দেড় বছর আগে অর্থাৎ ২০১৭ সালের শেষের দিকে বাংলাদেশে নেওয়াজ এন্টারপ্রাইজের হাত ধরে বাংলাদেশে অফিসিয়ালি আসে চাইনিজ পেরিফেরালস এবং এক্সেসরিজ ব্র্যান্ড Fantech। খুবই কম দামের মধ্যে গেমিং কীবোর্ড, মাউস এবং হেডফোন অফার করে বাংলাদেশের বাজেট গেমারদের মধ্যে বেশ জনপ্রিয়তা অর্জন করে এই ব্র্যান্ড। তবে বাজেট মার্কেট তাদের মূল লক্ষ্য হলেও মিড বাজেট এবং এন্ট্রি লেভেল প্রিমিয়াম মার্কেটে তাদের বেশ কিছু প্রোডাক্ট দেখতে পাওয়া গিয়েছে। আজ আমরা রিভিউ করতে যাচ্ছি Fantech MPR350 Aurora RGB গেমিং মাউসপ্যাড।

Fantech HG15 7.1 Gaming Headset Review

Why Fantech MPR350 Aurora RGB Mousepad

২০১৭ সাল থেকে কম্পিউটার হার্ডওয়্যার এবং এক্সেসরিজ ইন্ডাস্ট্রিজে আরজিবি লাইটিং ট্রেন্ড দখলে নিয়ে নিয়েছে। শুরুর দিকে শুধুমাত্র প্রিমিয়াম প্রোডাক্টে আরজিবি লাইটিং থাকলেও ধীরে ধীরে বাজেট লেভেলের প্রোডাক্টেও আরজিবি লাইটিং দেখতে পাওয়া যাচ্ছে। সেই আরজিবি ট্রেন্ড ধরে রাখার জন্য Fantech রিলিজ করেছে তাদের আরজিবি মাউসপ্যাডের লাইনআপ। আমাদের হাতে স্পেসিফিক্যালি আছে Fantech MPR350 Aurora RGB মাউসপ্যাড যা কিনা একটি স্ট্যান্ডারড মাউসপ্যাডের সাইজের। অর্থাৎ এটি শুধুমাত্র গেমিং মাউস ব্যবহার করার জন্য তৈরি করা হয়েছে। চলুন দেখে নেয়া যাক আড়াই হাজার টাকা বাজেটে এটি আপনাকে কেমন সার্ভিস ও পারফর্মেন্স দিতে পারবে।

Unboxing

বেশ শক্ত পোক্ত প্যাকেটেই মাউসপ্যাডটি প্রোভাইড করা হয়েছে। বক্সের উপরে দেখতে পাবেন মাউসপ্যাডের ছবি এবং এর কিছু কি ফিচার। বক্সের পেছনে দেখতে পাবেন এটির সকল স্পেসিফিকেশন এবং ফিচার।

Front of the box
Back of the box

বক্সটি খুললে তার ভেতরে পেয়ে যাবেন সাদা র‍্যাপিং পেপারে মোড়ান মাউসপ্যাডটি। সেটি সরালে এর নীচে পাবেন আরজিবি লাইটিং এর জন্য আসা মাইক্রো ইউএসবি কেবলটি।

Inside the box

Specification

আগেই বলা হয়েছে এটি হচ্ছে একটি স্ট্যান্ডার্ড মাউসপ্যাডের সাইজের সমান। কিন্তু তারপরেও আপনাদের সুবিধার জন্য এক্সাক্ট স্পেসিফিকেশন দিয়ে দেয়া হচ্ছে।

দৈর্ঘ্য ৩৫.৫ সেমি.
প্রস্থ ২৫.৫ সেমি.
পুরুত্ত ০.৬ সেমি.
ওজন ৭৫০ গ্রাম
কেবলের দৈর্ঘ্য ২০০ সেমি.
কানেকশন মাইক্রো ইউএসবি

Fantech GP11 Shooter বাজেট গেমপ্যাড রিভিউ

Review

এবার আসা যাক Fantech MPR350 RGB মাউসপ্যাডের মূল রিভিউতে।

Build Quality

বাজেট রেঞ্জের মাউসপ্যাড হলেও বিল্ড কোয়ালিটিতে তেমন কোন কমতি রাখেনি Fantech. অবশ্য আড়াই হাজার টাকার প্রাইস রেঞ্জে যতটুকু আশা করা যায়, ঠিক ততটুকুই দেয়া হয়েছে। হার্ড প্লাস্টিক সারফেসের উপরে এবং নীচে দেয়া হয়েছে রাবার ফ্লোরিং। রাবার ফ্লোরিঙ্গের উপরে দেয়া হয়েছে কাপড়ের সার্ফেস। মাউসপ্যাডের ডান দিকে দেখতে পাবেন Fantech লোগো এবং মাঝখানে দেখতে পাবেন অন/অফ বাটন এবং লাইট মোড চেঞ্জ বাটন।

আপনাদের অবগতির জন্য জানানো হচ্ছে, এই মাউসপ্যাডের স্লাইট বেন্ড টেস্ট করে দেখা হয়েছে। খুশির খবর হচ্ছে, এটি খুব ভালো মার্ক নিয়েই টেস্ট পাশ করেছে।

Comfort

একটি মাউসপ্যাডের কমফোরট লেভেল সম্পূর্ণ নির্ভর করে তার বিল্ড ম্যাটারিয়ালের উপর। এবং আমি অনেকটাই ইম্প্রেসড। লং সেশন গেমিং এবং মাউস ব্যবহারে হাতের কবজি একবারের জন্যও ব্যাথা করে উঠেনি। এছাড়া মাউসপ্যাডের বেইজ রাবার এবং কাপড়ের সমন্বয়ে তৈরি হবার কারণে মাউস ব্যবহারের সময় কোন অস্বস্তিকর ফিলিং আসে নি।

