আজ থেকে মাত্র ৮/৯ বছর আগে এমন এক সময় ছিলো যখন হাই গ্রাফিক্স যুক্ত ভিডিও গেমস খেলতে হলে লাখ টাকার কম্পিউটার বা গেমিং কনসোলের প্রয়োজন হতো। কিন্তু বর্তমানে আপনি ১৫/২০ হাজার টাকার স্মার্টফোনেই চোখ ধাঁধানো হাই গ্রাফিক্স গেমস খেলতে পারছেন! আমি আইফোনের কথা বলছি না, বলছি অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোনগুলোর কথা! বিশেষ করে ৩০ হাজার টাকার মধ্যে শাওমির Poco F1 ডিভাইসে সুপার ডুপার গ্রাফিক্সের ভিডিও গেম আপনি অনায়াসেই খেলতে পারবেন। আর আমি আজ আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছি অ্যান্ড্রয়েড প্লার্টফর্মের সেরা গ্রাফিক্সযুক্ত গেমসগুলোর একটি সংক্ষিপ্ত লিস্ট নিয়ে। আজকের পোষ্টটি পড়ার পর আর আপনাদেরকে প্লেস্টোরে বা অনান্য স্থানে গ্রাফিক্সযুক্ত গেমসগুলোকে খুঁজতে হবে না। তো চলুন ভূমিকায় আর কিছু না বলে দেখে নেই অ্যান্ড্রয়েডে সেরা গ্রাফিক্স যুক্ত গেমসগুলো, উল্লেখ্য যে আজকের গেমসগুলোকে কোনো প্রকার লিস্ট হিসেবে উপস্থাপন করা হচ্ছে না, কারণ নিচের প্রতিটি গেমসই তার নিজস্ব ধরণ, গেমপ্লে এবং গ্রাফিক্সের দিক থেকে সেরা।

Call of Duty: Legends of War

কম্পিউটারে কল অফ ডিউটি বেশ জনপ্রিয় একটি সিরিজ। FPS বা ফাস্ট পারসন শুটার ক্যাটাগরির এই গেমটির মোবাইল সংষ্করণ Call of Duty: Legends of War বর্তমানে বেটা টেস্টিংয়ে রয়েছে, অর্থাৎ খুব শীঘ্রই আমরা পূর্ণাঙ্গ গেমটি পেতে যাচ্ছি। অ্যান্ড্রয়েডের অন্যতম সেরা গ্রাফিক্সের গেম হতে যাচ্ছে এটি। গেমটি নির্মাণ করেছে Activision এবং Tencent Games। মানে পাবজি মোবাইল গেমটির নির্মাতা স্টুডিও Tencent কেও আমরা গেমটিতে পেয়ে যাচ্ছি, তাহলে ধরাই যাচ্ছে কি চমৎকার গেম হতে যাচ্ছে এটি।

PUBG Mobile


এই গেমটি নিয়ে নতুন করে কিছু বলার নেই! কম্পিউটারের পাশাপাশি মোবাইল ডিভাইসেও ব্যাটল রয়্যালের স্বাদ দিতে গেমটি মোবাইল প্লাটফর্মেও রিলিজ করা হয়, আর বাকিটা ইতিহাস! বিশেষ করে সাউথ এশিয়ায় সবথেকে বেশি মোবাইল প্লেয়ার রয়েছে এই গেমটিতে। আর গ্রাফিক্সের দিক থেকেও গেমটি কম যায় না। তবে যারা যারা মিডরেঞ্জ বা লো রেঞ্জ টায়ারের স্মার্টফোন ব্যবহার করেন তাদের জন্য এই গেমটির পূর্ণাঙ্গ গ্রাফিক্স উপভোগ করা সম্ভব হচ্ছে না।

Asphalt 9

আমার ব্যাক্তিগত পছন্দের সেরা স্মার্টফোন রেসিং গেম হচ্ছে এটি। উচ্চমানের চিপসেটযুক্ত ডিভাইস থাকলে গেমটির পূর্ণাঙ্গ গ্রাফিক্সের মজা আপনি উপভোগ করতে পারবেন। স্মার্টফোনে রেসিং গেম যারা পারেন না তাদের জন্যেও গেমটিতে সহজ ড্রাইভিং বা টাচ ড্রাইভিং ফিচার রয়েছে। আর আরেকটি কথা হচ্ছে গেমটি এখন পিসিতে অফিসিয়াল ভাবে উইন্ডোজ ১০ স্টোরেও ফ্রিতে পাওয়া যাচ্ছে। তাই যাদের হাই ফাই স্মার্টফোন নেই তারা গেমটিকে কম্পিউটারেও ইন্সটল করে নিতে পারবেন।

