28 C
Dhaka
Friday, September 23, 2022

দেখে নিন ৬০,৭০,৮০,৯০ ও ১ লাখ টাকার সেরা পিসি বিল্ডগুলো[Updated]

- Advertisement -

প্রসেসরের দাম কমেছে, GPU এর দাম ও কমছে ধীরে ধীরে, অনেকেই এই সময়টাতে পিসি বিল্ড করছেন।আমাদের হেল্পলাইন গ্রুপেও প্রতিদিনই আসে প্রচুর বিল্ড পোস্ট। আগের পর্বে আমরা ৩০-৩৫,৪০-৪৫,৫০-৫৫ হাজার রেঞ্জের মধ্যে বিভিন্ন purpose এর জন্য GPU সহ ও ছাড়া মোট ৬টি বিল্ড দেখিয়েছিলাম। আজকের পর্বে আমরা ৬০ হাজার থেকে ১ লাখ টাকা পর্যন্ত বিভিন্ন purpose এর GPU সহ ও GPU ছাড়া মোট  ১৩/১৪টি সম্ভাব্য  সেরা বিল্ড দেখানোর চেষ্টা করেছি যা আশা করছি আপনাদের কাজে লাগবে।

প্রথম পর্বঃ৩০-৩৫,৪০-৪৫,৫০-৫৫ হাজার টাকার বিল্ড

- Advertisement -

নোটঃবর্তমান সময়ে Ryzen 5 5500 এর সাথে 1050 Ti/1650 দিয়ে বেশ ভালো বিল্ড করা সম্ভব যেটা দিয়ে গ্রাফিক্স এর মোটামুটি হেভি কাজ গুলো+গেমিং ভালোভাবে করা সম্ভব, মোটকথা যেকোনো APU বিল্ড থেকে অনেক গুণ ভালো বিল্ড করা সম্ভব 1650/1050 Ti+ Ryzen 5 5500 দিয়ে। তাই আমরা 5700G এখন আর সাজেস্ট করছি না (যদি না আপনার ৮ কোরের প্রসেসর প্রয়োজন হয়।সেক্ষেত্রেও আমাদের আগের আর্টিকেলে যে Ryzen 7 4750G এর বিল্ড রয়েছে সেটিই যথেষ্ট হবে।

বাজেট ৬০-৬৫ঃWithout GPU Build feat Ryzen 7 5700G

যাদের বাজেট ৬০-৬৫ হাজার ও মুলত CPU Heavy কাজগুলোই অনেক বেশি করে করা হবে ও এর পাশাপাশি একেবারেই সামান্য কিছু Esports Games,GTA V, PES,FIFA ,Csgo,Valorent এই ধরনের গেম খেলা হবে তাদের জন্য আমাদের GPU ছাড়া বিল্ড রয়েছে। এই বিল্ডে প্রসেসর হিসেবে আমরা সিলেক্ট করেছি Ryzen 7 5700G, ৮ কোর ১৬ থ্রেডের এই প্রসেসরটি যথেষ্ট পাওয়ারফুল ও সিপিইউ based কাজগুলো করার জন্য এই বাজেটে সবদিক দিয়ে perfect হবে। 3.8 Ghz এর base clock, 4.6 Ghz বুস্ট ক্লক এর এই প্রসেসরটির সাথে রয়েছে ৮ কোরের VEGA iGPU যা যেকোনো বাজেটের ইন্টেলের 10th gen/11th বা 12th gen এর ইন্টারনাল GPU থেকে অনেক ভালো পারফর্মেন্স দেয়।

বিশেষ করে কাজের পাশাপাশি যারা টুকটাক গেম খেলতে চান, GTA V, PES,FIFA, CSGO,Valorent এর মত গেমগুলো বেশ ভালোভাবেই খেলা যাবে এই 2.0 Ghz  clock speed এর iGPU দিয়ে।

মাদারবোর্ডঃMSI B450M Mortar Max

- Advertisement -

মাদারবোর্ড হিসেবে আমাদের সাজেশন থাকবে MSI B450M Mortar Max মাদারবোর্ডটি। সাড়ে নয় হাজার টাকা দামের এই মাদারবোর্ডটি ফিচার ও কোয়ালিটির দিক দিয়ে যথেষ্ট ভালো ও এবং এই বিল্ডের প্রসেসরটির সর্বোচ্চ বের করে আনার জন্য যথেষ্ট। রয়েছে চারটি র‍্যাম স্লট, দুটি M.2 Slot পর্যাপ্ত পরিমাণ I/O পোর্টস।বোর্ডটির Look ও যথেষ্ট aggressive।

র‍্যাম কোনটা নিবেন????

