28 C
Dhaka
Saturday, September 24, 2022

Ryzen 5000 series: AM4,DDR4 ইউজার ফ্যানবয় দের জন্য AMD এর শেষ উপহার?

- Advertisement -

AMD এর Ryzen যুগের পাঁচ বছর অতিক্রান্ত হবে আর কিছুদিনের মধ্যেই। 1000 সিরিজ দিয়ে নতুন করে ইতিহাস লেখা,নতুন এক যাত্রা শুরু করা তারপর 2000 series,3000 সিরিজ দিয়ে সাফল্য,জনপ্রিয়তা ও মার্কেট শেয়ার দখল করে নেওয়া AMD প্রশংসা কুড়িয়েছে প্রসেসর চিপসেট সাপোর্টের দিক দিয়েও, একই মাদারবোর্ড দিয়ে কনজিউমাররা ৩টি জেনারেশনের অসংখ্য প্রসেসর চালানোর সুযোগ পেয়েছেন যা সত্যিই অসাধারণ। শেষ বছর দেড়েক AMD ঢিমেতালে চলার সুযোগ নিয়ে 11th,12th gen দিয়ে ইন্টেল জায়গাটা প্রায় নিজের করে নিয়েই ফেলেছে একদিকে, অন্যদিকে পুরাতন পিসি বিল্ডাররা দিন গুনছেন 13th gen বা 7000 series এর। এমতাবস্থায় অনেকটা হুট করেই এন্ট্রি লেভেল মিডরেঞ্জের জন্য ৫-৬টি প্রসেসর লঞ্চ করেছে AMD। মার্কেটের অনেক গুলো দিক,অনেকগুলো বিষয় বিবেচনা করলে এই প্রসেসরগুলো মার্কেটে খুবই গুরুত্বপুর্ণ ভুমিকা পালন করবে আগামী কয়েকটা মাসে। আজকে আমরা আলোচনা করবো সেগুলোই।

এক নজরে AMD এর সদ্য এনাউন্স হওয়া প্রসেসর গুলোঃ

আলোচনা শুরু করার আগে একটু চোখ বুলিয়ে নেওয়া যাক AMD সম্প্রতি যে প্রসেসর গুলো এনাউন্স করলো, যেগুলো আগামী মাসে বাজারে আসবে সেগুলোর স্পেসিফিকেশনের দিকে।যেহেতু কোনো পারফর্মেন্স চার্ট লিক ও হয়নি, অফিশিয়াল আনঅফিশিয়াল কোনো ধরনের স্লাইড ও আমাদের হাতে আসেনি।সেজন্য এই প্রসেসরগুলোর পারফর্মেন্স সম্পর্কে পুর্বাভাস দেওয়ার সুযোগ আমাদের জন্য কম। কিন্ত যেহেতু অফিশিয়াল প্রাইসিং রিভিল হয়েছে, আমরা সেটার উপর ভিত্তি করেই বর্তমান মার্কেটে এই প্রসেসরগুলোর গুরুত্ব ও প্রভাবের ব্যাপারে আলোচনা করতে পারি।এখানে বেশ কিছু ফ্যাক্টর প্রভাব বিস্তার করবে যা আমরা ধাপে ধাপে তুলে ধরবো। প্রসেসর গুলো লঞ্চ হবে এপ্রিলে।

- Advertisement -

বিস্তারিত এই আর্টিকেলে

কারণ ১-বাজেট ফ্রেন্ডলিঃ

প্রথমত দাম, আমরা যদি on paper specs vs price চিন্তা করি,সেক্ষেত্রেও এখানে ভুল ধরা, সমালোচনা করার সুযোগ খুবই কম থাকছে। প্রথমেই আসা যাক এন্ট্রি লেভেল কোয়াড কোর প্রসেসর Ryzen 3 4100 এর ব্যাপারে, চার কোর আট থ্রেডের এই প্রসেসরটি স্বাভাবিকভাবেই বুঝা যাচ্ছে core i3 12100f এর বিপরীতে মার্কেটে আসবে। স্পেসিফিকেশনে কোনো আহামরি কিছু না থাকলেও এই ১০০ ডলারের প্রসেসরটা অনেকের জন্যই easy peak হবে বিশেষ কয়েকটি কারণে, যা একটু পরেই আলোচনা করবো।

