গ্রাফিক্স কার্ড নিয়ে গত ২ সপ্তাহ ধরে গুজব আর শেষই হচ্ছে না। আজকেও এনভিডিয়ার নেক্সট জেনারেশনের গ্রাফিক্স কার্ড নিয়ে নতুন খবর পাওয়া গেল। এপারেন্টলি, খবর পাওয়া গিয়েছে এনভিডিয়ার স্টকে গেমারদের জন্য নেক্সট জেনারেশন গেমিং গ্রাফিক্স কার্ড স্টকের মধ্যে পরে আছে। ডিজিটাইমস নামক একটি টেক রিলেটেড মিডিয়া গ্রুপ থেকে এই খবরটিই পাওয়া গিয়েছে। তাই এটিকে সম্পূর্ণ গুজব না বলে অনেকটা আধা কনফার্মড খবর বলা যেতে পারে।

আপনারা জানেন ২০১৮ সালের শুরুর দিকেও ক্রিপ্টোকারেন্সি মাইনিঙ্গে সবার আগ্রহ থাকলেও এই জুলাই মাসে এসে সব আগ্রহ এক প্রকারে মাটির নীচে মিশে গেছে। কিছুদিন আগেই বিটকানেক্ট প্রতিষ্ঠানটি বন্ধ হয়ে যায় আর তার সাথেই মরে যায় প্রায় ৮০০ ধরণের ক্রিপ্টকারেন্সি। এছাড়াও বিটকয়েন সহ এক কালের সব হাই প্রাইসড ক্রিপ্টোকারেন্সির দাম এখন কমার পথে। যতই দিন যাচ্ছে ক্রিপ্টোকারেন্সি মাইনারদের সংখ্যা কমে যাচ্ছে। কিন্তু এনভিডিয়া চেয়েছিল মাইনিং মার্কেটে তাদের অস্তিত্ব বজায় রাখতে। তাই মাইনিং মার্কেটকে অনেকটা ওভার এস্টিমেট করে ওভার প্রোডাকশন করা হয়েছিল বর্তমান জেনারেশনের 10 সিরিজের জিপিউ। কিন্তু এখন সেই টাইমলাইন এসে গেছে যখন গেমাররা আর বর্তমান জেনারেশনের জিপিউ কিনতে আগ্রহী নয়। গত মাসে খবর পাওয়া যায় প্রায় ৩ লাখের মত এনভিডিয়া গ্রাফিক্স কার্ড কারখানায় ফেরত এসেছে। অর্থাৎ নতুন জেনারেশনের কার্ড রিলিজের আগে এনভিডিয়াকে এট লিস্ট বেশির ভাগ পুরোন জেনারশনের জিপিউগুলো কনজুমারদের কাছে বিক্রি করতে হবে।

কয়েকদিন আগেই খবর পাওয়া যায় জেনসেন হুয়াং, এনভিডিয়ার ফাউন্ডার ও সিইও, ২০০ জন ল্যাব রিসার্চ পার্সনদের কাছে এনভিডিয়া টাইটান ভি সিইও এডিশন জিপিউ বিতরণ করেন যার মেমোরি ছিল ৩২ জিবি। এই কার্ড শুধুমাত্র হেভি ডিউটি রিসার্চ এর জন্য ব্যাবহার করা হবে। তারপরেও এই ইভেন্ট থেকে বোঝা গিয়েছে এনভিডিয়ার কাছে নেক্সট জেনারেশনের জিপিউ রয়েছে। তাই নতুন জেনারেশনের গ্রাফিক্স কার্ড সিজনের মধ্যে রিলিজ না করার একটিই কারণ হতে পারে আর তা হচ্ছে পুরোন যা স্টক আছে সব শেষ করা।

এবারের কম্পিউটেক্সে জেনসেনকে নেক্সট জেন জিপিউ কখন আসবে তা জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি উত্তর দেন সেগুলো আসতে আরো অনেক দেরি আছে। তার এই কথা থেকে স্পষ্ট বোঝা গিয়েছিল যে মাইনারদের জন্য মাত্রাতিরিক্ত উৎপাদন করা জিপিউগুলোর স্টক শেষ না করা পর্যন্ত এনভিডিয়া বাজারে নতুন কিছু আনবে না। যদিও গুজব রয়েছে আগস্টে নতুন জেনারেশনের জিপিউ রিলিজ হতে পারে, ফুল টাইম মার্কেটে আসতে তা সেপ্টেম্বার বা অক্টোবার লাগতে পারে। তাই স্টকে নতুন জেনারেশনের ১০ লাখ জিপিউ পরে থাকলেও পুরোন জেনারেশনের স্টক শেষ না হওয়া পর্যন্ত এনভিডিয়া নতুন জেনারেশনের গ্রাফিক্স কার্ড বাজারে আনছে না বলে ধারণা করছে ম্যাস টেক মিডিয়া।

তাই যাদের পুরাতন জেনারেশনের এনভিডিয়ার গ্রাফিক্স কার্ড কেনার ইচ্ছা এখনো ইচ্ছে আছে তাদের জন্য সুখবর হতে পারে এই বিষয়। কারণ দ্রুত পুরোন স্টক শেষ করার জন্য এনভিডিয়া ও বোর্ড পার্টনারদের অনেকটা কম দামেই বিক্রি করতে হবে জিপিউগুলোকে। এরকম হলে বাংলাদেশে কার্ডভেদে ২ হাজার থেকে ৮/১০ হাজার টাকা পর্যন্ত দাম কমতে পারে আগস্টের মধ্যেই।