সাড়ে ৫ হাজার মেগাহার্টজ র‍্যাম এবং আরো অনেক কিছু! ADATA At Computex 2018

    96

    World’s Fastest Ram And More At ADATA Computex Booth!

    মেমোরি এবং স্টোরেজের দুনিয়ায় ADATA একটি অতি পরিচিত নাম। আমাদের অনেকের কাছেই ADATA এর ফ্ল্যাশ ড্রাইভ, র‍্যাম বা এস এস ডি রয়েছে। এবার কম্পিউটেক্স ২০১৮ তে ADATA শো কেইস করছে তাদের নতুন ওয়াটার কুল্ড র‍্যাম, গেমিং র‍্যাম, গেমিং হেডসেট এবং আরজিবি পিসিআই এস এস ডি। এছাড়াও তাদের বুথে ছিল দুনিয়ার বিভিন্ন প্রফেশনাল এবং বিখ্যাত মডারদের তৈরি করা কম্পিউটার মড। এডাটার রেপ্রেজেন্টেটিভ জনাব রাস্টি সায়ো (শেষ নামটা আসলে কি তা ভাল করে জানা হয় নি) কে স্পেশালি ধন্যবাদ দেব পিসি বিল্ডার বাংলাদেশকে সময় দেবার জন্য এবং তাদের প্রোডাক্ট সম্পর্কে আমাদের জানানোর জন্য।

    ADATA Breaks World Record! Over 5.5 GHz DDR4 Ram Speed

    কিছুদিন আগেই আমরা একটা প্রতিবেদন করেছিলাম যে এডাটা বিশ্বে প্রথমবারের মত তৈরি করেছে লিকুইড কুল্ড আরজিবি মেমোরি বা র‍্যাম কিট। তখন কিছুটা প্রোটোটাইপ হিসবে শো করা হলেও কম্পিউটেক্সে আমরা ফুলফিল বিল্ট মেমোরি কিট দেখতে পাই। XPG Spectrix নামের এই র‍্যাম কিটের সাধারণ স্পীড ছিল প্রায় ৪৪০০ মেগাহার্টজ (এক্সএমপি ওসি)। কিন্তু আরো কিছু ম্যানুয়ালি ওভারক্লক করে এই স্পীডকে নিয়ে যাওয়া হয় ৫৫৩১ মেগাহার্টজে। এই স্পীড আগের কোন কোম্পানির র‍্যামে এচিভ করা সম্ভব হয় নি। তাই অফিসিয়ালি সবচেয়ে বেশি স্পীডের র‍্যাম কিটের বিশ্ব রেকর্ড এখন এডাটার আন্ডারেই হল।

    এই র‍্যামের টপে আপনারা খেয়াল করলে দেখতে পাবেন একটি লিকুইড চেম্বার রয়েছে যার মধ্যে আর জি বি লাইটিং ইন্টিগ্রেড করা আছে। এই চেম্বারেই রয়েছে হাই প্রোফাইল লিকুইড যা র‍্যামের সাথে কন্ট্যাক্ট করে হিটকে নিজের মধ্যে নিয়ে আসে এবং তা পরে বাতাসে ছড়িয়ে দেয়। এডাটার এই র‍্যাম এর প্রথম রিলিজ সম্পর্কে জানতে চাইলে এর প্রতিবেদনটি পড়ে আসতে পারেন এখান থেকে

    ADATA’s New XPG Non RGB Ram

    সবার আবার আর জি বি লাইটিং পছন্দ নয়। কেউ কেউ কোন প্রকারের লাইটিং ছাড়াই স্টেলথ বা নীরব ধরণের কম্পিউটার বিল্ড করতে চান। তা সেটা হোক গেমিং এর জন্য বা প্রফেশনাল কাজের জন্য। তাই যাদের শো অফ একদমই পছন্দ নয় কিন্তু পারফর্মেন্সে একটুও ছাড় দিতে পারবেন না তাদের জন্য ADATA নিয়ে এসছে নতুন র‍্যাম সিরিজ GAMMIX D50।

    কম্পিউটেক্সে কেবল নীল রঙের কিট শো কেইস করা হলেও জানা গিয়েছে আরো বিভিন্ন রঙ্গে আসতে পারে এই র‍্যাম সিরিজ। ২৪০০ মেগাহার্টজ থেকে শুরু করে ৩৬০০ মেগাহার্টজ স্পীডের কিটে এই র‍্যাম সিরিজ পাওয়া যাবে।

