২০১৩ সালে মুক্তির পর থেকে এখন পর্যন্ত ভিডিও গেমস কনসোল সেক্টরে প্লেস্টেশন ৪ ব্যাপক প্রভাব খাটিয়ে রেখেছে। বাজারের অনান্য গেমিং কনসোলের থেকে PS4 কনসোলের প্রভাব এতটাই বেশি যে শুধুমাত্র এই কনসোলের জন্য এক্সুসিভ ভিডিও গেমস মুক্তি দেওয়া হয় (যেমন স্পাইডারম্যান)। ইতিমধ্যেই আপনারা জানেন যে প্লেস্টেশন কনসোলের পরবর্তী মেজর আপগ্রেড PlayStation 5 নিয়ে ইতিমধ্যেই সনি কাজ করছে।  এছাড়াও সনি বর্তমানে প্লেস্টেশন ৩ এবং প্লেস্টেশন ৪ এর সাফল্য ধরে রাখার জন্য প্লেস্টেশন ৫ এর নতুন নতুন ফিচার নিয়ে বর্তমানে গভীর রিসার্চে রয়েছে এবং এটা কোনো গোপন বিষয় নয়। তবে একটা বিষয় গোপন রাখা হয়েছে সেটা হলো প্লেস্টেশন ৫ এর রিলিজ ডেট। কেউ কেউ বলছেন ২০১৯ সালের শেষের দিকে আবার অনেকেই বলছেন ২০২০ সালের শেষের দিকে প্লেস্টেশন ৫ কনসোলকে মুক্তি দেওয়া হতে পারে। তবে যখনই মুক্তি পাক না কেন ইতিমধ্যেই বিভিন্ন লিকস থেকে প্লেস্টেশন ৫ এর কিছু কনফার্ম ফিচার সম্পর্কে জানা গিয়েছে, আর আজ আমি চলে এলাম এই PS5 এর কনফার্ম ফিচারগুলো কে নিয়ে। তো এখন পর্যন্ত কনফার্ম হওয়া সকল প্লেস্টেশন ৫ ফিচারগুলো নিচে দিয়ে দিচ্ছি:

দ্রুতগতির স্টার্ট টাইমস

ইতিমধ্যেই প্লেস্টেশন ৪ কনসোলে আমরা চমৎকার “suspend/resume” ফিচারটি উপভোগ করতে পারছি। কিন্তু ইতিমধ্যেই খবর পাওয়া গিয়েছে যে প্লেস্টেশন ৫ কনসোলে এর থেকেও দ্রতগতির গেমস স্টার্ট টাইমস দেওয়া থাকবে। Resetera সাইটের লিককৃত একটি খবর অনুযায়ী জানা গিয়েছে যে, প্লেস্টেশন ৫ কনসোলে বর্তমান জেনারেশনের হেভি গ্রাফিক্সযুক্ত গেমসসহ সকল গেমসগুলো “instantly” চালু করা যাবে। মানে প্লে বাটনে ক্লিক করার মাত্রই চোখের পলকে গেমসগুলো লোড হয়ে যাবে। এছাড়াও suspend/resume টাইম আরো দ্রুততর করা ছাড়াও প্লেস্টেশন ৫ কনসোলে আমরা splash screens, বিভিন্ন গেমসগুলোর মাঝে সুইচিং ইত্যাদি কাজগুলোকেও “চোখের পলকে” করতে পারবো। এই পারফরমেন্স বুস্ট পাবার জন্য প্লেস্টেশন ৫ কনসোলের র‌্যাম ম্যানেজমেন্টে প্রচুর পরিমাণে Tweaks করা হয়েছে।

