31 C
Dhaka
Wednesday, April 14, 2021

bKash vs Nagad: অদ্ভুত একটি বিজ্ঞাপন যুদ্ধ

- Advertisement -asus motherboards

বর্তমানে বাংলাদেশের অন্যতম দুইটি মোবাইল ব্যাংকিং সার্ভিস হচ্ছে bKash ও Nagad। bKash বেসরকারী ব্যাংক ব্রাকের মালিকাধীন হলেও Nagad হচ্ছে বাংলাদেশ ডাক বিভাগের ডিজিটাল ফাইন্যান্সিয়াল সিস্টেম। bKash এর অনেক পরে যাত্রা শুরু করলেও bKash এর অন্যান্য প্রতিদ্বন্দ্বীদের যেমনঃ রকেট, ইউক্যাশকে পিছনে ফেলে একদম সামনের সারিতে চলে আসে Nagad। Nagad উত্থানের পিছনে রয়েছে এগ্রেসিভ মার্কেটিং ও নানান ধরনের অফার। সম্প্রতিতে উভয় কোম্পানি জড়িয়ে গেছে অদ্ভুদ এক বিজ্ঞাপন যুদ্ধে। এই বিজ্ঞাপনগুলো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নেটিজনদের মধ্যে আলোচনার বিষয়বস্তু হয়ে দাঁড়ায়। তাঁদের বিজ্ঞাপের বিভিন্ন অংশ পরিণত হয়েছে মিম ও ট্রলের টেম্পলেট হিসেবে। আমরা আজকে দেখার চেষ্টা করব কিভাবে এই সবকিছু শুরু হয়েছে, কারা আগে শুরু করেছে, পাবলিক সেন্টিমেন্ট কিভাবে পরিবর্তিত হয়েছে ইত্যাদি।

কিছুদিন আগে জানতে পারি, নন্দিত পরিচালক মোস্তাফা সরওয়ার ফারুকীর ত্বত্তাবধানে ছয়জন জনপ্রিয় অভিনেতাকে নিয়ে একটি প্রজেক্ট আসতে যাচ্ছে। তখনও সবাই জানতই না যে, এটি একটি সংস্থার অর্থাৎ Nagad এর বিজ্ঞাপনের প্রজেক্ট। তারপর Nagad এর ইউটিউব চ্যানেল ও ফেইসবুক পেইজে একে একে ছয়টি বিজ্ঞাপন প্রচার করা হয়। ঐসব বিজ্ঞাপনে Nagad অনেকটা খোলাখুলি ভাবেই bKash এর বিভিন্ন দুর্বলতার[যেখানে Nagad বেটার অফার করে] দিকে তীর ছুড়ে দেওয়া হয়। বিজ্ঞাপনগুলো অনেকটা একই হলেও ছয়টি ভিন্ন ভিন্ন বিষয় তুলে ধরেছে। যেমনঃ একটি বিজ্ঞাপনে দেখানো হয়েছে সেন্ড মানি করতে অন্যখানে টাকা লাগলেও Nagad এ একদম ফ্রি। Nagad এ টাকা জমা রাখলে ইন্টারেস্টও বেশি, ইউলিটি বিলও Nagad এ ফ্রিতে দেওয়া যায়। Nagad এর মতে তাঁরা রিচার্জে সেরা অফার প্রোভাইড করে। আবার Nagad এ ক্যাশ আউট চার্জ সর্বনিন্ম কিন্তু অন্যান্য সার্ভিসে প্রতি হাজারে ২০ টাকা চার্জ করা হয়। এতটুকু পর্যন্ত হলেও খুব বেশি হইচই ফেলে দিত পারত না। কিন্তু তাঁরা সব বিজ্ঞাপনের শুরুতে কিংবা মাঝে বেকুব, বেকুব, বেকুব… বোকা, বোকা, বোকা… শব্দ মেনশন করে। অর্থাৎ কেউ একজন কোন পাশ থেকে অন্য মোবাইল ব্যাংকিং সার্ভিস ব্যবহারকারীকে এইসব ধরে সম্বোধন করতে থাকে। এইখানেই শেষ না একদম শেষে দেখা যায় “ব তে বেকুব না হয়ে ন তে নগদে চলে আসলাম” নামক ইঙ্গিতপূর্ণ বাক্য ব্যবহার করেছে। এইসব থেকে যে কারো কাছ একদম পানির মত পরিষ্কার হয়ে যাবে যে, এটি তাঁরা bKash কে উদ্দেশ্য করে বানিয়েছে। নিচে ছয়টি বিজ্ঞাপনের মধ্যে একটি সংযুক্ত করা হয়েছে।

