প্রিমিয়াম গেমিং কম্পোনেন্টের জন্য আসুসের সাব ব্র্যান্ড Republic of Gamers বা ROG থাকলেও মিড রেঞ্জ গেমারদের কথা আসুস ভুলে যায় নি। তাই গত বছর তারা অফিসিয়ালি রিলিজ করে তাদের মিড লেভেল গেমিং ডিভিশন TUF Gaming ব্র্যান্ড। ROG এর প্রোডাক্ট যদি প্রিমিয়াম দামে আল্ট্রা প্রিমিয়াম সার্ভিস প্রোভাইড করে থাকে তাহলে TUF Gaming মিড রেঞ্জ প্রাইসে প্রিমিয়াম জিনিসটি অফার করবে। ইতিমধ্যে আমরা TUF ব্র্যান্ড করা মাদারবোর্ড, র‍্যাম, কুলার দেখতে পেলেও এই ডিভিশনে লেটেস্ট এন্ট্রি হিসেবে জায়গা করে নিয়েছে ASUS TUF Gaming RTX 2060 জিপিউ।

Two New TUF Gaming RTX 2060 GPUs

আসুস অফিসিয়ালি রিলিজ করেছে TUF Gaming RTX 2060 এর দুটি ভার্শন। একটি হচ্ছে ASUS TUF Gaming RTX 2060 যার মেমোরি ও কোর ক্লক স্পীড থাকবে ফাউন্ডারস এডিশনের মতই। অপরটি হচ্ছে ASUS TUF Gaming RTX 2060 OC Version যা ফ্যাক্টরি থেকেই ওভারক্লক করা। অবশ্য দুটি মডেলেই ম্যানুয়ালি ওভারক্লক করা যাবে, তবে OC ভার্শনে বেটার ওভারক্লকিং স্পীড পাবেন।

আসুসের ভাষ্যমতে TUF Gaming সিরিজের জিপিউগুলো তৈরি করা হয়েছে “durability, compatibility, and performance” এই তিনটি জিনিস বিবেচনা করে। TUF Gaming মাদারবোর্ড সিরিজের মত এই দুটি কার্ডকেও টানা ১৪৪ ঘন্টা টর্চার টেস্টের মধ্য দিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এই কার্ডকে ঠান্ডা রাখার জন্য আসুস দিয়েছে নিজস্ব ডিজাইনের ডুয়াল বিয়ারিং ফ্যান ডিজাইন এবং চারটি কপার হিটপাইপ। আসুসের এই ডিজাইন IP5X রেটেড ডাস্ট রেসিস্ট্যান্ট যা নিশ্চিত করবে আপনার জিপিউর মধ্যে যেন তেমন ধুলাবালি না ঢুকতে পারে। তবে সেই এক্সাক্ট IP রেটিং কত তা জানা যায় নি।

বাজেট সিরিজের জিপিউ হলেও আসুস এতে কোন প্রকার ব্যাকপ্লেট দিতে ভুলে নি। ব্যাকপ্লেটকে দেয়া হয়েছে কালো, সাদা এবং গ্রে কালারের সুন্দর একটি কালার কম্বিনেশন এবং তাতে TUF ব্র্যান্ডিং বেশ ভালোভাবেই করা হয়েছে। এছাড়া অন্যান্য TUF Gaming প্রোডাক্টের মতই এই দুটি জিপিউতেও রাখা হয়েছে মিলিটারি থিমের এসথেটিকস।

এই কার্ডটির সাইজ হচ্ছে মাইক্রো এটিএক্স ফর্ম ফ্যাক্টরের। অর্থাৎ, মিডিয়াম সাইজের যে কোন চ্যাসিসে এটি সহজে ইন্সটল করা যাবে। ডিসপ্লে কানেকটিভিটির জন্য আপনি পাবেন একটি ডিসপ্লে পোর্ট, দুটি এইচডিএমআই পোর্ট এবং একটি ডুয়াল লিংক ডিভিআই পোর্ট। তবে অন্যান্য কার্ডের মত ভিআর হেডসেটের জন্য কোন ইউএসবি টাইপ সি পোর্ট দেয়া হয় নি।

 

বাজেট সিরিজের RTX 2060 বলে এই জিপিউ দুটিতে দেয়া হয় নি কোন প্রকার আরজিবি লাইটিং অথবা ফ্যান্সি এলইডি স্ক্রিন। এর থেকে বোঝা যাচ্ছে আসুস স্পষ্টভাবেই এন্ট্রি লেভেল গেমারদের টার্গেট করছে যারা এক্সট্রা কোন খরচ ছাড়াই RTX 2060 কার্ডের অভিজ্ঞতা নিতে চাচ্ছেন।

বাংলাদেশে কবে নাগাদ আসুসের এই বাজেট সিরিজের জিপিউ আসবে তা স্পষ্টভাবে এখনো বলা যাচ্ছে না। তবে আসা মাত্রই আপনাদের আপডেট করে জানিয়ে দেয়া হবে। নর্মাল ভার্শনের দাম ৩৯/৪০ হাজার এবং OC ভার্শনের দাম ৪২/৪৪ হাজার টাকার মধ্যে থাকতে পারে। বাংলাদেশে আসুসের সকল পণ্য এনে থাকে গ্লোবাল ব্র্যান্ড প্রাইভেট লিমিটেড। সকল প্রকার তথ্যের জন্য যোগাযোগ করুন তাদের সাথে।

অফিসিয়ালি RTX 2060 রিলিজ