Ram হিসেবে আমাদের সাজেশন Kingston Fury Beast 8GB 3200 Mhz র‍্যাম যার বর্তমানে 3250 টাকায় পাওয়া যাবে। ১৬ জিবির খরচ পরবে ৬৫০০ টাকা।

PSU: Antec CSK 550W Bronze PSU/Corsair CV 550W Bronze PSU 4200/4800 tk

পাওয়ার সাপ্লাই হিসেবে এই বিল্ডের জন্য ৫৫০ ওয়াটের এ্কটি ব্রান্ডেড পাওয়ার সাপ্লাই যথেষ্ট। সাজেশন থাকবে Corsair CV 550W Bronze PSU টি। অনেক বছর ধরে আমাদের দেশে এই বাজেটে গর্বের সাথে ও সুনামের সাথে রাজত্ব করে আসছে এই পাওয়ার সাপ্লাইটি । Antec CSK 550W Bronze ও ভালো একটি অপশন যার দাম ৪২০০ টাকা, কর্শেয়ার নিলে খরচ বাড়বে আরো ৬০০ টাকা।দুটি পাওয়ার সাপ্লাই ই ব্রোঞ্জ সার্টিফায়েড ও পাবেন ৫ বছরের ওয়ারেন্টি।

স্টোরেজঃ

- Advertisement -

যেহেতু এই বিল্ডে হেভি কাজ করা হবে, এডিটিং,রেন্ডারিং,প্রোগ্রামিং,প্রোডাক্টিভিটির সাথে কন্টেন্ট ওয়াচিং ,টুকটাক গেমিং ও করা হতে পারে , সেজন্য এখানে সেকেন্ডারি স্টোরেজ হিসেবে একটি হার্ডড্রাইভ (seagate barracuda 1tb 7200 RPM) ও প্রাইমারী স্টোরেজ হিসেবে একটি ২৫৬ গিগাবাইট এর NVMe লাগিয়ে নেওয়ার পরামর্শ থাকবে। যদিও স্টোরেজ এর পছন্দ একেবারেই ব্যক্তিগত। তবে ৬০-৬৫ হাজারের মধ্যে HDD+SSD এর এই কম্বিনেশনটা ভালোমতই যায়। SSD হিসেবে Kioxia Exercia 250 GB M.2 NVMe নিতে পারেন, এছাড়াও রয়েছে MSI SPATIUM M.2 NVMe/ Transcend 110S NVMe ইত্যাদি।

কেসিংঃMontech X1 Mesh (Black/white) 3900 tk 

কেসিং হিসেবে Montech X1 Mesh কেসিংটি নিতে পারেন, এর ফ্রন্টে রয়েছে মেশ, রয়েছে চারটি Fixed RGB Fans। রুফ বা top এ আরো ২টি ফ্যান লাগানো যাবে। যেহেতু GPU লাগানো হবে না, সেক্ষেত্রে কিছুটা compact এই কেসিংটি নিলে airflow তে তেমন অসুবিধা একেবারেই হবে না। সাদা ও কালো ,দুই রঙয়েই available রয়েছে Montech X1 কেসিংটি। দাম ৩৯০০ টাকা। বরাবরের মতই নিজের পছন্দমত Casing নেওয়ার সুযোগ থাকছেই ক্রেতার।

last updated on 11th may

বাজেট ৬০-৬৫ হাজারঃ Build with GPU

60-65 হাজার টাকায় এক সময় 1660 Super,1660 দিয়ে খুবই ভালোমত অনেক সুন্দর বিল্ড করা যেত। GPU প্রাইস বাড়ার পর তা এক রকম অসম্ভবই হয়ে দাড়িয়েছে। তবে সম্প্রতি কিছুটা দাম কমায় 1660/1660 Super না হলেও1650 দিয়ে অন্তত বিল্ড করা সম্ভব যা নিয়ে আমরা এখন ধারণা দেওয়ার চেষ্টা করবো।