আগের প্রজন্মের গেমস সার্পোট

প্লেস্টেশন ৫ এর অন্যতম মূল আকর্ষণ হচ্ছে এটায় আগের প্রজন্মের গেমসগুলো সার্পোট করবে। এই তথ্যটি অনেকদিন পর্যন্ত সনি গোপন করে রেখেছিল (এখনো গোপনীয় তবে লিক হয়ে গিয়েছে), কিছুদিন আগে জানা যায় যে প্লেস্টেশন ৫ কনসোলে আমরা প্লেস্টেশন ৪ এর গেমসগুলো খেলতে পারবো। তবে সম্প্রতি একটি প্যাটেন্ট ফিলিং থেকে আরো জানা যায় যে সনি বিগত ২ বছর ধরে “remastering by emulation” নামের একটি প্রজেক্টে কাজ করছে। এতে নিশ্চিত হওয়া গিয়েছে যে প্লেস্টেশন ৫ কনসোলে legacy সফটওয়্যার ডিক্স ব্যবহার করলে কনসোলটি OTA এর মাধ্যমে সফটওয়্যারটির remasterd visual এবং অডিওকে ডাউনলোড করে নিতে পারবে। অর্থ্যাৎ বোঝা যাচ্ছে যে প্লেস্টেশন ৫ কনসোলে আমরা PS1, PS2 প্রজন্মের ডিক্সগুলোকেও ব্যবহার করতে পারবো! আর এই ফিচারটি যদি সত্যিই প্লেস্টেশন ৫ কনসোলে আনা হয় তাহলে এর মাধ্যমে সনি তাদের সবথেকে বড় প্রতিযোগী মাইক্রোসফটের এক্সবক্স কনসোল থেকে অনেকটাই এগিয়ে থাকবে।

VR Support রিডিজাইন

প্লেস্টেশন ৫ কনসোলে আমরা VR কেও রিডিজাইন ভাবে পাচ্ছি। SemiAccurate এর লিককৃত একটি খবর থেকে জানা গিয়েছে যে প্লেস্টেশন ৫ কনসোলের জন্য সনি পুরো VR সিস্টেমকে রিডিজাইন করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে, অর্থাৎ প্লেস্টেশন ৫ কনসোলে যাতে VR content গুলো কোনো প্রকার বক্স ছাড়াই দেখা যায় যে লক্ষ্যেই কাজ করে যাচ্ছে সনি। উল্লেখ্য যে বর্তমানে PSVR 1.0 তে এই ধরণের Breakout box এর প্রয়োজন হয়। এছাড়াও প্লেস্টেশন ৫ কনাসোলে VR সার্পোটের জন্য সনি তাদের ৮ বছরের পুরোনো PlayStation Move কনট্রোলারকে নতুন VR কনট্রোলারের সাথে আপগ্রেড করিয়ে নেবে। অন্যদিকে গুজব রয়েছে প্লেস্টেশন ৫ কনসোলের মুক্তির বছরখানেকের মধ্যেই সনি PSVR 2.0 আনার পরিকল্পনা করছে।

ডিক্স ড্রাইভ “অবশ্যই” থাকছে

গত কয়েকমাস ধরে গুজব ছিলো যে বর্তমানের ডিজিটাল সেলসের উর্ধ্বগতির জন্য আপকামিং কনসোলগুলোতে ডিক্স ড্রাইভ ফিচারটিকে উঠিয়ে দেওয়া হবে, যার মাধ্যমে আপকামিং কনসোলগুলোতে শুধুমাত্র download-only কনটেন্ট ডেলিভারি সিস্টেম থাকবে। তবে তা এখনি করা হবে না। সনি এবং মাইক্রোসফটের আগামী কনসোলে ডিক্স ড্রাইভ “অবশ্যই” থাকবে। কারণ ডিক্স সেলসের মাধ্যমেই একটি হার্ডওয়্যার স্টোর তাদের মুনাফা আয় করে থাকে, সম্পূর্ণ রূপে ডিক্স ড্রাইভ ফিচারটি উঠিয়ে দিলে এইসকল হার্ডওয়্যার স্টোরগুলো ক্ষতির সম্মুখিন হবে। এছাড়াও অস্ট্রেলিয়ার মতো দেশগুলোতে যেখানে ডিজিটাল ডাউনলোডের উপর কঠিন আইনকানুন রয়েছে যেসকল দেশে ডিক্স ড্রাইভের মাধ্যমেই কনসোল গেমিংগুলো কেনা হয়ে থাকে। তবে গুজব রয়েছে যে প্লেস্টেশন ৫ এর একটি আলাদা “বাজেট” মডেল বের হতে পারে যখানে ডিক্স ড্রাইভ ফিচারটি থাকবে না।

