতি হয়েছে পারফর্মেন্স। কিন্ত প্রচলিত ধারণা অনুযায়ী এডোবি প্রোডাক্ট গুলোতে ইন্টেল সবসময়ই রাইজেন হতে বেটার পারফরমেন্স দিয়ে থাকে এক্ষেত্রে তা ফুটে উঠছে না, সেম স্পিড এর র‍্যাম ব্যবহার করে ৮% স্লো পারফর্ম করছে ইন্টেল। এবং ১৯% স্লো যখন ২৬৬৬ মেগাহার্টজ এর র‍্যাম ব্যবহার করা হচ্ছে।

Davinci Resolve Studio 16:

Davinci Resolve Studio 16

এখানেও আমরা আবার ও র‍্যাম স্পিডের কোন প্রভাব লক্ষ করছি না। ryzen 5 3600 থেকে ৮% স্লো পারফর্ম করছে intel core i5 10400.

Blender Open Beta:

Blender Open Beta

Ryzen 5 3600 ৮% ফাস্ট পারফর্ম করছে 3200 মেগাহার্টজ এর র‍্যাম ইউজ করা 10400 এর বিরুদ্ধে ও ১০% ফাস্ট যখন ২৬৬৬ মেগাহার্টজ এর র‍্যাম ব্যবহার করা হচ্ছে। উভয় ক্ষেত্রেই অবশ্য Ryzen 3 3300x থেকে অনেক ফাস্ট পারফর্ম করেছে intel core i5 10400.

System Power Consumption(Blender task):

Power Consumption

Blender Task এ প্রায় ১৫০ ওয়াট বিদ্যুৎ খরচ করছে ইন্টেলের ফুল পিসি যা প্রতিদ্বন্দ্বী রাইজেন প্রসেসরগুলোর সমানই মোটামুটি।

গেমিং পারফর্মেন্সঃ

এই বাজেটে সাধারণত গেমাররা 1080p রেজুলেশনেই গেম খেলে থাকেন সেজন্য শুধু 1080p রেজুলেশনের বেঞ্চমার্কগুলোই দেখানো হলো।

Battlefield V:

Battlefield V

সাধারণ মাদারবোর্ড ও র‍্যাম এর সাথে (2666mhz) ইন্টেল এখানে Ryzen 5 3600 এর সমান ফ্রেমরেট দিতে সক্ষম হচ্ছে (3300x এর থেকে সামান্য এগিয়ে) এবং 3200mhz র‍্যাম ইউজ করে প্রায় ৫% বেশি ফ্রেমরেট দিচ্ছে( 154 এর বিপরীতে 161) এবং এই ক্ষেত্রে দেখা যাচ্ছে ফ্রেমরেট core i7 8700k এর প্রায় সমান।

Far Cry New Dawn:

Far Cry New Dawn

ইন্টেল ফেভার্ড টাইটেল হওয়া সত্বেও হাই বাস এর র‍্যাম দিয়ে ইন্টেল কেবল Ryzen 5 3600 এর সমান ফ্রেমরেট ই দিতে পারছে।যদিও তা ryzen 7 3700x এর কাছাকাছি এবং লো বাস এর র‍্যাম দিয়ে সামান্য পিছিয়ে আছে।

Rainbow Six Siege:

Rainbow Six Siege

হাই স্পিড র‍্যাম ব্যাবহার করে intel core i5 10400 এখানে রাইজেন থেকে সামান্য এগিয়ে আছে ও স্লো বাস এর র‍্যাম এ পিছিয়ে আছে। যদিও 1% লো পারফর্মেন্স লক্ষ করলে আমরা দেখবো রাইজেন প্রসেসরগুলোতে তা অনেক বেশি।

Shadow of the Tomb Raider:

Shadow Of the Tomb Raider

১১% পারফর্মেন্স এ উন্নতি পাওয়া গেছে বেশি স্পিডের র‍্যাম ব্যবহার করে। ryzen 5 3600 এর 120FPS এর বিপরীতে 113 এফপিএস দিচ্ছিলো ইন্টেল যা হাই স্পিড র‍্যাম এ 125 এফপিএস পর্যন্ত উঠেছে। এবং 1% লো তেও 10% মত উন্নতি দেখা যাচ্ছে।

