ROG Strix X370-F Gaming! Premium Ryzen Motherboard with least premium price tag!

আগামি দুই মাসের মধ্যেই বাজারে আমরা দেখতে যাচ্ছি এ এম ডির জেন+ অর্থাৎ রাইজেনের সেকেন্ড জেনারেশন প্রসেসর সিরিজ। এদিকে মার্কেটে জায়গা করে দেয়ার জন্য রাইজনের প্রথম জেনারেশন প্রসেসরের আরো এক ধাপ দাম কমাল এ এম ডি। তাই যারা আগামি এক দেড় মাসের মধ্যে রাইজেনের হাই এন্ড প্রিমিয়াম বিল্ড করতে চাচ্ছেন কিন্তু একেবারে প্রিমিয়াম মানের খরচ করতে চাচ্ছেন না তাদের জন্য মাদারবোর্ড হিসেবে একটি অপশন হতে পারে ASUS ROG Strix X370-F Gaming মাদারবোর্ডটি। আর মাদারবোর্ডে কি কি পাচ্ছেন তা নিয়েই আজকের এই ওভারভিউ। তবে মূল ওভারভিউতে যাবার আগে দেখে নেয়া যাক বাক্সের ভেতরে কি কি পাচ্ছেন এই মাদারবোর্ডের সাথে।

Unboxing

অসাধারণ ডিজাইনের সাধারণ বাক্সটি খুললেই শুরুতে এন্টি স্ট্যাটিক ব্যাগে পেয়ে যাবেন ROG Strix X370-F মাদারবোর্ডটি। মাদারবোর্ডের নিচে পাবেন ইউজার ম্যানুয়াল, ড্রাইভার ডিভিডি, I/O শিল্ড, ROG স্টিকার, ক্যাবল লেবেল, RGB এক্সটেনশন ক্যাবল, M.2 স্ক্রু, ৪ টি সাটা ক্যাবল, 3D প্রিন্টেড মাউন্টিং প্যাকেজ এবং 2-Way Nvidia SLI হাই ব্যান্ডউইথ ব্রিজ।

Overview

বডি ডিজাইন

আসুস তাদের ROG Strix X370-F Gaming মাদারবোর্ডটিকে ব্ল্যাক এবং গ্রে এর কম্বিনেশনে মেট ব্ল্যাক ফিনিশিং দেয়া হয়েছে যা একটু আলাদাভাবেই নজর কেড়ে নেয়। মাদারবোর্ডে আছে X370 চিপসেট এবং AM4 সকেট যা সাপোর্ট করবে এ এম ডির রাইজেন এবং আপকামিং জেন+ প্রসেসর। তবে জেন+ প্রসেসর ব্যাবহারের জন্য আপনাকে বায়স আপডেট করিয়ে নিতে হবে। অন্যান্য রাইজেন মাদারবোর্ডের মত এতেও প্রসেসর সকেটের দুপাশে প্লাস্টিকের ব্র্যাকেট দেয়া হয়েছে এ এম ডির আগের জেনারেশনের সিপিইউ কুলার সাপোর্ট করবে। তবে AM4 সকেট কম্প্যাটিবল সিপিইউ কুলার ব্যাবহারের জন্য আপনাকে সেই দুটি ব্র্যাকেট মাদারবোর্ড থেকে খুলে নিতে হবে।

পাওয়ার ডেলিভারি সিস্টেম

প্রসেসরে পাওয়ার ডেলিভারির জন্য মাদারবোর্ডে দেয়া হয়েছে 8+2 power phase DR.MOS ডিজাইন। আর ভিআরএমগুলোকে ঠান্ডা রাখার জন্য দুই জায়গার উপরে বেশ ভাল ধরণের হিটসিঙ্ক দিয়েছে। বলে রাখা ভাল সম্পূর্ণ নতুন জেনারেশনের আর্কিটেকচারে তৈরি হওয়ার কারণে ভোল্টেজ ক্যাপাসিটরস অর্থাৎ ভি আর এম গুলো অনেকটুকুই পাওয়ার টানে যাতে সেগুলো গরম হয়ে যায়। তাই দুই সেট ভি আর এমের উপর হিটসিঙ্ক দেয়া ROG Strix X370-F এর জন্য একটি মেজর প্লাস পয়েন্ট। প্রসেসরে পাওয়ার ডেলিভারি হবে উপরের দিকে বাম কর্নারে থাকা ৮ পিন সিপিইউ পাওয়ার কানেক্টরের মাধ্যমে।

মেমোরি সাপোর্ট

অন্যান্য রাইজেন মাদারবোর্ডের মত এখানেও আপনারা পাচ্ছেন ডুয়াল চ্যানেলে ৬৪ জিবি পর্যন্ত মেমোরি সাপোর্ট। তবে রাইজেনের প্রসেসর একদমই হাই স্পীড মেমোরি হ্যান্ডেল করতে পারে না। বেশির ভাগ সময় ৩২০০ মেগাহার্টজের কাছাকাছি স্পীড আসলেই পুরো সিস্টেম ক্রেশ করার ঘটনা দেখা গিয়েছে। যদিও ৩২০০+ মেগাহার্টজ প্লাস স্পীড সাপোর্ট করে তারপরেও আপনাকে ৩২০০ মেগাহার্টজের নিচেই চালাতে হতে পারে।