- Advertisement -

যেখানে ১২০/১৩০ ডলারে আগে 4 cores 8 thread এর প্রসেসরগুলোই লঞ্চ হতো, সেখানে AMD ১৩০ ডলারে নিয়ে আসতে চলেছে Ryzen 5 4500, যেটি একটি 6 cores 12 threaded প্রসেসর ,যদিও এটার ক্যাশ মেমোরি ও বুস্ট ক্লক কম। এর ১৩০ ডলার এর প্রাইসিং একে কিলার ডিল হিসেবে তুলে ধরতে পারে।

১৫৫ ডলারের 4600G এর কথাই যদি বলি, এটি কমবেশি 4500 এর মতই স্পেকস এর সাথে আসছে, কিন্ত এই দুর্দিনে VEGA 7 iGPU এর কারণে এই প্রসেসরটা ১৫০ ডলারের আশেপাশের প্রাইস রেঞ্জে রীতিমত ঝড় তোলার ক্ষমতা রাখবে।

- Advertisement -

iGPU ছাড়া ১৬০ ডলারে আসা ryzen 5 5500 এর প্রভাব ও কম হবে না dGPU owner বিল্ডারদের জন্য।

২০০ ডলারে Ryzen 5 5600 এর লঞ্চ ও মহাগুরুত্বপুর্ণ হতে পারে বেশ অনেক গুলো কারণে যা আমরা এখন উল্লেখ করবো।

২- Upgrade path

প্রথমত, গত ৫ বছরে AMD একটা বিশাল userbase ইতিমধ্যেই তৈরী করে ফেলেছে। ২০২২ সালে এসেও AMD এর লাখ লাখ Ryzen 5 1600,1700x,1600x,2600,2700x,2400g,3400g,2200g এর মত কনজিউমার পাওয়া যাবে যারা কয়েক বছর ধরে এই প্রসেসর গুলো চালিয়ে আসছেন, এই মুহুর্তে তারা আপগ্রেডের চিন্তা করছেন বা বাধ্য হয়েই আপগ্রেড করবেন কারণ লেটেস্ট গেমস বা সফটওয়্যার ভার্সন  গুলোতে তাদের প্রসেসরগুলো আর ভালো পারফর্মেন্স দিতে পারছে না।

এদিকে Intel er 11400,12400,11600k এর মত ভুরি ভুরি অপশন চোখের সামনে থাকলেও তাদের জন্য আপগ্রেড করা কঠিন হয়ে যাচ্ছে কেননা-

এতে প্রসেসর মাদারবোর্ড উভয়ই বিক্রি করা বা বাদ দেওয়া লাগবে। আর ইন্টেল যদি ভ্যালু ফর মানি প্রসেসর অফার করেও থাকে, এখানে প্রধান বাধা হয়ে দাড়াচ্ছে মাদারবোর্ড।যারা টুকটাক খোজ খবর রাখেন তারা জানেন ইন্টেলের মাদারবোর্ড এর দাম অনেকটাই বেশি, এমনকি এন্ট্রি লেভেল B660 এর জন্যও অনেকটা বেশি টাকা খরচ করতে হয় ,আরো বাজে ব্যাপার হচ্ছে এন্ট্রি লেভেলের অনেকগুলো বোর্ডেই রয়েছে power limit জনিত ইস্যু, অনেকগুলো বোর্ডই ম্যাক্সিমাম পাওয়ার কনফিগারেশনে চালাতে পারে না, বা লিমিট অফ করলেও তখন টেম্পারেচার জনিত থ্রটল হয় ও ফুল পারফর্মেন্স টা আসে না। সেক্ষেত্রে Aorus elite, TUF-E/PLUS, বা MSI এর ভালো বোর্ডগুলো নিতে হয় ও খরচ ও বেড়ে যায়। অনেক ক্ষেত্রে এমন ও দেখা যাচ্ছে এন্ট্রি লেভেলের 560/660 বোর্ড গুলো i3,i5 ও ঠিকমত চালাতে পারছে না ।

