35 C
Dhaka
Saturday, October 16, 2021

Gamepad বায়িং গাইড ২০২১ : Gamepad price in Bangladesh

- Advertisement -asus motherboards

গেম খেলার জন্য Gamepad ব্যবহার করেন অনেকেই। বিশেষ করে Racing গেমস,FIFA/PES,Cricket বা স্ট্রিট ফাইটার/Mortal Combat এর মত ফাইটিং গেমস খেলার জন্য গেমপ্যাডকেই বেশি পছন্দ করা হয়, অনেক ক্ষেত্রে গেমপ্যাড ছাড়া খেলাও যায়না ভালোভাবে।অনেকেই বিভিন্ন বাজেটে গেমপ্যাড এর সাজেশন ও চান আমাদের গ্রুপে। এসব বিবেচনা করেই আজকের এই বায়িং গাইড।

বাজেট ৬০০ ± ১০০ঃ লোয়েস্ট বাজেট গেমপ্যাড

৬০০/৫০০ টাকা হচ্ছে গেমপ্যাড কেনার ক্ষেত্রে লোয়েস্ট বাজেট বা বাউন্ডারি লাইন। এক্ষেত্রে বিল্ড কোয়ালিটি,ডিউরেবিলিটি এর সাথে Compatibility এর ক্ষেত্রেও কম্প্রোমাইজ করা লাগে তেমনি ব্রান্ড অপশন ও থাকে একেবারেই কম। তবুও বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে এই স্টার্টআপ রেঞ্জে ক্রেতার কিন্ত অভাব কোনোদিনই ছিল না। তাই এই বাজেট রেঞ্জটিও আমাদের কাছে গুরুত্বপুর্ণ।

- Advertisement -

আমাদের এই বায়িং গাইডে আমরা বেশি গুরুত্ব দেব Durability,Compatibility এর পাশাপাশি ওয়ারেন্টিকে। ফিচারস ও এক্সপেরিয়েন্সের দিকেও থাকবে নজর। 

Havit GV-G69: Havit Gamepad price in Bangladesh (450 Taka ±50)

Havit GV-G69/ GV G61 সম্পর্কে খুব বেশি বলার প্রয়োজন নেই। বাংলাদেশে সবথেকে বেশি বিক্রিত, সবথেকে বেশি ইউজার আছে এই গেমপ্যাডটির। Compatibility এর দিক দিয়ে এই বাজেটে সেরা বলতে হয় একেই। রয়েছে alternative digital or analog mode। NFS এর মত রেসিং গেমগুলো খেলা যাবে অনায়াসেই, ফিফা বা পেসের মত স্পোর্টস গেম বা কমন Arcade ,fighting  গেমগুলোও compatible ভালোভাবেই।

- Advertisement -

এর ডিজাইন PS4 কন্ট্রোলার এর মত, লেআউট ও সেরকম। দেখতে খুবই সাদামাটা,বিল্ড কোয়ালিটি ও আহামরি কিছু না, রয়েছে ভাইব্রেশন যেটি অনেক গেমারের কাছেই একটি গুরুত্বপুর্ণ বিষয় Gamepad এর ক্ষেত্রে।

রয়েছে ১ বছরের ওয়ারেন্টি। আর ডিউরেবিলিটির কথা যদি বলতে হয়, কিছু ক্ষেত্রে এটি Legend। আমি ব্যক্তিগতভাবে এটি চালিয়ে দেখেছি, বছরের পর বছর চলতে পারে, আরো অনেকের ক্ষেত্রেই  একই ঘটনা ঘটেছে, আবার অনেকের কিছুদিনের মধ্যেই নষ্ট হয়ে গিয়েছে। পরামর্শ থাকবে স্বনামধন্য শপগুলো থেকে ওয়ারেন্টি সহ কেনার।

- Advertisement -

আর কম্প্যাটিবিলিটির কথা যদি বলতে হয়,রেসিং গেম গুলো যেমন NFS, তাছাড়া Cricket 19,Fifa, PES,Tennis বা Street Fighter,King of Fighter এর মত স্পোর্টস গেমগুলো ভালোভাবেই খেলা যাবে এটি দিয়ে। তবে অনেক গেম রয়েছে যেগুলোতে compatibility issues হবে, সাপোর্ট নাও করতে পারে,  এই বাজেটে এটি মেনে নিতে হবে।Dual mode রয়েছে, Left Stick ও DPAD দিয়ে মুভমেন্ট করা যাবে(সুইচ করার জন্য বাটন ও রয়েছে)। Stick এর rotational smoothness মোটামুটি।

