The New MacBook Update Is Here!

অনেক বছর পর অ্যাপল ফাইনালি তাদের MacBook Air এর আপগ্রেড আনলো। নিউ ইর্য়কের একটি হার্ডওয়্যার ইভেন্টে গতকাল অ্যাপল তাদের নতুন 2018 MacBook Air মডেলটি এনাউন্স করেছে। আর এর মাধ্যমে অবশেষে MacBook Air মডেলে অ্যাফর তাদের ট্রেডমার্ক ফিচার রেটিনা ডিসপ্লে এবং সময় উপযোগী প্রসেসর ব্যবহার করেছে। আর এছাড়াও ডিভাইসটিতে মর্ডান লুক আনার জন্য আগের প্রজন্মের MacBook Air এর থেকে ৫০% কম বেজেল ব্যবহার করা হয়েছে এতে।

তবে বাজারের ম্যাকবুক প্রো এবং ম্যাকবুক এয়ারের প্রাইস পয়েন্টে কিছুটা কনফিউজিং রয়েছে। গড়ে ১০০ মার্কিন ডলার বেশি খরচ করে আপনি চাইলেই নতুন এই ম্যাকবুক এয়ারের থেকে বেশ পারফরমেন্সযুকত্ ম্যাকবুক প্রো কিনে নিতে পারেন। তবে সেটা আপনার ইচ্ছের উপর নির্ভর করে। কারণ খোদ ম্যাকবুক এবং ম্যাকবুক প্রোতেও নতুন কোনো আপডেট আসেনি (টাচ বার ছাড়া)।

নতুন ম্যাকবুক এয়ারে পাচ্ছেন ১৩.৩ ইঞ্চির ডিসপ্লে যেখানে পাবেন রেটিনা ডিসপ্লে ফিচার, মানে ডিভাইসটির ডিসপ্লে আপনাকে ৪ মিলিয়ন পিক্সেলস দেখানোর ক্ষমতা রাখে। মর্ডান লুক দেবার জন্য ডিভাইসটিতে ব্যবহার করা হয়েছে Razor Thin বেজেল। এছাড়াও নতুন ম্যাকবুক এয়ারে আপনি পাবেন টাচ আইডি।

ম্যাকবুক এয়ারে ব্যবহৃত টাচ আইডিতে ব্যবহার করা হয়েছে অ্যাপলের T2 চিপ এবং একটি SSD কনট্রোলার, মানে ম্যাকবুক এয়ারের ব্যবহারকারীর সকল সেন্সিটিভ ডাটাসমূহ আলাদা একটি ডেটিকেটেড চিপে স্টোর করা থাকবে। এছাড়াও T2 চিপে থাকছে আপগ্রেডেড এবং রিডিজাইনকৃত সিস্টেম ও অডিও কনট্রোলার। অন্যদিকে ডিভাইসটির ডিসপ্লেতে পাচ্ছেন FaceTime HD ক্যামেরা। আগের প্রজন্মের ম্যাকবুক এয়ারের থেকে ২০% বড় ট্রাকপ্যাড থাকছে ২০১৮ ম্যাকবুক এয়ারে। আর ট্রাকপ্যাডে বোনাস হিসেবে পাচ্ছেন Force Touch ফিচার।

আগের প্রজন্মের ম্যাকবুক এয়ারের কিবোর্ড এর বিল্ড এবং রেসপন্স এর ক্ষেত্রেও নতুন ম্যাকবুকে এয়ারে পাচ্ছেন আপগ্রেড, ডিভাইসটিতে ব্যবহার করা হয়েছে বাটারফ্লাই backlit কিবোর্ড। টাচপ্যাডেও পাবেন haptic feedback আপডেট। ২০১৮ ম্যাকবুক এয়ারে আপনি পাবেন ২টি Thunderbolt 3 পোর্টস, ৮ অস্টম প্রজন্মের ডুয়েল কোর Intel Core i5 প্রসেসর যেটার ক্লক স্পিড হচ্ছে ১.৬ / ৩.৬ গিগাহার্জ। স্টোরেজে পাবেন মডেলভেদে ১.৫ টেরাবাইট পর্যন্ত SSD । অ্যাপল বলছে যে নতুন ম্যাকবুক এয়ারের SSD টি আগের প্রজন্মের ম্যাকবুক এয়ারের থেকে ৬০% বেশি দ্রুততর হবে। র‌্যাম হিসেবে পাচ্ছেন মডেল ভেদে ২১৩৩ মেগাহার্জের ১৬ গিগাবাইট পর্যন্ত র‌্যাম।

আর অ্যাপল এবারেও তাদের অনান্য ডিভাইসের মতো এই ম্যাকবুক এয়ারের আসল ব্যাটারি ক্যাপাসিটি প্রকাশ করেনি। তবে তারা বলছে যে নতুন এই ম্যাকবুক এয়ার ডিভাইসটিতে টানা ১৩ ঘন্টার আইটিউনস মুভি প্লেব্যাক করা যাবে, এবং অন্যদিকে ১২ ঘন্টার ওয়্যারলেস ওয়েবব্রাউজিং করা যাবে।

আগের প্রজন্মের ম্যাকবুক এয়ারের থেকে লাউড স্পিকারের ভলিয়ম ১৭% কম পাবেন নতুন এয়ারবুকে আর ডিজাইনে আগের প্রজন্মের থেকে নতুন ম্যাকবুক এয়ারটি ১০% বেশি চিকন ডিজাইন ব্যবহৃত হয়েছে। অ্যাপল বলছে যে ডিভাইসটি তৈরিতে ব্যবহৃত হয়েছে 100% recycled aluminum । নতুন এই ম্যাকবুক এয়ারের দাম শুরু হচ্ছে ১১৯৯ মার্কিন ডলার থেকে আর মডেলটির প্রি-অর্ডারও ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে। নতুন ম্যাকবুক এয়ার ডিভাইসটি পাওয়া যাবে Gold, Space Gray এবং Aluminum কালারে। নভেম্বর ৭, ২০১৮ তারিখ থেকে নতুন এই ডিভাইসটির শিপিং শুরু হবে বলে নিশ্চিত হওয়া গিয়েছে।