পিসিআই কানেক্টিভিটি

ROG Strix X370-F Gaming মাদারবোর্ডে আপনি পাচ্ছেন ২ টি PCIe 3.0 X16 স্লট, একটি PCIe 2.0 X16 স্লট এবং ৩ টি PCIe 2.0 X1 স্লট। এর মধ্যে প্রথম দুটি X16 স্লট সিপিউর সাথে সরাসরি কানেক্টেড। এছাড়া এই দুটি স্লটের মধ্যে স্টিল শিল্ডিং দেয়া আছে যাকে আসুস সেফস্লট হিসেবে আখ্যায়িত করে আসছে। এই মাদারবোর্ড সাপোর্ট করবে এনভিডিয়ার 2-Way এস এল আই অথবা এ এম ডির 3-Way ক্রসফায়ার টেকনোলজি। তবে যদি মাল্টিজিপিইউ ব্যাবহার করতে যান তাহলে স্লট দুটি চলবে X8 মোডে এবং 3-Way ক্রসফায়ারে নিচের X16 স্লটতি চলবে X4 মোডে।

 

স্টোরেজ অপশন

স্টোরেজের জন্য মাদারবোর্ডে দেয়া আছে ৮ টি সাটা পোর্ট। তাই এই মাদারবোর্ডে সাটা ডিভাইস যেমন হার্ডডিস্ক, এস এস ডি, ডিভিডি ড্রাইভ ইত্যাদি কানেক্ট করা নিয়ে কোন চিন্তা করতে হবে না। এছাড়া দেয়া আছে একটি M.2 এস এস ডি স্লট যা আপনি খুজে পাবেন চিপসেট হিটসিঙ্কের নিচে। তবে অপ্টেন টেকনোলজি কেবল ইন্টেলের সাপোর্টেড হওয়ায় আপনি এতে অপ্টেন মেমোরি লাগাতে পারবেন না।

অডিও চিপ

অন্যান্য প্রিমিয়াম মাদারবোর্ডের মত আসুস তাদের ROG Strix X370-F Gaming মাদারবোর্ডে অডিও চিপ হিসেবে ব্যাবহার করেছে আসুস এক্সক্লুসিভ HD High Definition Audio CODEC S1220A এবং সাউন্ডকে আরো প্রিমিয়াম করে তোলার জন্য প্রয়োগ করা হয়েছে Supreme FX টেকনোলজি।

এছাড়া আপনারা যেন একেবারে প্রিমিয়াম কোয়ালিটির অডিও শুনতে পান সে জন্য আসুস বোর্ডে ইন্টিগ্রেড করেছে ডুয়াল অপ এমপ্লিফায়ার এবং বরাবরের মত ব্যাবহার করেছে হাই কোয়ালিটি জাপানিজ গ্রেড গোল্ড প্লেটেড অডিও ক্যাপাসিটরস।

আরজিবি ইন্টিগ্রেশন

ROG লাইন আপের বোর্ড অথচ আরজিবি থাকবে না তা কি করে হয়? ব্যাক I/O শিল্ড এবং চিপসেট হিটসিঙ্কের মধ্যে ইন্টিগ্রেড করা আছে আসুসের নিজস্ব অরা আরজিবি লাইটিং যা আপনি অরা সিঙ্ক সফটওয়্যার দিয়ে নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন। আর আপনার গ্রাফিক্স কার্ড আর পেরিফেরালস যদি আসুসের হয়ে থাকে তাহলে তো আর কথাই নেই। হারিয়ে যাবেন আরজিবির দুনিয়ায়। এছাড়া আলাদা করে আরজিবি স্ট্রিপ যদি কানেক্ট করতে চান তাহলে মাদারবোর্ডে পাবেন দুটি ৪ পিনের আরজিবি হেডার।

অনবোর্ড হেডার/কানেক্টর

মাদারবোর্ডের মধ্যে আপনি দুটি আরজিবি হেডার ছাড়াও পাচ্ছেন দুটি USB 3.1 Gen 1 কানেক্টর, একটি USB 2.0 কানেক্টর, USB 3.1 Gen 2 ফ্রন্ট পেনেল কানেক্টর, একটি TPM কানেক্টর, দুটি সিপিইউ ফ্যান কানেক্টর, ৩ টি চেসিস ফ্যান কানেক্টর, একটি AIO লিকুইড কুলার পাম্প কানেক্টর, একটি কাস্টম লিকুইড কুলার পাম্প কানেক্টর, ফ্রন্ট পেনেল অডিও কানেক্টর, থার্মাল সেন্সর, ক্লিয়ার CMos জাম্পার এবং সিস্টেম পেনেল কানেক্টর।

ব্যাক আই/ও

মাদারবোর্ডের পেছনে আপনারা পাবেন ৮ চ্যানেল HD অডিও পোর্টস, USB 3.1 Type-C ও Type-A, গিগাবিট ইথারনেট, ৬ টি USB 3.0 পোর্ট, HDMI 1.4B, Display Port 1.2 (যেগুলো আপনি কেবল এ এম ডির এপিইউ লাগালে ব্যাবহার করতে পারবেন) এবং দুটি USB 2.0 পোর্ট। এই বোর্ডে কোন PS/2 পোর্ট রাখা হয় নি।

Conclusion

এই ছিল আমাদের ASUS ROG Strix X370-F Gaming মাদারবোর্ডের ওভারভিউ। বাংলাদেশের বাজারে আপনারা এই মাদারবোর্ডটি ১৭৫০০ টাকা থেকে ১৮৫০০ টাকার মধ্যে পাবেন। যারা মিড বাজেটে প্রিমিয়াম X370 মাদারবোর্ড খুজছেন তাদের জন্য এই মাদারবোর্ডটি একটি অপশন হতে পারে।

মাদারবোর্ডটি কিনতে এখানে ক্লিক করুন

এই মাদারবোর্ড নিয়ে আপনাদের সকল মতামত, অভিযোগ বা যে কোন পরামর্শ জানান কমেন্ট বক্সে। আপনারা সবাই ভাল থাকুন, সুস্থ থাকুন আর সঙ্গে থাকুন পিসিবি বিডির সাথেই।