বিশ্বের অনেক গেমারদেরই অভিযোগ রয়েছে ফিফা গেমস সিরিজকে নিয়ে। অনেকেই অভিযোগ করেন যে ফিফা ১৫ গেম থেকে প্রতি  বছর EA ফিফা সিরিজের গেমে শুধুই নাম পরিবর্তন করে নতুন গেম রিলিজ করছে। তবে এ নিয়েও বেশ বির্তক রয়েছে। গত বছরের ফিফা ১৮ গেমটির ক্যারিয়ার মোডের মাধ্যমে সিরিজে গেমারদের আকার্ষণ করতে বেশ নতুন কিছু ফিচার নিয়ে এসেছিলো। তবে গেমটির বোর্ড কনট্রোল, তরূণ টিম ম্যানেজমেন্ট সহ বেশ কিছু সমস্যা ছিলো ফিফা ১৮ গেমটিতে যেগুলোকে EA এর অবশ্যই উচিত ফিফা ১৯ গেমটিতে ফিক্স করে নিয়ে আসা। FIFA গেমস সিরিজের ২৬তম সংষ্করণ FIFA 18 গতকাল বিশ্বব্যাপী মুক্তি পেয়েছে। এবারের ফিফা গেমের কভার হয়েছেন Cristiano Ronaldo আর গেমটির চ্যাম্পিয়নশীপ এবং আল্টিমেইট এডিশনের জন্য দ্বৈতভাবে কভার হয়েছেন Neymar এবং Cristiano Ronaldo। তো চলুন দেখে নেই এবারের ফিফা গেমটিতে নতুন কি কি বিষয় EA আমাদের জন্য এনেছে:

কোনো Sweeping Marquee Change নেই

এবারের ফিফা গেমটির ক্যারিয়ার মোডে EA কোনো প্রকার Sweeping Marquee Change অপশনটি তুলে ধরে নি। গেমটিতে প্রথমবারের মতো UEFA Club ম্যাচগুলোর আনলেও লাইসেন্স এর লিমিট থাকায় গেমটির ক্যারিয়ার মোডে আপনি এই সুবিধাটি পাবেন না। যেমন একটি অনুষ্ঠানে Jose Mourinho কে দেখা গিয়েছিলো Old Trafford স্টেডিয়ামে Romelu Lukaku কে ওয়েলকাম করতে; এগুলো ফিফা ১৯ গেমটির ক্যারিয়ার মোডে আনা হয় নি। কারণ EA স্বাভাবিকভাবেই চাইবে না তাদের গেমে Champions / Europa লিগের ব্রান্ডিং করতে।

নতুন চ্যাম্পিয়নস লীগ কাটসিনস

Konami এর সাথে লাইসেন্স শেষ হয়ে যাবার পর অবশেষে EA এর কাছে চলে এলো UEFA Club গুলোর ম্যাচের লাইসেন্স। যা ফিফা ১৯ গেমটিতে একেবারেই নতুন। আগে শুধুমাত্র PES গেমস সিরিজে আমরা UEFA Club এর ম্যাচগুলো খেলতে পারতাম। আর এবারের ফিফা ১৯ গেমটির ক্যারিয়ার মোডে UEFA Champions লীগকে বেশ সুন্দর করেই উপস্থাপন করা হয়েছে।

বিশাল সাইজের ক্লাব বাজেট

যারা যারা গেমটির বেটা সংস্করণ খেলেছেন তারা নিশ্চয় লক্ষ্য করেছেন যে এবারের গেমটির কিছু কিছু ক্লাবের বাজেট সাইজে বেশ বড়সড় করেই সাজানো হয়েছে। বিশেষ করে প্রিমিয়ার লিগে লক্ষ্য করলে দেখবেন যে মধ্যম সাইজের ক্লাব Everton সহজেই নতুন প্লেয়ার আনার জন্য গেমটিতে ৫০ মিলিয়ন ইউরো খরচ করতে পেরেছেন! এই বিশাল সাইজের ক্লাব বাজেটের সবথেকে উপরে রয়েছে Man Utd । গেমটিতে আপনি Man Utd ক্লাবের স্টার্টিং বাজেট পাবেন প্রায় 195,362,00 ইউরো। এছাড়াও অনান্য বড় বাজেটের ক্লাবগুলোর মধ্যে রয়েছে Man City (১৭৬ মিলিয়ন ইউরো), Chelsea (১১২ মিলিয়ন ইউরো), Arsenal (১১০ মিলিয়ন ইউরো), Real Madrid (১০৯ মিলিয়ন ইউরো), Barcelona (১০৬ মিলিয়ন ইউরো) ইত্যাদি।

বাস্তব সম্মত বাজেট পরিবর্তন সিস্টেম

এবারের ফিফা গেমটিতে বাজেট পরিবর্তন সিস্টেমকে বেশ বাস্তবসম্মত ভাবে ডিজাইন করা হয়েছে। প্রতিটি সেশনের জন্য ক্লাবগুলোর সঠিক পরিমাণের বাজেট এবার আপনি ফিফা ১৯ গেমটিতে পাবেন। আগের গেমসগুলো বাজেট নিয়ে কিছু সমস্যা থাকলেও এবারের গেমে আপনি বাস্তবসম্মত বাজেট পাবেন। যেমন ক্যারিয়ার মোডে আপনি যদি UEFA চ্যাম্পিয়নস লীগ জয় করেন তাহলে উক্ত সেশনে আপনি উচ্চমানের টান্সফার বাজেট পাবেন।