বাটনগুলোর কোয়ালিটি কোনোরকম চলে, অনেকেরই পছন্দ নাও হতে পারে। তবে বাজেট অনুসারে বেশি আশা করাও যায় না।

Features:

কারা কিনবেন? এক নজরে ভালো ও মন্দঃ

যাদের বাজেট এক্সট্রিমলি টাইট, প্রোফেশনাল গেমিং করবেন না, ৫০০টাকার আশেপাশে সময় কাটানোর জন্য  স্পোর্টস গেম,রেসিং গেম খেলার জন্য নিতে চাচ্ছেন তাদের জন্য এটা ভালো অপশন। ভাগ্য ভালো হলে এটি আপনাকে অনেক বছর সার্ভিস দিতে পারে।

Havit GV-G69 এর ভালো দিক হচ্ছে বাজেট অনুসারে কমন স্পোর্টস/রেসিং,Arcade/Fighting গেমগুলোতে কম্প্যাটিবিলিটি, এক বছরের ওয়ারেন্টি,ভাইব্রেশন থাকা, ডুয়াল মোড থাকা ইত্যাদি। আর খারাপ দিক এর কথা বলতে গেলে কিছুটা ভাগ্যের উপর নির্ভরশীল Durability, not the best button,pads,stick বা বডি কোয়ালিটি, সব ধরনের গেমে ফুল কম্প্যাটিবল না হওয়া ,খুব আহামরি ডিজাইন না হওয়া ইত্যাদি।

বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ

হ্যাভিট এরই প্রায় একই স্পেসিফিকেশনের,একই ফিচার সমৃদ্ধ কিন্ত অনেক স্টাইলিশ,কালারফুল মডেল রয়েছে (একাধিক কালার ভ্যারিয়েন্ট, লাল ,নীল কালারে এভেলেবল) যেটি হচ্ছে Havit HV-G92। এটিও এই বাজেটে যথেষ্ট ভালো একটি অপশন,ওয়ারেন্টি ও রয়েছে। উপরেরটা ছাড়া যদি কারো এটি পছন্দ হয় তাহলে নিতে পারেন।তবে অবশ্যই বিশ্বস্ত দোকান থেকে নিবেন,ওয়ারেন্টি দেখে নেওয়ার পরামর্শ রইলো।  Havit G92 Gamepad price in bangladesh: 520 Taka।

special mention: Havit G-61 price in bangladesh: Double Gamepad (2 in 1) 850taka 

প্রায় হুবহ একই দেখতে,একই স্পেসিফিকেশনের GV-G61 রয়েছে ৮৫০ টাকায়, তবে বিশেষত্ব হচ্ছে ৮৫০টাকাতে আপনি দুটি গেমপ্যাড পাচ্ছেন। অর্থাৎ Double Gamepad বা Combo অফার এটি। যারা দুটি গেমপ্যাড একসাথে নিবেন, তাদের ক্ষেত্রে সেরা ডিল এটাই। অনেকক্ষেত্রেই কিছু গেম রয়েছে শুধুই গেমপ্যাড দিয়ে খেলতে হয় কিবোর্ড কাজ করে না, সেসব ক্ষেত্রে ফ্রেন্ড/আত্মীয়র সাথে খেলার জন্য ২টি গেমপ্যাডই প্রয়োজন হয়, তাদের জন্য এটি Must buy। এর ফিচার্স, স্পেকস উপরের G69 এর মতই।

বাজেট ১১০০±২০০ টাকা

এই বাজেটে ২টি গেমপ্যাডের কথা উল্লেখ করা যেতে পারে।যারা Wireless Gamepad খুজছেন কম দামের মধ্যে। তাদের সমাধান ও এখানেই মিলবে। প্রথমে আলোচনা করবো Havit G89W 2.4Ghz Gamepad নিয়ে। তারপর কথা হবে Fantech এর GP-11 কে নিয়ে।

