আমেরিকায় iOS এবং আইফোন এত জনপ্রিয় কেন? এর অন্যতম একটি কারণ হচ্ছে iMessage ! আর এই প্রযুক্তি সবার আগে আমেরিকায় এনেছিলো আইফোন, পড়ে অ্যান্ড্রয়েডেও আপনি আইম্যাসেজের মতোই সার্ভিস পাবেন কিন্তু অ্যান্ড্রয়েড অনেক পরে জনপ্রিয় হওয়ায় আইফোনের মতো আমেরিকা অঞ্চলে তেমন সাড়া ফেলতে পারেনি। কারণ নতুন জিনিস প্রথমে যে ব্রান্ড বাজারে নিয়ে আসে সেটাই জনপ্রিয় হয়ে যায় বেশি। যেমন বাংলাদেশে মোবাইলে টাকা ম্যানেজমেন্ট ব্যবস্থা সবার আগে ব্র্যাক ব্যাংক তাদের বিকাশ সার্ভিসের মাধ্যমে নিয়ে আসে। লক্ষ্য করে দেখুন পরবর্তীতে এই টাইপের সার্ভিস কিন্তু আরো অনেকেই এনেছেন কিন্তু বিকাশের মতো জনপ্রিয়তা পেতে পারেন নি।
যাই হোক অ্যান্ড্রয়েডের নোটিফিকেশন সিস্টেমটির জন্যেই কিন্তু আইফোনের আমেরিকার রাজত্ব্যে এখনো অনেকেই অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইস ব্যবহার করেন। অ্যান্ড্রয়েডে আপনি কোনো অ্যাপ চালু না করেই তার বেশ কিছু নোটিফিকেশন চেক করে নিতে পারবেন। আর অ্যান্ড্রয়েডের এই নোটিফিকেশন সিস্টেমের মতোই উইন্ডোজ ১০ এ মাইক্রোসফট নোটিফিকেশন ফিচারটি নতুন করে যুক্ত করেছে।

আর যারা ঘন ঘন স্মার্টফোন চেক করতে চান না বা অফিসের কাজের চাপে স্মার্টফোন হাতে নেওয়ায় সময় পান না তারা কিন্তু চাইলে সহজেই আপনার অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোনটিকে আপনার পিসি উইন্ডোজ ১০ এর সাথে Sync করিয়ে নিতে পারেন, এতে আপনার ডিভাইসের আগত নোটিফিকেশনগুলোকে আপনি উইন্ডোজ থেকেই দেখতে পারবেন, জরুরী কোনো কিছু এলে মিস হওয়ার চান্স থাকবে না। তো চলুন এই ব্যাপারে কথা বলি।

আপনার ইতিমধ্যেই জানেন যে মাইক্রোসফটের অফিসিয়াল Digital Assistant হচ্ছে Cortana । এই করটানা কে উইন্ডোজ ১০ এর সকল বিল্ড সংস্করণেই দেওয়া রয়েছে, এর উইন্ডোজ ফোনেও এটা রয়েছে। আর উইন্ডোজ ফোন ছাড়াও এখন মাইক্রোসফট তাদের Cortana এর অফিসিয়াল অ্যান্ড্রয়েড সংস্করণটিও রিলিজ করেছে! হ্যাঁ এই Cortana এর সঠিক ব্যবহারের মাধ্যমেই আমরা এখন থেকে অ্যান্ড্রয়েডের নোটিফিকেশণগুলোকে পিসিতে পেয়ে যাবো।

এখন সহজ কথায় আপনি Cortana অ্যাপটিকে আপনার মোবাইলে ইন্সটল করবেন, এবং পিসিতে Microsoft Assistant এর মাধ্যমে নোটিফিকেশণগুলোকে পিসিতেই পেয়ে যাবেন। Cortana for Android আপনার বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দিতে পারবে, বিভিন্ন জিনিস চেক করতে পারবে এবং আপনার সাথে দুষ্টামিও (!) করতে পারবে।
তাহলে এখন দেখে নিন এর জন্য আপনার কাছে কি কি থাকা চাই:

ক) একটি অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইস যেটা Cortana for Android এর সাথে Compatible
খ) একটি ভেলিড মাইক্রোসফট একাউন্ট যেটা দিয়ে পিসির উইন্ডোজ ১০ কে কানেক্ট করা রয়েছে, সেটাকে Cortana For Android এর সাথেও কানেক্ট করতে হবে।
গ) দুটি ডিভাইসেই একটি মোটামুটি মানের নেট সংযোগ থাকতে হবে।

তবে Cortana পদ্ধতি ছাড়াও নোটিফিকেশন পাবার জন্য থার্ড পার্টি অ্যাপও ব্যবহার করতে পারেন, সেটার ব্যাপারেও আপনি বলবো।

ধাপসমূহ

১) প্রথমে নিশ্চিত হয়ে নিন আপনি উইন্ডোজ ১০ এর একজন জেনুইন ইউজার। কারণ আপনার একটি মাইক্রোসফট একাউন্ট লাগবে। আর মাইক্রোসফট একাউন্টকে আপনি পাইরেটেড উইন্ডোজ দিয়ে একটিভ করতে পারবেন না।

২) এবার Cortana for Android অ্যাপকে ডাউনলোড করে নিন গুগল প্লে স্টোর থেকে।

অ্যাপটি ইন্সটল করে নিন, এবার অ্যাপটির সাথে পিসির উইন্ডোজ একাউন্টকে কানেক্ট করুন।

৩) এবার রাইট সাইটের একাউন্ট আইকনে ক্লিক করুন, একটি শর্ট মেন্যু আসবে, এখান থেকে সেটিংসয়ে আসুন।

৪) এবার যে সকল নোটিফিকেশন পেতে চান সেগুলোর অপশনকে অন করে নিন।

৫) এগুলো ছাড়াও আপনার ডিভাইসের সকল অ্যাপেরও নোটিফিকেশন আপনি পেতে পারেন।

ব্যাস! এবার পরবর্তীতে আপনার পিসি এবং মোবাইলে একই সাথে নেট সংযুক্ত থাকলেই আপনি আপনার ডিভাইসের সকল নোটিফিকেশণগুলোকে পিসিতেই পেয়ে যাবেন!

অন্য পদ্ধতি

Cortana ছাড়াও আপনি Pushbellet নামের থার্ড পার্টি অ্যাপ ব্যবহার করেও পিসিতে আপনার অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসের নোটিফিকেশনগুলোকে নিয়ে আসতে পারেন। মনে রাখবেন, Cortana For Android অ্যাপকে কিন্তু মূলত notification-syncing উদ্দেশ্যের জন্য বানানো হয়নি, এটি কে একটি এক্সট্রা ফিচার হিসেবে বানানো হয়েছে।
কিন্তু Pushbullet হচ্ছে একটি ডেডিকেটেড নোটিফিকেশন অ্যাপ। আমি এখানে বিস্তারিত ভাবে বললাম না, কারণ Pushbullet অ্যাপকে আপনার ডিভাইসে এবং পিসিতেও ইন্সটল দিতে হবে। তাহলেই হবে।
যারা জেনুইন উইন্ডোজ ১০ ব্যবহার করেন না কিন্তু নোটিফিকেশন পেতে চান তাদের জন্যই এই বিকল্প পদ্ধতি।
আর মনে রাখবেন এটি কিন্তু শুধু নোটিফিকেশনের কাজেই ব্যবহৃত হবে না, বরং একে আপনি অ্যান্ড্রয়েড স্ক্রিণ মিরর করার কাজেও ব্যবহার করতে পারবেন । মানে পিসিতেই অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসকে আপনি ম্যানেজ করতে পারবেন।

Avatar
Fahad is a freelance games journalist who, while not spending every waking minute selling himself to websites around the world, spends his free time writing. Most of it makes no sense, but when it does, he treats each article as if it were his Magnum Opus - with varying results.