বর্তমানে এদেশের বাজারে মানুষের কম দামে মেকানিকাল কিবোর্ড এর প্রতি আগ্রহ বেড়েছে ,তাই নিত্যনতুন বিভিন্ন ব্র্যান্ড এর বাজেট কীবোর্ড মার্কেটে প্রবেশ করছে। প্রত্যেক ব্র্যান্ড ই চেষ্টা করছে কম বাজেটে
ফিচারফুল এবং আকর্ষণীয় ডিজাইন দিয়ে গেমারদের মন জয় করে নিতে। Cougar মূলত তাদের কেসিং দিয়ে সাধারণ মানুষের মাঝে পরিচিত হলেও তাদের পেরিফেরাল লাইন-আপ ও বেশ কিছুদিন হল এদেশের মার্কেটে প্রবেশ করেছে। মেকানিকাল কিবোর্ড এর জন্য যদি আপনার বাজেট হয় পাঁচ থেকে সাড়ে পাঁচ হাজার টাকা, তবে সিদ্ধান্ত নেওয়ার পূর্বে পড়ে দেখতে পারেন এই Cougar Puri TKL এর রিভিউটি।

Unboxing

কালো এবং কমলা এ্যাকসেন্ট এর ছোটখাট সিম্পল ডিজাইন এর বক্সটি খুললে প্রথমেই চোখে পড়ে একটি আলাদা প্লাস্টিক কভার দিয়ে ঢাকা Cougar Puri TKL কিবোর্ড টি, সেটি বের করার পর পাবেন একে একে প্রোডাক্ট গাইড এবং কোম্পানির একটি ক্যাটালগ কার্ড বা প্রচারণা পত্র যা-ই বলেন 😛 বক্সের ভিতরে একটি রিমুভেবল কার্ডবোর্ড এর ছাচ ও ফোম এর আস্তরণ রয়েছে সব কিছুকে যায়গা মত ধরে রাখার জন্য এবং শিপিং ড্যামেজ এড়ানোর জন্য।

কার্ডবোর্ডটির সামনের দিক উল্টোলে পাওয়া যাবে রিমুভেবল ব্রেইডেড ক্যাবলটি ।ক্যাবলটির দৈর্ঘ্য ১.৮ মিটার এবং দুই প্রান্তের কানেক্টর ই গোল্ড প্লেটেড। এছাড়া আর বক্সের মধ্যে কিছু নেই, যদিও বেশ কিছু বিদেশী রিভিউ তে বক্সের ভিতর Cougar এর নিজস্ব ৮ টি মেটালিক স্পেয়ার কি-ক্যাপ এবং কি-ক্যাপ পুলার দেখা গেছে যেটি আলাদা ভাবে কিনতে গেলে ১১ ডলার গুনতে হবে।

Size,Dimension and Build Quality

TKL কিবোর্ড গুলো মূলত মানুষ পছন্দ করে এদের কম্প্যাক্ট ডিজাইন এর জন্য। Cougar Puri TKL কোন ব্যাতিক্রম নয়, মাত্র ৩৭০ মিলিমিটার প্রস্থের এই কিবোর্ড টি বেশ সলিড । এর দৈর্ঘ্য ও উচ্চতা যথাক্রমে ১৫০ ও ৪০ মিলিমিটার। প্ল্যাস্টিকের কভার টি ছাড়া এর ওজন প্রায় ১ কিলোগ্রাম এবং কভার সহ প্রায় ১.১৭ কিলোগ্রাম। এবার কথা বলা যাক এর বিল্ড ম্যাটেরিয়াল নিয়ে। কিবোর্ডটির উপর এবং নিচ এর দুটি অংশই প্লাস্টিক এর তৈরি যা ধরে রেখেছে উপরের অংশের ৮ টি ভিজিবল ফ্ল্যাট হেড মেটাল স্ক্রু যা অন্যদিকে কিবোর্ডের এ্যাপেয়ারেন্স কে করেছে আরো সুন্দর।


প্লাস্টিক বিল্ড হলেও কিবোর্ডটি বেশ Sturdy এবং Solid. দুই সাইড থেকে বেশ চাপাচাপি করলেও এটিকে বেন্ড বা টিল্ট করা প্রায় অসম্ভব । এর পিছনের আরেকটি কারণ হল কিবোর্ডটির ভিতরে রয়েছে
১.৪ মিলিমিটার পুরু Steel Plate যা key এর মাথা এবং পিসিবি এর মাঝখানে অবস্থান করছে।আমার মতে সব মিলিয়ে একটি সিম্পল এবং ইফিসিয়েন্ট ডিজাইন এর মধ্যে বেশ শক্তপোক্ত কিবোর্ড এটি।

