26 C
Dhaka
Tuesday, April 16, 2024

ফ্রি BDIX VPN! অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোনে WiFi সংযোগে BDIX স্পিড! (২য় পর্ব)

- Advertisement -

শুরুতেই বলে নিচ্ছি এটা একটি শিক্ষণীয় পোষ্ট, পোষ্টে দেখানো নিয়ম শুধুমাত্র শেখার বা জানার উদ্দেশ্যে দেওয়া হয়েছে। এই পোষ্ট ও এর আগের পর্বের পোষ্ট দেখে কেউ যদি নিয়মগুলোর অনৈতিক ব্যবহার করে এবং ISP বা অন্য কোনো ক্ষেত্র থেকে ইউজারের সমস্যা হলে আমি এবং পিসি বিল্ডার বাংলাদেশ কোনো ভাবেই দায়ী থাকবে না।

কেমন আছেন সবাই? BDIX VPN নিয়ে মাসখানেক বেশ কমেডি দেখলাম সোশাল মিডিয়াতে। আমাদের সাইটে প্রথম পর্ব লেখার মাত্র ৩/৪ দিনের মাথায় পুরো দেশের অধিকাংশ BDIX স্পিডে Capped সমস্যা চলে এসেছে। তাহলে বুঝেন অবস্থা! আগে যেখানে স্পিড 100Mbps স্ট্যাবল পাওয়া যেত সেটা এখন ২০/৩০ এর উপরে উঠছেই না। স্পিড এখন এই সকল VPN এর বড় সমস্যা ।

- Advertisement -

যাই হোক এই টপিকে আরেকটি পোষ্ট লেখার কোনো ইচ্ছেই আমার ছিল না, যেহেতু প্রথম পর্বে লাকি প্যাচারের সাহায্যে বাইপাস পদ্ধতিটি অনেকের ডিভাইসে সার্পোট করে নি দেখে এই ২য় পর্বটি লেখার উদ্দেশ্য হচ্ছে আপনাদের সামনে ঝামেলামুক্ত ফ্রি BDIX VPN সল্যুশন নিয়ে আসা। তবে এখানে কিছু কথা আমি ক্লিয়ার করতে চাই।

কিছু কথা:

  1. এই VPN গুলো সবার জন্য প্রযোজ্য না। কাদের জন্য প্রযোজ্য সেটাও আমি আমার স্থান থেকে সঠিক করে বলতে পারবো না। যেমন আমার বাসায় লোকাল ISP রয়েছে, সেক্ষেত্রে আমি যেকোনো VPN এর পূর্ণাঙ্গ সুবিধা উপভোগ করতে পারছি। আমার বাসার নেট স্পিড কত এবং VPN ব্যবহারের পর সেটা কতটুকু বাড়ে সেটা আমি এই পোষ্টের কভার ইমেজেই ক্লিয়ার করে দিয়েছি। ঠিক একই ভাবে পিসিবির Studio তে গিয়ে VPN কানেক্ট করে দেখি স্পিড উল্টে কমে যাচ্ছে! তাই আপনার সংযোগে এটা কাজ করবে কিনা সেটা একামাত্র আপনি ট্রায় করা ছাড়া বলা সম্ভব নয়। তবে লোকাল ISP গুলোতে কাজ করার কথা। Nationwide আইএসপি যেমন লিংক ৩, ডট, সার্কেল ইত্যাদিতে কাজ করার কথা না।
  2. যাদের নেট স্পিড 5Mbps থেকে 10/15Mbps এর মধ্যে সীমাবদ্ধ তারাই এই VPN গুলো থেকে সর্বাধিক সুবিধা পাবেন। দেখা গিয়েছে আমাকে যারা ব্যক্তিগত ভাবে সোশাল মিডিয়াতে মেসেজ দিয়েছেন যে ভাই VPN ব্যবহার করে স্পিড তেমন পাচ্ছি না কিংবা উল্টো স্পিড আরো কমেছে তাদের অধিকাংশরই নেট স্পিড 20Mbps বা তার উপরে থাকে। তবে ভাগ্য ভালো থাকলে আপনার 20Mbps বা তার বেশি স্পিডের ব্রডব্যান্ড লাইনেও এটা কাজ করতে পারে।
  3. এই VPN কানেক্ট করে কখনোই গেমিং করবেন না। যেমন পাবজি, ফ্রিফায়ার, কল অফ ডিউটি মোবাইল, মোবাইল লেজেন্ড ইত্যাদি মোবাইল গেমে ভালো পিংয়ের আশায় যারা এই VPN দিয়ে কানেক্ট করে খেলার ইচ্ছা করছেন তারা ভুলেও এই কাজ করবেন না যেন। গেমের পিং আপনার ইন্টারনেট স্পিডের উপর নির্ভর করে না। আমার বাসায় CODM এর পিং ৪০/৪৫ থাকতো, অন্যদিকে পিসিবি স্টুডিওতে Gbps স্পিডের নেট সংযোগেও আমি CODM এর পিং সেই ৪০/৪৫/৫০ms পেয়েছি।
  4. এই সব VPN কানেক্ট থাকা অবস্থায় বিকাশ, রকেট, নগদ, উপায় অথবা যেকোনো ব্যাকিং অ্যাপে ঢুকা থেকে বিরত থাকুন।

