ফেব্রুয়ারি ২৬ এ রিলিজ হল Huawei P10 smartphone এবং Watch 2 smartwatch রিলিজ করে। চাইনিজ ব্রান্ডের মধ্যে প্রথম সারির ব্রান্ড তাদের হাইএন্ড ফ্লাগশীপ আর স্মার্টওয়াচ বের করে।। গতবছর তাদের রিলিজ করা P9 এবং P9 Plus সাড়া জাগায় তাদের ডুয়াল ক্যামেরা এবং হাই এন্ড কনফিগারেশনের সাথে।।

যাইহোক, এইবারও ডূয়াল রিয়ার ক্যামেরার সাথে থাকছে টপ-লেভেলের স্পেসিফিকেশন্স। এন্ড্রয়েড নোগাটের সাথে মানিয়ে নেয়ার জন্য থাকছে হুয়াই এর নিজেস্ব 64-bit octa-core (4 x 2.4 GHz A73+ 4 x 1.8 GHz A53) Hisilicon Kirin 960, আর র‍্যাম থাকছে 4/6GB(P10/P10 Plus)। 64/128GB(P10/P10 Plus) স্টোরেজের সাথে থাকছে এক্সটার্নাল মাইক্রো এসডি কার্ড সাপোর্ট 256 GB পর্যন্ত।

ব্যাটারি হিসেবে 3200mAh/3750mAh(P10/P10 Plus) থাকবে যা একদিনের জন্য ডিসেন্ট। তবে প্লাস মডেলে আরো একটূ ব্যাটারি আশা করছিলাম।। যদিও আমার আশা করায় কিছু আসে যায় না Huawei এর 😛

এবার ক্যামেরার ব্যাপারে আসি রিয়ারে: Leica Dual-Camera 2.0 12 and 20MP sensors, f/2.2 aperture, OIS
এবং ফ্রন্টে: 8MP sensor, f/1.9 aperture.এপার্চার আর ক্যামেরা মেগাপিক্সেলের চেঞ্জ রয়েছে তবে সামনে ৮ মেগাপিক্সেলেই রয়ে গেছে এখানেও এপার্চার আপডেট হয়েছে।

তবে OIS টা দরকার ছিল যেটার অভাব আমরা P9 এ অনুভব করেছিলাম।। Dual camera এর কাজ দেখতে আর এর বিস্তারিত ব্যাপার P9 এর রিভিউ ভিডিওতে বলা আছে।

বডি ডিজাইন আগের থেকেও আরো স্লিক আর ইউনিক হয়েছে। তবে পিছনের ফিংগারপ্রিন্ট স্ক্যানারটি এখন সামনে আনা হয়েছে যা হোম বাটন হিসেবেও কাজ করবে।।
সামনের ডিসাইনটা One Plus 3/3T ফোনের মতই লেগেছে আমার কাছে।। P10 হবে 5.1 ইঞ্চ ডিস্প্লে এর আর P10 Plus হবে 5.5 ইঞ্চের ডিস্প্লে।।
এছাড়া বিভিন্ন কালার অপশন রয়েছে।।

P10 এর হবে ৬৪৯ ইউরো আর P10 Plus এর দাম হবে ৬৯৯ ইউরো। যুক্তরাষ্ট্রে এখনো এর কোন ঘোষণা আসে নি তবে P9 এর মত এটাও যুক্তরাষ্ট্রে রিলিজ হবে।

ফোনের সাথে হুয়াওয়ে তাদের স্মার্টওয়াচ Huawei Watch 2 রিলিজ করে একই দিনে। রাউন্ড শেপের আর স্পোর্টি একটা ডিসাইনের ঘড়িতে Android wear OS 2.0 এর সাপোর্টের জন্য আছে Qualcomm Snapdragon Wear 2100
যেটি Quad-core 1.1 GHz এ ক্লকড করা এবং 768MB র‍্যাম আর 4GB ইন্ট্রারনাল স্টোরেজ থাকছে। ডিস্প্লে হিসেবে AMOLED ক্যাপাসিটিভ টাচস্ক্রিন থাকছে যার প্রটেকশন হিসবে গরিলা গ্লাস থাকছে। গরিলা গ্লাসের ভার্শন এখনো জানা যায় নি। যাইহোক ঘড়িটি IP68 সার্টিফাইড ডাস্ট আর ওয়াটার রেসিস্ট্যান্ট। এবং ন্যানো সিম আর ই সিমের সাপোর্ট থাকছে ঘড়িটিতে।। Dynamic Orange, Carbon Black, Concrete Grey এই ৩ টি কালারে পাওয়া যাবে Huawei Watch 2.

আমাদের চ্যানেলে HUAWEI P9 এর রিভিও করা হয়েছে আর আগে। ভিডিওটি দেখে নিতে পারেন নিচে।

অনেক বড় পোস্ট লিখে ফেললাম 😛
জনতা আগ্রহী থাকলে ইনশাআল্লাহ আরো বিস্তারিত পোস্ট করার চেষ্টা করবো।
তার আগ পর্যন্ত সাথেই থাকুন 🙂