28 C
Dhaka
Saturday, July 13, 2024

Story of a gaming earbud: ASUS ROG CETRA // ANC GAMING HEADPHONES

- Advertisement -

আসুস রগ বা আর ও জি সিত্রা ভদ্র ভাষায় Asus ROG Cetra. ট্রু ওয়ারলেস গেমিং এয়ারবাড। গান শোনা বা গেম খেলার জন্য এই ধরনের ওয়ারলেস এয়ারবাডস এর কন বিকল্প নেই। বিশেষ করে তার নিয়ে টানা হেছরা এবং জিলাপির পেচের মত সমস্ত ঝামেলা দুর করে ওয়ারলেস এয়ারবাডস।Asus ROG Cetra এর বিকল্প কিছুই নয়। লও লেটেনছি, অ্যাক্টিভ নইস কেঞ্ছেলিং, লং লাইফ ব্যাটারি, ওয়ারলেস চারজিং, টাচ কন্ট্রোল, ওয়াটার রেসিস্টেন্স সহ অস্থির সব ফিচারস নিয়েই তৈরি Asus ROG Cetra।টেক জগতে Asus এর মত বিশাল এক ব্রান্ড এর এই প্রোডাক্ট এর দাম পরবে 99$ বা ৯,৯৯৯৳।

- Advertisement -

ব্যেক্তিগত ব্যাবহার আর গবেষণাঃ

বেশ প্রিমিয়াম একটা প্যাকেজিং এ আসে এই প্রোডাক্ট টি ।খোলার পরে প্রথমেই চোখে পড়বে cetra wireless earbud ।ফোম প্যাড টি সরিয়ে ফেললে ভিতরে পাবেন ২ টি এক্সট্রা ডিফারেন্ট সাইজ এর এয়ারটিপস, একটি rog লোগো ওয়ালা টাইপ সি ক্যাবল এবং ইউজার মানুয়াল বুক।

- Advertisement -

Package contents

এয়ারবাডস এ আগে থেকেই মডিয়াম সাইজ এর এয়ারটিপ লাগানো আছে যা কম বেশি সবারি কানে বেশ ভাল ফিট দেয়। বেশ প্রিমিয়াম লুকিং এবং আরজিবি একটি কেসের মধ্যে আসা এই ইয়ার বার্থটিতে বাইরে ফিটফাট হলেও ভিতরে সদরঘাট এরকম একটি অভিজ্ঞতা প্রকাশ পায়।

 

- Advertisement -

 

এয়ারবাডস টিতে ব্যবহার করা হয়েছে Neodymium 10mm magnetic driver. যা মুলত সবথেকে পাওারফুল ছোট মেগ্নেটিক অডীও ড্রিভার । ছোট চেম্বার এ বেশ পাওারফুল সাউন্ড অউটপুট দিতে সক্ষম এটি। তবে আসলেই কি এরিখানে সঠিক অউটপুট টি দিতে সক্ষম তারা?

 

 

প্রায় এক থেকে দুই মাস ব্যবহারের পরে যা বোঝা গেল যে এই EARBUDS যেরকম সাউন্ড আউটপুট এই দামের ভিতরে আশা করা যায় সেইরকম আউটপুট দিতে মোটেও সক্ষম নয় । নরমাল ভলিউমে বেশ ভালোই পানচি বেস এবং হাই নোট প্রোভাইড করছিল কিন্তু ভলিউম বাড়ানোর সাথে সাথে কেমন যেন সব ডিটেলস গুলা হারাতে শুরু করে, এটা হোক সে গান এবং গেমিং এর ক্ষেত্রে।

 

 

EARBUD টি  টাচ সেনসিটিভ । অর্থাৎ টাচের মাধ্যমে আপনারা গান প্লে পস করতে পারবেন এবং সেই সাথে সাথে এইখানে তিনটি স্টেপের নয়েস ক্যান্সেল্যাশন রয়েছে, হাই নয়স ক্যান্সোলেশ্‌  লো নাইস ক্যান্সলেশন এবং এমবিএান্ড সাউন্ড অপশন রয়েছে l এবং রয়েছে গেমিং মোড। যেগুলা প্রত্যেকটার ইন্ডিভিজুয়াল টাচ এর মাধ্যমে আপনারা এক্টিভেট করতে পারবেন এবং এক্টিভেট হওয়ার সাথে সাথে একটি ফিমেল ভয়েস আপনাদেরকে জানিয়ে দেবে কখন কোন মোড টি  আপনারা ব্যবহার করছেন। গানের কোয়ালিটি থেকে এই ফিমেল ভয়েজের সাউন্ড কোয়ালিটিটা ছিল আরো বেশি সুন্দর। 

এটাতে ব্যবহার করা হয়েছে ব্লুটুথ ৫.০ ভার্সন অর্থাৎ ব্লুটুথ এনাবল যেকোনো ডিভাইসে  আপনারা কানেক্ট করতে পারবেন। এটাতে মাইক্রোফোন হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে অমনি ডিরেকশনার মাইক্রোফোন তবে এই মাইক্রোফোন টা কে নিয়ে বেশ বিতর্ক চলছে এদের কমিউনিটি গ্রুপগুলোতে l

 

 

এই এয়ারবাড টি যদি আইফোনে কানেক্ট করেন তবে এখানে কোন পপ আপ নোটিফিকেশন পাবেন না তবে অ্যান্ড্রয়েডে কানেক্ট করার ক্ষেত্রে একটি সুন্দর পপ আপ নোটিফিকেশন আসেl