CPU ,Motherboard,RAM,Storage

এই বিল্ডটি দিয়ে ভিডিও এডিটিং/প্রোডাক্টিভিটি,গেমিং সবকিছুই ভালোমত করা সম্ভব। প্রসেসর হিসেবে আমরা সাজেস্ট করছি core i3 12100f যার দাম ১০৫০০ টাকা। এই চার কোর আট থ্রেডের প্রসেসরটি এই দামে অত্যন্ত পাওয়ারফুল, গেমিং এ Ryzen 5 3600,3700x এর মত প্রসেসর থেকে বেটার পারফর্ম করে ,কিছু ক্ষেত্রে সমান পারফর্ম করে। Productivity তেও এর পারফর্মেন্স যথেষ্ট ভালো। মাদারবোর্ড হিসেবে থাকছে Gigabyte H610M S2H যার দাম ৯৩০০ টাকা।

এছাড়াও র‍্যাম হিসেবে যথারীতি আমরা সাজেস্ট করছি Corsair Vengeance LPX এর ৮ জিবির দুটি স্টিক অথবা Kingston fury beast 8gb 3200 mhz এর দুটি স্টিক। সাথে ২৫০ গিগাবাইট এর NVMe ও Seagate HDD।

GPU

গ্রাফিক্স ৬০-৬৫ হাজার টাকায় এই মুহুর্তে GPU দিয়ে বিল্ড করতে চাইলে মোটামুটি বলা যায় যে GTX 1650 ছাড়া আর কোনো অপশন নেই,বলা বাহুল্য MSI 1650 Ventus ছাড়াও কোনো অপশন নেই। যেহেতু এটি গেমিং,এডিটিং,প্রোডাক্টিভিটি,রেন্ডারিং সব ধরনের ওয়ার্কলোড বিবেচনা করেই করা একটি বিল্ড, তাই এখানে আমরা PCIe4 enabled CPU,MOBO থাকা সত্বেও RX 6500 XT সাজেস্ট করতে পারছি না কারণ RX 6500 XT এর রয়েছে বহুবিধ সমস্যা। এর নেই কোনো AV1 Encoder, ভিডিও রেন্ডারিং এর জন্য নেই কোনো encoder,decoder। PCie Lane অনেক কম থাকায় পারফর্মেন্স ও খুব বেশি ভালো নয়, streaming করেও সুবিধা করা যাবে না। সব বিবেচনা করে আমাদের তাই GTX 1650 কেই বেছে নিতে হচ্ছে।

PSU,Casing

এই সিস্টেমের জন্য ৫৫০ ওয়াটের পাওয়ার সাপ্লাই যথেষ্ট। ৫৫০ ওয়াট এর মধ্যে অর্ধেক ও ব্যবহার হবে না ফুল লোডে। যাই হোক, নিতে পারেন Corsair CV 550W/Antec CSK 550W। ৪৮০০/৪২০০ টাকা দাম পরবে।

যেহেতু গ্রাফিক্স কার্ড রয়েছে, সেজন্য একটু বেশি স্পেস,ক্লিয়ারেন্স,ভালো এয়ারফ্লো,বেশি ফ্যান,স্লট যুক্ত কেস নেওয়াই ভালো মনে করি আমরা। DeepCool CC560 WH কেসিং টি বেশ ভালো হবে এই বিল্ডের জন্য। দাম ৪৪০০ টাকা। ক্রেতা নিজের ইচ্ছামত বাজেট বাড়িয়ে অন্য কেস ও নিতে পারেন, তবে এয়ারফ্লো,স্পেস,ক্লিয়ারেন্স,ফ্যান এগুলোর কথা মাথায় রাখবেন।

last updated on 11th may

বিকল্প বিল্ড (৬০-৬৫ হাজার বাজেট-with gpu)

