32 C
Dhaka
Wednesday, September 28, 2022

ছোটবেলার গেমস এখন মোবাইলে খেলুন Android Emulator দিয়ে!

- Advertisement -

ছোটবেলার গেমস এই টার্মটি এক এক জনের কাছে এক এক রকম। কারো ছোটবেলা হচ্ছে ১৯৮০ দশকে, কারো ছোটবেলা হচ্ছে ৯০ এর দশকে আর কারো ছোটবেলা কেবল ২০১০ দশকে শুরু হয়েছিল। কিন্তু আজ আমি ৯০ দশক মানে আমার ছোটবেলার কিছু নস্টালজিক গেমস কিভাবে মোবাইলে খেলবেন সেটা নিয়ে কিছু কথা বলবো।

আজকের পোষ্টটি অ্যান্ড্রয়েড এমুলেশন বা অ্যান্ড্রয়েডের এডভান্স ইউজারদের জন্য

মোবাইলে কেন?

- Advertisement -

উইন্ডোজ ১০ বা ১১ তে এই রেট্রো গেমস চলাতে গেলে বেশ কিছু কম্পাবিলিটি সমস্যা দেখা দেয়। আপনি চাইলেই পিসিতে এখন এইসব গেমস হয়তো বা খেলতে পারবেন না। আর মোবাইলে আমরা সঠিক এমুলেটর দিয়ে যেকোনো রেট্রো গেমস খেলতো পারবো! আর ছোটাবেলায় খেলা এই পিসি বা কনসোল গেমসগুলো এখন আমরা বড় হয়ে মোবাইলে শুয়ে বসে খেলবো এটাই আমার ধারণা ছিলো। কারণ এখন আমরা বড় হয়ে গিয়েছি, অফিস বা সংসারের কাজের ফাঁকে পিসিতে বসে গেমস খেলা এখন আর আমাদের শোভা পায় না।

যা যা লাগবে:

১) মোবাইল ফোন। অ্যাপল ডিভাইসে এমুলেশন নিয়ে আমার তেমন একটা ধারণা নেই । সেখানে জেলব্রেক ডিভাইস হলে হয়তো বা খুঁজলেও এমুলেটর পেতে পারেন। আজ অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসের এমুলেশন নিয়ে কথা বলবো।
এমুলেটর চালাতে হলে একটু পাওয়ারফুল ডিভাইসের দরকার হয়। লো এন্ড ডিভাইসে এমুলেটর দিয়ে গেম খেলতে গেলে বেশ বেগ পোহাতে হবে আপনাকে। মিড রেঞ্জ ডিভাইসেও 30FPS অনেক এমুলেটর গেমসে পায় না। হাই এন্ড ডিভাইস হলেই কেবল আপনি এইসব গেমসের আসল মজা পাবেন।

২) এমুলেটর অ্যাপ। বিভিন্ন ধরণের এমুলেটর এখন প্লেস্টোরে পাওয়া যায়। আবার বেটা সংস্করণ বা প্রো ভার্সন পেতে হলে আপনাকে ইন্টারনেট থেকে আলাদা করে apk ফাইল নামিয়ে ইন্সটল করে নিতে হবে।

- Advertisement -

বায়োস ফাইল: কনসোল গেমস খেলতে হলে যে কনসোলের এমুলেটর নামিয়েছেন সেটার বায়োস ফাইল নামিয়ে আলাদা করে সেটআপ করে নিতে হবে।

৩) Rom ফাইলস। এমুলেটরের গেমসগুলো জিপ আকারে বা iso ফরম্যাটে নেটে পাওয়া যায়। এগুলোকে রম ফাইলস বলে। রম ফাইলস নামিয়ে সেটে রাখতে হবে।

৪) শুধুমাত্র গেম রম নামানোর সময় নেট কানেক্টশন লাগবে। অ্যান্ড্রয়েডে খেলার সময় নেট সংযোগের দরকার নেই। মানে আপনি অফলাইনে যখন তখন এই গেমগুলো খেলতে পারবেন।

বাজেট অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইস

- Advertisement -

শুরু করছি লো এন্ড বা কম পাওয়ারফুল ডিভাইসের গেম দিয়ে। উল্লেখ্য যে লো এন্ড বলতে এখানে আমি মিনিমাম ৩ জিবি র‌্যাম এবং স্ন্যাপড্রাগন ৪৪০ বা মিডিয়াটেকের G80 প্রসেসরওয়ালা ডিভাইসকে বুঝিয়েছি। তবে ব্যক্তিগতভাবে 4GB র‌্যামের নিচের মোবাইলে এমুলেশন গেম না চালানোই ভালো।