4 Games Average:

4 games average

উপরের চারটি গেমে স্লো র‍্যাম ও মাদারবোর্ড এর কনফিগারেশনে ইন্টেল এভারেজে Ryzen 5 3600 থেকে সামান্য পরিমাণ পিছিয়ে ও 1% লো তে বেশ অনেক পিছিয়ে। যদিও 3200MHZ এর র‍্যাম কনফিগারেশনে এভারেজে রাইজেন থেকে সামান্য এগিয়ে ও 1% লো তে প্রায় সমান পারফর্ম করছে দেখা যাচ্ছে।

GTA V:

GTA V

97 থেকে 106 এফপিএস এ উন্নতি দেখা যাচ্ছে র‍্যাম স্পিড চেঞ্জ এ। সেখানে stock ryzen 3 3300x এর FPS 103 ও ryzen 5 3600 এর FPS 105

Red Dead Redemption 2:

Red Dead Redemption 2

এই test এ Ryzen 5 3600 অনুপস্থিত। যাই হোক, 117 এফপিএস নিয়ে স্লো র‍্যাম এ 3300x থেকে 3 FPS ও হাই স্পিড র‍্যাম এ 22 এফপিএস মত বেশি এফপিএস দিচ্ছে Intel .

Assassin’s Creed Origins:

এখানে মনে হয় সবথেকে বেশি পারফর্মেন্স বুস্ট আমরা দেখতে পাচ্ছি। ২০%!! 100 FPS থেকে 120 FPS. 113,114 নিয়ে যথাক্রমে মাঝে আছে Ryzen 3 3300x, Ryzen 5 3600

 

উপসংহারঃ গেমিং ও প্রোডাক্টিভিটিতে আমরা মোটামুটি একই চিত্র দেখেছি। প্রোডাক্টিভিটিতে সেরকম উন্নতি হয়নি ইন্টেলের আগের মতই স্ট্রাগল করার অভ্যাস টা দেখা যাচ্ছে। হাই স্পিড র‍্যাম দিয়ে কখনো কখনো ব্যবধান কমছে, প্রায় সমান স্কোর আসছে রাইভাল Ryzen 5 3600 এর । কিন্ত বেশি কখনোই নয়ু।। অন্যন্য ইন্টেল প্রোসেসর এর সাথে তুলনা করলে অবশ্যই ইম্প্রেসিভ বলতে হবে। কোর থ্রেড বাড়ার প্রভাবে এখানে স্পষ্ট দেখা যাচ্ছে। ক্লক স্পিড ও যেহেতু বুস্ট লিমিট 4.3 Ghz পর্যন্ত সুতরাং অনেক ক্ষেত্রেই আমরা ভালো আউটপুট পাচ্ছি।

গেমিং এ র‍্যাম এর উন্নতির মাধ্যমে বেশ উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন দেখা যাচ্ছে। কম কথায় বলতে গেলে র‍্যাম স্পিড অফিশিয়াল যেটা দেওয়া সেই র‍্যাম ও সাধারণ এন্ট্রি লেভেল মাদারবোর্ড ইউজ করলে পারফর্মেন্স কিছু ব্যতিক্রম ছাড়া সবসময় ই Ryzen 5 3600 থেকে কম (বেশ কিছু গেমের ক্ষেত্রে ryzen 3 3300x থেকেও কম) (ব্যবধান কখনো কম কখনো বেশি) এবং  3200mhz এর র‍্যাম ও হাই এন্ড মাদারবোর্ড এ এফপিএস পাওয়া যাচ্ছে যা তা Ryzen 5 3600 থেকে সামান্য বেশি। উন্নতি average এবং 1% লো দুই ক্ষেত্রেই দেখা যাচ্ছে।