যারা প্রাথমিকভাবে বিল্ড করে পরে বিল্ডের পেছনে আরো ৬/৭ হাজার টাকা খরচ করতে পারবেন তাদের জন্য একটি বিকল্প বিল্ড রয়েছে যেখানে প্রাথমিকভাবে সিঙ্গেল চ্যানেল ৮ গিগাবাইট র‍্যাম নিয়ে ও ১২০ গিগাবাইট SATA SSD নিয়ে,550W  এর পরিবর্তে 450w পাওয়ার সাপ্লাই নিয়ে একটু তুলনামুলক ভালো প্রসেসর নেওয়ার সুযোগ রয়েছে। এক্ষেত্রে Core i5 11400f নেওয়া সম্ভব এই বাজেটে, তবে সেক্ষেত্রে PCIe5 ও DDR5 এর সাপোর্ট পাওয়া যাবে না। তবে দুটি বিল্ডে যেহেতু গ্রাফিক্স কার্ড একই থাকছে, তাই Real Life Gaming performance এ পার্থক্য ১৯-২০ এর বেশি দেখা যাবে না প্রায় ২ ক্ষেত্রেই সমান পারফর্মেন্স পাওয়া যাবে। বরং সিঙ্গেল চ্যানেল র‍্যাম, ৮ গিগাবাইট এর র‍্যামের জন্য 2nd stick র‍্যাম লাগানোর আগ পর্যন্ত এডিটিং,রেন্ডারিং,মাল্টিটাস্কিং,  গেমিং সবক্ষেত্রেই কিছুটা সমস্যার সম্মুখীন হওয়া লাগতে পারে। যাই হোক, বিল্ডটি নিচে দিয়ে দেওয়া হলো, ৩০০০ টাকা রেঞ্জের ভ্যালু টপ বা এই ধরনের ব্রান্ডগুলোর কেসিং নিলে খরচ আরো ১৫০০ মত কমানো যাবে।

last updated on 11th may

 

বাজেট ৭০-৭৫ হাজারঃ With GPU build

বাজারের অন্যতম জনপ্রিয় জিপিইউ GTX 1660 Super এর দাম অবশেষে কমেছে। ৪৫-৫৫ থেকে এক লাফে দাম এখন ২৮-৩০ হাজারে নেমে এসেছে।।  সেক্ষেত্রে Ryzen 5 5500 এর সাথে GTX 1660 Super এর pairup করে সাথে ১৬ জিবি র‍্যাম ও অন্যান্য ডিসেন্ট বাজেট কম্পোনেন্ট দিয়ে ভালো কোয়ালিটির ভ্যালু ফর মানি ও পাওয়ারফুল একটি পিসি বিল্ড সম্ভব ৭০-৭৫ হাজারে।যেটি দিয়ে প্রোডাক্টিভিটি,গ্রাফিক্স ডিজাইন,ভিডিও এডিটিং, 1080p high-ultra সেটিংসে গেমিং ও স্ট্রিমিং খুবই ভালোভাবেই করা সম্ভব।

as of 15th July

আলোচনাঃ

বিল্ডের খরচ আসছে ৭১০০০ টাকা মত। যাদের বাজেট এর থেকে বেশি, তারা চাইলে GIGABYTE B450M Aorus Elite মাদারবোর্ডটি নিতে পারেন। অথবা সুযোগ রয়েছে কেসিং এ বাজেট বাড়িয়ে ৫০০০ টাকার রেঞ্জে বেশ কিছু সুন্দর ভালো ভালো কেসিং রয়েছে সেগুলো নেওয়ার।তবে কেসিং যেটি সাজেস্ট করা হয়েছে সেটিও অসাধারণ, লুক, বিল্ড কোয়ালিটি বা ফিচার, সব দিক দিয়েই সুন্দর, চারটি ফ্যান রয়েছে, লাগানো যাবে মোট ৮টি। আরো অপশন আছে Storage এর ক্ষেত্রে SATA3 বাদ দিয়ে 250GB এর কোনো একটা NVMe নিয়ে নেওয়ার।

অনেকেই প্রশ্ন করতে পারেন যে Ryzen 5 5500 কেন ,এর থেকে কি 11400F বেটার হতো না? তাতে Gen4 এর সাপোর্ট ও পাওয়া যেত যা পরবর্তীতে কাজে আসতো, এর উত্তর খুবই সহজ, 11400f দিয়ে ওভারল ভালো কোয়ালিটির বিল্ড করতে গেলে খরচ বাড়তো বেশ অনেক খানি (৫/৬ হাজার) ।একই সাথে এটাও জেনে রাখা ভালো যে 5500 এর পারফর্মেন্স ও বলতে গেলে 11400 এর identical। তবে যাদের এই GEN4 এর সুবিধা অবশ্যই অবশ্যই লাগবে অথবা যারা ইন্টেল ছাড়া অন্য কিছু দিয়ে বিল্ড করবেন না তাদের জন্য নিচের বিল্ডটি দিয়ে দেওয়া হলো।