বাজেট অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসে শুধুমাত্র আপনি NeoGeo বা Mame এর গেমসগুলো খেলতে পারবেন। ছোটবেলায় কয়েন ঢুকিয়ে মোস্তফা, মেটাল স্লাগ বা কিং অফ ফাইটারস খেলতেন যে সেগুলোই বাজেট অ্যান্ড্রয়েডে চলবে।

প্লেস্টোরে Mame এর দুটি সংস্করণ রয়েছে। আপনাকে একটু সর্তকতার সাথে ভার্সনটি চয়েজ করতে হবে। দুটি সংস্করণের গেমসগুলো একে অপরের থেকে আলাদা। প্রথমে আপনাকে নেটে গিয়ে mame4droid 0.139u1 roms লিখে সার্চ দিতে হবে। বিভিন্ন রম ওয়েবসাইটে গিয়ে আপনি গেমসগুলো চেক করে নিতে পারেন।

Mame অ্যান্ড্রয়েড এমুলেটর প্লেস্টোর থেকে ডাউনলোড করে নিন। তারপর রম ডাউনলোড করুন। গেম রম ডাউনলোড করতে উপরের দেখানো নিয়মে আপনার Mame Version দিয়ে নেটে সার্চ দিন।

রম ফাইলসগুলো জিপ আকারে থাকবে। ডাউনলোড করে সঠিক পাথে রাখুন। তারপর এমুলেটরটি চালু করলেই হোম স্ক্রিণে গেমগুলো চলে আসবে।

মিড রেঞ্জ ডিভাইস

মিড রেঞ্জ ডিভাইস বলতে আমি ২০ থেকে ৩০ হাজারের ডিভাইসগুলোকে বুঝিয়েছি। ৮ জিবি র‌্যাম, স্ন্যাপড্রাগ ৭২০ কিংবা মিডিয়াটেকের G95 প্রসেসর থাকলে আপনি বেশ ভালোভাবেই বেশকিছু গেমস খেলতে পারবেন।
মিড রেঞ্চে আপনি অরিজিনাল প্লেস্টেশন, প্লেস্টেশন পোর্টেবল এবং গুটিকয়েক wii গেমস খেলতে পারবেন। আর উপরে mame গেমসগুলো তো খেলতে পারবেনই।

PlayStation 1

প্লেস্টেশন ১ এর গেমসগুলো খেলার জন্য আপনাকে ePSXe এমুলেটরটি ব্যবহার করতে হবে। প্রথমে এমুলেটর apk নামিয়ে নিন তারপর বায়োস ফাইলটি ডাউনলোড করুন।

ক) এমুলেটর apk
খ) এমুলেটর Bios

তারপর এমুলেটরটি চালু করুন। প্রথমে আমাদেরকে বায়োস সেট করে নিতে হবে।

Run Bios অপশনে ট্যাপ করুন। অটোমেটিক অ্যাপটি আপনার ফোনের মেমোরি স্ক্যান করে বায়োস ফাইলটি বেছে নিবে। যদি তা না হয় তাহলে আপনি ম্যানুয়ালভাবে কোথায় বায়োস ফাইলটি রেখেছেন সেটা সিলেক্ট করে দিবেন।

রমসগুলো ডাউনলোড করতে পারেন নিচের কয়েকটি সাইট থেকে:

লিংক ১, 

লিংক ২,

লিংক ৩

প্লেস্টেশনের উল্লেখযোগ্য কিছু গেমস:

RoadRash, Final Fantasy VII, Resident Evil 2, Resident Evil 3, FIFA 05, Silent Hill, RoadRash Jailbreak, WWF SmackDown! 2, Metal Gear Solid, Mortal Kombat 4 ইত্যাদি।

Sega Dreamcast

এই এমুলেটর দিয়ে নস্টালজিক গেম Virtua Cop 2, হাউস অফ দ্যা ডেড ২ এই জাতীয় গেমসগুলো মোবাইলে খেলতে পারবেন।

এর জন্য আমাদের দরকার ReDream এমুলেটর। প্রথমে এমুলেটরকে ডাউনলোড করে নিন এখানে ক্লিক করে।

এবার ড্রিমকাস্ট ওপেন করুন। নিজের মতো করে ডিসপ্লে সেটিংস করে নিন।

এবার গেমসের পালা। ঠিক একই ভাবে নেটের বিভিন্ন সাইট থেকে আপনি গেমের রম ফাইল ডাউনলোড করে আপনার ফোনে রাখবেন। এই অ্যাপের জন্য নিদির্ষ্ট পাথে রাখার প্রয়োজন নেই, আপনি গেম ডাউনলোড করে স্মার্টফোনের যেকোনো স্থানে রেখে দিবেন অ্যাপটি নিজে থেকেই অটো স্ক্যান করে গেম বের করে নেবে।