F1 Mobile Racing

আরেকটি হাই গ্রাফিক্স রেসিং গেম হচ্ছে F1 Mobile Racing । যারা অফিসিয়াল রেস ট্রাকে রেস করতে ভালোবাসেন বিশেষ করে F1 গাড়ীগুলোতে তাদের জন্য এই গেমটি বেশ উপভোগ্য হবে। উল্লেখ্য যে গেমটি একটি অফিসিয়াল F1 প্রোডাক্ট!

Fortnite Mobile


পাবজি মোবাইল আসার বেশ কয়েক মাস পর আরেকটি জনপ্রিয় ব্যাটল রয়্যাল গেম ফোর্টনাইট তাদের অ্যান্ড্রয়েড এবং আইওএস সংষ্করণটি লঞ্চ করে। তবে আপনি কিন্তু গুগল প্লে স্টোরে গেমটিকে পাবেন না। তুলনামূলক বাচ্চাদের কাটুর্নভিক্তিক গ্রাফিক্স নিয়েও যে ভিডিও গেম জনপ্রিয় হতে পারে সেটার প্রমাণ হচ্ছে এই গেমটি। তবে এশিয়ার থেকে আমেরিকান অঞ্চলগুলোতে এই গেমটি বেশি জনপ্রিয়।

Critical Ops

স্মার্টফোনের জন্য চমৎকার একটি মাল্টিপ্লেয়ার ফার্স্ট পারসন শুটার গেম হচ্ছে Critical Ops। গেমটি ২০১৫ সালে বেটা সংস্করণ হিসেবে মুক্তি পেলেও প্রায় ৩ বছরের বেশি সময় পর ২০১৮ সালের নম্বেভর মাসে গেমটির পূর্ণাঙ্গ সংস্করণটি মুক্তি পেয়েছে। উল্লেখ্য যে গেমটি কাউন্টার স্ট্রাইক সিরিজের “অনুপ্রেরণা” নিয়েই তৈরি করা হয়েছে। আর ইতিমধ্যেই গেমটির ৩৪ মিলিয়ন কপি ডাউনলোড হয়েছে বলে নিশ্চিত হওয়া গিয়েছে। গেমটিতে দুটি দল নিজেদের মধ্যে চারটি মোডে খেলবে, মোডগুলো হচ্ছে Defuse, Team Deathmatch, Gun Game এবং Ranked Defuse।

Off the Road

অফরোড ওপেন ওয়ার্ল্ড সিমুলেটর গেম হচ্ছে এটি। সমুদ্র এবং পাহাড় ঘেরা অঞ্চলের ৮ ধরণের ভিন্ন গাড়ীতে চড়ে আপনাকে স্থানগুলো ঘুরে দেখতে হবে। আর ওপেন ওয়ার্ল্ড গেমসে গ্রাফিক্স ভালো না থাকলে গেমটি খেলে কোনো মজা পাওয়া যায় না, তাই এই গেমটিতে রয়েছে চমৎকার গ্রাফিক্স। আর শুধুমাত্র গাড়ীই নয়, এই গেমটিতে হেলিকপ্টার এবং স্পিডবোটের চড়তে পারবেন আপনি। টাইম পাস করার জন্য অন্যতম সেরা গেম হচ্ছে এটি।

NBA 2K19


বাস্কেটবল ভিডিও গেম খেলতে যারা ভালোবাসের তাদের জন্য এই গেমটি বেশ ভালো লাগবে। আমেরিকার National Basketball Association এর অফিসিয়াল ভিডিও গেমের স্মার্টফোন সংষ্করণেও বেশ ভালোই গ্রাফিক্স দিয়েছে নির্মাতা স্টুডিও 2K Sports।

