অনেক আগে থেকেই আমরা শুনে আসছি যে ৫জি প্রযুক্তি চালু হবে, আর ইতিমধ্যেই ৫জি তরঙ্গের টেস্টিং প্রক্রিয়াও শুরু হয়ে গিয়েছে। ৫জির সাথে AI এর অনেক ক্ষেত্রেই সর্ম্পক রয়েছে। তবে এখন বেশ কয়েকটি আপকামিং স্মার্টফোনের টিজারগুলোতেই পরিস্কার হয়ে গিয়েছে ২০১৯ সালের ফ্ল্যাগশীপ স্মার্টফোনগুলো হতে যাচ্ছে ৫জি ভিক্তিক স্মার্টফোন। আর এই সকল ৫জি স্মার্টফোনের SoC ক্ষেত্রেও আমরা দেখতে পাচ্ছি পরিবর্তন। স্মার্টফোন চিপ মেনুফেকচার জায়ান্ট Qualcomm সম্প্রতি তাদের ৫জি চিপসেট Snapdragon 855 এনাউন্স করেছে আর আজ আমি চলে এলাম এই চিপসেটটি নিয়ে কিছু কথা বলতে। প্রায় ১১ বছর ধরে মোবাইল ফোনের চিপসেট তৈরি করে আসছে Qualcomm, তাদের আপকামিং চিপ Snapdragon 855 কে সম্পূর্ণ ভাবে ৫জি এবং AI উপযুক্ত করেই বানানো হয়েছে।

স্ন্যাপড্রাগন ৮৫৫ চিপের পূর্ণাঙ্গ স্পেসিফিকেশন এখনো রিভিল করা হয় নি, তবে কিছু কিছু তথ্য জানা গিয়েছে যেমন এই চিপসেটে ব্যবহার করা হয়েছে Snapdragon X50 মডেম যা সম্পূর্ণভাবে একটি ৫জি উপযুক্ত মোডেম। Snapdragon 855 কে বানানো হয়েছে 7nm টেকনোলজি দিয়ে। 7nm প্রসেসর টেকনোলজি নতুন কিছু নয়, এটা কয়েকমাস আগেই Huawei এর নিজস্ব Kirin 980 এবং অ্যাপলের A12 Bionic প্রসেসরেই ব্যবহৃত হয়েছে। পারফরমেন্সের কথা বলতে গেলে আগের প্রজন্মের ৮৪৫ চিপ থেকে প্রায় ২০/৩০% বেশি পারফরমেন্স আপনি পাবেন এই Snapdragon 855 চিপে।

পারফরমেন্স আপগ্রেড ছাড়াও এই চিপসেটযুক্ত স্মার্টফোনগুলো কি কি সুবিধা পাবেন সেটা সংক্ষেপে আমি নিচে দিয়ে দিচ্ছি:

ডাউনলোড স্পিডে বুস্ট থাকছে

২০১৯ সালে আপনি ৫জি নিয়ে বেশ উন্নতি দেখতে পারবেন, আর ৫জি স্মার্টফোনের বেলায় Qualcomm ৮৫৫ চিপসেট তার X50 মডেম নিয়ে সবার আগেই থাকবে। বলা হচ্ছে যে অনান্য ৫জি চিপসেটের থেকেও তুলনামূলক বেশি ডাউনলোড স্পিড থাকবে Snapdragon 855 চিপে, কারণ এতে ডাইরেক্ট ভাবে 2Gbps LTE মডেমকে interate করা হয়েছে। ৮৫৫ চিপে ৫জির পাশপাশি ওয়াইফাই প্রযুক্তিতেও আপনি বেশ দারুণ আপগ্রেড পাবেন। 855 চিপসেটে রয়েছে 802.11ax যা সবোর্চ্চ 13Gbits/s WiFi গতি দিতে পারবে; যা বর্তমানের 3Gbits/s এর থেকে প্রায় ৫ গুণ বেশি!

হলিউড-স্টাইলের ভিডিও শ্যুট করতে পারবেন

স্ন্যাপড্রাগন ৮৫৫ চিপে কোয়ালকপ নতুন একটি ISP নির্মাণ করেছে যার নাম Spectra 850 । এই ISP দিয়ে আপনার স্মার্টফোনের ফটো এবং ভিডিওগুলোতে বেশ উন্নত মানের enhancements আসবে যা সরাসরি ক্যামেরাতেও ইফেক্ট ফেলবে। অর্থাৎ আপনি এই চিপসেটের স্মার্টফোনে 60Hz এর Depth-sensing ফিচারটি উপভোগ করতে পারবেন, এছাড়াও থাকবে 4K HDR ভিডিও ক্যাপচারে portrait mode । মানে হচ্ছে ব্যাকগ্রাউন্ড blur ইফেক্ট সহ আপনি ৪কে ভিডিও রেকর্ড করতে পারবেন। এছাড়াও Qualcomm বলছে যে আপনি যেকোনো ফ্রেম থেকে লোকজনদের কেটে নিয়ে অন্য যেকোনো সিনে বসাতে পারবেন, অনেকটা প্রফেশনাল Green Screen এর মতোই।