As of 15th July

এখানে যদি খরচ বাচাতে চান সেক্ষেত্রে মাদারবোর্ডে Downgrade করা লাগবে। ৯৫০০০-১০০০০ টাকায় Gigabyte/MSI এর কিছু মডেল রয়েছে দেখতে পারেন। র‍্যাম চাইলে একটি স্টিক কম নিতে পারেন (সেটি কখনোই রেকমেন্ডেড না)।

বাজেট ৭০-৭৫ হাজারঃ (without gpu) GPU পরে নেওয়া হবে

যাদের বাজেট ৭০-৭৫ হাজার টাকা ও আপাতত GPU ছাড়া বিল্ড করতে চাচ্ছেন ও পরবর্তীতে কয়েক মাসের মধ্যে RTX 3060 Ti,3070 বা 3070 Ti এর মত GPU লাগিয়ে নিবেন বিল্ডে ,তাদের জন্য এই বাজেটে রয়েছে নিচের বিল্ডটি। কেও যদি চান SSD ২৫৬ গিগাবাইট এর নিয়ে সেই টাকা Motherboard এ দিয়ে বা SSD সম্পুর্ণ বাদ দিয়ে সেই টাকা মাদারবোর্ডে দিয়ে আরো ভালো মাদারবোর্ড নিতে তাহলে তাও করতে পারেন। ক্রেতা যাতে পরবর্তীতে M.2 Slot গুলোতে এসএসডি আলাদা করে লাগাতে পারেন সেজন্য আমরা SSD হিসেবে প্রাথমিকভাবে SATA3 SSD সাজেস্ট করছি। মাদারবোর্ড আরো ভালো নিতে চাইলে অপশন হিসেবে MSI MAG B660M MORTAR/Mortar Wifi, ASUS TUF GAMING B660-PLUS/Plus Wifi ইত্যাদি রয়েছে।

***সিপিইউ কুলার অবশ্যই লাগিয়ে নেবেন***

বাজেট ৮০-৮৫ হাজারঃWith GPU

৮৫ হাজার মত বাজেট করলে Ryzen 5 5600 দিয়ে ও সাথে RTX 2060 12gb দিয়ে এই মুহুর্তে কমপ্লিট বিল্ড করা সম্ভব। এক্ষেত্রে প্রসেসর হিসেবে Ryzen 5 5600+ GEN4 Enabled Motherboard, একটা ১২০ গিগাবাইট SATA SSD নিয়ে বিল্ড করা সম্ভব সেক্ষেত্রে আমাদের estimation এ মোট খরচ আসছে ৮৬০০০ টাকা মত।

এখানে cost cutting এর জায়গা নেই বললেই চলে। বরং কেসিং খুব বেশি দামী বা প্রিমিয়াম কোনো মডেল সাজেস্ট করা গেলো না বাজেট এর কারণে। এই বিল্ডে যদি এই ধরনের প্রিমিয়ামনেস আনতেই হয় অথবা খরচ কমাতে হয় সেক্ষেত্রে বেশ কিছু জায়গায় ছাড় দেওয়া লাগবে, 5600 বাদ দিয়ে 5500 নেওয়া, Gen4 Supported Motherboard বাদ দেওয়ার মত কাজ করে ৪-৫ হাজার টাকা বাচানো যেতে পারে। তবে সেটা না করাটাই ভালো।

এছাড়া I5 11400F+GIGABYTE DS3H/MSI 560 A-PRO ইত্যাদি মাদারবোর্ড দিয়ে ইন্টেল বিল্ড সম্ভব। এক্ষেত্রে বলে রাখা ভালো যে ইন্টেল দিয়ে বিল্ড করলে খরচ কিছুটা বাড়তে পারে যদি আপনি ভালো মানের মাদারবোর্ড নিতে চান। এই ক্ষেত্রেও কস্ট কাটিং এর জায়গা একেবারেই নেই বললেই চলে। কেসিং ও খুব বেশি দামী সাজেস্ট করার সুযোগ হয়নি বাজেট এর জন্য।

***পারফর্মেন্স এর দিক দিয়ে Ryzen Build টি বেটার কারণ এখানে প্রসেসর হিসেবে যে 5600 রয়েছে সেটি 11400f থেকে অনেকটাই বেটার পারফর্ম করে***

