এনভিডিয়া “বিএফজিডি” বা বিগ ফরম্যাট গেমিং ডিসপ্লে

গত CES এবং এর আগে পিছে কিছু সময় যাবত বিভিন্ন আর্টিকেল এবং অনলাইনে প্রায়ই হয়ত চোখে পড়েছে ম্যাসিভ আকৃতির কিছু গেমিং ডিসপ্লে, যেগুলো “বিএফজিডি” নামেই পরিচিতি পেয়েছে। ২০১৮ সালের জানুয়ারির দিকে এইসব গেমিং ডিসপ্লের ঘোষণা দেয় এনভিডিয়া। এই ডিসপ্লে গুলো অনেকটাই লিভিং রুমের টিভির মত আকারে। ব্যাডএস লুকিং এই মনিটরগুলোই হয়তো হয়ে যাবে আগামি দিনের মেইনস্ট্রিম গেমিং ডিসপ্লে।

এ পর্যন্ত তিনটি ভিন্ন কোম্পানির তিনটি মডেলের “বিএফজিডি” মনিটর প্রোডাকশনে রয়েছে । চলুন এক নজরে দেখে নেয়া যাক মনিটর গুলোঃ

  • আসুস রোগ সুইফট পিজি৬৫
  • এসার প্রিডেটর বিএফজিডি
  • এইচপি ওমেন এক্স এম্পেরিয়াম

এছাড়াও আরো অনেক কোম্পানির প্রোডাকশন পাইপ লাইনে এই ধরনের মনিটর থাকলেও এগুলোর ব্যপারেই এখন পর্যন্ত নিশ্চিত তথ্য পাওয়া গেছে। তিনটি মনিটরেরই স্পেক সেম, ব্যবহার হচ্ছে সেম প্যানেল। তবে ডিজাইন এবং বাড়তি কিছু ফিচারের কারনে থাকবে দামে কিছুটা পার্থক্য।

আসুস রোগ সুইফট পিজি৬৫

পিজি৬৫ বিগ ফরম্যাট গেমিং মনিটর আসছে ফুল ৪কে রেজুলুশনে এবং এর পিক লুমিন্যান্স থাকবে ১০০০ cd/m2। ৬৫ ইঞ্চ ম্যাসিভ এই ডিসপ্লে গুলোতে দেয়া থাকবে ১২০ হার্জ রিফ্রেশ রেট, এইচডিআর এবং জি-সিঙ্ক সুবিধা। যদিও অনেকটা আইপিএস ডিসপ্লের মতো কোয়ালিটির “ভিএ” প্যানেল এইচডিআর মোডে ব্ল্যাক লেভেল এবং কালার আউটপুট কতটুকু দিতে পারবে তা সময়ই বলে দেবে।

এসার প্রিডেটর বিএফজিডি

এসার বিএফজিডি মনিটরগুলোতেও থাকছে ৪কে রেজুলুশন এবং ১২০ হার্জ রিফ্রেশ রেট। এসার বলছে তাদের প্রিমিয়াম প্রিডেটর সিরিজের অন্যান্য প্রোডাক্টের মতই আল্টিমেট গেমিং এর জন্য লেটেস্ট সব টেকনোলজি ব্যবহার করা হবে এই মনিটরে।

এইচপি ওমেন এক্স এম্পেরিয়াম

এইচপির এই মনিটরটিতে দেয়া হয়েছে ১৪৪ হার্জ এর ভিএ প্যানেল, থাকছে জি-সিঙ্ক সুবিধা। এইচপি এতে আরো এড করেছে এনভিডিয়া শিল্ড এন্ড্রয়েড টিভি কনসোল এবং একটি ১২০ ওয়াটের সাউন্ড বার। অন্যান্য গুলোর মতই থাকছে ১০০০ নিটস ব্যাকলাইট এবং এইচডিআর। এইচপির এই মনিটরটি এখনই পাওয়া যাচ্ছে এমাজন.কম থেকে শুরু করে আরো অনেক ভেন্ডরের কাছে।

গেমিং মনিটর নিয়ে আরো লেখা পড়তে এখানে ক্লিক করুন

বিএফজিডির দাম

তিনটি মনিটরের মধ্যে এখন পর্যন্ত শুধুমাত্র এইচপি ওমেন এক্স এর দাম সম্বন্ধে নিশ্চিত হওয়া গেছে, একটা সাউন্ড বার এবং টিভি কনসোল এড করে এইচপি এর দাম রেখেছে ৫০০০ ইউএস ডলার। আসুস এবং এসার এর মনিটর গুলোর দাম সম্বন্ধে নিশ্চিত কোন ঘোষণা না আসলেও এগুলোর দাম এইচপি’র থেকে খুব কম হবার কথা নয়। ৩০০০-৫০০০ ডলার এর মধ্যেই দাম থাকবে বলে ধারনা করা যায়।

কবে নাগাদ পাওয়া যাবে

এইচপি ওমেন এক্স গত ফেব্রুয়ারি থেকেই মোটামুটি আমেরিকান বাজারে পাওয়া যাচ্ছে। বাকি দুটি মনিটর আগামী মে বা জুলাই এ কম্পিউটেক্স ২০১৯ এর আশেপাশে বাজারে চলে আসার কথা। বাংলাদেশের গেমিং মনিটর এর বাজারের মূল চাহিদার জায়গা ১০৮০পি/২২ ইঞ্চি মনিটর গুলো হলেও, গত কয়েক বছরে জি-সিঙ্ক, হাই রিফ্রেশ রেট এবং আল্ট্রা ওয়াইড গেমিং মনিটর গুলোর চাহিদা বেড়ে চলেছে। হয়ত এরই ধারাবাহিকতায় কিছু “বিএফজিডি”ও চলে আসবে।