অন্যদিকে আমরা ইউটিউবের অনেক ভিডিওতেই দেখেছি gigabyte এর b450m s2h এর মত বোর্ডগুলোও 3700x এর মত প্রসেসর চালাচ্ছে কোনো সমস্যা ছাড়াই। এমন নয় যে সব ইউজারেরই এই মাদারবোর্ড, বরং 450m aorus,msi morter বা tuf এর মত বোর্ড দিয়ে older gen ryzen চালাচ্ছেন এরকম লোক আছেন অনেক।

এক্ষেত্রে তাদের জন্য অনেক বড় একটা সুযোগ মাদারবোর্ড না বদলিয়ে শুধু প্রসেসরটা চেঞ্জ করেই আপগ্রেডটা সেরে ফেলার।  বরং তারা আগের প্রসেসরটি বিক্রি করে খরচ আরো একটু কমিয়ে আনতে পারবেন।

৩- Motherboard price

এবার আসা যাক তাদের ব্যাপারে যারা নতুন বিল্ড করবেন অথবা মাদারবোর্ড পরিবর্তন করে আপগ্রেড করবেন। তাদের ক্ষেত্রেও ইন্টেলের বিপরীতে সরাসরি AMD তে যাওয়ার সুবিধা রয়েছে মুলত মাদারবোর্ড সেকশনেই।AMD এর নতুন মাদারবোর্ড ও যদি তাদের কিনতে হয়, ভালো মানের B450 বা B550 মাদারবোর্ড এর জন্য তাদের ৭-৮-১০ হাজার টাকার বেশি একদমই খরচ করতে হবে না।তারা এই দামের মধ্যেই Gigabyte এর DS3H,S2H,MSI Mortar Max,Asrock Steel Legend,Asus TUF, Aorus এর মত বোর্ড পেয়ে যাবেন। এবং এই প্রত্যেকটি মাদারবোর্ড ই পরিক্ষিত, কোনো ইস্যু ছাড়াই এগুলো 4100 থেকে শুরু করে 5700x কে ভালোভাবেই handle করতে পারবে ।

সবথেকে বড় সুবিধা হচ্ছে এখানে কেও চাইলে খরচ বাচাতে 550 board এর জায়গায় 450 বোর্ড নিতে পারবে ভালো মানের।

সেক্ষেত্রে আমরা ইন্টেলের সাথে যদি সরাসরি তুলনা করি, এখানে কাস্টোমারের সুযোগ থাকছে ৫-৮ হাজার টাকা পর্যন্ত বাচানোর। সেক্ষেত্রে AMD এর deal প্রতি ক্ষেত্রেই better প্রমাণিত হয়।

৪- performance is not always the most important

এখানে প্রশ্ন আসতে পারে পারফর্মেন্স যদি এগুলোর খুব বেশি আহামরি না হয়। সেক্ষেত্রে এখানে নতুন একটি term আসবে price/performance বা value for money ।প্রসেসরের আলোচনায় মাদারবোর্ডের দাম আমলে নিতেই হবে, এটি একটি গুরুত্বপুর্ণ ফ্যাক্টর। এবং ইতিমধ্যেই আমরা বেশ ভালোভাবেই জেনে গিয়েছি যে মাদারবোর্ড প্রাইসে AMD অনেকটাই এগিয়ে গেছে ও আমরা যদি একই বাজেটের CPU এর সাথে +Mobo combo প্রাইস হিসেব করি তাহলে দেখা যাবে AMD এর ক্ষেত্রে খরচ অনেক অনেক কম। আর বায়োস আপগ্রেড করে 450 Board এ 5000 সিরিজ পর্যন্ত সবগুলো প্রসেসর চালানোর যে সুবিধা তা তো সবারই জানা। সেক্ষেত্রে হবে কি, যে সামান্য পরিমাণ পারফর্মেন্স কম পাওয়া যাবে, সেটাও একদমই justified বা canceled out হয়ে যাবে এই কম দামের কারণে। অন্যদিকে Intel এর বেশি পারফর্মেন্স এর ও  কোনো অর্থ থাকবে না কারণ খরচ ও অতিরিক্ত। price/performance বা fps/dollar রেশিও করলে দেখা যাবে পাল্লা AMD এর দিকেই ঝুকে যাচ্ছে।

পারফর্মেন্স যে আহামরি খারাপ ও হবে তা বলার সুযোগ কোথায়?