Ultimate ডিফিকাল্টি

ফিফা ১৮ গেমটিতে ওয়ার্ল্ড ক্লাস এবং লেজেন্ডারি ডিফিকাল্টির মধ্যে কিছু সমস্যা ছিলো। যা এবারের গেমটিতে ফিক্সড করা হয়েছে এবং ক্যারিয়ার মোডে নতুন স্বাদ আনার জন্য এবার Ultimate ডিফিকাল্টি সেটিংসকে নিয়ে আসা হয়েছে। যারা যারা সত্যিকার ভাবেই হার্ডকোর ফিফা ফ্যান রয়েছেন এবং যারা ফিফার Legendary ডিফিকাল্টি সেটিংসয়ে মাস্টার হয়ে গিয়েছেন তাদের জন্য ফিফার ক্যারিয়ার মোড বেশ বোরিংই লাগতো। কিন্তু এবারের গেমে প্রথমবারের মতো ক্যারিয়ার মোডে আল্টিমেইট ডিফিকাল্টি নিয়ে আসা হয়েছে। আগের গেমসগুলো যারা যারা FUT খেলতেন তারাই একমাত্র এই আল্টিমেইট ডিফিকাল্টিতে খেলার সুযোগ পেতেন।

Youth Team এর ভূলগুলো ঠিক করা হয়েছে

ফিফা ১৮ গেমের ক্যারিয়ার মোডে Youth Team এর প্লেয়ারগুলোর ডিজাইনে কিছু সমস্যা ছিলো। এদের মধ্যে একটি উল্লেখযোগ্য সমস্যাটা ছিলো তাদের বাস্তবিক ক্যারেক্টারের সাথে গেমের Avatar মিল খেতো না। যেমন ১৭ বছর বয়সী নাইজেরিয়ান গোল কিপার Kelvin Kuti কে ফিফা ১৮ গেমটিতে সাদা চামড়ার ডিজাইনে আনা হয়েছিলো। তবে ফিফা ১৯ গেমটিতে এই ডিজাইনের সমস্যাগুলোর সমাধান করা হয়েছে।

প্লেয়ার বিক্রি করা এখন সহজ

ফিফা গেমে প্লেয়ার কিনে আনা হচ্ছে একটি জিনিস আর প্লেয়ার বিক্রি করা হচ্ছে একদমই আলাদা আরেকটি জিনিস ফিফা ১৮ গেমটিতে আপনি সহজভাবে আপনার স্কোয়ার থেকে চাইলেই কোনো প্লেয়ারকে বিক্রি করে দিতে পারতেন না। কিন্তু এবারের গেমে প্লেয়ার বিক্রি করার প্রক্রিয়াটি বেশ সহজ করেই সাজানো হয়েছে।

The Journey

সাম্প্রতিক সময়ের ফিফা গেমসের বেশ জনপ্রিয় মোড হচ্ছে The Journey । ফিফা ১৮ গেমটিতে এই মোডটি না থাকলেও এবারের ফিফা গেমটিতে দ্যা জার্নি মোডটি থাকবে এবং এবারের মোডটিতে Alex Hunter কাহিনীর শেষ অংশ থাকবে। হান্টার চরিত্রটিকে ফিফা ১৭ গেমে আনা হয়েছিলো, ফিফা ১৮ গেমটিতে হান্টার চরিত্রটিকে Major League Soccer এ খেলতে দেখা যায় এবং এবারের গেমে হান্টারের স্টোরিলাইনের নাম রাখা হয়েছে The Journey: Champions এবং এখানে গেমটির নতুন চ্যাম্পিয়নস লীগ ফিচারের সাথে মিল রেখে এই স্টোরিলাইনকে সাজানো হয়েছে।

 

তো এই ছিলো ফিফা ১৯ গেমটির ক্যারিয়ার মোডের নতুন কিছু ফিচার। ব্যক্তিগত ভাবে আমি ফিফা ১৪ এর পরের কোনো গেমই খেলিনি কারণ তারপর থেকে গেমটির উপর ইন্টারেস্ট হারিয়ে ফেলেছি আমি। যাই হোক এবারের ফিফা গেমে গ্রাফিক্সের আপডেট ও গেমপ্লের আপডেট ছাড়াও নতুন কি কি ফিচার আনা হয়েছে তা আজকের পোষ্টে তুলে ধরেছি আমি। আশা করবো এবারের গেমটি ফিফা ফ্যানদের মন জয় করতে পারবে।

Avatar
Fahad is a freelance writer and editor with nearly 10 years' experience in Bangla Technology Blogging who, while not spending every waking minute selling himself to websites around the world, spends his free time writing. Most of it makes no sense, but when it does, he treats each article as if it were his Magnum Opus - with varying results.