Outlook and Features

এটি একটি QWERTY TKL কিবোর্ড যেখানে এক্সট্রা নাম্বার প্যাডটি পাবেন না,এটি US keyboard layout অনুসরণ করে ।অর্থাৎ একটি ফাংশন কী সহ এতে মোট কী রয়েছে ৮৭ টি। কিবোর্ডটির আউটলুক নিয়ে অনেকটা ডিসকাস “বিল্ড কোয়ালিটি” সেকশনেই হয়ে গেছে, এটি একটি কম্প্যাক্ট সাইজের কিবোর্ড এবং রিমুভেবল ক্যাবল এটিকে আরো সহজে বহনযোগ্য করে তুলেছে। বহনযোগ্যতা থেকে যে জিনিসটি উল্লেখ না করলেই নয়, তা হল এর প্রটেকটিভ কভারটি। এটি এই কিবোর্ড টিকে এই বাজেটে এর অন্যান্য প্রতিযোগীদের থেকে অনন্য করে তুলেছে। কভারটি হাল্কা ট্রান্সপারেন্ট ও ধূসর বর্ণের এবং এক্রিলিক এর তৈরি যা বেশ মজবুত । কভারটি ম্যাগনেটিক এবং কোন ঝুট-ঝামেলা ছাড়াই কিবোর্ডে লাগানো এবং খোলা সম্ভব। কিবোর্ডটি বহনকালে এটি পানি/ধুলা থেকে প্রটেকশন এর এক্সট্রা স্তর হিসাবে কাজ করে। ধুলা মেকানিকাল কিবোর্ড এর একটি বড় শত্রু হয়ে দাড়াতে পারে, দীর্ঘদিন ধুলা জমে “Chattering, Double Key Press Register” ইত্যাদির মত সমস্যা দেখা দিতে পারে। ধুলা হতে কিবোর্ডকে সুরক্ষিত রাখতে কভারটি ভাল কাজে আসতে পারে।

কিবোর্ডটির উপরের অংশে এ্যারো key এর উপরে Cougar ব্র্যান্ডের লোগো রয়েছে যার পিছনে লাইটিং রয়েছে। এটি ছাড়া উপরের অংশে আর কোন ব্র্যান্ডিং লোগো নেই। পিছনের অংশের প্লাস্টিকের মাঝে খোদাই করা রয়েছে Cougar ব্র্যান্ডের লোগোটি এবং উপরের দিকে আছে ইউজার প্রিফারেন্স উনুযায়ী দুই স্টেপে ফ্রন্ট হাইট এ্যাডজাস্ট এর অপশন । ব্যাক সাইডে নিচে এবং উপরে দুই অংশেই রাবার প্যাড রয়েছে কিবোর্ডটিতে টাইপিং এর সময় অনাকাঙ্ক্ষিত নড়চড় এড়ানোর জন্য।

১০০০ হার্টজ পোলিং রেট এর এই কিবোর্ডটিতে রয়েছে শুধুমাত্র সাদা বর্ণের LED Backlight.যদিও এখন পেরিফেরাল এ RGB Lighting মেইন্সট্রিম এ এসে গেছে কিন্তু এটির সিংগেল কালারকে ঠিক ড্র-ব্যাক বলা যায় না কারণ কম বাজেটে সব ফিচার একসাথে আশা করা যায় না।

এই কিবোর্ড টির লাইটিং কন্ট্রোল বা key bindings এর জন্য কোন আলাদা সফটওয়্যার নেই, থার্ড পার্টি এ্যাপ দিয়ে ম্যাক্রো প্রোগ্রাম করা পসিবল হলেও লাইট কন্ট্রোল করতে হবে অন- বোর্ড কন্ট্রল দিয়ে।ব্রাইটনেস কমানো-বাড়ানো ছাড়াও এতে ২০ টি লাইটিং এফেক্ট বিল্ট ইন রয়েছে এবং আরো ১০ টি মোড বা ইফেক্ট আপনি নিজের মত কাস্টোমাইজ করে নিতে পারবেন। এর অন বোর্ড লাইটিং কন্ট্রোল করে মূলত VISION VS11K15A মডেলের মাইক্রোকন্ট্রোলার যা আরো অন্যান্য ব্র্যান্ডের কিবোর্ডেও লাইটিং ইফেক্ট এর জন্য ব্যবহৃত হতে দেখা যায়। কিবোর্ডে থাকা ফাংশন বা “Fn” key টি দ্বারা লাইটিং মোড সিলেক্ট ছাড়াও মাল্টিমিডিয়া শর্টকাট key গুলো একটিভ করা ও উইন্ডোজ key লক করা সম্ভব।

