28 C
Dhaka
Wednesday, April 10, 2024

iPhone 15 Lineup: Price,Specs সম্পর্কে জেনে নিন বিস্তারিত

- Advertisement -

আরো একটি Apple Event, আরো একবার সবার আগ্রহের শীর্ষে Apple এবং অবশেষে আরো একবার নতুন প্যাকেটে পুরাতন জিনিস নিয়ে হাজির Apple। গতকাল এনাউন্স হয়ে গেলো Apple এর সবথেকে জনপ্রিয় প্রোডাক্ট লাইনআপ iPhone এর 2023 সালের সংস্করণ iPhone 15।

 

- Advertisement -

এক নজরে এবারের iPhone 15 Lineup

আগেরবারের মতই, চারটি আইফোন । মিনি ভ্যারিয়েন্টকে চীরতরে বিদায় দিয়ে দেওয়া হয়েছে গত বছরেই। গতবছর আত্মপ্রকাশ করা Plus উপস্থিত আছে এবার ও। আইফোন চারটি হলো iPhone 15, iPhone 15 Plus,iPhone 15 Pro,iPhone 15 Pro Max। ডিজাইনের দিক দিয়ে সেরকম কোনো পরিবর্তন নেই কোনোটাতেই। ট্রেন্ড ধরে রেখে এবার ও আগের জেনারেশন এর ফ্লাগশিপ মডেলের প্রসেসর দেওয়া হয়েছে এবারের জেনারেশনের বেসিক আইফোনে। অর্থাৎ iPhone 14 Pro Max এর 4nm A16 Bionic চিপসেট দেওয়া হয়েছে iPhone 15 এ।আর নতুন চিপসেট ,A17Pro দেওয়া হয়েছে 15 Pro Max এ। চলুন ফোনগুলো সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক।

iPhone 15 Pro and iPhone 15 pro Max

প্রথমেই আসা যাক ডিজাইনে,আগেরবারের স্টেইনলেস স্টিলের জায়গায় এবার iPhone 15 Pro ও 15 Pro Max এর ডিজাইনে ব্যবহার করা হয়েছে টাইটানিয়াম, তাই এই ডিজাইনের নাম ও টাইটানিয়াম ডিজাইন। চারটি কালারে পাওয়া যাবে iPhone 15 and 15 Max,Black Titanium, White Titanium, Blue Titanium, Natural Titanium। সিরামিক শিল্ডের ফন্টের পাশাপাশি আছে ম্যাট গ্লাস এর ব্যাকসাইড।কমে এসেছে ওজন ও, ২৪০ গ্রামের থেকে এক ধাক্কায় এবার আইফোনের ওয়েট নেমে এসেছে ২২১ গ্রামে (নন ম্যাক্স বা প্রো ভার্সনের ক্ষেত্রে তা মাত্র ১৮৭ গ্রাম,আগে যা ছিল ২০৬ গ্রাম)। আগের মতই ৬ মিটার গভীর পানিতে ৩০ মিনিট পর্যন্ত অক্ষত থাকার যোগ্যতাও দেওয়া হয়েছে এবারের আইফোন গুলোকে।

- Advertisement -

ডিসপ্লে সেকশনে কোনো পরিবর্তন আসেনি ।6.7 inches এর ডিস্প্লে সাইজের পাশাপাশি অপরিবর্তিত আছে এর 1290 x 2796 pixels রেজুলুশন,  19.5:9  aspect ratio  ও 460 ppi ও। এগুলোর পাশাপাশি ডাইনামিক আইল্যান্ডকেও রেখে দেওয়া হয়েছে।

Pro version বা Non max ভার্সনেও ডিসপ্লে স্পেসিফিকেশন একই রকম।

SoC and storage

SOC বা চিপসেট সেকশনে আসা যাক, বরাবরের মত Apple এর মুল মার্কেটিং এর জায়গাটা এখানেই রয়েছে।। 14 Pro ,14 Pro Max  এ ব্যবহার করা 4nm এর A16 Bionic চিপসেটের স্থলে 15 Pro,Max এ 3nm এর একদম নতুন চিপসেট A17 PRO  চিপসেট দিয়েছে Apple। প্রসেসর কোর সংখ্যা আগের মত এখানেও ৬টি কিন্ত গ্রাফিক্স কোরের সংখ্যা ৫টি থেকে বেড়ে হয়েছে ৬। আছে ১৬ কোরের নিউরাল ইঞ্জিন।