যেহেতু পারফর্মেন্স এর কোনো চার্ট আমাদের হাতে নেই, ঢালাও ভাবে বলে দেওয়ার সুযোগ নেই যে খারাপ পারফর্মেন্স হবে। তবে এগুলো যদি আমরা ধরে নি অনেক আগে বানানো প্রসেসর, সেক্ষেত্রে মনে হতে পারে হয়তো বা 12th gen কে সম্পুর্ণ বিট করতে পারবে না এই লাইনআপ।

তারপরেও যদি আমরা একটু 12th gen vs 5xxx সিরিজ লক্ষ করে দেখি, তাহলে কিন্ত AMD কে ফেলে দেওয়ার সুযোগ একেবারে নেই। যেমন 5600x ওভারল 12400 থেকে বেটার ছিল কিন্ত value for money হিসেবে অনেকটাই এগিয়ে ছিল 12400. সেক্ষেত্রে 5600x এর সরাসরি cutdown ভার্সন যদি 5600 হয়ে থাকে, তাহলে 12400 এর সমান পারফর্মেন্স হয়তো এটি থেকে পাওয়া যাবে। ঠিক তখন মাদারবোর্ড প্রাইসিং এর অংক চলে আসবে সেখানে AMD এর ডিলটাই বেটার হিসেবে প্রতীয়মান হবে।

আবার Ryzen 5 5500 160 ডলারে লঞ্চ হয়ে যদি 12400 থেকে 7/10% পেছনেও থাকে গড় হিসেবে, তাও তার মাদারবোর্ড-প্রসেসর মোট cost হিসেব করলে পুরাপুরি justified হয়ে যায় ব্যাপারটি ও better value for money অফারিং হিসেবেই প্রমাণিত হতে পারে। সেক্ষেত্রে 11600k.11400,10600k এর মত প্রসেসর গুলো এক প্রকার killed হয়ে যাবে।

একই কথা 4600G,4500 এর জন্য ও প্রযোজ্য। 4600G ১৫৫ ডলারে একটি iGPU সহ আসছে ,এর পারফর্মেন্স যদি 11400 এর কাছাকাছি ও হয়, তাও সাথে একটি ভালো iGPU থাকার কারণে গেমিং, এডিটিং এ ভালো সুবিধা পাওয়া যাবে। মাদারবোর্ড এর ব্যাপারটি আর নতুন করে বলছি না।

4100:

4100 এর ক্ষেত্রেও যদি বলি, ৬হাজার টাকার B450M S2H এর মত মাদারবোর্ড দিয়েই এটি চালিয়ে নেওয়া যাবে। সেক্ষেত্রে নতুন বিল্ডারদের জন্য খরচটা একদমই কম। আবার কেও কেও চাইলে পুরাতন বোর্ডেই এটাকে চালাতে পারেন। আমরা Ryzen 3 3100 বা 3300x এর পারফর্মেন্স সম্পর্কে অবগত আছি, সেক্ষেত্রে এই 4100 থেকে core i5 10400/11400 এর মাঝামাঝি বা 10400 এর সমান পারফর্মেন্স পাওয়াও অস্বাভাবিক কিছু নয় ও ১০০ ডলার প্রাইসে এটা অতিমানবীয় হবে।

আর ওভারল বলতে গেলে যারা মাদারবোর্ড না কিনে সরাসরি আপগ্রেড করবেন, তাদের ক্ষেত্রে ঐ 2/5% performance loss একদমই গায়ে বাধবে না কারণ তারা অত্যন্ত ভ্যালু ফর মানি ডিল পাচ্ছেন, তাদের মাদারবোর্ড এর পেছনে একদমই খরচ করতে হচ্ছে না, বরং চাইলে তারা আগের প্রসেসর বিক্রিও করতে পারছেন। এই সিরিজে ryzen 1500,1500x,1600,1700x,2600,2600x এর মত প্রসেসর যারা ইউজ করেছেন তারা আপগ্রেড করতে পারেন। অন্যদিকে 3200G,2200G,2400G,3400G ইত্যাদি APU গুলোর মালিক যারা, তারাও একদম কম খরচে 4600G তে আপগ্রেড করে নিতে পারেন।

কয়েকটি flaw:

তবে এই লাইনআপের ক্ষেত্রে বেশ কিছু ফিচারস এর কমতি রয়েছে যা অনেকেই গুরুত্বপুর্ণ মনে করতে পারেন। প্রথমত 5600 এর নিচের প্রসেসরগুলোতে থাকছে না কোনো Gen4 এর সাপোর্ট, সেক্ষেত্রে Gen4 SSD লাগানোর সুবিধা নিতে পারবেন না কঞ্জিউমার, এক্ষেত্রে ইন্টেলের 11,12th gen এর competitor CPU গুলো সরাসরি এগিয়ে। আরেকটি বিষয় হলো PCIe4 এর সাপোর্ট না থাকায় PCIe4 GPU যদি কেও কিনেন তাহলে তার অতিরিক্ত সুবিধা থেকে বঞ্চিত হবেন।

যেহেতু existing AM4 প্লাটফর্মেই রিলিজ হচ্ছে প্রসেসরগুলো, DDR5,GEN5 এ যাওয়ার ও কোনো সুযোগ তাই পাবেন না এই প্রসেসরের ক্রেতা রা।

আরেকটি major flaw হচ্ছে ৫/১০ ডলার এর  বিনিময়ে হলেও যদি AMD এই প্রসেসরগুলোতে iGPU দিত, অথবা সবগুলোতে না হলেও অন্তত আর একটি প্রসেসরে iGPU দিত, তাহলে মার্কেটে এর প্রভাব আরো বেশি সুদূরপ্রসারী হতো।

 

শেষ কথাঃ AM4, DDR4 যুগের Fanboy দের জন্য AMD এর উপহার?

সামনে আসবে 7000 Series যাতে থাকবে না DDR4, দীর্ঘ পথচলার পর AM4 কে বাদ দিয়ে AM5 যুগে প্রবেশ করবে AMD, সেখানে এখনকার ইউজারদের জন্য আপগ্রেডের পথ মোটেও সুগম নয় বলতে হয়। কারণ DDR5 র‍্যামের দাম অনেক বেশি, সাথে LGA তে যাওয়ার কারণে মাদারবোর্ডের দাম ও আগের মত কম হবে না, অনেক অর্থ গুনতে হবে মাদারবোর্ড কেনার জন্য।

বলা যায় যারা আগামী কয়েক বছরে DDR5 এ যাবেন না কিন্ত এখন DDR4 এই কম খরচে আপগ্রেড সেরে নিতে চাচ্ছেন তাদের জন্যই যেন AMD এর লাইনআপ এর উপহার। কম খরচে DDR4 সিস্টেমে, EverGreen AM4 প্লাটফর্মে শেষবার আপগ্রেডের সুযোগ যেন করে দিলো AMD.

তবে অনেক কিছুই নির্ভর করবে স্টক এর উপরে:

অতীতে আমরা বেশ কয়েকবার দেখেছি দেশে ও বিশ্ববাজারে বেশ কিছু প্রসেসর এর কোনো অস্তিত্বই ছিল না।।সেগুলো যেন নামে মাত্র লঞ্চ হয়েছিল ও হ্যারিকেন দিয়ে খুঁজেও বাজারে সেগুলো কেও খুঁজে পেত না।

10th Gen এর লঞ্চের সময় AMD 3300x,3100 এই দুটি প্রসেসর লঞ্চ করেছিল,দাম অনুসারে যথেষ্ট ভালো প্রসেসর হওয়ার পরেও তা জনসাধারণের কোনো কাজে আসেনি কারণ সেগুলোর স্টক ছিল একদমই কম, অনেক কম পাওয়া যেত,মাসের পর মাস আউট অফ স্টক থাকতো।

এখন দেখার বিষয় এই ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটে কি না,যদি তাই হয় তাহলে বাজেট বিল্ডার দের দুঃখের সীমা থাকবে না।

- Advertisement -
Soaad Bin Zaman Shoron
Soaad Bin Zaman Shoron
Gamer | Memer | Tech Enthusiast | Food Hunter | JUST PHYSICS 2018

2 COMMENTS

  1. ভাইয়া
    রাইজেন ৫ ২৪০০জি ব্যবহার করতেছি সাথে ৮জিবি ৩২০০ বাস র‍্যাম।
    আমি আপগ্রেড করতে চাই, ৫৬০০জি থেকে ৪৫০০জি এর পারফরম্যান্স এ ডিফারেন্ট কতোটা? ভ্যালু ফর মানি কোনটা?

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here