সকল গেমারদের কাছে Assassin’s Creed ফ্র্যাঞ্চাইজটি অনেক জনপ্রিয় একটি সিরিজ। ২০০৭ সালে Assassin’s Creed রিলিজ হবার পর থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত সকল ধরণের গেমিং প্ল্যাটফর্ম এবং রিমাস্টার মিলিয়ে মোট ২৪ টি গেম রিলিজ করা হয়েছে। এদের মধ্যে অবশ্য কাল্পনিক ইতিহাস অনুকরণীয় গেমের সংখ্যা মোট ১২ টি। বাকি গেমগুলো এক্সপানশন বা ছোট গেমিং প্ল্যাটফর্মে এভেল্যাবল। ২০১৯ সালে ইউবিসফট ঘোষণা দিয়েছে কোন এসেসিন্স ক্রিড গেম রিলিজ হবে না। তাই সামার ২০২০ সালের টাইমলাইন রিলিজ নিয়েই ইউবিসফট পরবর্তী Assassin’s Creed গেম ডেভেলপ করে যাচ্ছে। তবে, এই গেমটির দৃশ্যপট কোথায় হবে তা নিয়ে সবার মনে উত্তেজনা কাজ করছে। ইতিমধ্যে অবশ্য ইটালিয়ান রেনেসান্সের রোমে গেমটি ফেরত যাবার কথা আলোচনায় আসলেও The Division 2 গেমে খুঁজে পাওয়া ইস্টার এগ সংকেত দিচ্ছে ভাইকিং টাইমলাইনের দিকে।

Next Assassin’s Creed Teaser In The Division 2

এই স্পেসিফিক টিজারটি খুঁজে পেয়েছেন ইউটিউবার JorRaptor তার The Division 2 গেমপ্লে ওয়াকথ্রু করার সময়। এই পোস্টারটি খুঁজে পাওয়া যাবে পটোমাক ইভেন্ট সেন্টারে যেখানে ‘Valhalla’ লেখা এবং ভাইকিং যোদ্ধাকে নিয়ে বেশ কিছু পোস্টার খুঁজে পাওয়া যাবে।

সাধারণ চোখে পোস্টারটি দেখলে হয়ত এটিকেও একটি ইন গেইম পোস্টার বলেই মনে হতে পারে। কিন্তু যারা এসেসিন্স ক্রিড খেলেছেন বা ফ্র্যাঞ্চাইজটির ফ্যান তাদের চোখ সহজেই চলে যাবে ডান হাতের দিকে। সেখানে দেখা যাচ্ছে ভাইকিং যোদ্ধা একটি বিশেষ বস্তু হাতে নিয়ে রেখেছেন। নর্মাল গেমার বা এসেসিন্স ক্রিড খেলেনি এমন মানুষদের কাছে স্বাভাবিক জিনিস মনে হলেও আমাদের মত মানুষেরা ঠিকই এপল অফ ইডেনকে চিনতে ভুল করেনি। ইউবিসফট এর আগেও অনেকগুলো গেমের টিজার অন্য গেমের মধ্যে দিয়েছে। যাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে Black Flag গেমে Origins এর মিশর টাইমলাইনের টিজার, Watch Dogs গেমে Abstergo Industries এর সিইওকে হত্যা করার মিশন সহ আরো অনেক কিছু।

অবশ্য এই ভাইকিং টাইমলাইন নিয়ে পরবর্তী Assassin’s Creed গেম তৈরি হওয়াটা এখনো গুজবই বলা যায়।কারণ, ইতিমধ্যে আমরা একটি কিছুটা নিশ্চিত হয়েছি যে, Assassin’s Creed Origins এবং Assassin’s Creed Odyssey হচ্ছে একটি ট্রিলোজির অংশ যাদের মূল ফোকাস হচ্ছে প্রাচীন মিশর, গ্রীস এবং ইটালি সাম্রাজ্যের সুপার পাওয়ার। তাই পরবর্তী গেম রোম সাম্রাজ্যেই হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। তবে পরবর্তী গেম ভাইকিং টাইমলাইনে না হলেও ২০২১ বা ২০২২ সালের গেমটি ভাইকিং টাইমলাইনে হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। উল্লেখ্য এমন বড় ধরণের গেম ডেভেলপ করতে সর্বনিম্ন তিন থেকে চার বছর লেগে থাকে ডেভেলপারদের। তাই এই বছর থেকে ডেভেলপমেন্ট শুরু করা হলেও পাবলিশ হতে হতে হয়ত বা ২০২১ সাল লাগতে পারে।

Red Dead Redemption 2 Epic Store Exclusive