21 C
Dhaka
Monday, December 6, 2021

Guide: যেভাবে dCoins দিয়ে Daraz এ ডিসকাউন্ট নিবেন

- Advertisement -asus motherboards

পয়েন্ট বা কয়েন বেইসড রিওয়ার্ড প্রোগাম অনেক পুরোনো একটু কনসেপ্ট বলা যায়। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান বিভিন্ন ভাবে তাঁদের গ্রাহকদের এই রিওয়ার্ড প্রোগ্রাম অফার করে থাকে। কোনো গ্রাহক যখন নির্দিষ্ট প্রতিষ্টানের অনলাইন প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করে কোনো সেবা ক্রয় করে তখন বিনিয়ময়ে কিছু পয়েন্ট গ্রাহকের একাউন্ট দেওয়া হয়। যা দিয়ে পরবর্তীতে কোনো পণ্য বা সেবা কিনার সময় ছোটখাট ডিসকাউন্ট পাওয়া যায়। বেশ কিছুদিন হল বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় ই-কমার্কস প্ল্যাটফর্ম দারাজ তাঁদের নিজস্ব রিওয়ার্ড প্রোগ্রাম ‘dCoins’ চালু করেছে। অন্যান্য রিওয়ার্ড প্রোগ্রাম সাথে দারাজের এর বেশ কিছু পার্থক্য রয়েছ। বিশেষ করে আপনি কোনো পণ্য কিনা ছাড়াও প্রতিদিন কিছু dCoins পেতে পারবেন। এই রিওয়ার্ড প্রোগ্রাম গুলোর মেইন অসুবিধা হচ্ছে কর্তৃপক্ষ চাইলে যেকোনো সময় পলিসিতে পরিবর্তন আনতে পারে এমনকি পুরো প্রোগ্রাম বন্ধ করেও দিতে পারে। দারাজ এই কয়েন বেইসড রিওয়ার্ড সিস্টেম চালু করে ছিল এই বছরের সেপ্টেম্বরের শুরুর দিকে। প্রায় দুই মাসে দারাজের dCoins এর টার্ম এন্ড কন্ডিশনে অনেক পরিবর্তনের পর বর্তমানে মনে হচ্ছে dCoins রিওয়ার্ড প্রোগামটি কিছুটা হলেও স্ট্যাবল। তাই আজকের আর্টিকেল dCoins কিভাবে কাজ করে? dCoins কিভাবে পেতে পারেন এবং ব্যবহারের শর্তগুলো বিস্তারিত আলোচনা করা হবে। তো শুরু করা যাক-

dCoins কি?

dCoins হল দারাজের নিজস্ব রিওয়ার্ড প্রোগ্রামের নাম। যেখানে দারাজ মূলত ৩ ভাবে গ্রাহকদের তাঁদের অ্যাপে প্রতীকী কিছু কয়েন দিবে যেগুলো গ্রাহকের চাইলে শর্ত মেনে নতুন পণ্য ক্রয় করার সময় মূল্য ছাড় পাবে। তবে মোবাইল রিচার্জ এবং ইউলিটি বিলের ক্ষেত্রে কয়েন ব্যবহার করা যাবে না। ডিসকাউন্টের ক্ষেত্রে প্রতি ১০০ dCoin এর মূল্য ধরা হয়েছে ১ টাকা।  দারাজের অ্যাপের বাহিরে এই কয়েনের কোনো অস্তিত্ব নেই। dCoin এর সব কার্যক্রম অ্যাপের সীমাবদ্ধ। নতুন কয়েন পাওয়া ও ব্যবহার উভয়েই অ্যাপ দিয়েই করতে হবে, ওয়েবসাইটে এই প্রোগ্রাম এভাইলেবল না। বিস্তারিত পরের সেকশানগুলোতে পাবেন।

- Advertisement -

কিভাবে পাবেন dCoins?

কয়েন পেজে যাওয়ার জন্য হয় হোম পেইজ থেকে সার্চ বারের পাশে dCoin ক্লিক করে অথবা একাউন্ট পেইজ থেকেও যাওয়া যাবে। মূলত ৩ ভাবে আপনি চাইলে dCoins পেতে পারেন।।

- Advertisement -

১।প্রথমভাবে হচ্ছে, ডেইলি চেক-ইন। যেখানে ৭ দিনের একটি সাইকেল থাকে। প্রথম ২দিন ৫০ কয়েন করে, তৃতীয় দিন ১০০ কয়েন, চতুর্থ দিন ২০০ কয়েন, পঞ্চম ও ষষ্ঠ দিন ১৫০ কয়েন এবং সপ্তম দিন একবার ৩০০ কয়েন দেওয়া হয়। যা আপনাকে প্রতিদিন দারাজ অ্যাপে ঢুকে ক্লেইম করে নিতে হবে। ডেইলি স্ট্রেক যদি ভেঙ্গে যায় তাহলে আবার প্রথম দিন থেকে শুরু হবে।