Havit G89W Wireless Gamepad price in Bangladesh: 950-1050tk

ব্যক্তিগতভাবে আমার এটি বেশ কয়েকদিন চালিয়ে দেখার সুযোগ হয়েছিল। ডিজাইন, Button schemes ও বিল্ড কোয়ালিটি হুবহ HAVIT G85 এর মত।Dual Vibration Motors রয়েছে যার ফিডব্যাক মোটামুটি। দেখতে যথেষ্ট সুন্দর ও স্টাইলিশ। বাটন কোয়ালিটি মোটামুটি, Trigger গুলো কিছুটা শক্ত। FIFA, PES,Cricket 19 এর মত গেম আমি খেলে দেখেছি।Wireless হিসেবেও সিগনাল,response যথেষ্ট ভালো পেয়েছি।

Compatibility এর কথা বলতে গেলে এটা কমবেশি একটু আগে আলোচনা করা Havit G61,G69 এর মতই Compatible। স্পোর্টস গেম,রেসিং গেম খেলার জন্য wireless গেমপ্যাড খুজলে এটা খারাপ অপশন নয়। অন্তত এই বাজেটে তো অবশ্যই নয়। Analog sticks এর সাথে 12টি বাটন এর কোয়ালিটি,smoothness বাজেট অনুসারে ঠিকঠাক। মুভমেন্টের জন্য ডুয়াল মোড অর্থাৎ Left Stick ও DPAD একই সাথে ব্যবহার করা যাবে, এর জন্য ডেডিকেটেড বাটন ও রয়েছে। ফিফা/পেস, ক্রিকেট কিংবা রেসিং গেম, এসব ক্ষেত্রে কাজে আসবে এই ফিচারটি। স্টিকের স্মুদনেস ভালো, ট্রিগার মোটামুটি।Bumper টা বেশ শক্ত লেগেছে। আর মাঝখানের extra অপশনের বাটনগুলোর পজিশন অনেক ঘিজিবিজি মনে হয়েছে।

আর একটা কথাও বলতেই হয়, Durability এর দিক দিয়ে এটির অবস্থান আমার মতে GV G61,G69,G85 বা G92 এর মতই।অর্থাৎ কিছুটা ভাগ্যের উপর নির্ভর করা লাগতে পারে, টিকলে অনেক দিন অথবা খুব দ্রুতই নষ্ট হতে পারে বা নতুন ইস্যুর সম্মুখীন হওয়া লাগতে পারে। আরো একটি কথা না বললেই না, এটি দিয়ে আমি FIFA20 সরাসরি রান করতে পারিনি, malfunctioning হয়েছিল,অর্থাৎ Key গুলো উলটাপালটা কাজ করছিল, সেক্ষেত্রে x360xe ব্যবহার করা লাগতে পারে। তবে অন্যন্য গেমে ইস্যু পাইনি। আর একটি বিষয় ও লক্ষ করেছি, যদিও সেটি আমার ইউনিটের ত্রুটি বলেই মনে হয়েছে, সেটি হচ্ছে B বাটনটি উইন্ডোজে Controller checker Tool এ চেক করলে দেখা যাচ্ছিল যে ৫/১০ সেকেন্ড পর র‍্যান্ডমলি একা একাই প্রেসড/এক্টিভেট হচ্ছিল। যদিও আমার মনে হয়েছে অন্যন্য ইউনিটে এই সমস্যা থাকার কথা না। রয়েছে এক বছরের ওয়ারেন্টি।

Fantech GP-11 Shooter Gamepad Price in bd:1300 Tk

Fantech GP-11 Shooter গত কয়েক বছরে ব্যাপক জনপ্রিয়তা লাভ করেছে দেশের বাজারে ঢোকার পর। অসাধারণ ডিজাইন, মাল্টিকালার থিম, ভালো বিল্ড কোয়ালিটি তো রয়েছেই। সাথে ভাইব্রেশন, বাটনগুলোর design,quality ও অনেক ভালো। এই গেমপ্যাডটি Havit এর মত PS লেআউটে নয় বরং Xbox লেআউটে ডিজাইন করা। মাঝখানে বড় করে Fantech লেখা। হ্যাভিট এর গেমপ্যাড গুলো থেকে এটার ডিজাইন ল্যাঙ্গুয়েজ একেবারেই আলাদা ও প্রিমিয়াম একটা ফিল দেয়। আর প্লাটফর্মের কথা বলতে গেলে পিসির পাশাপাশি Android প্লাটফর্মেও খেলতে পারবেন এটি দিয়ে।