- Advertisement -

এই এসওসিতে বেশ অনেকগুলো পরিবর্তনের কথাই বলছে Apple, ইন্ডাস্ট্রির প্রথম ৩ ন্যানোমিটার চিপ এর SoC তে Apple এর ইতিহাসের সবথেকে বড় জিপিইউ রিডিজাইন কুরা হয়েছে বলছে তারা। এই A17 Pro আগের জেনারেশনের 16 Bionic থেকে ১০% পর্যন্ত বেশি ফাস্ট ও ৬ কোরের জিপিইউটি ২০% পর্যন্ত ফাস্ট পারফর্মেন্স দেবে ,দাবী Apple এর। ১৬ কোরের নিউরাল ইঞ্জিন ও আগের থেকে দুই গুণ পর্যন্ত বেশি শক্তিশালী হতে যাচ্ছে। শুধু তাই নয়, জিপিইউটি থেকে ৪গুণ পর্যন্ত বেটার সফটওয়্যার ভিত্তিক রে ট্রেসিং পারফর্মেন্স পাওয়া যাবে। আছে AV1 এনকোডার ও।

15 Pro Max আসছে ৩টি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টে, ২৫৬ জিবি থেকে শুরু করে ১ টেরাবাইট পর্যন্ত। প্রত্যেকটা ভ্যারিয়েন্টেই থাকবে ৮ গিগাবাইট এর র‍্যাম। অন্যদিকে 15 Pro আসবে ৮ গিগাবাইট র‍্যাম এর সাথে ১২৮জিবি-১টিবি স্টোরেজ অপশনের সাথে।

Camera

48 মেগাপিক্সেলের সাথে ১২ মেগাপিক্সেল করে একটি আল্ট্রাওয়াইড ও একটি টেলিফটো লেন্স এর ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ থাকছে এবার।মেইন ক্যামেরাতে ডিফল্টে ২৪ মেগাপিক্সেল রেজুলুশনে ছবি তোলা যাবে । ৩টি ফোকাল লেংথ থেকে ইচ্ছামত বেছে নিতে পারবেন ইউজার (24 mm, 28 mm, and 35 mm)। ৪৮মেগাপিক্সেল্ল এর Pro-RAW এর পাশাপাশি 4times more resolution এর HEIF ইমেজ ও ক্যাপচার করা যাবে।। 120mm 5x optical zoom এর সাপোর্ট ও রয়েছে 15 Pro Max এ। পোর্ট্রেইট মোড কে বলা হচ্ছে নেক্সট জেনারেশন পোর্ট্রেইট। প্রথমবারের মত Portrait mode স্বয়ংক্রিয়ভাবে স্থান ,কাল,পাত্র,পরিবেশ অনুসারে নিজে থেকেই কাজ করবে, পাওয়া যাবে আগের তুলনায় আরো বেশি ভালো লো লাইট ইমেজ।

গতানুগতিক OIS এর সাথে 3D sensor-shift module মিলিয়ে সবথেকে উচ্চমানের STABILIZATION পাওয়া যাবে iPhone 15 Pro max ও 15 Pro থেকে ,এমনটাই দাবী Apple এর। এছাড়াওSmart HDR,Better night mode performance ,low light improvement, action মোড এর কথাও বলছে Apple।15x-25x digital zoom support,77mm-120mm telephoto,3x-5x zoom এগুলোও উল্লেখযোগ্য।

ভিডিও অপশন গুলোর হাইলাইটস হচ্ছেঃ

  • 4K video recording at 24 fps, 25 fps, 30 fps, or 60 fps
  • 1080p HD video recording at 25 fps, 30 fps, or 60 fps
  • 720p HD video recording at 30 fps
  • Cinematic mode up to 4K HDR at 30 fps
  • Action mode up to 2.8K at 60 fps
  • HDR video recording with Dolby Vision up to 4K at 60 fps
  • ProRes video recording up to 4K at 60 fps with external recording
  • Log video recording

12 megapixel এর সেলফি থাকছে সামনে।

Battery and connectivity

লাইটনিং কেবল ও পোর্টকে বিদায় জানিয়ে Apple প্রথমবারের মত সম্পর্ক স্থাপন করেছে USB Type-C এর সাথে,চার্জিং ও অন্যান্য কানেক্টিভিটির জন্য এবার ব্যবহ্বত হচ্ছে USB Type-C।। Apple এর দাবী শতভাগ রিসাইকেল করা স্বর্ণ ব্যবহার করা হয়েছে এই টাইপ সি পোর্টে।ব্যাটারিতেও শতভাগ রিসাইকেল করা কোবাল্ট ব্যবহার করছে তারা। এই Type-C চার্জ ছাড়াও 10gb/s data transfer ও Display port হিসেবেও কাজ করবে।

