অনান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও করোনা ভাইরাসের কারণে সারা দেশে চলছে সেমি লকডাউন! লোকজনকে জরুরী প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বের হতে নিষেধ করা হচ্ছে। বিভিন্ন পরীক্ষা পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে, অফিস বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে । লক ডাউনের জন্য বাংলাদেশে সময় কাটানোর জন্য বর্তমানে সবথেকে বেশি যে গেমটি খেলা হচ্ছে সেটা হলো পাবজি মোবাইল। আমাদের অনেকেই পাবজি মোবাইল গেমটি খেলে থাকি, মোবাইলের জাতীয় গেম হিসেবেও পাবজি মোবাইলকে আখ্যায়িত করা হয়ে থাকে। কিন্তু সমস্যা হচ্ছে বিভিন্ন কারণে গেমটি থেকে ইউজারদের ব্যান করা হয়, শুধুমাত্র চিটিং নয় বরং আরো অনেক কারণেই গেমটি থেকে একাউন্ট ব্যান কিংবা IP ব্যান হয়ে যায়। কারণ Tencent গেমস এর প্রাইভেসি পলিসি বেশ উদ্ভট আর কিছুদিন আগেই তারা এই পলিসিকে আপডেট করেছে! তো চলুন দেখে নেই কিভাবে এই লক ডাউনের সময়ে সুরক্ষিত ভাবে পাবজি মোবাইল উপভোগ করবেন।

VPN সার্ভিস

Tencent এর নতুন প্রাইভেসি পলিসি অনুযায়ী যারা VPN সার্ভিস ব্যবহার করছেন তারা যেকোনো সময়ে একাউন্ট ব্যান খেতে পারেন। পাবজি মোবাইল ডিসকর্ড সার্ভারের FAQ তে (Link 1Link 2) এটা স্পষ্ট করে উল্লেখ করা হয়েছে:

আর সেখানেই মিললো একজন VPN ব্যবহারকারীর খবর:

কম পিং পবার জন্য তিনি ভিপিএন ব্যবহার করছিলেন এবং সম্প্রতি গেম থেকে ব্যান খেয়েছেন।

Host ব্লকিং / Ad-Blocking সফটওয়্যার

আপনি যদি অ্যান্ড্রয়েডে কিংবা এমুলেটরে কোনো প্রকার Ad-block সফটওয়্যার করে থাকেন তাহলে এই কারণেও পাবজি মোবাইল থেকে ব্যান খেতে পারেন। কারণ এই সকল এড-ব্লক অ্যাপগুলো আপনার ক্লায়েন্ট নেটওর্য়াকে বিভিন্ন ধরণের বাঁধা সৃষ্টি করে থাকে; আর এটা গেম ক্লায়েন্ট ধরতে পারলেই আপনি নগদ ব্যান খেয়ে যাবেন।
এছাড়াও রুটেট ডিভাইসে আপনি যদি /system/etc/hosts ফোল্ডারে অতিরিক্ত হোস্ট ব্লক করে থাকেন তাহলেও ব্যান খাওয়ার চান্স থাকবে।

GFX Tools

অনেকেই মনে করেন যে GFX Tools গুলোতে (No Ban-100% Safe) লেখা থাকলেও সেগুলো ব্যান হবার অন্যতম কারণ। আমি নিজে এর ভুক্তভুগি! আপনি যে ধরণেরই টুল ব্যবহার করে থাকেন না কেন; যে কোনো সময়ই এইসকল টুলসের কারণে আপনি ব্যান খেতে পারেন। পাবজি তাদের সিস্টেম নিয়মিত আপডেট করে থাকে আর আপডেটেড সিস্টেম যদি ধরতে পারে যে আপনি থার্ড পার্টি GFX-Tool দিয়ে গেমে গ্রাফিক্যাল পরিবর্তন এনেছেন তাহলে নগদে ১০ বছরের একাউন্ট ব্যান খাবেন। তাই এইসকল টুল ব্যবহার করা বাদ দিয়ে দিন।