ভূমিকায় আর কথা না বাড়িয়ে আসল কাজে লেগে পড়ি চলুন।

BDIX কি? প্রক্সিফায়ার কি? BDIX VPN কি আবার ফ্রি পেইড এগুলো কই থেকে আসলো এই সব ব্যাপারে প্রথম পর্বেই যা বলা বলে দিয়েছি। তাই এখানে এইসব বিষয় এড়িয়ে যাচ্ছি। যারা আগের পর্ব দেখেননি এখন দেখে আসতে পারেন নিচের লিংকে ক্লিক করে।

- Advertisement -

BDIX VPN দিয়ে মোবাইলে ব্রডব্যান্ড WiFi স্পিড বাইপাস করুন! (ফ্রি এবং পেইড)

প্রথম অ্যাপ

এটি একটি দেশীয় VPN,এখানে সমস্যা একটাই সেটা হলো বাংলাদেশ সার্ভার সিলেক্ট করার আগে আপনাকে ৩০ সেকেন্ডের একটি এড/বিজ্ঞাপন দেখতে হবে। দেশীয় সার্ভারের খরচ উঠানোর জন্যই হয়তো এই নিয়ম। তবে সুবিধা হচ্ছে বর্তমানে ফ্রিতে আপনি সর্বোচ্চ স্পিড এই VPN য়েই পাবেন।

- Advertisement -

ভিপিএনটি আপনি প্লেস্টোরে পেয়ে যাবেন। নাম লিখে সার্চ দিলে বেশ বেগ পোহাতে হবে এই অ্যাপটি খুঁজতে হলে। প্লেস্টোর লিংক।

অ্যাপটি ইন্সটল করার পর চালু করুন, প্রথমেই প্রাইভেসি জাতীয় পপআপ আসবে, Agree বাটনে ট্যাপ করুন। 

এবার ডান দিকে সোয়াইপ করে মেইন মেন্যুতে চলে আসুন। সেখান থেকে সার্ভার বাটনে ট্যাপ করে সার্ভার লিস্টে চলে আসুন।

এখানে দুটি ক্যাটাগরি দেখতে পাবেন। আপনি প্রিমিয়াম সার্ভার ট্যাবে চলে আসুন এবং এখান থেকে বাংলাদেশ সার্ভারে ট্যাপ করুন।

 

বাংলাদেশ লেখার উপর ট্যাপ করার পর এড দেখার পপআপ আসবে, এখানে Watch Ad বাটনে ট্যাপ করলে ৩০ সেকেন্ডের এড আসবে।

এড শেষ হওয়ার পর VPN টি বাংলাদেশ সার্ভারে কানেক্ট হয়ে যাবে। ব্যাস কাজ শেষ। এখানে অন্য কোনো ঝামেলা নেই। অফ পিক আওয়ারে আমি এটায় 10MBps পেয়েছি এবং পিক আওয়ারে 4/5/6MBps এ স্পিড উঠানামা করে। এটা দিয়ে টরেন্টও নামাতে পারবেন, টরেন্ট বিডি থেকেও ডাউনলোড হয় তবে আমার পরামর্শ থাকবে এটা দিয়ে টরেন্ট বিডি ব্যবহার না করার।

দ্বিতীয় অ্যাপ

এটা মনে হয় একটি মডিফাইড HotVPN, এখানে এড দেখার ঝামেলা নেই। তবে স্পিড নিয়ে সন্দেহ রয়েছে। এখানে স্পিড এক এক সময় এক এক রকম থাকে।

VPN টি ডাউনলোড করে নিন এখানে ক্লিক করে।

এবার ইন্সটল করে চালু করুন। লোডিং হওয়ার জন্য ৩/৪ সেকেন্ড অপেক্ষা করতে হবে।

এবার স্ক্রিণের মাঝখানে গোলাপী রংয়ের Swtich Server Lcoation বাটনে প্রেস করুন।

বাংলাদেশ ক্যাটাগরিতে ৪টি সার্ভার পাবেন। কোনটিতে বেশি স্পিড পান সেটা নিজে চেক করে নিবেন।

কানেক্ট করা হলে স্পিড টেস্ট চেক করে নিতে পারেন। তবে অফ পিক আওয়ার এটার পারফরমেন্স আমার কাছে ভালো লাগে নি।

সেরা VPN:

ফ্রি BDIX VPN এর বেলায় সবথেকে ভালো হচ্ছে Bangla VPN যেটা প্রথম পর্বে ফিচার করে হয়েছে। এখানে স্পিড, গেমের পিং, টরেন্ট সাইট সহ সর্বাধিক সাইট সার্পোট, আনলিমিটেড ব্যান্ডউইথ সহ অনেক ফিচার রয়েছে। কিন্তু দুঃখবশত আপনাদের অধিকাংশই এই অ্যাপ ব্যবহার করতে পারেননি, তবে যারা ব্যবহার করতে সক্ষম হয়েছেন এবং এখানো যারা করছেন তাদের জন্য আর অন্য কোনো কিছুর প্রয়োজন হবে না। Xiaomi, Huawei, Samsung এবং ViVo সেটগুলো এই ভিপিএন এক্টিভেশন হতে প্রচুর সমস্যা করে।

পেইড ভার্সন নিয়ে আমার কিছু কথা

প্রথব পর্বে পেইড অপশন রাখলেও আমি কিন্তু এই আজকের পর্বে পেইড অপশন নিয়ে কোনো কথা বলিনি। কারণ আমি এই পেইড কনসেপ্টের পুরো বিপরীতে। আপনি ফ্রিতে BDIX VPN এর যতটুকু সুবিধা নিতে পারেন নিয়ে নিন। এখানে টাকা খরচ করার কোনো মানে হয় না। ইন্টারন্যাশনাল যেসকল VPN রয়েছে যাদের বাংলাদেশ সার্ভার আছে তাদের দিয়েও এই BDIX স্পিড আনা যাবে (যেখানে পিসিতে ব্যবহারের সুযোগ রয়েছে), কিন্তু ইন্টারন্যাশনাল ভিপিএন কিনতে গেলে যে পরিমাণ অর্থ লাগে আপনি সেই টাকা দিয়ে আপনার ISP কে বলে মূল নেট সংযোগের স্পিড অনায়াসে বাড়িয়ে নিতে পারেন।
তবে হ্যাঁ, ইন্টারন্যাশনাল বাদ দিয়ে দেশীয় Party দের থেকে ৫০ কিংবা ১০০ টাকার মাসিক হিসেবে পেইড আপনি নিতে পারেন। বিশেষ করে যদি পিসিতে এই BDIX VPN ব্যবহার করতে চান তাহলে দেশীয় সেলারদের থেকে সার্ভিস নিতে পারেন।

আমি ব্যক্তিগতভাবে পেইড অপশন হিসেবে VHK এর সার্ভার ব্যবহার করি, পিসি এবং মোবাইলে (IOS সহ) সবখানে এদের সার্পোট আছে। পিসিতে আরেকটি উপায় আছে সেটা হলো Panda VPN, তবে এটার জন্য আপনাকে তৃতীয় পক্ষের সাহায্যে ট্রায়াল একাউন্ট নিতে হবে, যেটার প্রসেস একটু ঝামেলার তবে ৫০ টাকায় ১ মাস মন্দ নয়।

পরিশিষ্ট

THIS IS NOT A SPONSORED POST, এটা স্পন্সর করা কোনো পোষ্ট নয়। পোষ্টের দেখানো কোনো VPN থেকেই আমাকে তাদেরকে নিয়ে লিখতে বলা হয়নি, আমি নিজে এগুলো ব্যবহার করে আপনাদের উপকারের উদ্দেশ্যেই নিজ দায়িত্বে লিখেছি।

প্রথম পর্বে বাইপাস মেথড থাকায় খেয়াল করলে দেখবেন ওই পোষ্টটি আমাদের সোশাল মিডিয়ার কোথাও শেয়ার দেয়া হয়নি, শুধু আমি ব্যক্তিগতভাবে আমাদের হেল্পলাইন গ্রুপে শেয়ার দিয়েছিলাম। তবে আজকের এই পোষ্ট আশা করবো সবখানে শেয়ার দেওয়া যাবে ।

শেষ করার আগে একটি কথা, এই VPN গুলো পোষ্ট লেখার সময় পর্যন্ত সচল ছিল। পরবর্তীতে এগুলো বন্ধ কিংবা পরিবর্তিত হতে পারে, তবে এরকম কোনো আপডেট থাকলে পোষ্টটি এডিট করে দেওয়ার চেষ্টা করবো।

 

- Advertisement -

2 COMMENTS

  1. jara pc te net speed barate chay without paying extra money, tara ki korbe
    ami 5mbps er line use kori bt speed always 4mbps er niche pai

  2. bhai vallagena ar, ek jinish ektu mon moto use korte thakle apnara ekdom viral kore nosto kore denz er age ekbar onekdin proxyfire diye use kortechilam valoi. post diye ekdom bangla banay felchen. ekhon abar bangla vpn tay shundor speed pacchilam. ekdom viral kore nosto kore dichen. it’s 2022 jader dorkar tara khuje ber kore apnader etoo viral korar dorkar nai. shuru theke apander YouTube channel follow kori, sob kichui valo lage, but ei jaygay khub i birokto. kono bhoro file custom rom file eisob download korar jonno ektu use kori eitao parina ekhon apnader jalay.

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here