ফটোগুলোর নতুন ফরম্যাটে কম স্পেস নিবে

বর্তমানে আমাদের ইমেজগুলো বেশ স্টোরেজ স্পেস নিয়ে থাকে। নরমাল একটি ফটোতেই মেগাবাইট ভরে যায়, আর এক একটা এইচডি ফটোতেই কমপক্ষে ৩/৪ মেগাবাইট লেগে যায়। এই স্টোরেজ সমস্যার সমাধান করতে ফটো এর JPEG ফরম্যাট থেকে HEIF (High Efficiency Image Fire Formate) ফর‌ম্যাটে চলে আসবে স্ন্যাপড্রাগন ৮৫৫ তে। অর্থ্যাৎ বর্তমানের থেকে প্রায় অর্ধেকাংশ কম জায়গা নেবে ছবিগুলো, আর রেজুলেশনেরও কোনো কমতি হবে না। মানে হলো আপনি ছবির কোয়ালিটি হাই রেখেই ফাইল সাইজ কমিয়ে ফেলতে পারবেন এই ফরম্যাটে। ছবির এই নতুন ফরম্যাট Apple এর iOS 11 থেকে শুরু হয়েছিলো। বর্তমানে Android P নতুন ফাইল ফরম্যাট সার্পোট করে, সাথে Google Photos ও এই নতুন ফরম্যাট সার্পোট করছে, আর স্ন্যাপড্রাগন ৮৫৫ এর সার্পোট তো থাকছেই। তাই এই ফরম্যাটটি আমাদের নিত্যদিনের ছবির ইউসেজকে আরো সহজ করে দিবে, বিশেষ করে যারা ৩২/৬৪ গিগাবাইট স্টোরেজের স্মার্টফোন ব্যবহার করেন এবং অনেক ছবি তুলেন।

নেক্সট লেভেলের গেমিং হবে!

বর্তমানেই হাই গ্রাফিক্সের মোবাইল গেমস দেখলে আপনার মাথা ঘুরে যায়? তাহলে আরো অবাক হবার জন্য প্রস্তুত হন। স্ন্যাপড্রাগন ৮৫৫ চিপসেটে গ্রাফিক্স ইউনিট হিসেবে থাকছে নতুন Andreno 640 । পারফরমেন্সের কথা যদি বলি তাহলে Qualcomm বলছে যে নতুন এই জিপিইউ এবং প্রসেসরের কারণে Snapdragon 845 এর থেকে ৩০% বেশি বুস্ট আপনি পাবেন ৮৫৫ চিপসেটের ডিভাইসে। এগুলো ছাড়াও পাবেন HDR gaming, 10-bit color এবং Rec. 2020 ultra HD color space, যা স্মার্টফোন গেমিংয়ের গ্রাফিক্সকে আরো চোখ ধাঁধানো করে তুলবে।

সাউন্ড আনলকিং!

জ্বি! সাউন্ড আনলকিং ফিচারটি আগে কোথাও দেখে থাকলেও এবার স্মার্টফোনের Secure Lock করার জন্য আপনি সাউন্ডকে ব্যবহার করতে পারবেন। in-display ফিঙ্গার প্রিন্ট সেন্সরের ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হবে সাউন্ড টেকনোলজি। মানে হলো যেসকল স্মার্টফোনে in-display ফিঙ্গার প্রিন্ট রয়েছে সেখানে Snapdragon 855 চিপসেটের Hexagon 690 DSP (digital signal processor) লাইটিংয়ের পরিবর্তে সাউন্ডকে ব্যবহার করে আপনার ফিঙ্গারপ্রিন্ট কে রিড করবে।

এই ছিলো স্ন্যাপড্রাগন ৮৫৫ চিপসেটের এনাউন্সমেন্ট এবং এর প্রাথমিক ফিচারগুলো নিয়ে ছোট্ট একটি পোষ্ট। আর যেহেতু এগুলো ২০১৯ সালের ফ্ল্যাগশীপ স্মার্টফোনের সাথে পাবেন তাই আমাদের মতো মিডরেঞ্চ বা লো-এন্ড ডিভাইস ব্যবহারকারীদের জন্য এই ফিচারগুলো স্বপ্ন হয়েই থাকবে! দেখা যাক কি হয়!

https://www.youtube.com/watch?v=6pdjT7xsZe8