কম্পিউটারে স্টোরেজের জন্য বর্তমানে সলিড স্টেট ড্রাইভ বা SSD কে আমরা ব্যবহার করছি। হার্ডডিক্স এবং সলিড স্টেট ড্রাইভ দুটোই কিন্তু কম্পিউটারে একই কাজ করে। আর তা হলো আমাদের তথ্যগুলিকে সংরক্ষণ করা। কিন্তু বর্তমানে HDD এর থেকে SSD বেশি ব্যবহৃত হচ্ছে। কিন্তু কেন? কারণ হার্ডডিক্সের থেকে সলিড স্টেট ড্রাইভ কয়েকগুণ দ্রুতগতিতে কাজ করতে পারে। কিন্তু অনেকেই প্রশ্ন করে থাকেন হার্ডডিক্সের মতো SSD কি দীর্ঘস্থায়ী হয়?

সাধারণ ভাবে বলতে গেলে আপনি যদি দীর্ঘস্থায়ী বা স্থায়ীত্বতা চান তাহলে হার্ডডিক্সে আপনাকে ফিরে যেতে হবে, অন্যদিকে আপনি যদি দ্রুতগতি চান তাহলে SSD বা সলিড স্টেট ড্রাইভ আপনাকে ব্যবহার করতে হবে। আর দ্রুতগতির সাথে সাথে দামের ব্যাপারটিও মাথায় রাখতে হবে। কারণ ১ টেরাবাইটের হার্ডডিক্সের থেকে একটি ১ টেরাবাইট সলিড স্টেট এর দাম তুলনামুলকভাবে অনেক বেশি!

তবে সলিড স্টেট ড্রাইভ কিন্তু মাকের্টে নতুন নয়! বেশ কয়েকবছর ধরেই বাজারে HDD এর পাশাপাশি আমরা SSD দেখতে পাচ্ছি আর এ কয়েক বছরে SSDগুলোতে বেশ আপগ্রেড এসেছে। সলিড স্টেট ড্রাইভগুলো একেবাইরেই টেকসহ নয় এটা ভাবা উচিত নয়। কেন? আজ আমি সে ব্যাপারেই কিছু কথা বলতে এসেছি।

কিন্তু একটা কথা মনে রাখতে হবে; ব্যবহারের বয়সের ভিক্তিকে সলিড স্টেটের থেকে হার্ডডিক্স এখনো বেশি টেকসই হয়। মানে একটি হার্ডডিক্স ৫ বছর ধরে টানা ব্যবহারের পরেও আপনি স্পিড এবং টেকসইয়ের দিক থেকে তেমন কোনো ইস্যু পাবেন না কিন্তু অন্যদিকে SSDতে বছরখানেক ব্যবহারের পরেই বিভিন্ন ইস্যুর সম্মুখিন আপনাকে হতে হবে।

সলিড স্টেট ড্রাইভের স্থায়ীত্ব নিয়ে বিস্তারিত কিছু বলার আগে SSD এর কিছু টেকনিক্যাল টার্ম সম্পর্কে আপনাদের জানা উচিত। এগুলো হচ্ছে:

MLC এবং SLC

বাজারে দুধরণের সলিড স্টেট ড্রাইভ পাওয়া যায়। MLC বা Multi-Level Cell মেমোরিযুক্ত সলিড স্টেটগুলো অপেক্ষাকৃত কম মূল্যের হয়ে থাকে এবং এগুলোর গতিও একটু স্লো হয়ে থাকে। বাজারে কনজিউমার বা ভোক্তা পর্যায়ে এই MLC ধাঁচের সলিড স্ট্রেট ড্রাইভগুলো বেশি বিক্রি হয়ে থাকে। অন্যদিকে SLC বা Single-Level Cell মেমোরি ধাঁচের সলিড স্টেট ড্রাইভগুলো MLC এর থেকে তুলনামূলকভাবে বেশি দ্রুতগতির হয়ে থাকে এবং টেকনিক্যাল ভাষায় এগুলো বেশি টেকসই হয়ে থাকে। কিন্তু SLC ধাঁচের সলিড স্টেট ড্রাইভগুলো বাজারে এন্টারপ্রাইজ পর্যায়ে বিক্রি হয়ে থাকে।

Memory Block

একটি ফ্ল্যাশ ড্রাইভের ফিজিক্যাল মেমোরির নির্দিষ্ট অংশকে মেমোরি ব্লক বলা হয়। একটি “Bad Block” অংশে আপনি প্রবেশ করতে পারবেন না মানে সেখানে কোনো প্রকার ডাটা স্টোর করতে পারবেন না। এই bad block বা bad sector যত বেশি হতে থাকবে আপনার ফ্ল্যাশ ড্রাইভের টোটাল স্টোরেজ ক্ষমতা ধীরে ধীরে কমতে থাকবে এবং ফাইল ও সফটওয়্যারে বিভিন্ন ধরণের read, write এরর দেখা দিবে।

