আজ প্রায় সকল সোশ্যাল মিডিয়াতে একটি কমন পোস্ট দেখা যাচ্ছিল। বাংলাদেশ থেকে ঢোকা যাচ্ছে না প্লেয়ারস আননোউন ব্যাটল গ্রাউন্ড বা PUBG গেমে। বিশ্বের সবচেয়ে বেশি খেলে যাওয়া ব্যাটল রয়্যাল গেম PUBG বাংলাদেশের গেমারদের মাঝেও বেশ জনপ্রিয়। সিঙ্গেল, ডুয়ো অথবা পাচ জনের টীম নিয়ে ঝাপিয়ে পড়বেন ১০০ প্লেয়ারের সমন্বয়ে থাকা সার্ভারের ম্যাপে যেখানে আপনার লক্ষ্যই হচ্ছে সবার শেষ প্লেয়ার বা টীম হিসেবে টিকে থেকে চিকেন ডিনার খাওয়া অর্থাৎ গেম জেতা। অবশ্য যারা ক্যাজুয়াল বা প্রফেশনাল গেমার আছেন তাদেরকে আলাদা করে এই গেমের সাথে পরিচয় করিয়ে দেয়ার কোন প্রয়োজন নেই।

তবে, বিশ্ব বিখ্যাত এই গেম ইতিমধ্যে বিভিন্ন ধরণের কন্ট্রোভারসির কারণে বিভিন্ন দেশে ব্যান বা নিষিদ্ধ হয়েছে। ইরান, চীন সহ বেশ কয়েকটি দেশের লোকাল আইপির মাধ্যমে এই গেমে আর প্রবেশ করা যায় না। তবে ব্যান করা দেশের লিস্টে খুব সম্ভবত আসতে পারে বাংলাদেশ।

বিভিন্ন সুত্র হতে জানা গিয়েছে বেশ কয়েকটি আইএসপি বা ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডারের কাছে নাকি ম্যাসেজ করা হয়েছে যে পাবজি এবং পাবজি মোবাইল সম্পর্কিত সকল আইপি যেন ব্লক করে দেয়া হয়। অর্থাৎ লোকাল আইপি ব্যবহার করে যেন পাবজির কোন ভার্শনেই লগিন না করা যায়। ইতিমদ্ধে বিভিন্ন পাবজি প্লেয়ার গেমে লগিন না করতে পারার সমস্যা নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট করেছে। তবে আমরা এখনো এই খবরের কোন সত্যতা যাচাই করতে পারিনি। যদি খবর সত্যিই হয়ে থাকে তাহলে পরবর্তীতে আপনাদের আপডেট করে জানানো হবে।

অপরদিকে যেটি আমরা সম্পূর্ণরুপে কনফার্ম করেছি তা হচ্ছে গেমটির সার্ভার ফ্লাকচুয়েশনের ঘটনা। বেশ কয়েকদিন আগে থেকেই বিভিন্ন ফোরামে দেখা যাচ্ছে ইউরোপ এবং এশিয়ার বিভিন্ন দেশের গেমাররা পাবজি গেমে লগিন করতে পারছে না। বিশেষ করে দক্ষিণ, পূর্ব এবং দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার গেমাররা যাদের মধ্যে রয়েছে বাংলাদেশ, জাপান, ভারত, থাইল্যান্ড সহ ইত্যাদি।

পাবজি সার্ভার আউটেজ ম্যাপ থেকে লক্ষ্য করা গিয়েছে বাংলাদেশ, ভারতের আংশিক কিছু অংশ, মালেশিয়া, জাপান, হংকং সহ বেশ কয়েকটি দেশ থেকে পাবজি সার্ভার একেবারেই এক্সেস করা যাচ্ছে না। এখন এই সার্ভারের সমস্যার কারণেই পাবজি খেলা যাচ্ছে না নাকি সত্যিকারেই পাবজি সহ সকল প্রকার আগ্নেয়াস্ত্রমূলক ব্যাটল রয়্যাল গেম বাংলাদেশ থেকে ব্যান করে দেয়া হল, তা আর কিছুদিনের মধ্যেই আশা করি কনফার্ম হওয়া যাবে।