F1 এর পর বেশ লম্বা বিরতি দিয়ে বাজেট ডিভাইস X2 দিয়ে বাজারে আবারো ফেরত আসে Poco, রিব্রান্ডেড হওয়ায় তা ফ্যানদের হতাশ করে।। তারপরেও তারা আরো দুটি ডিভাইস লঞ্চ করেছে যে দুটিই ছিল Xiaomi ডিভাইসের Rebrand. এবার অবশ্য একদম ফ্রেশ একটি ডিভাইস নিয়ে আসছে তারা। বাজারে আসতে চলেছে X2 এর Successor Poco X3.

অফিশিয়ালি লঞ্চের আগেই একটি ভিডিওর মাধ্যমে ও বেশ কিছু সোর্সের মাধ্যমে এই ডিভাইসের মোটামুটি সব তথ্যই বের হয়ে এসেছে।

 

***কিছু স্পেসিফিকেশনস লিকড এবং কিছু গুজব এবং কিছু এনাউন্সড,প্রত্যাশিত***

প্রসেসর ও গ্রাফিক্সঃ 

এই স্মার্টফোনটিতে প্রথমবারের মত ব্যবহ্বত হতে যাচ্ছে নতুন চিপসেট Snapdragon 732G ।Adreno 618 জিপিইউ এর সাথে প্রসেসরটিতে ২টি 2.7ghz এর গোল্ড কোর এবং ৬টি 1.8ghz এর সিলভার কোর রয়েছে ।

মেমোরি ও স্টোরেজঃ

স্টোরেজ সেকশনে x2 এর থেকে তেমন কোনো ডিফারেন্স দেখা যাবে না। বেস ভ্যারিয়েন্ট 6/64 এবং অন্য দুটি ভ্যারিয়েন্ট 6/128 এবং 8/256 এর UFS 2.1 স্টোরেজ ।

ডিসপ্লেঃ

গ্লাস স্যান্ডুইচ ডিজাইন এর সাথে আসছে Poco X3, আগের ফোনটির মতই 6.67 ইঞ্চি ডিসপ্লে। উভয় পাশে গরিলা গ্লাস ৫।

এবারও রিফ্রেশ রেট থাকছে 120hz এবং এবং ডিসপ্লেটি HDR10+ সাপোর্টেড ।

ক্যামেরাঃ

X2 এর মতই ক্যামেরা সেটাপ থাকছে এখানে। পেছনে 64 মেগাপিক্সেলের মেইন ক্যামেরার সাথে ৮ মেগাপিক্সেল Ultrawide এবং দুটি অপ্রয়োজনীয় ম্যাক্রো এবং ডেপথ।সম্ভবত সেন্সর ও থাকবে আগেরবারের ফ্লাগশিপ সেন্সর Sony IMX 686

সামনের দিকে এবার ২০ মেগাপিক্সেলের একটি মাত্র ক্যামেরাই থাকছে, আগের বার ২০ মেগাপিক্সেলের মেইন ক্যামেরার সাথে একটি নিছকই লোক দেখানো depth সেন্সর দেওয়া ছিল এবার যেটি বাদ দিয়েছে পোকো। সেলফি ক্যামেরাটি সেন্টার পাঞ্চ হোল এর মধ্যে দেওয়া।

ব্যাটারি ও চার্জিংঃ

ব্যাটারির দিকে দিয়ে আপগ্রেডেশন দেখতে পাওয়া যাবে।। ৪৫০০ mah এর জায়গায় 5160 Mah ব্যাটারি থাকবে এবার যা 120hz ডিসপ্লে এর  জন্য অনেক গুরুত্বপুর্ণ।

২৭ ওয়াটের জায়গায় এবার দেওয়া হয়েছে ৩৩ ওয়াটের ফাস্ট চার্জার।

অন্যন্যঃ

থাকছে হেডফোন জ্যাক, আগেরবারের মত এবারেও ফিঙ্গারপ্রিন্টটি দেওয়া হয়েছে সাইডে মাউন্ট করে। অবশ্যই ইউএসবি টাইপ সি থাকছে। ফোনের কালার থাকবে দুইটি। হাইলাইটেড ফিচার হিসেবে থাকছে NFC ।

এবার ডিজাইনের দিক দিয়েও থাকছে একটু ভিন্নতা ক্যামেরার চারদিকে সার্কেলটি এবারেও থাকছে তবে ক্যামেরা সেটাপ আগেরবারের মত একটি লাইনে না দিয়ে একটি চতুর্ভুজের মত জায়গা করে দেওয়া হয়েছে যার ৩ বাহু ও মাঝে ৪টি ক্যামেরা ও ৪ নাম্বার পয়েন্টে ফ্লাশ দেখতে পাওয়া যাচ্ছে।