একটা সময় ছিল যখন মেকানিকাল কীবোর্ড ছিল বড়লোক্সদের গিয়ার।
কিন্তু সময়ের সাথে সাথে মেকানিকাল কীবোর্ডও মানুষের ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে চলে আসে।
যদিও চেরি এমএক্স কী-এর কীবোর্ডের দাম এখনো সাধারনদের নাগালের বাইরে তবুও হরেক রকম সুইচ মেকার কম্পানিদের জন্য মেকানিকাল কীবোর্ডের চাহিদা বেরেই চলছে।

গত বছরের শেষের দিকেই তাইওয়ান বেসড গেমিং গিয়ার মেনুফ্যাকচারার GAMDIAS নামক কোম্পানি স্টারটেকের হাত ধরে আমাদের দেশে আসে।
হরেক রকম গ্যাজেটস এন্ড গিয়ারসের মধ্যে অন্যতম একটি হল Gamdias GKB3000 Hermes 7 মেকানিকাল কীবোর্ডটি।


সপ্তাহখানেক ব্যাবহার করার পরে কীবোর্ডটি আমার উইশলিস্টে জায়গা করে নিতে পেরেছে। চলুন দেখে নেই কীবোর্ডের বিস্তারিত রিভিউ। আমি ফাহিম ওয়েল্কাম টু পিসিবি বিডি চ্যানেল।

[আনবক্স ওভারভিউ]

ঝকঝকা রঙের প্যাকেটটি খুললেই পাবেন কীবোর্ড, কীক্যাপ পুলার, ইউজার ম্যানুয়াল এবং Gamdias এর স্টিকার।
মোটামুটি বড়সড় একটি কীবোর্ড এটি। কীবোর্ডের উপরে হাত রাখতেই একটা প্রিমিয়াম ফিলিং পাবেন।
কীবোর্ডটির উপরের দিকে মেটালিক কন্সট্রাকশন, নিচের রিস্ট রেস্ট যদিও প্লাস্টিক মেটারিয়াল দিয়ে করা হলেও যথেস্ট ডিউরেবল।
কীবোর্ডের পিছনের দিকে পাচটি রাবার ফিট এবং কীবোর্ড ফ্লিপ স্ট্যান্ড এবং ফ্লিপ স্ট্যান্ডেও রাবার ফিট আছে। যেটা একটি প্লাস পয়েন্ট।

 

 

 

 

১.৮ মিটারের ব্রেডেড কেবলটি যথেস্ট ডিউরেবল।। এর ইউএসবি কানেকশনের হাউসিং গোল্ড প্লেটেড।
এছাড়া এতে ইন্টারচেঞ্জেবল wasd এবং Arrow কী আছে।
কীবোর্ডের দৈর্ঘ্য ৪৫৮ সেমি, প্রস্থ ২২সেমি আর উচ্চতা ৪.৪ সেমি,এর ওজন ১.১ কেজি।
কিবোর্ডের মেটাল বেসের উপরেই ফ্লোটিং কী ডিসাইনের কী গুলো। কী এর কী ক্যাপস স্ট্যান্ডার্ড এবিএস প্লাস্টিকের যা প্রায় কীবোর্ডের কীক্যাপস হিসেবে ইউজ করা হয়ে থাকে।

কীবোর্ডের ডিসাইন প্যাটার্নের একটা সুন্দর প্লাস পয়েন্ট হল এর ঢালু টাইপ আর্গোনমিক ডিসাইন। তাই ফ্লিপ স্ট্যান্ড ছাড়াই ফ্লিপ স্ট্যান্ডের মত হাইট পাওয়া যাবে অনেকটা।
আর রিস্ট রেস্ট থাকাটা এর একটি প্লাস পয়েন্ট। ওভার-অল কীবোর্ডের বেস ডিসাইনের সাথে রিস্ট রেস্ট একটা দারুন কম্বিনেশন করেছে।

 

[স্পেক্স, কী রিভিউ]

 ১০০০ হার্জ পোলিং রেটের কিবোর্ডটি N-key রোলওভার সাপোর্টেড তাই যত ইচ্ছা তত বাটন প্রেস করতে পারবেন একসাথে, সবগুলো বাটনেরই ইনপুট নিবে।
এছাড়া উইন্ডোজ কী ডিসেবল বাটন আছে যাতে করে গেমিং টাইমে ভুলে উইন্ডোজ বাটনে চাপ পড়লেও গেম মিনিমাইজ হবে না আর।
এছাড়া অল কী লক সিস্টেম আছে যাতে করে কীবোর্ড লক করে রাখতে পারবেন এবং আনলক না করা পর্যন্ত কোন কী ইনপুট নিবে না পিসি।

এইবার আসি কী টাইপের ব্যাপারে। কীক্যাপটি তুললেই সামনে আসবে Gamdias সার্টিফাইড মেকানিকাল সুইচ। তবে কোন ব্র্যান্ডের সুইচ ব্যাবহার করা হয়েছে তা বলা হয়নি। কোন এক রিভিউতে একে ক্যালিথ ব্লু সুইচ হিসেবে বলা হয়েছে।