User-Friendly PSN

প্লেস্টেশন ৩ থেকেই সনির PSN নিয়ে অনেক অভিযোগ ছিলো। বিশেষ করে প্রতিযোগী এক্সবক্স লাইভের সাথে তুলনা করলে PSN য়ে অনেক ফিচারই ছিলো না। এদের মধ্যে ইউজারনেম পরিবর্তন করতে না পারাটা অনেকের কাছেই বিরক্তিকর লেগেছে। প্লেস্টেশন ৪ কনসোলে এই PSN ক্ষেত্রে আমরা কিছুটা উন্নতি দেখতে পেরেছি। তবে মাত্র গতমাসে সনি এনাউন্স করেছে যে আপকামিং একটি ফার্মওয়্যার আপডেটের মাধ্যমে PSN ইউজারনেম পরিবর্তন করা যাবে। তবে PlayStation 5 এর ক্ষেত্রে এসকল ঝামেলা থাকছে না। কারণ প্লেস্টেশন ৫ কনসোলে PSN কে আরো “ইউজার ফ্রেন্ডলি” ভাবে উপস্থাপন করা হবে যেখানে পুরাতন অনেক ফিচারের আপগ্রেড এবং নতুন ফিচার থাকবে। প্লেস্টেশন ৪ কনসোলে ইউজার কতক্ষণ গেমস খেলছে সেটা মাপার ব্যবস্থা রাখা হলেও ব্যবহারকারীকে সে তথ্যটি দেখানোর ফিচার নেই এতে, তবে নিশ্চিত হওয়া গিয়েছে যে প্লেস্টেশন ৫ কনাসোলের PSN তে “time played” ট্যাব ফিচারটি রাখা হবে।

AMD Ryzen CPU তে চলবে

বিভিন্ন সুত্র থেকে জানা গিয়েছে যে, বিগত প্রজন্মের প্লেস্টেশন কনসোলের মতোই PlayStation 5 কনসোলেও সনি AMD এর রাইজেন সিপিইউ ব্যবহার করবে। বিশেষ করে প্লেস্টেশন ৪ কনসোলে AMD Jaguar CPU ব্যবহার করা হয়েছে এবং পারফরমেন্স ইস্যু নিয়ে এখনো কোনো প্রশ্ন উঠেনি দেখে এএমডির প্রতি সনির আগ্রহ দিন দিন আরো বেড়েই চলেছে, তাই তাদের পরবর্তী প্লেস্টেশন কনসোলের AMD এর সিপিইউ ব্যবহার করা হবে বলে নিশ্চিত হওয়া গিয়েছে। অন্যদিকে Eurogamer এর একটি গুজব থেকে শোনা যাচ্ছে যে প্লেস্টেশন ৪ এর থেকে প্লেস্টেশন ৫ এর প্রসেসিং স্পিড এবং পারফরমেন্স অনেক বুষ্ট হবে যার মাধ্যমে প্লেস্টেশন ৫ কে হাই এন্ড পিসি প্লাটফর্মের মতো পারফরমেন্স দিতে পারবে।

128GB BD-XL ডিক্স ফরম্যাট ব্যবহৃত হবে

PlayStation 5 কনসোলে বর্তমানের Blu-ray ডিক্স ফরম্যাটটি ব্যবহার করা হবে কিনা এ ব্যাপারে বেশ কিছুদিন ধরেই সনির গবেষকরা গবেষণা চালিয়ে যাচ্ছেন। বিশেষ করে সম্প্রতি Red Dead Redemption 2 গেমটি দুটি ডিক্সে বাজারে আসায় এ বিষয়টি গবেষকদের মাথায় প্রশ্ন তুলছে। Red Dead Redemption 2 গেমটির ১০০ গিগাবাইটের সাইজের জন্য দুটি ডিক্স ব্যবহার করা হয়েছে, এছাড়াও ডিজিটাল ইউজারদের জন্য আলাদা ৫০ গিগাবাইটের ডাউনলোডের প্রয়োজন হবে এই গেমটিতে আনপ্যাক করার জন্য।

বিশেষ করে বর্তমানের অধিকাংশ AAA কোয়ালিটির ভিডিও গেমসের প্যাচ, আপডেট ছাড়াও Downloadable content ফিচারের জন্য গিগাবাইটের পর গিগাবাইট ডাটার প্রয়োজন হয়। তাই প্লেস্টেশন ৫ কনসোলে ৫০ গিগাবাইট ডুয়াল লেয়ারের Blu-ray ডিক্স ফরম্যাটটি বাদ দেওয়া হতে পারে, এর পরিবর্তে গুজব রয়েছে যে সনি তাদের নতুন চারটি লেয়ার বিশিষ্ট BD-XL ডিক্স PlayStation 5 কনসোলে আনতে পারে যেখানে প্রতিটি ডিক্সে ১২৮ গিগাবাইটের ডাটা রাখা যাবে। তবে গেমারদের জন্য দুঃখজনক বিষয় হচ্ছে এই নতুন ফরম্যাটের ডিক্স ব্যবহার করা হলে ভোক্তা পর্যায়ে গিয়ে PS5 গেমের দাম বেড়ে যাবে।