TBW

TBW হচ্ছে Terabytes Written এর শর্টফর্ম। একটি ফ্ল্যাশ ড্রাইভের লাইফটাইমে এটাতে কত পরিমাণের ডাটা write এবং re-write করা হয়েছে তার পরিমাণকে TBW বলা হয়, উল্লেখ্য যে পরিমাণকে টেরাবাইটে ধরা হয়েছে।

সলিড স্টেট ড্রাইভের টেকনিক্যাল টার্মগুলো দেখার পর এবার চলে যাই মূল কথায়।

সলিড স্টেট ড্রাইভের স্থায়ীত্ব

সলিড স্টেট ড্রাইভের নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলো একটি SSD এর স্থায়ীত্ব রেটিং করে থাকে মূলত তিনটি বিষয়ের উপর নির্ভর করে। এগুলো হচ্ছে স্ট্যান্ডার্ড লাইফ (মূল ওয়ারেটিং), স্ট্যান্ডার্ড লাইফটাইমে টোটাল টেরাবাইট ব্যবহারের সংখ্যা এবং নির্দিষ্ট সময়ে (যেমন একদিনে) ড্রাইভে নির্দিষ্ট পরিমান ডাটা ব্যবহারের সংখ্যা। এই তিন ক্ষেত্রে রেজাল্ট অবশ্যই ভিন্ন হবে। আর এই তিনটির রেজাল্টের উপর ভিক্তি করেই SSD নির্মাতা কোম্পানিগুলো একটি সলিড স্টেট ড্রাইভের স্থায়ীত্বের উপর রেটিং দিয়ে থাকেন।

তবে একটি SSD এর সঠিক লাইফটাইম অনুমান করা প্রায় অসম্ভব একটি ব্যাপার, তবে আপনি নির্মাতা কোম্পানির দেওয়া এই সকল রেটিংয়ের উপর ভরসা রাখতে পারেন।

সাম্প্রতিক সময়ে SSD এর লাইফটাইমের উপর বিভিন্ন গবেষণা চলানো হয়েছে। তাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য তিনটি গবেষণার রেজাল্ট আমি নিচে দিয়ে দিচ্ছি:

১) গুগল এবং University of Toronto এর যৌথ উদ্যোগে ডাটা সার্ভারে ফ্ল্যাশ ড্রাইভের ফেইলিং বিষয়টির উপর একটি গবেষণা চালানো হয়েছিলো।  ৪ বছর ধরে চালানো এই গবেষণার ফলাফলে দেখা গিয়েছে যে সলিড স্টেট ড্রাইভের data retention এররগুলোর জন্য একটি SSD এর উপর দৈন্যদিন ডাটা ব্যবহারের চেয়ে তার বয়স বেশি প্রভাব ফেলে। মানে হচ্ছে, আপনি প্রতিদিন যে পরিমাণেরই ডাটা আপনার SSD তে কপি পেস্ট বা ইনপুট / আউটপুট করেন না কেন সেটার থেকে data retention এররের জন্য আপনার SSD এর বয়স বেশি দায়ী থাকবে। আরো সহজ ভাষায় বলা যায় “পুরোনো SSD ড্রাইভে বেশি ডাটা এরর পাবেন আপনি”।

এই গবেষণাটি গুগলের ডাটা সেন্টারে চালানো হয়েছিলো। সেখানে খুবই দ্রুত গতির ডাটা টান্সফার সিস্টেম এবং ড্রাইভগুলোর জন্য  হাই ট্রেস (high-stress) ব্যবস্থা রয়েছে। গবেষণায় আরো দেখা গিয়েছে যে ৪ বছরে মাত্র একবার SSD ড্রাইভগুলোকে চেঞ্জ করতে হয়েছে এবং অন্যদিকে সাধারণত হার্ডডিক্সগুলোকে প্রতি বছরেই পরিবর্তন করতে হয়েছে। আর হার্ডডিক্সের থেকে SSD তে bad block  বেশি এসেছে।

পরিশিষ্ট: এই গবেষণায় প্রমানিত হয়েছে high-stress এবং fast-read পরিবেশে একটি সাধারণ হার্ডডিক্সের চাইতে একটি SSD বেশি টেকসই হবে। তবে HDD এর চাইতে SSD তে উলেখযোগ্য পরিমাণে বেশি Bad Block চলে আসে।

২) Tech Report’s ডাটা ব্যবহারের উপর SSD এর স্থায়ীত্ব নিয়ে একটি গবেষণা চালিয়েছে। তারা ছয়টি SSD ব্রান্ডের উপর ১০০০ টেরাবাইট ( ১ পেটাবাইট) ডাটা রাইটিং নিয়ে গবেষণাটি চালিয়েছিলো। তাদের গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে, ছয়টি ব্রান্ডের মধ্যে শুধুমাত্র Samsung, Kingston এবং Corsair এর হাই এন্ড ড্রাইভগুলো ১ পেটটাবাইট রাইটিং টেস্টের পরেও “ওয়ার্কিং” কন্ডিশনে রয়েছে। অনান্য ড্রাইভগুলো ৭০০ এবং ৯০০ TBW  এর মধ্যেই নস্ট হয়ে গিয়েছিলো। নস্ট হয়ে যাওয়া ড্রাইভগুলোর মধ্যে দুটি ড্রাইভ ছিলো Samsung এবং Intel এর, এবং এই ড্রাইভগুলো MLC স্ট্যান্ডার্ডে বানানো হয়েছিলো।

