iPhone X Hands On Review Bangla

1124

সাদা সাধারণ একটি বক্স তাতে আইফোনের ছবি। বাক্সটি খুললেই পেয়ে যাবেন আপনার প্রিয় আইফোনটি। আমাদের কেনা আইফোনটি সিল্ভার কালারের তবে আপনারা ব্ল্যাক কালারেও এই ফোনটি পাবেন। এর নিচে ইউএসবি পাওয়ার এডাপ্টার, লাইটনিং কানেক্টরের ইয়ারপড, আর ইয়ারপডের নিচে পাবেন দুটি কেবল যার একটি লাইটনিং টু ইউএসবি কেবল এবং অন্যটি লাইটনিং টু ৩.৫ মিমি এর হেডফোন জ্যাক। এর থেকে আপনারা বুঝতে পারছেন এই আইফোনেও আপনারা হেডফোন জ্যাক পাচ্ছেন না। যাই হোক কথা না বাড়িয়ে আমরা সরাসরি চলে যাচ্ছি ওভারভিউতে।

Display

ফোনটি হাতে নিলেই সর্বপ্রথমে আপনার নজরে পরবে ৫.৮ ইঞ্চির সুদৃশ্য ডিসপ্লেটি। এর বডির সাইজ আইফোন ৮+ থেকে ছোট হলেও এটিতে আছে পুরো বরডারলেস ডিসপ্লে। এতে আছে ও এল ই ডি মাল্টিটাচ ডিসপ্লে এবং এতে প্রথমবারের মত ব্যাবহার করা হয়েছে এইচ ডি আর টেকনোলোজি। অর্থাৎ আপনি আইফোন এক্সের ডিসপ্লেতে একটি ফোর কে ও এল ই ডি টিভির মত ডিসপ্লে পাচ্ছেন যার সাধারণ মূল্য কয়েক লাখ টাকা হয়ে থাকে।

এর কন্ট্রেস্ট রেশিও হচ্ছে ১ মিলিয়ন বাই ১ অর্থাৎ আপনি ছবি তুলুন, ভিডিও করুন, ভিডিও দেখুন বা গেম খেলুন কালার ডেপথ এবং ডিস্টরশন নিয়ে আপনাকে কোন চিন্তা করতে হবে না।

আইফোন এক্সের ডিসপ্লের আরো একটি উল্লেখযোগ্য দিক হল এর ডিসপ্লে কোটিং। এতে আছে ফিঙ্গার প্রিন্ট রেসিস্টেন্ট অলেফোবিক কোটিং। আপনি আপনার হাতের এমনকি পায়ের আঙ্গুল দিয়ে ডিসপ্লের উপর যতই টর্চার করুন না কেন এর মধ্যে আপনার আঙ্গুলের প্রিন্ট বসবেই না।

Dimension

ফোনের বডির দিকে আসা যাক এবার। এর নিচে আছে একটি লাইটনিং কানেক্টর, উপরের ডান দিকে পাওয়ার বাটন আর বামে ভলিউম আপ ও ডাউন বাটন। উপরে ৮ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা তো আছেই কিন্তু ডিসপ্লের সাথে মিশে যাওয়ায় তা খেয়ালে আসে না।

এবার আসা যাক ফোনের ওজন এবং সাইজের দিকে। এর দৈর্ঘ্য প্রায় ৫.৬৫ ইঞ্চি, প্রস্থ ২.৮ ইঞ্চি আর পুরুত্ত মাত্র শুন্য দশমিক ৩ ইঞ্চি। আর এর ওজন হল ১৭৮ গ্রাম।

Special Features

ফোনটি অন করতেই আইফোনের লেটেস্ট ফিচার অর্থাৎ ফেইস আইডি মোডটি আপনার মুখ স্ক্যান করে নেবে। আনলক করার জন্য এই মোডটি অত্যন্ত নিরাপদ। আপনার মুখ ছাড়া অন্য কারো মুখ দেখে ফোনটি খুলবে না। এমনকি কেউ যদি আপনার ছবি সামনে আনে তাতেও ফোনটি আনলক হবে না। শুধু আপনার চোখ খোলা মুখ দিয়েই ফোন্টি আনলক করা যাবে। এছাড়াও ফোনের মধ্যে বাকি বেসিক আনলকিং ফিচার দেয়া আছে।

