30 C
Dhaka
Wednesday, June 16, 2021

আলাপ রিভিউ: কম খরচে কথা বলার সরকারি অ্যাপ

- Advertisement -asus motherboards

স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে বাংলাদেশ টেলিকমিনিউকেশন লিমিটেড বা বিটিসিএলের পক্ষ থেকে একটি আইপি কলিং অ্যাপ বাজারে আনা হয়েছে। আইপি কলিং অ্যাপ বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে এই অ্যাপ একদম নতুন কিছু না। বেশ আগে থেকে ব্রিলিয়ায়ন্ট/এম্বার আইটির নিজস্ব আইপি কলিং অ্যাপ বাজারে আছে। মার্চের ২৫ তারিখ থেকে এই অ্যাপ প্লেস্টোর ও অ্যাপ স্টোরে পাওয়া যাচ্ছে। এই কয়েকদিন ব্যবহারের এই অ্যাপের খুঁটিনাটি ও বর্তমানে অন্যতম জনপ্রিয় আইপি কলিং অ্যাপ brilliant Connect অ্যাপের সাথে তুলনাসহ বিস্তারিত তুলে ধরার জন্যই আজকের রিভিউ আর্টিকেল-

আইপি কলিং অ্যাপ কিভাবে কাজ করে বা টার্মিনালোজিগুলো নিয়ে টেকনিক্যালি আলোচনা করব না কিন্তু এতটুকু জানিয়ে রাখি যে, আইপি কলিং অ্যাপ ব্যবহার করে ইন্টারনেটের মাধ্যমে কল করা যায়। এইখানে অনেকের একটা প্রশ্ন থেকে যায় সেটি হচ্ছে, ইন্টারনেটে ব্যবহার করে তো আমরা ওয়াটসঅ্যাপ/মেসেঞ্জার দিয়েই কথা বলতে পারি। তাহলে ইন্টারনেট+প্রতি মিনিটে চার্জ খরচ করে কেন এইসব অ্যাপ ব্যবহার করব? উত্তর অনেকেই জানেন। যারা জানেন তাঁদের জন্য, আইপি কলিং অ্যাপ দিয়ে আপনার ইন্টারনেট বাধ্যবাধকতা হলেও যাকে কল দিবেন তার জন্য এটি বাধ্যতামূলক না। তাই বাটন ফোন ব্যবহারকারী এমনকি ল্যান্ডফোনেও কথা বলা যাবে। এছাড়াও আইপি ফোনে আরো একটি সুবিধা রয়েছে সেটি হচ্ছে অন্য আইপি নাম্বার অর্থাৎ ০৯৬ ওয়ালা নাম্বারেও ফ্রিতে কথা বলা যায়। এটি অনেকের জন্য একটি এডভানটেজ কারন আমাদের অনেক সময় বিভিন্ন হেল্পলাইনে কল করতে হয় সেক্ষেত্রে আইপি কলিং অ্যাপ ব্যবহার করলে সাশ্রয়ের সুযোগ রয়েছে।

- Advertisement -

এন্ড্রয়েড অ্যাপ ডাউনলোড লিঙ্কঃ Play Store
আইওএস অ্যাপ ডাউনলোড লিঙ্কঃ App Store

অফিশিয়াল ওয়েসাইট লিঙ্কঃ ALAAP

আলাপ অ্যাপে একাউন্ট খুলতে যা প্রয়োজনঃ

এই অ্যাপটি ব্যবহার করতে হলে অবশ্যই আপনাকে ন্যাশনাল আইডেন্টি কার্ড দিয়ে ভেরিফিকেশন করতে হবে। এই প্রসেসটি তুলনামূলক সহজ এবং দ্রুততর। শুধু আপনাকে My Account থেকে NID Verification এ গিয়ে NID এর দুই সাইডের ছবি স্পষ্টভাবে তুলে দিতে হবে। তারপর NID অনুসারে তথ্য সঠিক কিনা জানতে চাইবে। তারপর ইন্সট্যান্ট একটি সেলফি তুলতে বলা হবে(এই ছবি পাবলিক্যালি শো করা হবে না)। এই কয়েকটি ধাপ পেরুলেই ভেরিফিকেশনের মেসেজ আলাপ অ্যাপের মেসেজ থ্রেডে চলে আসবে। তারপর এই অ্যাপের সকল ফিচার উপভোগ করা যাবে। অনেক সময় প্রথমবারে ভেরিফিকেশন ফেইল্ড হলে আবার চেষ্টা করুন। একটি একাউন্টের জন্য একটি NID কার্ড একবারই ব্যবহার করা যাবে। বলে রাখা ভাল, সরকার থেকে অনুমোদিত সকল আইপি কলিং অ্যাপে ভেরিফিকেশন ছাড়া ব্যবহার করা যায় না সরকারি আইনের কারনে।

- Advertisement -

আলাপ অ্যাপের সুবিধাঃ

১। এই অ্যাপের ইউজার ইন্টারফেস যথেষ্ট স্মুথ ও ফাস্ট। একদম ল্যাগবিহীন ইউআই। ইউজার ইন্টারফেসটি বেশ মিনিমালিস্টিক ও কালারফুল। ব্যবহার করতে একদম ঝামেলা পোহাতে হবে না। অ্যাপে একটি সেকশান রয়েছে যাতে লেটেস্ট নিউজ পাওয়া যাবে যারা খুব বেশি সোশাল মিডিয়াতে এক্টিভ থাকে না তাঁদের জন্য দারুন একটি অপশান হতে পারে।