বাজেট ৮০-৮৫ হাজারঃ গ্রাফিক্স কার্ড পরবর্তীতে লাগানো হবে

এক্ষেত্রে আমরা যে ধরনের কনফিগারেশন দেওয়ার চেষ্টা করছি তাতে ধরে নেওয়া হয়েছে যে পরবর্তীতে এই সিস্টেমে ক্রেতা অনেক বেশি ভারি কাজ করবেন, 1440p/1080p Esports+AAA Gaming, Video editing,graphics Designing,রেন্ডারিং এর ভারি ভারি সব কাজ করা হবে, GPU হিসেবে RTX 3070/3070 Ti বা কমপক্ষে 3060 Ti লাগানো হতে পারে। সেক্ষেত্রে আমরা প্রসেসর হিসেবে সাজেস্ট করছি Core i7 12700 যেটি একটি ১২ কোর ২০ থ্রেডের অত্যন্ত পাওয়ারফুল একটা প্রসেসর ।মাদারবোর্ড হিসেবে রয়েছে Gigabyte B660M Aorus Pro AX, এছাড়াও অন্যান্য কম্পোনেন্ট একটা standard অনুসারে সাজেস্ট করা হয়েছে। এতে মোটামুটি খরচ আসে ৮১০০০ মত। এখানে চাইলে ক্রেতা আরো high-end মাদারবোর্ড নিতে পারেন তবে সেক্ষেত্রে খরচ বাড়বে বেশ। যেহেতু বেশ হাই এন্ড বিল্ড করা হবে, সেজন্য পাওয়ার সাপ্লাই হিসেবে আমরা ৭৫০ ওয়াট পাওয়ার সাপ্লাই সাজেস্ট করেছি। কেসিং এর মধ্যে পর্যাপ্ত এয়ারফ্লো,স্পেস,ক্লিয়ারেন্স, বড় GPU এর জায়গা ,বড় AIO mount করার জায়গা,সুযোগ থাকাও জরুরি এজন্য Casing হিসেবে Antec DF700 FLUX সাজেস্ট করা হয়েছে যেটিতে by default 5টি ফ্যান দেওয়া রয়েছে যার মধ্যে একটি GPU এর নিচে, GPUকে সরাসরি air দেবে। এই কেসে মোট ৯টি ফ্যান লাগানো সম্ভব। লাগানো যাবে 360mm aio ও।

last updated on 11th may

এই বিল্ডটি অসম্পুর্ণ বা imperfect কারণ এখানে একটি ভালো মানের aftermarket aircooler অথবা liquid cooler একেবারেই mandatory কারণ এই প্রসেসর টি অত্যন্ত বেশি হিট হবে ও CPU based heavy কাজ করার সময় অনেক বেশি গরম হতে পারে ও পারফর্মেন্স এর ইস্যু হতে পারে, এজন্যই পরামর্শ থাকবে GPU নেওয়ার সময় একটি ভালো কুলার নিয়ে নেওয়ার।

বাজেট ৯০-৯৫ হাজার With GPU  build FEAT RTX 3050/RX 6600

RTX 3050 অথবা RX 6600 দিয়ে ও সাথে লেটেস্ট জেনারেশন প্রসেসর দিয়ে একটি ব্যালেন্সড বিল্ড করতে চাইলে আপনাকে এই সময়ে নুন্যতম খরচ করতে হবে ৯২/৯৩ হাজার টাকা। শুধুমাত্র গেমিং এর জন্য নিতে চাইলে RX 6600 নেওয়াটাই বেশি ভালো হবে কারণ RTX 3050 থেকে RX 6600 অনেকটাই এগিয়ে। তবে যদি গেমিং এর পাশাপাশি Heavy multitasking, Video editing,rendering,designing এর মত কাজ করেন সেক্ষেত্রে RTX 3050 নেওয়া ছাড়া উপায় নেই।

৯০-৯৫ হাজার টাকার বিল্ডে যদি আমরা Ryzen 5 5600 বা I5 12400f এর সাথে Gigabyte B660M Gaming x/MSI Mag Mortar B550M যোগ করি ও GPU হিসেবে Asrock Challenger D RX 6600/XFX Radeon RX 6600 কিংবা RTX 3050 ব্যবহার করি তাহলে মোটামুটি ব্যালেন্সড একটি বিল্ড করা সম্ভব হয়।

বাজেট আরো কিছুটা বাচাতে মাদারবোর্ড ও কমদামি নেওয়ার সুযোগ রয়েছে তবে এই কাজ না করার ই পরামর্শ থাকবে, কেননা এই বিল্ডটি করে নেওয়ার সময় ধরে নেওয়া হয়েছে যে এই বিল্ড দিয়ে কাস্টোমার হেভি গেমিং,স্ট্রিমিং,এডিটিং,ডিজাইনিং এর মত কাজ করবেন ,সুতরাং এর জন্য প্রসেসর এর ফুল পটেনশিয়াল নিশ্চিত হওয়া জরুরি।

