আসসালামু আলাইকুম,
কেমন আছেন সবাই আমরা যারা ডেস্কটপ ব্যবহার করি তার অধিকাংশই UPS (Uninterruptible power supply) ব্যবহার করে থাকি। UPS এর কাজ হচ্ছে হঠাৎ বিদ্যুৎ চলে গেলে ডেস্কটপ কে বন্ধ হয়ে যাওয়া থেকে রক্ষা করে কিছু সময় বিদ্যুৎ ছাড়া চলার শক্তি সরবরাহ করা। ডেস্কটপ কি পরিমান লোড নেয় তার উপর ভিত্তি করে UPS কিনতে হয়। বাজারে 600, 650, 850, 900, 1100 VA UPS পাওয়া যায় সাধারণ ব্যবহারের জন্য। VA হিসাবে ১ বা ১ এর অধিক ব্যাটারি থাকে। একটি ভাল মানের UPS হালকা লোডে কাজ করলে ২-৩ বছর ব্যাটারি ব্যাকআপ পাওয়া যায়।
তাই UPS কেনার আগে কি কি দেখবেন, কিভাবে ব্যবহার করে অনেক দিন ভাল রাখবেন এবং নষ্ট হলেও তা কিভাবে ঠিক করবেন তা নিয়ে আজ আলোচনা করা হবে।

কেনার আগে…

UPS বাছাইঃ UPS কেনার আগে আপনার কত VA দরকার তা নির্নয় করে কিনতে হবে, বাজারে বিভিন্ন নামি অনামি, ব্যান্ডের UPS পাওয়া যায়। বেশির ভাগ ই দেখতে একই রকম, বর্তমানে প্লাস্টিক বডির UPS বেশি দেখা যায় দামে ও বেশ কম হয়। প্লাস্টিক বডির UPS না কেনাই ভাল, এগুলো সস্তা কোয়ালিটি ও বেশ গরম হয়।

ব্যাটারি সংখ্যাঃ UPS এ Sealed Lead Acid Battery ব্যবহার হয় 850VA থেকেই সাধারণত একাধিক ব্যাটারি থাকে, ফলে দাম ও অনেকটা বেশি হয়।

ব্যাকআপ টাইমঃ এটি সাধারণত লোড ও VA উপর নির্ভর করে, প্যাকেটে উল্লেখিত সময়ের সাথে তা মিলবে না তবে একটা ধারণা দেবার জন্যই তা লেখা থাকে। ব্যাটারির মান ও সংখ্যার কারণে ও ব্যাকআপ টাইম কম বেশি হতে পারে।

ক্যাবলঃ যেহেতু আপনার পিসির সকল প্রকার পাওয়ার UPS এর উপর দিয়েই যায় তাই ভাল মানের ক্যাবল যুক্ত UPS বাছাই করা উচিত। বেশির ভাগ UPS এর ক্যাবল ফিক্সট থাকে, তাই প্লাগ যাতে লুজ না হয় এবং ভাল মানের মাল্টিপ্লাগ ব্যবহার করতে হবে।

প্রটেকশনঃ UPS এর প্রধান কাজ হচ্ছে বিদ্যুৎ চলে গেলে ব্যাকআপ প্রদান করা তবে কিছু ভাল ব্যান্ডের UPS এ Stabilizer, surge protection সুবিধা থাকে। তাই কেনার সময় তা দেখে কেনা উচিত।

সঠিক ব্যবহার…

UPS এর কাজ হচ্ছে ডেস্কটপ কে কিছু সময় শক্তি প্রদান করা যাতে কাজ চালিয়ে রেখে ডেস্কটপ কে সঠিক ভাবে বন্ধ করা যায়। এটি ডেস্কটপ ‍উপযোগি করে তৈরী করা হয় তাই ডেস্কটপ রিলেটেড ডিভাইস ছাড়া অন্য কিছু না চালানোই ভাল।

চার্য কমে গেলে ভাল করে চার্য না হওয়া পর্যন্ত ব্যাকআপ হিসাবে ব্যবহার না করাই ভাল।
খোলামেলা, পানিমুক্ত, বাতাস চলাচল করতে পারে এমন স্থানে রাখা।
ক্ষমতার অতিরিক্ত লোড না দেওয়া।
জেনারেটরে ব্যবহার না করা।
লাইন ভোল্টেজ কম বেশি হলে ভোল্টেজ স্ট্যাবিলাইজার ব্যবহার করা।

মেরামতঃ বর্তমান UPS গুলোর বেশির ভাগ ই ও মেরামত অযোগ্য কমপ্যাক্ট ডিজাইন ও পার্টস না পাওয়ার কারণে, কিছু পুরাতন মডেলে ঠিক করা যায় প্রফেশনাল লোক দিয়ে।

আপনারা চাইলে কিছু সমস্যা যেমন- সুইচ, ব্যাটারি জনিত সমস্যা নিজেই ঠিক করতে পারবেন ‍যদি আপনার ইলেকট্রিক সম্পর্কে ভাল ধারনা থাকে। UPS এখন অনেকটাই ওয়ান টাইম হয়ে গেছে নষ্ট হলে ব্যাটারি চেন্জ করার চেয়ে নতুন কেনাই ভাল, কারন ব্যাটারি এখন বেশির ভাগ ই ২নম্বর আবার চেঞ্জ করলেও নতুনের মত ব্যাকআপ দেয় না।

যেহেতু পিসির জন্য এটি একটি দরকারি ডিভাইস তাই একটু দেখে ভাল মানের কেনা উচিত।