পরিশিষ্ট: এই গবেষণায় প্রমাণ হয়েছে যে কম স্টোরেজের SSD এর থেকে বেশি স্টোরেজের SSD গুলো ডাটা ব্যবহারের ক্ষেত্রে বেশি টেকসই হয়। একটি ২৫০ গিগাবাইটের MLC স্ট্যান্ডার্ডের Samsung সলিড স্টেট ড্রাইভ গবেষণায় 900 TBW তে নস্ট হয়ে গিয়েছিলো, অন্যদিকে একই ব্রান্ডের SLC স্ট্যান্ডার্ডের ১ টেরাবাইট সলিড স্টেট ড্রাইভটি 3.6 Petabytes রাইটিংয়ে গিয়ে নস্ট হয়ে যায়।

৩) ফেসবুক তাদের করপোরেট ডাটা সেন্টারে SSD এর স্থায়ীত্ব নিয়ে একটি ইন্টারনাল গবেষণা চালিয়েছে। গবেষণায় দেখা যায় যে, SSD রেটিং যা-ই দেওয়া থাকুক না কেন; ড্রাইভটির ব্যবহারের পরিবেশ ড্রাইভটির স্থায়ীত্বের উপর বেশ প্রভাব ফেলে থাকে। যেমন আপনি যদি বেশ গরম বা হিটওয়ালা পরিবেশে SSD ব্যবহার করেন তাহলে বেশি হিট বা গরমের কারণে একটি সলিড স্টেট ড্রাইভের স্থায়ীত্ব ধীরে ধীরে কমতে থাকবে। মানে অপেক্ষাকৃত ঠান্ডা পরিবেশে SSD গুলো বেশি স্থায়ী হয়ে থাকে। এছাড়াও গুগলের গবেষণার মতোই এখানেও দেখা যায় যে, অতিরিক্ত পরিমাণের ডাটা write এবং read এর প্রভাব সরাসরি একটি সলিড স্টেট ড্রাইভের স্থায়ীত্বের উপর পড়ে।

তো কি বোঝা গেল?

তো পরিশেষে কি বলা যায়? উপরের তিনটি গবেষণার ফলাফলগুলো যদি আপনি বিশ্লেষণ করেন তাহলে দেখা যায় যে আপনার বর্তমানে নতুন কেনা SSD টি শান্তিমত মাত্র ১ বা ২ বছর ব্যবহার করতে পারবেন! কিন্তু ভয় পাবার কিছুই নেই। কারণ এই গবেষণাগুলো এন্টারপ্রাইজ স্ট্যান্ডার্ডে চালানো হয়েছে। আমাদের মতো সাধারণ মানুষ বা কনজিউমার স্ট্যান্ডার্ডে এই গবেষণাগুলোর ফলাফল ভিন্ন হবে।

১ পেটাবাইট রাইটিং ডাটার পরিমাণে যেতে হলে আপনার বা আমার মতো সাধারণ ইউজারদের প্রায় এক যুগের বেশি সময় ধরে টানা কম্পিউটারকে ব্যবহার করা লাগবে! কি বলেন ভাই! ১ পেটাবাইট মানে ১০০০ টেরাবাইট! যারা প্রোফেশনাল গেমার বা পাওয়ার ইউজার বা হেভি ইউজার রয়েছেন তারাও একটি SSD এর ওয়ারেন্টি টাইমের মধ্যে এই ম্যাক্সিমাম ডাটা ইউজেস পর্যায়ে যেতে পারবেন না! একটি SSD এর ওয়ারেন্টি সময় থাকে ২ থেকে ৩ বছর। এখন ৩ বছরের মধ্যে আপনি ১ পেটাবাইট ডাটা সলিড স্ট্রেট ড্রাইভে ব্যবহার করতে পারবেন?

যত কথাই বলি না কেন SSD বা সলিড স্টেট ড্রাইভও হচ্ছে একটি ইলেক্ট্রনিক জিনিস। আর অনান্য ইলেক্ট্রনিক জিনিসের মতোই SSD ও যেকোনো সময়ই নস্ট হয়ে যেতে পারে। তবে যথাযথ ব্যবহার করতে পারলে একটি ভালো কোয়ালিটির SSD কে আপনি বেশ ভালোভাবেই ব্যবহার করার সুযোগ পাবেন। তবে সুযোগের সৎ ব্যবহার করা উত্তম; তাই সম্ভব হলে আপনার গুরুত্বপূর্ণ ডাটাগুলো একটি HDD (হার্ডডিক্স) এবং পারলে ক্লাউড স্টোরেজে নিয়মিত ব্যাকআপ রাখুন।

 

Avatar
Fahad is a freelance games journalist who, while not spending every waking minute selling himself to websites around the world, spends his free time writing. Most of it makes no sense, but when it does, he treats each article as if it were his Magnum Opus - with varying results.