আবার হাতে যদি কিছু টাকা অতিরিক্ত থাকে, সেক্ষেত্রে পরামর্শ থাকবে এই বিল্ডে একটি decent CPU cooler লাগিয়ে নেওয়ার ২/৩ হাজার বাজেট রেঞ্জের মধ্যে। অথবা ক্রেতা তার মনের মত আরো দামী কেসিং ও নিতে পারেন। অথবা আরো ২/৩ হাজার টাকা খরচ করে ৫০০/৫১২ গিগাবাইট এর NVMe স্টোরেজ নিতে পারেন।

কোন বিল্ডটি কাদের জন্যঃ

যারা গেমিং,স্ট্রিমিং করবেন ও একই সাথে ভবিষ্যতে DDR5 সিস্টেমে যাওয়ার ইচ্ছা আছে তারা 12400F এর  বিল্ডটি নিতে পারেন। অন্যদিকে যারা Productivity এর কাজ বেশি করবেন তারা 5600 এর বিল্ডটি নিতে পারেন।

বাজেট ১ লাখ/ With GPU Build feat RTX 3060

I5 12400F+GIGABYTE B660M GAMING X+MSI VENTUS 3060 অথবা Ryzen 5 5600+MSI 550M Mortar+MSI VENTUS 3060. দুই ক্ষেত্রেই বিল্ড যথেষ্ট সুন্দর,পাওয়ারফুল ও ব্যালেন্সড হবে ।যারা DDR5 Support চান বা Intel পছন্দ করেন তারা Intel বিল্ড নিবেন, অন্যথায় AMD এর বিল্ড নিতে পারেন। বাজেট থাকলে সিপিইউ কুলার অবশ্যই নিয়ে নিবেন। এখানে কস্ট কাটিং করার খুব বেশি সুযোগ নেই কারণ হেভি প্রোডাক্টিটিভিটি বা গেমিং এর জন্য সব কম্পোনেন্টই ভালো হওয়া উচিত। দামী বিল্ড হওয়ায় সৌন্দর্যের দিকে নজর দেওয়া হয়েছে ,যথেষ্ট ভালো একটি কেসিং ও দেওয়া হয়েছে যেটিতে ৫টি ফ্যান আছে, পরবর্তীতে আরো চারটি লাগাতে পারবেন। চাইলে Non RGB র‍্যাম নিয়ে ১ হাজার টাকা মত বাচাতে পারেন। তবে মাদারবোর্ড কমদামী কোনো মডেল না নেওয়ারই পরামর্শ থাকবে। আর স্টোরেজের ব্যাপারটা ক্রেতার উপরেই ছেড়ে দেওয়া হলো। বাজেট থাকলে Samsung এর স্টোরেজ নিতে পারেন।

***RTX 3060 ও RX 6600 XT এর পারফর্মেন্স মোটামুটি সবদিক দিয়েই Identical। তবে অবশ্যই Productivity এর দিক দিয়ে 3060 এগিয়ে থাকবে, VRAM এর দিক দিয়েও। কেও চাইলে সেটি দিয়ে বিল্ড করতে পারেন। দাম একই রকম হবে মোটামুটি***

 

প্রথম পর্বঃ৩০-৩৫,৪০-৪৫,৫০-৫৫ হাজার টাকার বিল্ড

বাজেট ১ লাখ ১০ হাজারঃ

উপরের বিল্ড দুটিতে Storage হিসেবে একটি Single 512 GB NVMe,Casing হিসেবে Lianli Lancool 215 Black/White বা Antec DF700 Flux এর সাথে RTX 3060 Ti Ventus দিয়ে বিল্ড সম্ভব এই বাজেটে। স্টোরেজ সেকশনে ক্রেতা ইচ্ছামত খরচ বাচাতে পারেন, কেসিং এর ক্ষেত্রেও একই কথা প্রযোজ্য।

- Advertisement -
Soaad Bin Zaman Shoron
Soaad Bin Zaman Shoron
Gamer | Memer | Tech Enthusiast | Food Hunter | JUST PHYSICS 2018

2 COMMENTS

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here