ডেভিল মে ক্রাই! হ্যাক এন্ড স্ল্যাশ ধাঁচের জনপ্রিয় একটি গেম সিরিজের নাম। তবে Devil May Cry 4 গেমটির পর মুক্তি পাওয়া DmC: Devil May Cry (২০১৩) গেমটি নিয়ে অনেকেই অনেক কথা বলে থাকেন। অনেকেই বলেন গেমটি সিরিজের অনান্য গেমসগুলোর সাথে মানানসই নয়, পুরো ভিন্ন স্বাদের একটি গেমকে ডেভিল মে ক্রাই সিরিজে নিয়ে আসা হয়েছে ইত্যাদি। তবে যারা সিরিজের আগের কোনো গেমসই খেলেননি তাদের কাছে DmC: Devil May Cry (২০১৩) গেমটি বেশ জোস লাগবে। কিন্তু সিরিজের অরিজিনাল গেমপ্লের স্বাদ দিতে ক্যাপকম সিরিজের আপকামিং গেম Devil May Cry 5 এ বছরের E3 অনুষ্ঠানে উন্মোচন করেছে। যারা যারা ডেভিল মে ক্রাই অরিজিনাল সিরিজের স্বাদ DmC: Devil May Cry (২০১৩) গেমটিতে খুঁজে পাননি তাদের জন্য এই সংস্করণটি বেশ আকর্ষণীয় হবে। চমৎকার গ্রাফিক্স ছাড়া গেমটিতে আমরা কি কি দেখতে পাবো সেটা নিয়ে আমার আজকের এই পোষ্ট।

Devil May Cry 5 এনাউন্সমেন্ট

তো একদম প্রথম থেকেই শুরু করি। গেমটির এনাউন্সমেন্ট আসে এ বছরের E3 সম্মেলন থেকে। মনে রাখতে হবে এই আপকামিং Devil May Cry 5 গেমটি সিরিজের ৬ষ্ঠতম গেম এবং মূল টাইমলাইনের পঞ্চম গেম। গেমটি ২০০৮ সালের ডেভিল মে ক্রাই ৪ এর সিকুয়্যাল হিসেবে আসছে। মানে হলো প্রায় ১০ বছর পর ডেভিল মে ক্রাই সিরিজে কোনো টাইটেল গেম বেরুচ্ছে। আর বলা বাহুল্য যে গেমটি ডেভিল মে ক্রাই ৪ এর সিকুয়্যাল হওয়ায় ২০১৩ সালের DmC: Devil May Cry গেমটির সাথে এই গেমের কোনো যোগসুত্র থাকবে না। ডেভিল মে ক্রাই ৫ গেমটিতে Dante এবং Nero চরিত্রে খেলা যাবে এবং “V” নামের নতুন একটি চরিত্রও আপনি পাবেন গেমটিতে। গেমটি ২০১৯ সালের ৮ মার্চ মুক্তি পাচ্ছে।

গেমপ্লে

তো গেমটিতে টোটাল তিনটি চরিত্রে খেলা যাবে। Dante এবং Nero ছাড়াও নতুন “V” চরিত্রটি কিভাবে ফাইট করে সেটা এখনো ক্যাপকম পুরোপুরি ভাবে খোলাসা করেনি তবে এই নতুন চরিত্রের ফাইটিং স্টাইল Dante এবং Nero এর থেকে আলাদা হবে সেটা নিশ্চিত হওয়া গিয়েছে। গেমটির গেমপ্লে কে সিরিজের অরিজিনাল ডেভিল মে ক্রাই গেমসগুলোর আদলে নির্মাণ করা হয়েছে এবং কিছু আপগ্রেডও করা হয়েছে। মানে গেমটিতে আপনি দ্রুততর স্টাইলের একশন ধাঁচের গেমপ্লে পাবেন। গেমটির গেমপ্লে কিরকম সেটা মুখে না বলে নিচে গেমটির ট্রেইলারে দেখে নিন, তাহলে আপনাদের বুঝতেও সহজ হবে:

স্টোরিলাইন

যেকোনো ভিডিও গেম মুক্তির আগে সেটার সম্পূর্ণ স্টোরিলাইন সম্পর্কে কখনোই বলা হয় না বরং সারসংক্ষেপে স্টোরিলাইনের পটভূমিকে উপস্থাপন করা হয়। আর এই গেমটিতেও সেটাই করা হয়েছে, আর তা না হলে গেম রিলিজের পর গেম খেলার অধিকাংশ মজাটাই নস্ট হয়ে যায়। যাই হোক, ডেভিল মে ক্রাই ৫ গেমটির স্টোরিলাইন সাজানো হয়েছে Devil May Cry 4 গেমটির পটভূমির কয়েক বছর পর। বিশ্বব্যাপী ঘটতে থাকা “প্যারানরমাল” ইভেন্টের সমস্যার সমাধাণের জন্য Dante এর সাহায্য চাইতে ডেভিল মে ক্রাই অফিসে “V” নামের একটি মানুষ আসে। অন্যদিকে Nero তার নিজস্ব Demon Hunting Agency চালাচ্ছে সেখানে তাকে সাহায্য করার জন্য Dante তার ইঞ্জিনিয়ার Nico কে পাঠিয়েছে। উল্লেখ্য যে একটি রহস্যময় চরিত্র Nero থেকে তার Devil Bringer হাতকে চুরি করে নিয়ে গিয়েছে এবং ইঞ্জিনিয়ার Nico পরবর্তীতে Nero এর জন্য নতুন করে আলাদা রোবোটিক হাত “Devil Breaker” বানিয়েছে। স্টোরিলাইনের প্রিভিউ এখানেই শেষ! এখানে কনফিউজিং বিষয় হলো উইকিপেডিয়াতে বলা হয়েছে যে গেমটির পটভূমি Devil May Cry 2 এর কাহিনীচক্রের কয়েকবছর পরে সেট করা হয়েছে কিন্তু অনান্য সকল ওয়েবসাইটে বলা হচ্ছে যে গেমটির পটভূমি Devil May Cry 4 এর কাহিনীচক্রের কয়েকবছর পরে সেট করা হয়েছে। আর অন্যদিকে গেমটিতে খলনায়ক চরিত্রও থাকার চান্স রয়েছে। অন্যদিকে গুজব রয়েছে যে Virgil চরিত্রটিকেও গেমটিতে আনা হতে পারে।

Famitsu Update

জাপানের ম্যাগাজিন Famitsu তে Devil May Cry 5 গেমটি নিয়ে বেশ ইন্টাররেস্টি কিছু তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে। যা আমি এখানে দিয়ে দিচ্ছি। উল্লেখ্য যে ম্যাগাজিনটিতে ডেভিল মে ক্রাই ৫ গেমটির পরিচালক Itsuno এবং প্রযোজক Matt Walker এবং Okabe এর সাথে একটি ইন্টারভিউ নিয়েছিলো। ইন্টারভিউতে গেমটি সম্পর্কে যা যা আপডেট পাওয়া গিয়েছে তা নিচে দিয়ে দিলাম:

  • ১) ডেভিল মে ক্রাই ৫ গেমটির গ্রাফিক্সকে “photorealism” ভাবে তৈরি করা হচ্ছে, ক্যারেক্টার ডিজাইনিং থেকে পোষাক-আষাক সবকিছুর বাস্তবিক ডিজাইন নিয়ে নির্মাতারা বেশ সচেতন। একই সাথে সকল প্ল্যাটফর্মে গেমটি নুন্যতম 60FPS গতি রাখার বিষয়টিও নিশ্চিত হওয়া গিয়েছে
  • ২) গ্রাফিক্সের বাস্তবিক ইফেক্ট বা photorealism ইফেক্ট আনার জন্য ক্যাপকম মানুষদের 3D স্ক্যানিং করার পাশাপাশি পোষাক আষাকেরও স্ক্যানিং করছে।
  • ৩) ফাইটিংয়ের সময় আগের গেমসগুলোকে প্লেয়ার মোশন এনিমেশনকে স্কিপ করে যেত পারতো। কিন্তু এবারের গেমটিতে মোশন এনিমেশন স্কিপ করা যাবে না। কারণ photorealistic কোয়ালিটিতে এনিমেশন স্কিপিং ফিচারটি ক্যাপকমের কাছে ভালো লাগেনি এবং এটা বেশ কিছু টেকনিক্যাল সমস্যার সৃষ্টি করবে ।
  • ৪) গেমটির স্টোরিলাইনের অধিকাংশই Nero কে নিয়ে ফোকাস করা হয়েছে, আর তাই Nero কে DMC 4 এর পরে বেশ কাস্টমাইজেশন করে রিডিজাইন করা হয়েছে।

