আজকের পোষ্টটি যারা ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট ব্যবহার করেন শুধুমাত্র তাদের জন্য। উল্লেখ্য যে আজকের পোষ্টটি সকল ব্রডব্যান্ড ব্যবহারকারীদের জন্যই সুবিধাজনক হবে কারণ এর থেকে সহজ উপায়ে নিজের ISP সমর্থিত সার্ভার আর কোথাও খুঁজে পাওয়া যাবে না। তো একদম প্রথম থেকেই শুরু করি মানে BDIX কি সেটা দিয়েই!

ব্রডব্যান্ড লাইন যারা ব্যবহার করে থাকেন তারা নিশ্চয় BDIX সার্ভারের কথা শুনে থাকবেন। মূলত বর্তমানে যে সকল ISP বেশি বেশি এবং দ্রুতগতির BDIX দিতে পারছে তারাই কেবল ভালো ব্রডব্যান্ডের ব্যবসা করতে পারছে! আপনি যত স্পিডেরই লাইন ব্যবহার করেন না কেন এই সকল BDIX সার্ভার থেকে ডাউনলোড স্পিড খুব ভালো পাবেন। মনে হবে যে আপনি কম্পিউটার থেকে আপনার পেনড্রাইভে কোনো কিছুকে কপি-পেস্ট করছেন! আমি নিজে আমার 4 Mbps লাইনে BDIX সার্ভার থেকে কোনো কিছু ডাউনলোড করলে 80/90 Mbps গতি পেয়ে থাকি। অর্থাৎ আমার লাইনে সাধারণ কোনো কিছু ডাউনলোড করলে স্পিড থাকে 300Kbps থেকে 440Kbps পর্যন্ত; কিন্তু BDIX সার্ভার থেকে ডাউনলোডের সময় ডাউনলোড স্পিড থাকে 8Mbps থেকে 12Mbps পর্যন্ত। BDIX সাভার্রে প্রায় সবকিছুই আপনি পেয়ে যাবেন অর্থ্যাৎ মুভি, গান, ভিডিও, গেমস ইত্যাদি।

BDIX কি? এর পূর্ণরূপ হচ্ছে Bangladesh Internet Service Exchange । এখন ধরুন আপনার ISP বা আপনার ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডারের নূন্যতম ১টি FTP সার্ভার রয়েছে। এই একটি সাভার্র থেকে আপনি যত স্পিডেরই নেট সংযোগ নিয়ে নেন না কেন ওই সার্ভার থেকে প্রচুর দ্রুত স্পিডে আপনি ফাইলসগুলোকে ডাউনলোড করতে পারবেন। এখন এভাবে বাংলাদেশের সকল উচ্চপর্যায়ের ISP বা বড় বড় মেজর ISP প্রতিষ্ঠানগুলো মিলে BDIX তৈরি করেছে। অর্থাৎ ধরুন বাংলাদেশের ১০০টা ISP মিলে BDIX তৈরি করেছে তাহলে আপনার ISP যদি BDIX সমর্থিত হয়ে থাকে তাহলে আপনি BDIX সার্ভার থেকে মানে ওই ১০০টা ISP এর FTP সার্ভারগুলো থেকে হাই স্পিডে ডাউনলোড করতে পারবেন।

এবার কথা হচ্ছে সমস্ত BDIX সার্ভার থেকে কোনগুলো আপনার ISP সমর্থন করে বা কোনগুলো থেকে আপনি অন্যদের তুলনায় বেশি স্পিডে ডাউনলোড করতে পারবেন? এরজন্য আপনার চাই একটি অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন এবং একটি অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ!

১) প্রথমে আপনার ব্রডব্যান্ড নেটের ওয়াইফাই দিয়ে আপনার অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসকে কানেক্ট করে নিন। এবার নিচের অ্যাপটি ডাউনলোড করে নিন:

BDIX Tester

২) অ্যাপটি চালু করুন।  এবার নিচের Start Test বাটনে ট্যাপ করুন। আপনার ISP এর সমর্থিত BDIX সার্ভারগুলোতে স্ক্যানিং শুরু হবে।

৩) স্ক্যানিং শেষ হলে একটা রেজাল্ট দেখতে পারবেন। এই যেমন আমার নেটওর্য়াকে 53টি BDIX সার্ভার সার্পোট করে।

৪) এবার View বাটনে ট্যাপ করে আপনি সকল সমর্থিত BDIX সার্ভারগুলো দেখতে পারবেন। উল্লেখ্য যে সার্ভারগুলোর নিচে সবুজ রংয়ে Working লেখা থাকবে এবং এর নিচে সার্ভারটি থেকে কত স্পিড আপনি পাবেন সেটাও দেখতে পারবেন।

উল্লেখ্য যে এখান থেকে সার্ভার বা সাইটগুলো নোট করে রেখে দিন এবং পিসি থেকে ডাউনলোড করতে পারেন। কারণ আপনি পিসিতে স্মার্টফোনের থেকে বেশি ডাউনলোড স্পিড পাবেন। পোষ্টটি উপকারে আসলে সোশাল মিডিয়াতে শেয়ার করে দিতে ভূলবেন না যেন!