Switch and Key Caps

মেকানিকাল কিবোর্ড এর মূল অংশ হল এর key বা switch.যেখানে এই দামে অন্যান্য কিবোর্ড গুলো সচরাচর তাদের নিজস্ব সুইচ( Blue Type) ব্যবহার করে সেখানে এই কিবোর্ডটির মূল আকর্ষণ হল এতে ব্যবহার করা হয়েছে অরিজিনাল চেরি এমএক্স সুইচ যা সাধারণত তুলনামুলক দামি কিবোর্ড গুলোতে দেখা যায়। Puri এর TKL ভার্সনটি টি ২ টি অপশনে এভ্যেইলেবল , Cherry MX red & Cherry MX Blue switch. এই কিবোর্ডটির key রেসপন্স টাইম ১ মিলিসেকেন্ড।

চেরি এমএক্স সুইচ এর পারফরমেন্স নিয়ে নতুন করে খুব একটা বেশি কিছু বলার নেই । টাইপিং বেশি করলে/ তুলনামূলক ক্লিকি ও জোড়ালো ফিডব্যাক এর জন্য Blue switch এবং কিছুটা সাইলেন্ট , কম ট্রাভেল ডিস্টেন্স
বিশিষ্ট হাল্কা ফিল এর জন্য Red switch টি দেখতে পারেন। বিভিন্ন চেরি সুইচ এর মধ্যকার বিস্তারিত পার্থক্য গুগল এ ঘাটলে জানতে পারবেন।এতে আরো রয়েছে NRKO Technology যার ফলে যত দ্রুতই একটি সুইচ যতবারই ক্লিক করা হোক না কেন, প্রত্যেকবার ই সঠিক সিকুয়েন্স এ তা রেজিস্টার হবে।
কিবোর্ডটির কি-ক্যাপ গুলো ABS প্লাস্টিকের তৈরি এবং ১.০৮ মিলিমিটার পুরু যা মোটামোটি ডিউরেবল ।সচরাচর লো-মিড বাজেট এর মেকা কিবোর্ড গুলোতে ABS প্লাস্টিক এর তৈরি কি-ক্যাপ দেখা যায়।

Conclusion and Personal Opinion

৪-৫ হাজার টাকা বাজেট রেঞ্জে বর্তমানে ফুল সাইজড এবং RGB Light সম্পন্ন কিবোর্ড গুলো Outemu Blue বা নির্মাতা কোম্পানির নিজস্ব মেকানিকাল সুইচ ব্যবহার করে থাকে । এক্সপশন হল A4tech এর
ব্লাডি মেকা কিবোর্ড যেগুলো LK Optical Switch ইউজ করে এবং এর key রেস্পন্স টাইম সবচেয়ে ফাস্টেস্ট বলে ক্লেইম করা হয়।এই দামে গিগাবাইট এর একটি Cherry mx red সুইচ সমৃদ্ধ কিবোর্ড থাকলেও তাতে কোন ব্যাক্লাইট নেই যা অন্ধকারে ইউজের জন্য একটি বড় সমস্যা হয়ে দাড়াতে পারে। সব মিলিয়ে যদি একটি পরিপাটি,স্ট্যান্ডার্ড এবং simple yet gorgeous লুকের কিবোর্ড চান , যদি ঘনঘন কিবোর্ড নিয়ে মুভ করতে হয় এবং RGB Freak না হন, তবে Cougar Puri TKL হতে পারে আপনার চয়েজ।

চলুন দেখে নিই সুবিধা এবং অসুবিধা গুলো এক নজরে –

সুবিধা

  • অল্প দামে অরিজিনাল চেরি এমএক্স সুইচ
  • সহজে বহনযোগ্য
  • ডিউরেবল বডি

অসুবিধা

  • TKL কিবোর্ড এর জন্য অনেকের সমস্যা হতে পারে যারা নাম্বারপ্যাড ইউজে অভ্যস্ত
  • আরজিবি লাইটিং ও ইউটিলিটি সফটওয়্যার নেই
  • Wrist Rest নেই যা অনেকের জন্য দীর্ঘ সময় ব্যাবহারে অসুবিধা হতে পারে।

Cougar Puri TKL এর ফুল স্পেসিফিকেশন

অল্প বাজেটে সব কিছুর পারফেকশন একসাথে আশা করা যায় না, সব কিছুরই কিছু ড্র ব্যাক রয়েছে। রিভিউটির ভুল ত্রুটি ক্ষমার চোখে দেখবেন, ধন্যবাদ।