Freesynch Support

অবশেষে PlayStation 5 এ আমরা Freesynch ফিচারটি পেতে যাচ্ছি। গত মাসের একটি রির্পোট থেকে নিশ্চিত হওয়া গিয়েছে যে সনি তাদের PlayStation 5 কনসোলে Freesynch Support আনার জন্য কাজ করছে Freesynch Support এর মাধ্যমে ভিডিও গেমের ফ্রেম-রেটের সাথে ব্যবহারকারীর ডিসপ্লের রিফ্রেশ রেটের সাথে সমন্নয় করা হয়। তবে উল্লেখ্য যে Freesynch ফিচারটি একটি GPU-intensive ফিচার মানে এটা গ্রাফিক্স কার্ডে বেশ চাপ ফেলে তবে সনি প্লেস্টেশন ৫ কনসোলে Freesynch আনবে এটা ১০০% নিশ্চিত হওয়া গিয়েছে। আর Freesynch ফিচারের মাধ্যমেই প্লেস্টেশন ৫ কনসোলটি গেমিং পিসির সাথে তাল মেলাতে এক ধাপ এগিয়ে থাকবে।

Native 4K (maybe?)


ইতিমধ্যেই PS4 Pro কনসোলে ৪কে গেমসগুলো স্ট্রিমিং করার সুযোগ রেখেছে সনি তবে সেখানে ডিক্স থেকে গেমসগুলোকে 4K সেটিংসে খেলার কোনো অপশন নেই। তবে গুজব রয়েছে যে প্লেস্টেশন ৫ কনসোলে সনি native 4K ফিচারটি আনতে পারে। এমনকি গেমস নির্মাতা Rebellion এর CTO এবং কো-ফাউন্ডার Chris Kingsley বলেছেন যে প্লেস্টেশন ৫ এর নতুন হার্ডওয়্যার দিয়ে সহজেই 4K কনটেন্ট চালাতে পারবে এমনকি 8K TV তেও প্লেস্টেশন ৫ চালানোর সম্ভাবনা রয়েছে। তো Native 4K কে ফিচারটি কনফার্ম প্লেস্টেশন ৫ এ থাকবে কিনা সেটা এখনো জোর গলার বলা যাচ্ছে না তাই এই ফিচারটি আমাদের আজকের পোষ্টের একদম শেষে রাখা হয়েছে। তবে বর্তমান যুগের হাই এন্ড গেমিংয়ে Native 4K সার্পোটটি একটি বেসিক প্রয়োজন হয়ে দাড়িয়েছে। তাই অনেকেই মনে করছেন যে 4K সার্পোট ছাড়া প্লেস্টেশন ৫ বের হলে সেটা গেমারদেরকে তেমন আকর্ষণ করতে পারবে না।

এই ছিলো আপকামিং সনির প্লেস্টেশন ৫ কনসোলের নিশ্চিত হওয়া কিছু ফিচারসমূহ। অনেক আপগ্রেড এবং পারফরমেন্স বুস্টিং তো থাকছেই কিন্তু ১২৮ গিগাবাইটের ডিক্স ফরম্যাট ব্যবহার করা হলে সেটা বাজেট গেমারদের জন্য একটু ঝামেলার কারণ হতে পারে। আবার ডিক্স ড্রাইভ ছাড়া মডেলটিতে ডিক্স ব্যবহার করার ফিচার থাকবে না সেখানে শুধুমাত্র ইন্টারনেটের মাধ্যমে গেমসগুলো ডাউনলোড করে নিতে হবে গেমারদের। আর সবথেকে বড় কথা হচ্ছে সম্ভবত ২০১৯ সালে প্লেস্টেশন ৫ বাজারে আসবে না, ২০১৯ সালে কনসোলটি এনাউন্স করা হতে পারে তবে ২০২০ সালে এনাউন্স এবং ২০২০ সালের শেষের দিকে বাজারজাত করা হতে পারে বলে গুজব রয়েছে।