২০ ওয়াট এর এডাপ্টার দিয়ে ৩০ মিনিটে ৫০ % চার্জ হবে ফোনগুলো। ১৫ ওয়াট এর  magsafe wireless charging ও থাকছে।

ব্যাটারি ব্যাকআপের প্রসংগে Apple এর দাবী তাদের লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি দিয়ে ২৩ ঘন্টা ভিডিও প্লেব্যাক,২০ ঘন্টা স্ট্রিমিং, ৭৫ ঘন্টা অডিও কল করা যাবে Pro model এ। Pro Max এর ক্ষেত্রে তা হবে ২৯,২৫ ও ৯৫ ঘন্টা যথাক্রমে।

OS

সবগুলো আইফোনই Out of the box ios17 এর সাথে আসবে।

details specs and features of iPhone 15 Pro and 15 Pro Max

iPhone 15 and iPhone 15 Plus

আইফোন 15 ও 15 Plus ও আসছে চার রঙ এ। টাইটানিয়াম অবশ্য এখানে নেই, এলুমিনিয়াম বিল্ডের সাথে Ceramic Shield front,Colour-infused glass back থাকছে। কালার চারটি হচ্ছে Black, Blue, Green, Yellow, Pink।

ওজন আগের বারের মতই প্রায় একই রকম আছে, ১৭১ গ্রাম ও ২০১ গ্রাম যথাক্রমে।

Pro ,Pro max এর মত আইফোন 15 ,15 plus নিয়ে অবশ্য বিস্তর আলোচনা করার মত কিছু নেই কারণ Innovation, নতুনত্ব এর ছোয়া সেভাবে লাগে নি বললেই চলে এই দুটো ফোনে। বরং ক্রেতা বলতে গেলে ক্যামেরা স্পেকস ও প্রসেসর এর দিক দিয়ে বিবেচনা করলে  15 এর নামে 14 Pro ও 14 Pro Max ই পাচ্ছেন এখানে।

ডিসপ্লে যথারীতি 6.1 Inch ও 6.7inch। নেই কোনো হাই রিফ্রেশ রেট । সাইজের জন্য রেজুলুশন আলাদা হলেও PPI থাকছে 460।এছাড়াও-

  • 2,000,000:1 contrast ratio (typical)
  • 1,000 nits max brightness (typical); 1,600 nits peak brightness (HDR); 2,000 nits peak brightness (outdoor)

15 pro,15 pro max এর মতই ওয়াটার রেজিস্টেন্ট।

এসওসি হিসেবে দুটোটেই থাকছে হেক্সা কোর A16 Bionic chip with 5 core GPU। আলাদা করে কিছু বলার নেই। স্টোরেজ হিসেবে ১২৮ থেকে ৫১২ গিগাবাইট পর্যন্ত ভ্যারিয়েন্ট থাকছে,সাথে ৬ গিগাবাইট র‍্যাম।

ক্যামেরা সেকশনে ৪৮+১২ মেগাপিক্সেল এর ডুয়াল ক্যামেরা সেটআপ ও ১২ মেগাপিক্সেল এর সেলফি। অর্থাৎ 14 Pro Max থেকে ডিসপ্লে থেকে হাই রিফ্রেশ রেট বাদ দিলে,ক্যামেরা থেকে টেলিফটো বাদ দিলে ও সাথে ডিসপ্লে সাইজ কমালে যেটা হয় সেটাকেই iPhone 15 বলা যেতে পারে। সাথে IOS17।

একইভাবে, 14 Pro max এর ডিসপ্লে সাইজ একই রকম রেখে ,হাই রিফ্রেশ রেট অপশন বাদ দিলে ও ক্যামেরা একটা বাদ দিলেই iPhone 15 Plus এর স্পেকস মিলে যাবে। সাথে IOS17,বেটার ব্যাটারি ,টাইপ সি।। অবশ্য এখানে USB 2.0 দেওয়া হয়েছে যেটা কিছুটা ধীরগতির।

details specs and features of iPhone 15 and 15 Plus

Price and availability of iPhone 15,15 Plus, 15 Pro, 15 Pro Max

নিচের চার্টটি থেকে বিভিন্ন দেশে iPhone 15 সিরিজের প্রাইসিং সম্পর্কে জেনে নিন।

আগের ১৪ সিরিজের সাথে যদি একটু তুলনা করি ,১০০ ডলার করে বাড়ানো হয়েছে iPhone 15 ও 15 Plus এর দাম। একইভাবে ১০০ ডলার বাড়ানো হয়েছে 15 Pro max এর price ও।

প্রিঅর্ডার করা যাবে ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে।

- Advertisement -

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here