Race Kings

আরেকটি চমৎকার গ্রাফিক্সের অনলাইন মাল্টিপ্লেয়ার রেসিং গেম হচ্ছে Race Kings । তবে গেমটি একটি Drift ভিক্তিক গেম তাই যারা সহজ সরল রেসিং গেম ভালোবাসেন তাদের জন্য এই গেমটি নয়। অনলাইনে অনান্য প্লেয়ারদের সাথে রেসিং ছাড়াও গেমটিতে রয়েছে বিভিন্ন ধরণের ইভেন্ট।

Life is Strange: Before the Storm

যারা সিরিজের প্রথম গেমটি খেলেছেন তারা জানেন যে গেমটি কি রকম! গেমটিতে আপনাকে Chloe Price নামের ১৬ বছর বয়সী একটি তরুণীর ভূমিকায় খেলতে হবে। আপনার নেওয়া ডিসিশনের উপরেই গেমটির Ending নির্ভর করবে! উল্লেখ্য যে গেমটি একটি “পর্ব ভিক্তিক” গেম আর মোট ৩টি পর্বের মধ্যে শুধুমাত্র প্রথম পর্বটি ফ্রিতে আপনি খেলতে পারবেন। তাও আবার সম্পূর্ণ নয়, মানে প্রথম পর্বের Demo সংস্করণ ফ্রিতে খেলা যাবে।

Galaxy on fire 3

চমৎকার গ্রাফিক্সের স্পেস শুটার গেম এটি। গেমটিতে রয়েছে বেশ কয়েকটি মিশন, রয়েছে ম্যাপ, শত্রু এবং আপগ্রেড সিস্টেম। তবে যারা সিরিজের আগের গেম দুটি খেলেছেন তাদের কাছে এই গেমটি বেশ সহজ মনে হবে কারণ এই গেমটিকে আরো বেশি Mobile Friendly হিসেবে নির্মাণ করা হয়েছে। স্পেস শুটিং গেমস খেলে যাদের টাইম পাস করেন তাদের জন্য এই গেমটি বেশ চমৎকার হবে।

Assassin’s Creed Rebellion

এসাসিন্স ক্রিড গেম কে-না ভালোবাসে? আর সেই এসাসিন্স ক্রিড সিরিজের আলাদা Mobile Stategy-RPG ধাঁচের গেম হলে তো কথাই নেই! হ্যাঁ, মোবাইলে এসান্সিস ক্রিড ইউনিভার্সের আলাদা টাইপের Stategy-RPG স্বাদ নিয়ে তৈরি করা হয়েছে Assassin’s Creed Rebellion গেমটি। আর মজার ব্যাপার হলো আপনি এই একটি গেমেই Ezio, Aguilar, Shao jun সহ প্রায় ৩০টির বেশি এসাসিন্স ক্যারেক্টটার রয়েছে।

Ark Survival Evolved

এটি একটি বেশ হেভি গ্রাফিক্সযুক্ত একটি গেম। গেমটি খেলার জন্য নুন্যতম ৩ গিগাবাইট র‌্যাম এবং Snapdragon 636 চিপসেটের স্মার্টফোনের প্রয়োজন পড়বে। এটি একটি একশন-এডভেঞ্চার সারভাইবাল ধাঁচের গেম। গেমটিতে আপনাকে ডাইনোসর এবং অনান্য বিপদজনক প্রাণী ও মানুষদের নিয়ে একটি আইল্যান্ডে বেঁচে থাকতে হবে বা সারভাইব করতে হবে। গেমটি সিঙ্গেল এবং মাল্টিপ্লেয়ার উভয় মোডেই খেলা যাবে।

Eisenhorn: Xenos

আরেকটি বেশ হেভি ওয়েট গ্রাফিক্সযুক্ত গেম হচ্ছে Eisenhorn: Xenox । গেমটি কিন্তু আসলে একটি পিসি গেম যেটা পরবর্তীতে স্মার্টফোনেও আনা হয়। এটি একটি থার্ড পারসন সাইন্স ফিকশান একশন এডভেঞ্চার গেম। বিশেষ করে যারা যারা Warhammer 40,000 সিরিজের গেমসগুলো খেলেছেন তাদের কাছে গেমটি বেশ ভালোই লাগবে। উল্লেখ্য যে, ২.৬২ গিগাবাইট সাইজের হেভি ওয়েট গ্রাফিক্সযুক্ত গেম হওয়ায় এটি চালাতে হলে নুন্যতম Snapdragon 660 চিপসেটের স্মার্টফোন আপনার থাকা লাগবে।