3600 Killer?

হাই ফ্রিকোয়েন্সি র‍্যাম , হাই এন্ড মাদারবোর্ড এ সমস্ত শর্তের উপর যখন নির্ভর করে প্রসেসর এর অন্য কোন প্রসেসর থেকে ভালো পারফর্ম করা, সেটা এক কথায় কিলার বলা যায় না ।। বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে তো নয় ই ।দাম তো প্রায় সেম, সাথে এই সমস্ত কিন্ত এর সমাবেশ। এবং মাল্টিটাস্কিং এ কোন শর্ত ব্যতীত এখনো 3600 কে হারাতে না পারা। এগুলো বিবেচনায় আনলে বলা যায় । নাহ, এটা রাইজেন ফাইভ ৩৬০০ কিলার না। হতে পারতো , যদি আমরা ১৬/১৭ হাজারের মধ্যে হয়তো এটিকে দেখতে পেতাম। গেমিং সেন্ট্রিক অলরাউন্ডার এর তকমা হয়তো এর গায়ে লাগানো যেত। কিন্ত তা সম্ভব নয়।

কারা কিনবেন/আপগ্রেড করবেন

১৯/১৮ হাজারটাকা বাজেটে ইন্টেল প্লাটফর্ম এ বিল্ড করতে চাচ্ছেন। মাদারবোর্ড র‍্যাম এর বাজেট যথেষ্ট ভালো এবং আপনি শুধুই গেমিং এর জন্যই নিবেন সেক্ষেত্রে আপনার জন্য যথেষ্ট ভালো একটি অপশন হবে ,অন্যতম সেরা অপশন হবে ইন্টেলের দশম জেনারেশন এর এই প্রসেসরটি।

বাজেট ২৬/২৭ এর দিকে নিয়ে যেতে পারলে আরো একটি অসাধারণ প্রসেসর হতে পারে Core i5 10600kf/k

আপগ্রেড তারাই করবেন যারা পুরাতন সিস্টেম চালাচ্ছেন যা বর্তমানে আপনাকে সেরকম গেমিং এ পারফর্মেন্স দিতে পারছে না যেমন Core i3 4th gen/6th gen অথবা core i3 9th gen ,i5 6th gen আপনাদের জন্য সুন্দর চয়েস হতে পারে একই ভাবে ।

কারা কিনবেন না/আপগ্রেড করবেন না

গেমিং এর পাশাপাশি প্রোডাক্টিভিটির কাজ বা শুধুই প্রোডাক্টিভিটির কাজ করেন, গেমিং করেন না এমন কেও এই বাজেটে এটি না নিয়ে ryzen 5 3600 নিতে পারেন যা সত্যিকারের অলরাউন্ডার । এখনো প্রোডাক্টিভিটিতে অন্যন্য একটি প্রসেসর হিসেবে এই রেঞ্জে বিবেচিত হচ্ছে ryzen 5 3600. Core i5 10400 দিয়ে আপনি খুব বেশি সুবিধা করতে পারবেন না এই সমস্ত কাজে। কারণ আপনাকে বেটার ভ্যালু ফর মানি অপশন দিচ্ছে রাইজেন ।

আপগ্রেডের ক্ষেত্রেও সেম, ryzen 2600/ i7 7700k,9400f, 8400 যারা ইউজ করছেন এখান থেকে আপগ্রেড এই বাজেটে করাটা খুবই বোকামি হবে।। আপগ্রেড করতে হলে Ryzen 5 3600 ও মোটেও ভালো অপশন হবেনা, আপনাদের সেক্ষেত্রে বাজেট ২৫/২৬ এর দিকে নিয়ে গিয়ে 2700x নেওয়া উচিত।

শেষ কথাঃ

মোটামুটি ভালো একটি প্রসেসর রিলিজ করেছে ইন্টেল। কিন্ত রাইজেন এর অতিরিক্ত এগ্রেসিভ প্রাইসিং ও ভ্যালু ফর মানি অফার করার কারণে সেরার তকমাটা লাগতে গিয়েও লাগলো না। তবে কম্পিটিশন যে আরো একটু বাড়লো এতে কোন সন্দেহ নেই। দিনশেষে এর থেকে আমরা কাস্টমার রাই উপকৃত হই ।

Specification source: ark.intel Benchmark source and credit: Hardware Unboxed and Gamers Nexus

 

 

বাজেট যদি হয় 12/13 হাজারঃ ryzen 3 3300x হতে পারে সেরা পছন্দঃ দেখে নিন আর্টিকেল এ রিভিউ-

বাজেট রেঞ্জে এএমডির সেরা দুই খেলোয়াড় 3300x ও 3100