যাইহোক, এই সুইচকে চেরি এম-এক্স ব্লু(BLUE) সুইচের আদলে বানানো সুইচ বলা যেতে পারে। এই ব্লু(BLUE) সুইচের একচুএশন আর ফিল এর ব্যাপারে বলতে গেলে আপনাকে হতাশ করবে না এই কীবোর্ডটি। সুইচের ট্যাকটাইল ফিডব্যাক এবং ক্লিকিনেস আপনাকে টাইপিং এ অন্য মাত্রা এনে দিবে।
আমি পার্সোনালি এই কীবোর্ডে টাইপ করে অনেক মজা পেয়েছি। চেরি এম-এক্স না হলেও অনেকটা একই ফিল দিতে সক্ষম এর সুইচগুলো।
সুইচের লাইফ-স্প্যান ৫০ মিলিয়ন ক্লিক্স বলে দাবি করা হচ্ছে।

বিল্ট ইন মেমরি ৮ কেবি থাকায় আপনি বিভিন্ন্ ম্যাক্রো এবং কালার প্যাটার্ন সেট করতে পারবেন এই কীবোর্ডে। কিন্তু কোন ড্রাইভার সফটওয়্যার না থাকায় অন কীবোর্ডে এইসব কাজ করাটা একটু ঝামেলার মনে হয়েছে।

 

 

[লাইটিং]

কী বোর্ডের ৬ টি সারিতে ৭ টা কালার কীভাবে হইল তা আমি বুঝতে পারলাম না। যাইহোক কীবোর্ডে অনেক রকম লাইটীং এফেক্টস আছে যেমন নরমাল,ওয়েভ,ব্রিদিং,সার্কুলার মারকুইস, মারকুই, কালারড রিবন, রোটেশন। এছাড়াও গেম মুড আছে যেখানে কিছু স্পেসিফিক গেম যেমন, CSGO, LOL, DOTA2 এবং ওয়ার্ল্ড অফ ট্যাংক্স গেমের ক্ষেত্রে কীবাইন্ড করা কী গুলাই জ্বলবে।

 

কিছু কথা, আপনি যদি প্রথম মেকানিকাল কীবোর্ড ইউজার হয়ে থাকেন তাহলে এই রেঞ্জে ব্লাডি B810r,b820 বা অন্য কোন ব্রান্ডের কীবোর্ড পাবেন ফুল আরজিবি কিন্তু ব্লাডির কীবোর্ডে একচুয়াল মেকানিকাল সুইচের ফিলটা পাবেন না কারন। ব্লাডির সুইচ অপটিকাল সুইচ যাতে আর্টিফিসিয়ালি মেকানিকাল ফিল দেয়া হয়েছে।
সেই দিক থেকে ভাবতে গেলে গেমডিয়াসের এই কীবোর্ডটি আপনাকে অনেকটা ব্লু সুইচের স্বাদ দিতে পারে। এছাড়া গেমডিয়াসের এই কীবোর্ডটির সুইচের সাউন্ড মডারেট কিন্তু এই প্রাইসের কীবোর্ডের সুইচের সাউন্ড অনেক বেশি লাউড হয়ে থাকে।

 

 

 

 

মজার ব্যাপার হল, আমাজন ইউএস এ এর দাম ৫৪ ডলার, ইন্ডিয়াতে এর দাম প্রায় ৫হাজার রুপি সেই হিসেবে বাংলাদেশে এর দাম রাখা হয়েছে মাত্র ৪৬৫০ টাকা।

ফাইনাল কথা, কীবোর্ডের লাইটিং ছাড়া ওভার-অল সব ফিচার আমার ভাল লেগেছে। লাইটিং ৭ রঙের রংধনু না হয়ে খালি একটা স্ট্যাটিক লাইট হলেও ভাল হত। রিস্ট রেস্ট থাকায় টাইপিং এবং গেমিং উভয় ক্ষেত্রে আমি পারসোনালি অনেক আরাম পেয়েছি।৭ রঙের বাত্তি নিয়ে কোন মাথাব্যাথা না থাকলে কিবোর্ডটি ডেইলি ড্রাইভার হিসেবে রাখার মত একটি কীবোর্ড।

কিবোর্ডের রংধনুর খেলা দেখতে দেখতে বিদায় নিচ্ছি আমি ফাহিম। আশা করি দেখা হবে নতুন কোন রিভিউতে।
এ ধরনের আরো গ্যাজেটের রিভিউ দেখতে থাকুন পিসিবি বিডির সাথে।
গুডবাই।

ইমেজেসঃ https://www.extremepc.in.th/review-gamdias-hermes-7-color-mechanical-gaming-keyboard/
টাইপিং টেস্ট আছে এইটা তেঃ http://www.gomechanicalkeyboard.com/reviews/gamdias-hermes-7-color/