GTA San Andreas

কম্পিউটারের পর স্মার্টফোনেও জিটিএ সিরিজের বহুল বিক্রিত গেম হচ্ছে জিটিএ San Andreas! আর গ্রাফিক্সের কথা বলতে গেলে মজার ব্যাপার হচ্ছে গেমটির পিসি সংষ্করণের থেকেও তুলনামূলকভাবে বেশ উন্নতমানের গ্রাফিক্স আপনি এই মোবাইল সংস্করণে পেয়ে যাবেন! গেমটি কোয়াড কোর SoC যুক্ত স্মার্টফোন থেকে খেলা যাবে।

Bullet Battle

অনলাইনে থার্ড পারসন ভিউতে শুটার ভিক্তিক গেম হচ্ছে এই Bullet Battle । গেমটি প্রথমে দেখে আমার কাছে Tom Clancy’s The Division গেমটির মোবাইল সংষ্করণ লেগেছিলো! গেমটিতে আপনি টিম ডেডম্যাচ, ক্যাপচার দ্যা জোন এবং Survive মোডগুলোতে খেলতে পারবেন।

Song of Ruins

একদমই নতুন গেমিং স্টুডিও Mengija Network এর সাব গ্রুপ Day3 এই Independent Game টি তৈরি করেছে, বিশ্বাস করবেন না মাত্র ১১ জন মিলে এই চমৎকার গেমটি নির্মাণ করেছে। গেমটি পিসি সংস্করণেও কাজ চলছে বলে নিশ্চিত হওয়া গিয়েছে। আপনি যদি ভালো গ্রাফিক্সের চমৎকার একশন অ্যান্ড্রয়েড গেম চান তাহলে এই গেমটি একবার ট্রাই করে দেখতে পারেন। গেমটিতে প্রায় ১০টি বেশি প্রকারের গেমপ্লে টাইপ রয়েছে, আরো রয়েছে বিভিন্ন প্রকারের অস্ত্র। আর উল্লেখ্য যে গেমটিকে আপনি বর্তমানে আপাতত প্লে-স্টোরে পাবেন না।

The Day After Tomorrow

গেমটির গ্রাফিক্স দেখে তো আমি পুরোই অবাক! মনে হলো মোবাইলে বসেই আমি Farcry 3 খেলছি! মানে থার্ড পারসন ভিউ মোডে মোবাইলে ফারক্রাই ৩ খেলছি আরকি! The Day After Tomorrow হচ্ছে একটি থ্রিডি একশন এবং সারভাইবাল গেম। জ্বি!আপনাকে গেমটিতে Zombie দের থেকে যুদ্ধ করে বেঁচে থাকতে হবে। আর সেটার জন্য আপনাকে গেমটিতে নিয়মিত আশ্রয়স্থল খুঁজতে হবে, জুম্বিদের বিপক্ষে বিভিন্ন ধরণের ডিফেন্স তৈরি করতে হবে, অনান্য survivors দের সাথে মিলিত হয়ে অসংখ্য creatures দের সাথে যুদ্ধ করতে হবে। আর এই গেমটিও আপনি প্লে-স্টোরে পাবেন না।

NOVA 3

কয়েক বছর পুরোনো গেম হলেও এখনো গেমটির গ্রাফিক্সের কথা বললে বলা যায় “মন্দ নয়!”। গেমটি প্রথম যখন বের হয়েছিলো তখন এটাকে Crysis গেমের মোবাইল সংষ্করণ বলেও আখ্যায়িত করা হয়েছিলো। তবে যারা এখনো গেমটি খেলেননি তারা গেমটি খেলে নিতে পারেন, ফার্স্ট পারসন সাইন্স ফিকশান এই একশন এডভেঞ্চার গেমটি আপনাদের নিরাশ করবে না।

Real Racing 3

অ্যান্ড্রয়েডের টপ হাই গ্রাফিক্স গেমসের লিস্টে Real Racing 3 গেমটি থাকবে না এটা কোনো কথা হয় নাকি! নামের মধ্যেই বলা রয়েছে যে গেমটি প্রফেশনাল রেসিং রাস্তায় প্রফেশনাল রেসিং গাড়ি দিয়ে “প্রফেশনাল” রেসিং গেম হিসেবে গেমটিকে নির্মাণ করা হয়েছে। এই গেমটিও বেশ কয়েক বছর পুরোনো হলেও গ্রাফিক্সের দিক থেকে গেমটি এখনো অনান্য গেমের সাথে টক্কর দিতে পারবে। আফটারঅল EA গেম বলে কথা!