এই এমুলেটরের গেমগুলো নিচের সাইটগুলো থেকে ডাউনলোড করতে পারেন:

লিংক ১

লিংক ২

লিংক ৩

এই এমুলেটরের কিছু সেরা গেমস হচ্ছে:

House of the Dead 2, Virtua Cop 2, Resident Evil 3, Marvel VS Capcom, House of the Dead 1, Crazy Taxi 2, Price of Persia Arabian Nights, Virtua Fighter ইত্যাদি।

Play Station Portable

মিডরেঞ্জ ডিভাইসগুলোর জন্য সবথেকে ভালো এমুলেটর হচ্ছে প্লেস্টেশন পোর্টেবল এর PPSSPP এমুলেটরটি। এটি প্লেস্টোরে ফ্রিতে পাওয়া যায়। ভালো স্পিড আর বিশাল গেম কালেক্টশন রয়েছে এখানে।
প্লেস্টোর থেকে PPSSPP ডাউনলোড করে নিন। তারপর ওপেন করুন।

এবার আমার দেওয়া সেটিংসগুলো ফলো করে সেট করে নিন ব্যাস!

PSP এর গেমগুলো আপনি নিচের সাইটে পাবেন:

লিংক ১

লিংক ২

লিংক ৩

PSP এর কিছু পপুলার গেমস হচ্ছে:

Resident Evil 4, The Godfather, GTA Vice City Stories, NFS Most Wanted, Burnout Dominator, NFS Underground Rivals, God of War Ghost of Sparta, Assassins Creed Bloodlines, Tekken 6, PES 2012, FIFA 14, Midnight Club 3, Metal Slug XX ইত্যাদি।

ফ্ল্যাগশীপ ডিভাইস

ফ্ল্যাগশীপ ডিভাইস বলতে যেসব ডিভাইসের Antutu স্কোর ৭ লাখের উপরে তাদেরকে বুঝিয়েছি। মনে রাখবেন এমুলেটরগুলো CPU এর ক্ষমতায় চলে তাই যে সেটের প্রসেসর ভালো সেখানে উন্নত কোয়ালিটির এমুলেটর গেমস চালাতে পারবেন।
ফ্ল্যাগশীপ ডিভাইসে আপনি আগের সব এমুলেটর Mame, NeoGeo, PSP, PS1, Dreamcast সহ নতুন করে Wii আর Playstation 2 এমুলেটর চালাতে পারবেন। এর মধ্যে প্লেস্টেশন ২ এমুলেটর হচ্ছে সবথেকে পাওয়ার হাঙ্গরি।

Wii

Wii গেমস অ্যান্ড্রয়েডে চালাতে হলে আপনার লাগবে Dolphine এমুলেটর। প্লেস্টোর থেকে ডলফিন এমুলেটর নামিয়ে নিন। আর কোনো সেটআপ করার প্রয়োজন নেই।

Wii গেমসগুলো এখান থেকে নামাতে পারবেন।

Playstation 2

সবথেকে হেভি লোড নিবে প্লেস্টেশন ২ এর এমুলেটর। প্লেস্টোরে AetherSX2 এমুলেটরটি নামিয়ে নিন। প্লেস্টোর ২ এর গেম লিস্ট অনেক বড় এবং বেশ কিছু জনপ্রিয় টাইটেল এখানে আছে। কিন্তু অ্যান্ড্রয়েডে PS2 গেম এমুলেটর দিয়ে খেলার জন্য বেশ হেভি পাওয়ারফুল ডিভাইসের প্রয়োজন পড়বে।

NFS সিরিজের Most Wanted, Carbon, Shift, Undercover ইত্যাদি কনসোল কোয়ালিটি গেম এটায় খেলতে পারবেন। তবে গেম সাইজ অনেক হবে, প্রায় ২ থেকে ৪ জিবির উপরে হতে পারে। আপনার কাছে ফ্ল্যাগশীপ অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইস থাকলে আপনি PS2 এমুলেটরটি চালিয়ে দেখতে পারেন।

- Advertisement -
Fahad Hossain
Fahad Hossain
Fahad is a freelance writer and editor with nearly 10 years' experience in Bangla Technology Blogging who, while not spending every waking minute selling himself to websites around the world, spends his free time writing. Most of it makes no sense, but when it does, he treats each article as if it were his Magnum Opus - with varying results.

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here