এ এম ডির নেক্সট জেনারেশন স্যাম্পল জিপিউ রেডি?

কিছু সোর্স অনুযায়ী এ এম ডির নেক্সট জেনারেশন ৭ ন্যানোমিটার আর্কিটেকচারের জিপিউ স্যাম্পল অলরেডি তাদের ল্যাবের মধ্যে চালানো হচ্ছে। এ এম ডির নেক্সট জেনারেশনের জিপিউর আর্কিটেকচারের নাম হতে যাচ্ছে ‘নাভি‘। তাদের এই নাভি জিপিউ হতে যাচ্ছে সর্বপ্রথম ৭ ন্যানোমিটার আর্কিটেকচারের গ্রাফিক্স কার্ড।

এটি অবশ্য পরিস্কার যে ২০১৯ সালের দ্বিতীয়ার্ধে বা স্পেসিফিকালি বলতে গেলে জুলাই থেকে সেপ্টেম্বরের মধ্যেই আমরা এ এম ডির নাভি আর্কিটেকচারের গ্রাফিক্স কার্ড মার্কেটে দেখতে যাচ্ছি। ভালো খবর হচ্ছে, জিপিউকে সম্পূর্ণ গেমিং ও প্রফেশনাল কাজের জন্য অপ্টিমাইজ করতে এখনি ল্যাবের মধ্যে স্যাম্পল জিপিউ ফুল টাইম চালানো হচ্ছে। সাধারণ ক্ষেত্রে, রিলিজের ৬ থেকে ৭ মাস আগেই স্যাম্পল উন্নতির কাজ করা শুরু হয়ে থাকে। এই স্যাম্পলকে বলা যেতে পারে একদম খুবই আর্লি স্যাম্পল। ফাইনাল প্রোডাক্ট হিসেবে আসার আগে এই জিপিউর আর্কিটেকচারকে আরো অনেক ইম্প্রুভ করা হবে। এ এম ডিকে আরো অনেক লম্বা পথ পাড়ি দিতে হবে যদি তারা এনভিডিয়াকে ভালো মানের কম্পিটিশন দেয়ার জন্য গ্রাফিক্স কার্ড আগামি বছর বাজারে আনতে চায়।

রিলিজ টাইমলাইন

সেই একই সোর্স বলছে এ এম ডির ৭ ন্যানোমিটার আর্কিটেকচারের নাভি জিপিউ প্রত্যাশার থেকে অনেক ভালো করছে। অবশ্য তাদের কাছ থেকে কোন ডিটেইল্ড স্পেসিফিকেশন বা পাওয়ার ড্র সম্পর্কে কোন তথ্য না পাওয়া যায় নি। তবে আগের সব গুজব থেকে যা জানা গিয়েছে এ এম ডির নেক্সট জেনারেশন জিপিউ ৩০০ ডলারের বাজেট রেঞ্জে GTX 1080 বা RTX 2070 এর সমান বা কাছাকাছি পারফর্মেন্স দিতে সক্ষম হবে। এছাড়া সেই সোর্স অনুযায়ী এ এম ডির নেক্সট জেনারেশন জিপিউ রিলিজ হবে প্রথমে মিড রেঞ্জ গ্রাফিক্স কার্ড মার্কেটে যা রিপ্লেস করবে RX 500 ও 400 সিরিজ গ্রাফিক্স কার্ডগুলোকে। এ এম ডি এরকম রোডম্যাপ বজায় রাখলে হাই এন্ড জিপিউ আমরা ২০১৯ এর শেষের দিকে বা ২০২০ সালের শুরুর আগে দেখতে পাচ্ছি না।

এ এম ডি অলরেডি অফিসিয়াল কনফার্মেশন দিয়ে রেখেছে যে, CES 2019 এ কীনোট সেশনে ৭ ন্যানোমিটার সিপিউ ও জিপিউ আর্কিটেকচার নিয়ে সিইও এবং প্রেসিডেন্ট লিসা সু বিস্তারিত আলোচনা করবেন। এখন মার্কেটে এনভিডিয়ার অনেকটাই ওভারপ্রাইসড RTX সিরিজের জিপিউ বিচরণ করছে। হয়ত আগামি বছরের কম্পিউটেক্সের আগে এনভিডিয়ার মিড রেঞ্জ জিপিউর সিরিজও বের হয়ে যেতে পারে কিন্তু এমন ওভাপ্রাইসড সিচুয়েশনে এ এম ডির ৩০ হাজার টাকার মধ্যে জিপিউ মিডরেঞ্জ গেমার ও প্রফেশনালদের কাছে অনেক আকর্ষণীয় হয়ে উঠবে।

মূল আর্টিকেল সোর্সঃ fudzilla.com