    XPG RGB SSD

    সব কিছুতেই এখন আরজিবি লাইটিঙের ছোয়া লেগে যাচ্ছে আস্তে আস্তে। ইন উইনের আর জি বি পিএসইউ কেবল পর্যন্ত আমরা এখন বাজারে দেখতে যাচ্ছি। তবে টিম গ্রুপের পর আমরা ADATA এর পক্ষ থেকে দেখতে যাচ্ছি আর জি বি এস এস ডি।

    টীম গ্রুপ তাদের নতুন সাটা আর জি বি এসএসডি আনলেও এডাটা এনেছে পিসিআই এক্সপ্রেস এস এস ডি। এর আগে তাদের এম ডট ২ আরজিবি এস এস ডি হিটসিঙ্ক বের হলেও এই প্রথম তারা ফুল আর জি বি এসএসডি মার্কেটে আনতে যাচ্ছে।

    New 200$ XPG Gaming Headset

    প্রায় সব কোম্পানিই এখন গেমিং পেরিফেরালসের মার্কেটে ঢুকতে চাচ্ছে। এডাটাও এখন আর অন্য কোম্পানিদের থেকে পিছিয়ে নেই। তবে গেমিং কীবোর্ড আর মাউসের উপর এক্সপেরিমেন্ট না করে এডাটার কাছ থেকে আমরা পেতে যাচ্ছি একটি ২০০ ইউএস ডলারের প্রিমিয়াম গেমিং হেডসেট এবং এমপ্লিফায়ারের কম্বো XPG EMIX H30 + SOLOX F30। অর্থাৎ গেমিং হেডসেটের পাশাপাশি আপনারা একটি গেমিং সাউন্ডের এমপ্লিফায়ার ডকও পেয়ে যাচ্ছেন, যা সাধারণত ২০০ ডলারের প্রাইস ট্যাগের কোন কিছুটা দেখা যায় না।

    M.A Rakib With The Headset

    অন্যান্য গেমিং হেডসেটের জন্য সাধারণত আমাদের সফটওয়্যার নির্ভর হতে হয়। যেহেতু দুটি স্পীকার থাকে প্রায় সব হেডসেটেই, তাই সফটওয়্যার দিয়ে ভার্চুয়াল ৭.১ সারাউন্ড সাউন্ড কাস্টোমাইজ করে নিতে হয়। কিন্তু এই কম্বোর ডক সারাউন্ড সাউন্ডকে করেছে হার্ডওয়্যার এক্সেলারেটেড। অর্থাৎ তেমন হার্ডকোর কাস্টমাইজের ঝামেলা নেই। ডকের কারণে আপনার কানে আসবে স্পস্ট এবং পরিস্কার সাউন্ড আর সারাউন্ড সাউন্ডও হবে একেবারে একুরেট। অর্থাৎ কোন দিক থেকে সাউন্ড আসছে তা আপনি স্পস্টই বুঝতে পারবেন।

    The Amplifier Dock

    আন্তর্জাতিক বাজারে ২০০ ডলার হলেও বাংলাদেশে এই গেমিং হেডসেট কম্বোর দাম ধারনা করা হচ্ছে প্রায় ১৯ হাজার টাকার মত। তবে তা বলা যাবে বাজারে আসার পর। এই গেমিং হেডসেট কম্বো নিয়ে আশা করা যাচ্ছে পিসি বিল্ডার বাংলাদেশ একটি রিভিউ দিতে পারবে।

    Custom Computer Mod Area

    ADATA এর কম্পিউটেক্স স্টলের প্রায় বেশির ভাগ স্টল জুড়েই ছিল কাস্টম কম্পিউটার মড এবং বিল্ড। এডাটা বিভিন্ন কেস, কুলার, মডার এবং হার্ডওয়্যার কোম্পানির সাথে ডিল করে এই কাস্টম কম্পিউটারগুলো বানিয়ে শো কেইস করে। প্রতিটি কম্পিউটারেই ছিল এডাটার নিজস্ব আরজিবি র‍্যাম আর এসএসডি। এডাটার রেপ্রেজেন্টেটিভদের ধন্যবাদ দেব আমাদেরকে ঘুরিয়ে মডগুলো দেখানোর জন্য।