Tracking

আমি পার্সোনালি ব্যবহার করি Razer Lancehead Tournament Edition গেমিং মাউসটি যার মধ্যে ব্যবহার করা হয়েছে কাস্টম Pixart 3389 সেন্সর। তাই যে কোন মাউসপ্যাডেই এটি খাপ খাইয়ে নিতে পারে। আমি মেইনলি হিরো শুটার, ওপেন ওয়ার্ল্ড এবং বেশ কয়েকদিন আগে ব্যাটল রয়্যাল গেম ধরেছি। আমার মেইন তিনটি গেম হচ্ছে Overwatch, GTA V এবং সদ্য রিলিজ হওয়া Apex Legends। এছাড়া ক্যাজুয়াল RTS, 4X4 এবং অন্যান্য জেনরার গেম খেলেও দেখেছি মাউসপ্যাডটি টেস্ট করার জন্য।

ক্যাজুয়াল এবং স্লো পেইসড গেমে কোন প্রকার সমস্যা হবে না। মাউস ট্র্যাকিং এবং মুভমেন্ট স্বাভাবিকভাবেই করা গিয়েছে। আপনি যদি মেইনলি সিংগেল প্লেয়ার গেমার হয়ে থাকেন তাহলে এই মাউসপ্যাডে কোন সমস্যাই হবে না। ব্যাটল রয়্যাল Apex Legends টেস্ট করার সময় অবশ্য এই মাউসপ্যাডটির দুর্বলতা খুঁজে পাই। যখন ফাস্ট পেইসড শুটিং শুরু হয় তখন মাউস দ্রুত মুভ করার জন্য বেশ কিছুটা বেশি বল প্রয়োগ করতে হয়। এছাড়া, সি এস গো বা রেইনবো সিক্স সিজের মত কম্পিটিটিভ গেমের মধ্যে মাউস দ্রুত মুভ করতে গেলে এটি ট্র্যাকিং মিস করতে পারে। কিন্তু আপনি যদি হাই ডিপিআই গেমার হয়ে থাকেন তাহলে এটি নিয়ে কোন প্রকার চিন্তা করতে হবে না। মাউস ট্র্যাকিং যদি রেট করতেই হয় তাহলে সহজেই দশে আট দেয়া যাবে।

RGB Lighting

এই মাউসপ্যাডে মোট চার ধরণের আরজিবি লাইটিং মোড রয়েছে। স্ট্যাটিক মোডে আপনি পাবেন মোট সাতটি রঙের লাইটের কম্বো। এছাড়াও রয়েছে পালস, ওয়েভ এবং ফ্ল্যাশ আরজিবি লাইটিং মোড। মাউস প্যাডের আরজিবি লাইটিং মোড আমার কাছে অনেকটাই ভালো লেগেছে। আরজিবি লাইটিং এর স্যাম্পল নীচের ভিডিওতেই খুঁজে পাবেন।

তবে পার্সোনালি যে একটি মাইনর নেগেটিভ দিক আমার কাছে লেগেছে তা হচ্ছে এটি শুধু মাত্র বিল্ট ইন আরজিবি লাইটিং মোড সাপোর্ট করে। কোন আলাদা আরজিবি লাইট কন্ট্রোল সফটওয়্যার সাপোর্টেড নয়। অবশ্য পার আরজিবি লাইটিং যদি করা হত, দাম তখন রেজার বা লজিটেকের আরজিবি মাউসপ্যাডের দামের সমানে গিয়ে ঠেকত।

Overall Opinion

বিশ্ব মার্কেটে যখন নামী দামি ব্র্যান্ডের ৬/৭ হাজার টাকা বা তার থেকে বেশি দামের আরজিবি মাউসপ্যাড নিজেদের দাপট দেখিয়ে বেড়াচ্ছে তখন মাত্র আড়াই হাজার টাকার মধ্যে এমন একটি আরজিবি গেমিং মাউসপ্যাড পাওয়া ভালো ধরণের ডিল বলা যায়। এর বিল্ড কোয়ালিটি, কমফোরট লেভেল, আরজিবি লাইটিং এবং ডিসেন্ট মাউস ট্র্যাকিং এটিকে কেনার যোগ্য করে তুলেছে। আমার পক্ষ থেকে বাজেট গেমারদের জন্য এটিকে রেকমেন্ড করছি। তবে হাই কম্পিটিটিভ গেমার বা প্রফেশনাল গেমিঙ্গের জন্য আরো ভালো বাজেটের মাউসপ্যাড দেখার পরামর্শ দেব।

Price & Availability

Fantech MPR350 Aurora RGB মাউসপ্যাডের অনলাইন দাম হচ্ছে ২৩০০ টাকা। ঢাকা এবং চট্টগ্রামের মধ্যে থাকলে যে কোন কম্পিউটারের দোকানে গিয়ে কিনে নিতে পারেন। এই ক্ষেত্রে দাম সামান্য কিছুটা কম নিতে পারে। কিন্তু বাহিরে থাকলে মাউসপ্যাডটি কিনতে পারেন দারাজ ডট কম থেকে অথবা Fantech Bangladesh ফেসবুক পেইজে সরাসরি যোগাযোগ করে।

দারাজ ডট কম থেকে কিনতে এখানে ক্লিক করুন

ধন্যবাদ দেব Fantech Bangladesh কে রিভিউয়ের উদ্দেশ্যে আমাদের রিভিউ ইউনিটটি প্রোভাইড করার জন্য। Fantech এর অন্যান্য পণ্যের রিভিউ পড়তে চাইলে ক্লিক করুন এখানে