ফোনের পাওয়ার বাটন স্লিপ মোড অন অফের কাজেই আছে কিন্তু এখন পাওয়ার বাটন প্রেস করে রাখলে আগের মত ফোন বন্ধ হয়ে না গিয়ে বরং সিরির কাছে চলে যায়। তাহলে ফোন অফ করবেন কিভাবে? ফোনের পাওয়ার বাটন আর ভলিউম আপ বাটন একসাথে প্রেস করে রাখলে তবেই ফোন বন্ধ করতে পারবেন।

Camera

সবশেষে আমরা আসি ফোনের ক্যামেরার দিকে। এতে আছে ১২ মেগাপিক্সেল বাই ৭ মেগাপিক্সেলের ডুয়াল ক্যামেরা যেখানে ১২ মেগাপিক্সলের ক্যামেরা আপনার মেইন হিসেবে কাজ করবে। এছাড়া মেইন ক্যামেরায় দেয়া আছে ওয়াইড এঙ্গেল আর টেলিফোটো ফিচার। আইফোন এক্সের ক্যামেরা এই পর্যন্ত এপলের সকল ডিভাইসের মধ্যে সবচেয়ে বেস্ট ক্যামেরা।

ভিডিও রেকর্ডিং করা যায় ৭২০ পি, ১০৮০ পি ফুল এইচ ডি এমনকি ফোর কে আলট্রা এচ ডি রেজোল্যুশনেও সর্বচ্চো ৬০ ফ্রেমস পার সেকেন্ডে। আমাদের ফোনটি ৬৪ জিবি মেমোরির যদি আপনারা এই ফোনে ডেইলি ফোর কে ভিডিও করতে চান আমরা রেকমেন্ড করব ২৫৬ জিবি ভার্শনটি কেনার জন্য।

Remarks

প্রথম ব্যাবহারে এটা হলফ করে বলা যায় আইফোন এক্স এই পর্যন্ত আইফোন সিরজের সবচেয়ে এক্সাইটিং ফোন। কিন্তু প্রতিটি নতুন লঞ্চ কিছু না কিছু সমস্যা নিয়েই আসে। শুরুতেই আইফোনের আইওএস ১১.১ ভার্শনে একটি বাগ পাওয়া গিয়েছিল যাতে কিপ্যাডের ‘I’ অক্ষরটি প্রেস করে লেখা যেত না। এছাড়া এপল তাদের আইফোন এক্সে সবচেয়ে মজবুত গ্লাস ব্যাবহারের ক্লেম করলেও ইউটিউবারদের ড্রপ টেস্ট পরীক্ষায় অনেক ফোনের মধ্যেই ফাটল দেখা গেছে।

Green Line of Death

Worries

এছাড়া আইওএসে আর একটি গ্লিচ ইতিমধ্যে পাওয়া গেছে যা ইতিমধ্যে ‘The Green Line Of Death’ হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছে। অর্থাৎ বেশ কিছু আইফোনের ডিসপ্লের ডান অথবা বাম পাশে সবুজ রঙের লাইন দেখতে পাওয়া গেছে। তবে আশা করা হচ্ছে এপল তাদের আইওএসের নেক্সট কিছু আপডেটের মাধ্যমে সকল বাগ এবং গ্লিচ দূর করে ফেলবে।

People twitted about the green line on their iPhone X

iPhone X Price in Bangladesh

বাংলাদেশে এখনো অফিসিয়ালি কোন ইম্পোরটার আইফোন এক্স আনেন নি। আর যা পাওয়া যাচ্ছে তা লাখের নিচে নামার সম্ভাবনা নেই। তবে আমাদের ফুল রিভিউ করার মধ্যে অফিসিয়াল দাম এনাউন্স হলে অবশ্যই আমরা আপনাদের আপডেট দেব।

আশা করি আমরা কিছুদিনের মধ্যেই ফুল রিভিউ আপনাদের এনে দিতে পারব। আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ সবাইকে।