- Advertisement -

২। এই অ্যাপে কলরেট প্রতি মিনিটে ৩০ পয়সা যা ভ্যাটসহ ৩৪.৫ পয়সা। কিন্তু চার্জ করা হবে প্রতি সেকেন্ড পালসে। অন্যদিকে brilliant Connect এ পিক আওয়ারে(সন্ধ্যা ৬- রাত ১০টা) ৪৫ পয়সা মিনিট। সেই হিসেবে আলাপের চার্জকে  সস্তা বলা যায় এখনও পর্যন্ত। যদিও brilliant Connect এ অনেকদিন পর্যন্ত এই রেইট ছিল কিছুদিন আগে তাঁরা চার্জ বাড়িয়েছিল।

৩। একাউন্ট খুললে ১৫মিনিট টকটাইম পাওয়া যাবে যার মেয়াদ ৩০ দিন। কিন্তু রিচার্জ এমাউন্টের কোনো মেয়াদ নেই। তাছাড়া রেফারেলের মাধ্যমেও আরো ফ্রি ক্রেডিট নেওয়ার সুবিধা রয়েছে। সর্বনিন্ম ১০ টাকা রিচার্জ করা যাবে। বিকাশ, নগদের ছাড়াও বিভিন্ন ব্যাংকের অনলাইন পেমেন্টের সাহায্যে রিচার্জ করা যাবে।

৪। আপনার একাউন্টের জন্য যে আইপি নাম্বারটি দিবে(09696) সেটি আপনার এক্সিজিস্টিং নাম্বারের সাথে মিলিয়ে দেওয়া হতে পারে। আমার ক্ষেত্রে আমি আমার নাম্বারের প্রায় লাস্ট ৬ ডিজিট মিল পেয়েছি। ইউজার বেশি হয়ে গেলে একটা সময় গিয়ে অ্যাপ্লিক্যাবল নাও হতে পারে।

৫। ইউজার টু ইউজার ফ্রিতে অডিও/ভিডিও কল করা যাবে। এমনকি গ্রুপ চ্যাট, অডিও ও ভিডিও কল করা যাবে ওয়াটসঅ্যাপ/মেসেঞ্জারের মত। প্রাইভেসির জন্য এন্ড টু এন্ড এঙ্ক্রিপশন দেওয়া হয়েছে।

 আলাপ অ্যাপের সীমাবদ্ধতাঃ

১। কল রেকর্ডের সুবিধা রয়েছে এই অ্যাপে যা অন্য আইপি কলিং অ্যাপগুলোতে দেখা যায় না। তবে কল রেকর্ডিং এর ক্ষেত্রে একটি বাগ হচ্ছে আলাদাভাবে একটি কল রেকর্ড করা গেলেও পরে তা শোনা যায় না। কিন্তু সেটিংস থেকে সব কল রেকর্ডিং এর অপশান চালু করার পর সব কল রেকর্ড হবে তারপর ঐ রেকর্ড শোনা যায়।

২। ইন্টারন্যাশনাল কল এখন পর্যন্ত সাপোর্ট করে না। ভবিষ্যতে করবে কিনা এই ব্যাপারে কোনো তথ্যা পাওয়া যায়নি। ওয়েব সাইটে কিছু ভয়েস প্যাকের দেখা গেলেও অ্যাপে তা এখনও এভাইলেবল হয়নি।

৩। আপাতত এন্ড্রয়েড ও আইওএসের জন্য অ্যাপ থাকলেও কোনো ধরনের ডেক্সটপ ক্লায়েন্ট বা ওয়েব ইন্ট্রারফেসের সন্ধ্যান পাওয়া যায়নি। তাঁদের অফিশিয়াল ওয়েব সাইটে যদিও ব্রাউজার সাপোর্ট নামে একটি সেকশান রয়েছে তবে বিস্তারিত জানা সম্ভব হয়নি।

৪। আরেকটি ব্যাপার হচ্ছে আইপি কলিং অ্যাপ হিসেবে আলাপ থেকে 096XXX নাম্বারগুলোতে কল যাওয়ার কথা ফ্রিতে কিন্তু আমাদের টেস্টিং পিরিয়ডে আমরা একবারও কানেক্ট করতে পারিনি। অন্যদিকে ব্রিলিয়ান্ট অ্যাপে যা একাউন্টে কোনো টাকা না থাকলেও করা যায়।

মোট কথা এখনও অনেক ফিচার পুরোপুরি উন্মক্ত হয়নি।

কল কোয়ালিটিঃ

মোস্ট ক্রুশিয়লা ফ্যাক্টর হচ্ছে এটি। কারণ কোয়ালিটি খারাপ হলে যতই কলরেট কম দিয়ে সার্ভিস প্রদান করুক মানুষজন ব্যবহার করবে না। কল কোয়ালিটি আমাদের ব্যবহারের সময় একেক সময় একেক রকম ছিল। তবে অফ পিক আওয়ারে কল কোয়ালিটি ভালই ছিল। তেমন ল্যাগ বা ডিলে ছিল না। কল কানেক্ট হতে দেরি হওয়া বা ফেইলড আসার মত তেমন কিছু দেখা যায়নি। বিশেষ করে পিক আওয়ারে কিছুটা সমস্যা অর্থাৎ ডিস্টর্শন লক্ষ্য করা গেছে। আগামি দিন গুলোতে যখন ইউজার আরো বাড়বে তখন সার্ভারের সক্ষমতা না বাড়ালে এই সমস্যা বাড়বে বলে ধারনা করা হচ্ছে। ব্রিলিয়ান্টে অ্যাপেও সন্ধ্যার পর থেকে কল কানেক্ট হতে প্রচুর ঝামেলা করে তাই ইউজাররা ইতিমধ্যে তক্ত বিরক্ত।

- Advertisement -asus graphics card
Kowcher Chy
A tech enthusiast ,amateur photographer and sluggish coder with an Engineering degree to destroy them all.

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here