গেমপ্যডটির উল্লেখযোগ্য বিষয় হচ্ছে এর বাটনস,Sticks Trigger ভালো এক্সপেরিয়েন্স দেবে।Ergonomic শেপের কারণে ইউজ করার সময় যথেষ্ট Comfort পাওয়া যাবে। আর সবথেকে গুরুত্বপুর্ণ যে বিষয়,Compatibility, সে দিক থেকেও এই বাজেটে বলতে গেলে অপ্রতিদ্বন্দ্বী এটি। Fifa,PES এর মতে গেমে Skill Moves দেওয়ার অভ্যাস আছে যাদের,অনলাইনে খেলেন যারা, তাদের জন্য Havit থেকে বাজেট বাড়িয়ে এই গেমপ্যাড টা নেওয়া বেশি ভালো সিদ্ধান্ত হবে। এসব গেম ছাড়াও RPG,Fighting,Arcade গেমগুলোকোনো ইস্যু ছাড়াই খেলা যাবে। ডুয়াল মোড রয়েছে। আর ১ বছরের ওয়ারেন্টি ও পাচ্ছেন।

কারা কিনবেন?

যারা ১২০০টাকা রেঞ্জে Wired Gamepad খুজছেন রেসিং/স্পোর্টস/ফাইটিং/Arcade বা RPG গেম খেলার জন্য। যাদের একটু স্টাইলিশ ডিজাইন,ডিফারেন্ট বিল্ড এর গেমপ্যাড দরকার। ফিফা/পেসে স্কিল মুভস কে যারা বেশি গুরুত্ব দেন বা অনলাইনে খেলেন বা খেলতে চান তাদের জন্য এটি ভালো হবে।

যারা এন্ড্রয়েড ফোনে বা টিভিতে গেমপ্লে করার জন্য গেমপ্যাড চাচ্ছেন তারা Havit HV-G158BT গেমপ্যাডটি নিতে পারেন।

বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ

১৫০০-১৭০০টাকার মধ্যে রয়েছে Fantech GP12 Revolver,Marvo Scorpion GT16 বা Redragon Saturn এর মত গেমপ্যাডগুলো। আমার পরামর্শ থাকবে ১২০০/১৩০০ দিয়ে GP11 নিতে অথবা বাজেট বাড়িয়ে ২০০০ এর আশেপাশে যেতে। তবে Marvo Scorpion GT16,Redragon Saturn এর এন্ড্রয়েড কম্প্যাটিবিলিটি রয়েছে, অর্থাৎ ফোনেও চালানো যাবে সেগুলো। Scorpion GT16 আমার কাছে রয়েছে বর্তমানে,ডিজাইন ভালো হলেও এটির বাম্পার একদমই ভালো লাগেনি, বরং ভেতরে প্রেসড হয়ে থাকার মত বাজে issue এর সম্মুখীন হয়েছি আমি।

বাজেট ২১০০ ± ২০০

২০০০টাকার আশেপাশের বাজেটেই মুলত কিছু বড় বড় ব্রান্ডগুলোর গেমপ্যাড আসা শুরু হয়। ২০০০টাকার আশেপাশে দুটি গেমপ্যাড রেকমেন্ড করবো-

Logitech F310 Price 2100 Tk

৫০০-২০০০টাকা বাজেটের মধ্যে সবথেকে সেরা গেমপ্যাড নিসন্দেহে এটিই। সবধরনের RPG,AAA, Racing,Sports টাইটেল কোনো রকমের নুন্যতম ইস্যু ছাড়াই খেলা যাবে। অত্যন্ত ভালো কোয়ালিটির Buttons, অসাধারণ Responsiveness এর কারণে এই বাজেটে সম্ভাব্য বেস্ট এক্সপেরিয়েন্সটাই পাওয়া যাবে। বিশেষ করে Fifa,Pes এ স্কিল মুভস কিংবা FPS,RPG তে এইম বা অন্যন্য মুভমেন্ট সংক্রান্ত যেসব ইস্যু লো বাজেট গেমপ্যাডে হতে পারে সেসব এখানে একদম ই হবে না। One Click Xinput-Dinput Switcher রয়েছে।

ব্যক্তিগত ভাবে আমি প্রায় ২ বছর যাবত চালাচ্ছি কোনো রকমের সমস্যা ছাড়াই। ট্রিগার,Sticks,Bumper যথেষ্ট ভালো ফিল দেয়। Logitech  F310 এর সবথেকে বড় এডভান্টেজ হচ্ছে এর Compatibility এর সাথে Durability, ৩ বছরের ওয়ারেন্টি আর কোনো গেমপ্যাডই দিচ্ছে না। বাংলাদেশের গেমিং কমিউনিটিতে সবথেকে জনপ্রিয় মডেলগুলোর মধ্যে এটি অন্যতম। এটার ডিজাইন খুব বেশি আকর্ষনীয় না তবে হাতে নিয়ে ভালো ফিল পাওয়া যাবে।

