এক কালে একটি টেবিল ফ্যান দিয়ে সিপিউ ঠান্ডা রেখে মানুষ সন্তুষ্ট থাকলেও দিন যতই যাচ্ছে, সিপিউ সম্পর্কে মানুষ আরো সচেতন হয়ে উঠছে। সিপিউ ঠান্ডা রাখার জন্য বেশির ভাগ মানুষ এয়ার কুলার ব্যবহার করলেও লিকুইড কুলিঙ্গের প্রতি আকর্ষণ দিন দিন বেড়েই চলেছে। কিন্তু, এখনো পর্যন্ত অল ইন ওয়ান লিকুইড কুলারের উচ্চমূল্যের কারণে অনেকেই এয়ার কুলিং ছাড়তে নারাজ। তাই, বাজেট চিন্তিত মানুষের কথা বিবেচনা করে বাজারে নিয়ে আসা হয়েছে বিখ্যাত চাইনিজ লিকুইড কুলিং ব্র্যান্ড BYKSKI এর অল ইন ওয়ান লিকুইড কুলার যাতে মাত্র সাড়ে ৬ হাজার টাকায় দেয়া হচ্ছে শক্তিশালী ৩৬০ মিমি. অল ইন ওয়ান সিপিউ লিকুইড কুলার।

অবশ্য লিকুইড কুলার কেনার আগে আপনার সিপিউ সম্পর্কে ভালোভাবে জেনে নিন। লিকুইড কুলার শুধু মাত্র তাদের জন্যই লাগে যারা সিপিউ ওভারক্লক করে থাকেন। সাধারণত ইন্টেলের K ও X সিরিজের সিপিউ এবং সকল রাইজেন সিপিউকে ওভারক্লক করা যায়। ওভারক্লক করলে সিপিউ মাদারবোর্ড থেকে অনেক খানি ইলেক্ট্রিসিটি টেনে নেয়, যার কারণে তা প্রচন্ড গরম হয়ে যায়। তাই ওভারক্লক করা অবস্থায় সিপিউ যেন বেশি গরম হয়ে না যায় সেই কারণেই লিকুইড কুলার নেয়া হয়ে থাকে। এছাড়া, ওভারক্লক না করলেও অথবা স্টক সেটিংসে সিপিউ ৪০ ডিগ্রী সেলসিয়াসের নীচে রাখার জন্য অনেকে ১২০ মিমি. সাইজের লিকুইড কুলার কিনে থাকেন।

BYKSKI হচ্ছে চীনের অন্যতম টপ কুলিং ব্র্যান্ড। এছাড়াও সারা বিশ্বেও তাদের আলাদা সুনাম রয়েছে। তারা সাধারণত কাস্টম লিকুইড কুলিং নিয়ে কাজ করলেও পোর্টফলিওতে অল ইন ওয়ান লিকুইড কুলার রেখছে। তাদের আরজিবি লিকুইড কুলারের ফ্যানগুলো মাদারবোর্ডের আরজিবি কন্ট্রোল সফটওয়্যার দিয়ে সিংক করে নেয়া যাবে।

আপনারা জেনে খুশি হবেন যে, বাংলাদেশে BYKSKI এর ১২০ মিমি., ২৪০ মিমি. এবং ৩৬০ মিমি. তিনটি সাইজেরই লিকুইড কুলার আনা হয়েছে। এই তিনটি সিপিউ কুলারের দাম রাখা হয়েছে নিম্নরূপ।

Model Price
120mm AIO 4,300 BDT
240mm AIO 5,500 BDT
360mm AIO 6,600 BDT

তবে খোঁজ নিয়ে জানা গিয়েছে এগুলো হচ্ছে এমআরপি প্রাইস। দরদাম করে আপনারা প্রোডাক্টগুলো কিনতে পারবেন। লিকুইড কুলারগুলো কিনতে চাইলে যোগাযোগ করুন ফ্লোরা লিমিটেডে, Auroral Tech,  Tech Land BD অথবা amarpc.com শপে (এখন পর্যন্ত এই চার জায়গাতেই কনফার্ম হওয়া গিয়েছে)।

ফিচার ইমেজ সোর্স: amarpc.com