২।দ্বিতীয়টিও হচ্ছে, চেক-ইনের মত তবে একটু ভিন্ন। এইখানে আপনাকে কিছু সহজ কিছু মিশন দেওয়া হবে। বর্তমানে ৬টি মিশন দেওয়া হচ্ছে যেগুলোর মধ্য রয়েছে কার্টে প্রোডাক্ট এড করলে ১০০-৩০০ কয়েন, বিভিন্ন ক্যাম্পেইনের পেইজ ব্রাউজ করা ১৫০-৩০০ কয়েন, প্রোডাক্ট সার্চ শেয়ারেও রয়েছে কয়েন পাওয়ার সুযোগ। ক্যাম্পেইন ভেদে এইখানের মিশনগুলো পরিবর্তিত হতে পারে। এই কয়েনগুলো পেতে হলে অবশ্যই dCoins পেইজ থেকে প্রতিটি মিশনের পাশে ‘Go’ বাটনে ক্লিক করে কমপ্লিট করতে হবে। তারপর আবার কয়েন পেইজে এসে ‘Claim’ করে নিতে হবে। কিছু মিশনে ‘Go’ বাটনে ক্লিক করার পর কয়েক সেকেন্ডের টাইমার চালু হয়। ঐ টাইমার শেষ না হওয়া পর্যন্ত ঐ পেইজ থাকতে হবে অন্যথায় কয়েন ক্লেইম করা যাবে না। এড টু কার্ট এবং সার্চ আইটেম মিশনের ক্ষেত্রে কয়েন ক্লেইমের অপশান পেতে কিছুটা দেরি হতে পারে অন্যান্য মিশনের চেয়ে।

- Advertisement -

৩।তৃতীয় এবং সর্বশেষ উপায় হচ্ছে দারাজ থেকে পণ্য কিনা। এই ওয়েতে আপনাকে কিছুই করতে হবে না। আপনার অর্ডার কৃত পণ্য ডেলিভারি হয়ে গেলে অটোম্যাটিক্যালি আপনার একাউন্টে কয়েন যুক্ত হয়ে যাবে। এই জন্য আপনাকে আলাদাভাবে কোনো অপশান থেকে ক্লেইমও করার দরকার পড়বে না। এইক্ষেত্রে আপনি যত টাকার পণ্য কিনবেন ঠিক তত কয়েন দেওয়া হবে। কিন্তু সর্বোচ্চ ৫০০ কয়েন পাওয়া যাবে একটি সিংগেল প্রোডাক্টের ক্ষেত্রে। অর্থাৎ আপনার একটি অর্ডারকৃত পণ্যর দাম যদি ৫০০ টাকার বেশি হলেও সর্বোচ্চ ৫০০ কয়েনই পাবেন। যদি একটি অর্ডারে অনেকগুলো পণ্য থাকে সেইক্ষেত্রে ঐ অর্ডার প্রতিটি পণ্যর জন্য সর্বোচ্চ ৫০০ কয়েন পাবেন।

এইভাবে আপনি আনলিমিটেড কয়েন জমাতে পারবেন। কয়েন হিস্টোরি থেকে কিভাবে কয়েন্ট আর্ন এবং স্পেন্ট করেছেন তাঁরা বিস্তারিত দেখতে পারবেন। যদিও বর্তমান রুলস অনুযায়ী কয়েনের মেয়াদ হচ্ছে ৩ মাস। অর্থাৎ কয়েন আর্ন করার ৩ মাস পর কয়েন অটোম্যাটিকেলি এক্সাপায়ার হয়ে একাউন্ট থেকে মাইনাস হয়ে যাবে।

কিভাবে ব্যবহার করবেন?

কয়েন ব্যবহারের জন্য চেকআউট করার সময় নিচে একটি টোগল বাটন পাবেন যেটি অন/অফ করে ঐ প্রোডাক্ট কিনার ক্ষেত্রে কয়েন ব্যবহার করার অপশান পাবেন। তবে মোট অর্ডার এমাউন্ট ১০০০ টাকার উপর হতে হবে। প্রতি অর্ডারে ৫% ডিসকাউন্ট পাওয়া যাবে সর্বোচ্চ ৩০০ টাকা পর্যন্ত। অর্থাৎ একটি অর্ডারে সর্বোচ্চ ৩০,০০০ কয়েন ব্যবহার করতে পারবেন। কোনো কারণে যদি অর্ডার ক্যান্সেল হয়ে যায় তাহলে ব্যবহারকৃত কয়েন আবারো একাউন্ট দিয়ে দেওয়া হবে।

যারা নিয়মিত দারাজ থেকে বিভিন্ন পণ্য ক্রয় করে থাকে তাঁদের জন্য এটি আসলেই অনেক কাজের একটি প্রোগ্রাম। বিভিন্ন পণ্য কিনতে বা দেখতে অ্যাপে কমবেশি আমাদের ভিসিট করতেই হয়। সাথে ফ্রিতে কিছু কয়েন পাওয়া যাচ্ছে। কোনো পণ্য কিনলেও কয়েন যোগ হয়ে যাচ্ছে। আবার আলাদা কোনো হ্যাসেল ছাড়া প্রোডাক্ট কিনার সময় সহজেই রিডিম করে ডিসকাউন্টের উপভোগের সুযোগ রয়েছে।

বিঃদ্রঃ কয়েন পেইজের নিচের দিকে সব টার্মস এন্ড কন্ডিশন একসাথে দেওয়া আছে। সেখানে বারবার একটি দারাজ বলে দিয়েছে যে, এই প্রোগ্রামের যেকোনো কিছু যেকোনো মূহুর্তে দারাজ কর্তৃপক্ষ গ্রাহককে না জানিয়েই পরিবর্তনের সম্পূর্ণ অধিকার রাখে। উদাহরণ স্বরুপ বলে যায় দারাজ চাইলেই কিংবা কয়েনের অনুপাতে ডিসকাউন্টের পরিমাণ, কয়েন প্রাপ্তির উপায়গুলো পরিবর্তন, কয়েনের মেয়াদ কমাতে কিংবা বাড়াতে পারে এবং এমন কি এই প্রোগ্রাম বন্ধ পর্যন্ত করে দিতে পারে। 

 

- Advertisement -asus graphics card
Kowcher Chy
A tech enthusiast ,amateur photographer and sluggish coder with an Engineering degree to destroy them all.

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here