গত মাস থেকেই শোনা যাচ্ছিল এনভিডিয়া এর বেশ কিছু RTX 2080 ti জিপিউতে ফল্ট দেখা যাচ্ছে। আরটিফেক্ট আসা, কার্ড প্রচন্ড রকমের গরম হয়ে যাওয়া, সাধারণ ব্যবহারের সময় হঠাৎ করেই নীল স্ক্রিন চলে আসা এমনকি সরাসরি ডেড হয়ে যাওয়ার ঘটনা পর্যন্ত ঘটেছে। যদি সম্পূর্ণ বিস্তারিত জানতে চান তাহলে ভিজিট করুন তাদের ইউজার ফোরাম অথবা রেডিটের অফিসিয়াল সেকশনগুলো

RTX 2080 ti নষ্ট হয়ে যাওয়ার মূল খবর

শুধু দশ বিশটি এমন ঘটনা হলে হয়ত এনভিডিয়া সামাল দিয়ে উঠতে পারত কিন্তু ওয়ার্ল্ড ওয়াইড ইউজারদের ফাউন্ডারস এডিশনের কার্ডগুলো আস্তে আস্তে সমস্যার সম্মুখীন হতে থাকে। এমনকি রিভিউয়ারদের কাছে পাঠানো রিভিউ স্যাম্পল পর্যন্ত ডেড হয়ে যাওয়ার ঘটনা ঘটেছে।

এমতাবস্থায় এনভিডিয়া তাদের ইতিহাসের সর্বোচ্চ আর এম এ অর্থাৎ কার্ড রিটার্ন করার প্রসিডিউরের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। এমন বিশাল সংখ্যক কাস্টমার রিটার্ন সংখ্যা এনভিডিয়া এর আগে কখনোই মোকাবেলা করেনি। তাই এই দুরবস্থা মোকাবেলা করার জন্য এনভিডিয়া অফিসিয়ালি সাময়িকভাবে তাদের প্রোডাকশন বন্ধ করে দিয়েছে। আজ আমাদের কাছে আসা ইমেইল থেকে এই তথ্যটি কনফার্ম করা গিয়েছে। এছাড়াও, এনভিডিয়া তাদের অফিসিয়াল শপের ওয়েবসাইট থেকে RTX 2080 ti কার্ডকে রিমুভ করে দিয়েছে।

ইমেইলের ভাষ্যমতে, এনভিডিয়া কার্ডটির আর্কিটেকচার এবং ওভারঅল কনফিগারেশনে বেশ কিছু ত্রুটি খুঁজে পেয়েছে। সেই ত্রুটিগুলোর সমাধান করেই যত তাড়াতাড়ি সম্ভব এনভিডিয়া তাদের RTX 2080 ti কার্ডের প্রোডাকশন শুরু করতে চাচ্ছে। উল্লেখ্য RTX 2080 ti হচ্ছে মেইন্সট্রিম গেমিং মার্কেটে তাদের প্রিমিয়াম ফ্ল্যাগশিপ গ্রাফিক্স কার্ড যার এমএসআরপি হচ্ছে প্রায় ১২০০ ইউ এস ডলার। বাকি যা স্টকে রয়েছে তা আর এম এ ফুলফিলমেন্ট করার কাজে ব্যবহার করা হবে বলে জানা গিয়েছে।

উল্লেখ্য এনভিডিয়ার ti সিরিজের কার্ড সাধারণত মেইন কার্ড রিলিজ হওয়ার এক বছর পরেই আমরা মার্কেটে দেখতে পাই। যেমন ২০১৬ সালে GTX 1080 রিলিজ হবার এক বছর পর ২০১৭ সালে আমরা GTX 1080 ti বাজারে দেখতে পাই। তবে এবার কেন এমন প্রিমিয়াম কার্ড এত রাশ করে হাই প্রাইসে বাজার আনল তা নিয়ে অনেকের মনেই দ্বিধা ছিল। মূলত এ এম ডি থেকে কোন কম্পিটিশন নেই বলেই চড়া দামে মার্কেট দখলে নিতে চেয়েছিল কোম্পানিটি। কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতি থেকে আমরা দেখতে পাচ্ছি এই ট্যাকটিক অনেকটাই ব্যাকফায়ার করেছে।