Ultimate Tennis

যারা স্পোর্টস গেমস ভালোবাসেন বিশেষ করে টেনিস ভিডিও গেম যাদের পছন্দ তাদের জন্য Ultimate Tennnis একটি বেশ মজার গেম হবে। শুধু কম্পিউটার AI এর সাথেই নয়, বরং গেমটিতে আপনি ইন্টারনেটের মাধ্যমে অনান্য প্লেয়ারদের সাথেও টেনিস গেমে চ্যালেঞ্জ করে খেলতে পারবেন।

Shadowgun Legends

ফ্রি গেমসগুলোতেও যে বেশ সুন্দর স্টোরিলাইন এবং গ্রাফিক্স রয়েছে তার বাস্তব উদাহরণ হচ্ছে এই গেমটি। শ্যাডোগান সিরিজের লেটেস্ট গেম হচ্ছে Shadowgun Legends এবং এটি সিরিজের অনান্য গেমসগুলোর মতোই একটি ফার্স্ট পারশন শুটার ধাঁচের গেম। উল্লেখ্য যে সিরিজের প্রথম দুটি গেম ২০১১ এবং ২০১২ সালের পর পর Mulitple Award Winning গেম ছিলো, আর ২০১৮ সালের মার্চে গেমটি রিলিজ করে দিয়ে তারা আবারো মাল্টিপ্লেয়ার শুটিং গেমে নিজেদের অবস্থা ফিরে পেতে চায়। গেমটিতে প্রায় ২০০টির বেশি সিঙ্গেল প্লেয়ার মিশন রয়েছে এবং অসংখ্য মাল্টিপ্লেয়ার গেম মোডস রয়েছে।

Republique

আরেকটি বেশ হাই গ্রাফিক্সের গেম হচ্ছে Republique। এটি একটি একশন এডভেঞ্চার স্টেলথ ধাঁচের গেম। গেমটি মূলত iOS প্লাটফর্মের জন্য নির্মিত হলেও পরবর্তীতে অ্যান্ড্রয়েড, মাইক্রোসফট উইন্ডোজ এবং প্লেস্টেশন ৪ কনসোলেও রিলিজ দেওয়া হয়। গেমটিতে আপনাকে Hope নামের একজন যুবতীকে ফোন কিংবা কম্পিউটারের মাধ্যমে পালিয়ে যেতে সাহায্য করতে হবে। আমার কাছে গেমটিকে হিটম্যান এবং Watch Dogs এই দুটির মিশ্রণ হিসেবে লেগেছে।

Radiation Island

আরেকটি ওপেন ওয়ার্ল্ড সারভাইবাল গেম হচ্ছে Radiation Island। এটাকে ARK গেমটির একটি অল্টারনেটিভ হিসেবে নিতে পারেন। গেমটিতে আপনাকে খেলতে হবে একটি অদ্ভূত আইল্যান্ডে যেখানে বেঁচে থাকতে হলে বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করতে হবে।

Mortal Kombat X

জনপ্রিয় ফাইটিং ভিডিও গেম সিরিজ Mortal Kombat এর মোবাইল সংস্করণ Mortal Kombat X ২০১৫ সালে রিলিজ পেলেও এখনো গ্রাফিক্সের দিক থেকে বেশ এগিয়ে রয়েছে। নিয়মিত আপডেট আর নতুন সব ক্যারেক্টার ও মাল্টিপ্লেয়ার মিশন গেমটিতে এখনো পাওয়া যায়।

Madout 2

জিটিএ সিরিজের মতো ওপেন ওয়ার্ল্ড গেমস খেলতে ভালোবাসেন? তাহলে এই গেমটি আপনারই জন্য! তবে সিঙ্গেল প্লেয়ার নয় বরং ১০০ জন প্লেয়ার মিলে ১০ বর্গকিলোমিটারের অঞ্চলের ম্যাপের এই গেমটিতে আপনি ইন্টারনেটের মাধ্যমে মাল্টিপ্লেয়ার হিসেবে খেলতে পারবেন। আর গ্রাফিক্সও মন্দ নয়।