- Advertisement -

এইসব দেখে bKashও আবার বসে থাকে নি। তাঁরা একটি বিজ্ঞাপন নিয়ে হাজির হয়। সেখানে তাঁরা অবশ্য কাউকে আক্রমন করেনি। বরঞ্চ ব তে কি কি হতে পারে আমাদের দেশ ও জাতি রিলেটেড তা দেখিয়েছে। তাঁরা দেখিয়েছে ব তে বাংলা, বাঙালি, বাংলাদেশ, বিকাশ, বিশ্বাসও হতে পারে। এই ইমোশনাল বিজ্ঞাপনের কারণে অনেকে bKash এর সুনাম করতে থাকে।

- Advertisement -

এরপর বাংলাদেশ ব্যাংক তাঁদের উভয়কে সুশৃঙ্খলভাবে কার্যক্রম পরিচালনা করতে আহ্বান করে। এ বিষয়ে নগদ প্রথমআলোকে জানায় তাঁরা লিখিত নির্দেশ পেলে ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

এইসব শেষ হতে না হতে bKash উত্তপ্ত আগুনে বলতে গেলে ঘি ঢেলে দেয়। তাঁরা সেন্ড মানি ট্যারিফ পরিবর্তন নিয়ে আসে। প্রিয় নাম্বার ছাড়া অন্য নাম্বারে যেকোনো এমাউন্ট টাকা পাঠাতে গেলে সর্বনিম্ম ৫টাকা থেকে সর্বোচ্চ ১০ টাকা চার্জ বসিয়ে দেয়। বিকাশের এহেন কর্মকান্ডে ইউজার এন্ডেও এক ধরনের ক্ষোভ লক্ষ্য করা যায়। এইদিকে Nagad এই সুযোগ লুফে নিয়ে উপরে লিংক করা বিজ্ঞাপন পুনরায় প্রচার করে তাঁদের ফেইসবুকে পেজে।

- Advertisement -

আমরা জানি না আর কতদূর এটি গড়াতে পারে। আপনার কি মনে হয়?

- Advertisement -asus graphics card
Kowcher Chy
Kowcher Chy
A tech enthusiast ,amateur photographer and sluggish coder with an Engineering degree to destroy them all.

5 COMMENTS

  1. একদম প্রয়োজন ছিল। এরকম প্রতিযোগিতা না থাকলে ঠিকই একচেটিয়ারা জিব্বহা চেটে চেটে খাবে।

  2. এই মুহূর্তে নগদের খুব প্রয়োজন ছিল। নয়ত বিকাশের স্পর্ধা দিন দিন বেড়ে যেত।

  3. বিকাশ গাছের মাথায় মগ ডালের বসে থাকে আর গ্রাহক মগডাল থেকে বিকাশ কে নিচে নামাতে পারেনা তাই অন্য একটা কম রেটে মোবাইল ব্যাংকিং চাই! আর তা হচ্ছে……….. নগদ…….নগদ……….নগদ

  4. এটার দরকার ছিল এখনতো বিকাশ 5 টাকার জায়গায় দশ টাকা করছে নগদ না থাকলে সেন্ড মানি তে 20 টাকা বা 30 টাকা করত ভাগ্যিস নগদ ছিল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here