একটাই দুর্বলতাঃ ভাইব্রেশন নেই। সুতরাং যারা Haptic Feedback প্রাধান্য দেন তারা হতাশ হবেন।তবে এন্ড্রয়েড ডিভাইসেও চলবে এটি।

Rapoo VPRO V600 price 1900 tk

র‍্যাপু এর VPRO V600 ও অত্যন্ত ভালো কোয়ালিটির গেমপ্যাড। যারা ভাইব্রেশন ফিচারটার জন্য Logitech F310 কে ছেড়ে দিবেন, তাদের জন্য সেরা চয়েস এটাই হবে। Rapoo VPRO V600 এর লেআউট F310 থেকে সম্পুর্ণ ভিন্ন, বরং Xbox লেআউটের এই গেমপ্যাডটি দেখতে F310 থেকে অনেক বেশি eye catchy লাগে। বিল্ড কোয়ালিটি আর ডিজাইন ও F310 থেকে অনেক বেশি প্রিমিয়াম লাগবে বেশিরভাগের কাছেই । ভাইব্রেশন মটর এর জন্য ওজন ও কিছুটা বাড়তি। ডিজাইন বেশ ডিফারেন্ট, সামনের দিকে dedicated Xinput/Dinput সুইচার ও ভাইব্রেশন সুইচার রয়েছে। তার উপরেই গোল VPRO লোগোটা দেখতে ভালোই লাগে।

এই গেমপ্যাডটিও আমি চালিয়েছি, আমার এক্সপেরিয়েন্স ভালো ছিল। আমার কাছে F310 এর বেস্ট অল্টারনেটিভ একেই মনে হয়েছে। বরং কোয়ালিটির দিক দিয়ে সমানে সমান বলা যেতে পারে একে। (বি দ্রঃ আর্টিকেলটি লেখার মুহুর্তে র‍্যাপুর এই গেমপ্যাডটি আমার কাছে ছিল না বিধায় ছবি সংগ্রহ করতে হয়েছে Youtube থেকে, ক্রেডিটঃ Knuckle Tech)

***যারা wireless গেমপ্যাড খুজছেন এই বাজেটে,তাদের কে Fantech GP12 Wireless নিতে বলবো***

বাজেট যদি ৩০০০টাকার আশেপাশে হয় তাহলে Kieslect KIEGM100 Wireless Gamepad টি নিতে পারেন। এটি মাল্টিপ্লাটফর্ম, অর্থাৎ PS4,Xbox,Android phone and tv ও পিসিতে গেম খেলা যাবে এটি দিয়ে।এর ডিজাইন,বাটন স্টাইল বেশ অন্যরকম। PS লেআউটের এই গেমপ্যাডটিতে 800Mah রিচার্জেবল Lithium Ion ব্যাটারি রয়েছে।

বাজেট ৪৫০০টাকা~ 

Dualshock 4 controller price in bd: 4500tk

এখানে আরো দুই একটা reliable ব্রান্ডের ভালো গেমপ্যাড থাকলেও সবথেকে সেরা চয়েস হবে Sony PS4 Dualshock 4 কন্ট্রোলার। True Console like এক্সপেরিয়েন্স এর জন্য, অসাধারণ হ্যাপটিক ফিডব্যাক, বাটনগুলোর responsiveness ও smoothness উপভোগ করতে এই বাজেটে নিঃসন্দেহে Dual Shock 4 কন্ট্রোলারটিই নেওয়া উচিত হবে। এই বাজেটে অন্যন্য যেকোনো গেমপ্যাড থেকে ট্রিগারস,বাম্পারস, স্টিকের সেন্সিটিভিটি ও বাটন প্রেসিং এ অনেক ভালো এক্সপেরিয়েন্স অফার করবে এই গেমপ্যাডটি। তাছাড়া এটি wireless,রয়েছে motion control ও। আমাদের দেশে বেশ অনেকগুলো theme ও কালারে এভেলেবল রয়েছে এটি।

- Advertisement -asus graphics card
Soaad Bin Zaman Shoron
Gamer | Memer | Tech Enthusiast | Sports Lover | Food Hunter | JUST PHYSICS 2018

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here