১৮+ রেটিং

Devil May Cry 5 গেমটির সম্পর্কে আরেকটি কথা না বললেই নয় তা হলো সিরিজের এটাই প্রথম গেম যেটি 18+ রেটিং পেয়েছে। কিন্তু কেন? সিরিজের আগের গেমসগুলোতেও প্রচুর পরিমানের ভায়োলেন্স, গালিগালাজ এবং Sexual উপাদান থাকার পরেও সেগুলোতে কিন্তু ১৮+ রেটিং দেওয়া হয় নি।

তবে কারণ হিসেবে হতে পারে এবারের গেমে বাস্তবিক গ্রাফিক্সের মানুষাকৃতির শত্রু থাকছে এবং একই সাথে যুদ্ধের সময় রক্তারক্তিরও একটা ব্যাপার থাকে আবার অন্যদিকে Dante এবং Nero এর মুখ থেকেও বেশ স্ল্যাং আপনি শুনতে পারেন এই গেমটিতে আর Sexual বিষয়ও বেশি থাকতে পারে গেমটিতে। থাকতে পারে বলছি কারণ ক্যাপকম এখন পর্যন্ত গেমটির ৭৫% নির্মাণ কাজ শেষ করেছে। পূর্ণাঙ্গ ভাবে গেমটি নির্মিত হবার পর গেমটি কেন ১৮+ রেটিং পেল সেটা নিয়ে ক্যাপকম অফিসিয়াল স্টেটমেন্ট দিবে। তো বাচ্চাদের কাছ থেকে গেমটিতে দূরে রাখুন! (লোল)

পরিশিষ্ট

DmC: Devil May Cry মানে ২০১৩ সালের গেমটি রিবুট হিসেবে আমার কাছে ভালো লেগেছে। তবে অরিজিনাল সিরিজের স্বাদ গেমটিতে না থাকায় অধিকাংশ ফ্যানই গেমটিকে নেগেটিভ রেটিং দিয়েছে আর যার ফলাফল স্বরুপ ক্যাপকম তাদের DmC: Devil May Cry গেমটি থেকে তেমন ব্যবসা করতে পারেনি। কিন্তু অরিজিনাল সিরিজের আপকামিং গেম Devil May Cry 5 তে আমরা DmC: Devil May Cry গেমের বেশ কয়েকটি একশন ধাঁচ পাবো, যেমন কিলক্যাপ, এনিমেশন, কয়েকটি গেমপ্লে উপাদান ইত্যাদি। অন্যদিকে ডেভিল মে ক্রাই ৫ গেমটিতে থাকবে মাইক্রোট্রানজিশন, মানে অর্থ দিয়ে গেমটির বিভিন্ন পাওয়ার আপ কেনার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে, এই বিষয়টি বেশ সমালোচিত হচ্ছে। আর DmC: Devil May Cry গেমটি AMD অপটিমাইজ হওয়া গতবার বেশ লো পাওয়ারের পিসিতেও গেমটি খেলা গিয়েছিলো। তো এবার দেখা যাক এই গেমটিতে কি হয়। ওহ! আরেকটি কথা হচ্ছে সনি প্লে-স্টেশন ৪ কনসোলে গেমটি সর্বপ্রথম মুক্তি পাবে। তারপরেই গেমটির পিসি সংষ্করণ বাজারে ছাড়া হবে বলে জানা গিয়েছে।