এয়ারবাড টিতে রয়েছে একটি সফটওয়্যার সাপোর্ট এর নাম হচ্ছে ASUS ARMORY CRATE । এই ASUS ARMORY CRATE  সফটওয়্যার দিয়ে আপনারা এয়ারবাড এর ব্যাটারি হেলথ দেখতে পারবেনত, বিভিন্ন ধরনের EQ টিউন করতে পারবেন এবং সেই সাথে সাথে এটা সফটওয়্যার আপডেট করতে পারবে । 

 এখন এইখানে মূল সমস্যা শুরু, সফটওয়্যার আপডেট দেওয়ার আগ পর্যন্ত এর মাইক্রোফোন বেশ ভালোভাবে কাজ করছিল কিন্তু সফটওয়্যার আপডেট দেওয়ার পরে এর মাইক্রোফোনটা অচল হয়ে পড়ে অর্থাৎ এর মাইক্রোফোন থেকে কোন ধরনের ভয়েস আউটপুট আর পাওয়া যাচ্ছিলনা।

এই এয়ারবাড টিতে রয়েছে একটিভ নয়েস ক্যান্সিলেশন এবং একটিভ নয়স ক্যান্সলেশন অন করা থাকা অবস্থায় কেসসহ এটা 4.5 + 17 hours (ANC On) ব্যাকআপ পাচ্ছেন, এএনসি অফ করা অবস্থায় সাড়ে 5.5 + 21.5 hours (ANC Off)  ব্যাকআপ পাচ্ছেন । 

 

 

এয়ারবাডস এর এই কেসের আকর্ষণ হচ্ছে এর আরজিবি কালার প্রোফাইল এয়ারবাডসটি অন করতে asus rog এর লোগো সহ একটি আরজিবি কালারফুল লোগো আপনারা দেখতে পারবেন । এখানে লোগোটি হচ্ছে মূলত ডট করা একটি লোগো।  কেস টি খোলার সাথে সাথে আরজিবি ফ্লো একটি কালার প্রোফাইল এটাতে অটোমেটিক একটিভেট হয়ে যায় এবং সবথেকে মজার বিষয় হচ্ছে এই কেসটি হচ্ছে ওয়ারলেস চার্জিং সাপোর্টেড অর্থাৎ আপনারা এইটাতে যে কোন ওয়ারলেস চার্জিং স্টেশন অথবা ডকে চার্জ দিতে পারবে যা মূলত একটি ভাল ফিচার হিসেবে আমরা এখানে দেখছি । 

এখানে রয়েছে গেমিং মোড যে গেমিং মোড অন করার মাধ্যমে লো লেটেন্সি ওয়ারলেস অডিও ট্রান্সমিশনটি একটিভেট হয়ে যায়।  তবে গেমিং এর ক্ষেত্রে এটার আহামরি এবং গান শোনার ক্ষেত্রে তেমন কোন পার্থক্য আমরা খুঁজে পাই নাই।

 

 

এছাড়াও ডিভাইসটিতে রয়েছে ওয়াটার রেসিস্টেন্স । IPX4 splash-proof water resistance প্রটেকশন এখানে এড করা হয়েছে । তবে এইটার ক্ষেত্রে বলা যায় যে যদি আপনারা সুইমিংয়ে  এটি ব্যবহার করে থাকেন একটু সাবধান থাকবেন । কারণ সুইমিং এর ক্ষেত্রে কিন্তু আপনারা যত পানির নিচে যাবেন তত পানির চাপ  বাড়তে থাকবে সেই ক্ষেত্রে এতে পানি ঢুকার চান্স বেরে যায়।

এখন ঠিক এইখানেই ঘটনাটি ঘুরে দারায়। মোবাইল ফোন এ টেস্টিং এর সময় ব্যবহার করা হয় iPhone XR. তবে প্রোডাক্টটির পূর্ণ ক্ষমতা প্রকাশ পায় যখন এটাকে একটি আসুস মাদারবোর্ড এর সাথে ব্লুটুথে কানেক্ট করা হয়। কানেক্ট করার পর ওই একই asus armory crate সফটওয়্যার ব্যবহার করার মাধ্যমে প্রোডাক্টের পূণ্য ক্ষমতা অর্থাৎ প্রত্যেকটি নয়েজ ফ্রিকুয়েন্সি বেশ স্পষ্ট ভাবে বোঝা যাচ্ছিল সাউন্ড কোয়ালিটি একেবারে অতুলনীয় ছিল। এই ক্ষেত্রে এটা প্রমাণ হতে পারে যে প্রোডাক্টটির ফুল পোটেনশিয়াল পেতে হলে ব্যবহার করতে হবে asus এরই কোন একটি পণ্য। প্রোডাক্টিনের সম্পূর্ণ টেস্টিং আমাদের স্টুডিওতে থাকা পিসি এবং মোবাইল ব্যবহার করে করা হয়েছে।

এখন প্রশ্ন হতে পারে যে ১০ হাজার টাকা খরচ করে এই জিনিসটা নেওয়া উচিত কিনা ?এখন এই প্রাইজওয়াইজ বাজারে অন্যান্য আরো অনেক ভালো ভালো কোম্পানির অনেক ধরনের এয়ারবাডস  আপনারা পেয়ে যাবেন যেগুলার বিলড কোয়ালিটি থেকে শুরু করে এবং সাউন্ড কোয়ালিটি এর থেকে হাজারগুণ অনেক বেশি ভালো পেয়ে থাকবেন। টাকা আপনার এবং সিদ্ধান্ত ও আপনার।

- Advertisement -

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here