Emulator Detection

উল্লেখ্য যে ইতিমধ্যেই মডিফাইড থার্ড পার্টি এমুলেটরে পাবজি মোবাইল খেললেই আপনি ব্যান খাবেন। মডিফাইড থার্ড পার্টি এমুলেটর বলতে যেমন Bluestacks এর আনঅফিসিয়াল কাস্টম মেড ভার্সনগুলো যেগুলো কম র‌্যাম খায় কিংবা ফনিক্স ওএস এর মডিফাইড ভার্সন যেটায় কল অফ ডিউটি চলে সেগুলোতে ভুলেও PUBGM ইন্সটল করতে যাবেন না। আর সবসময়ই চেষ্টা করবেন পিসিতে খেললে Tencent এর অফিসিয়াল GameLoop এমুলেটরে খেলতে।
আর অনান্য এমুলেটরে খেলার সময় লোডিং স্ক্রিণে নিশ্চিত করবেন যে এমুলেটর ডিটেক্টশন এর পপ আপ বার্তা যেন আসে। এমুলেটরে ডিটেক্টশন বার্তা না আসলে সরাসরি এমুলেটরটি বন্ধ করে দিন।

Unknown Source থেকে পাবজি ম্যানুয়্যাল ইন্সটল

সবসময় চেষ্টা করবেন প্লেস্টোর থেকে গেমটি ডাউনলোড / আপডেট দিতে। কারণ google-play API সার্ভিসের মাধ্যমে অ্যাপের হোস্ট চেকিংয়ের মাধ্যমে ডিটেক্ট করা হয় যে অ্যাপ/গেম টি প্লে স্টোর থেকে ইন্সটল করা হয়েছে কিনা। এটা অনেকটাই Signature Verification এর মতোই। বিভিন্ন সাইট থেকে গেমটির APK / OBB বা XAPK ইন্সটলের সময় এই ভেরিফিকেশন প্রসেসটি ডিটেক্ট নাও করতে পারে আর নতুন পলিসি অনুযায়ী এই কারণে আপনি নিচের ইউজারের মতো খেতে পারেন:

১০ এর অধিক রির্পোট খেলে

এটা পাবজি মোবাইলের একটি বিরক্তিকর জিনিস! কোনো প্রকার চিটিং না করেও আপনি এই রির্পোট খাওয়ার কারণে ব্যান খেতে পারেন। পাবজিতে এমন অনেক প্লেয়ার আছে যারা ম্যাচে বেশি কিল করার কারণে কিংবা Pro মুভমেন্ট এর কারণে অনান্য ইউজারদের কাছ থেকে রির্পোট খেয়ে থাকেন। আর একটি ম্যাচে যদি আপনি ১০টি বা এর উপরে রির্পোট খান তাহলে নিশ্চিত থাকেন যে আপনার জন্য ব্যান আসছে।

চিটারদের সাথে খেললে (জেনে কিংবা না জেনে)

এই ব্যাপারটি খুবই ভয়াবহ। আপনার টিমে চিটার থাকলে আপনি নিজেও ব্যান খেতে পারেন। চিটার ইউজারের সাথে ৩ এর অধিক ম্যাচ খেলার পর আপনি সহ আপনার টিমের বাকি ২ জনেও ব্যান খাবার অনেক বেশি সম্ভাবনা রয়েছে। তবে একই র‌্যান্ডম চিটার টিমমেট পরপর ৩বার পড়ার ঘটনা খুবই কম। তাই এই নতুন পলিসির জন্য সবসময় চেষ্টা করবেন আপনার ট্রাস্টেস বন্ধুদের সাথে খেলতে, র‌্যান্ডম টিমমেট পরিহার করে চলুন।

মাউস-কিবোর্ডের ব্যবহার

পাবজি মোবাইল গেম খেলার সময় বিভিন্ন অ্যাপ (যেমন অক্টোপাস) ব্যবহার করে অ্যান্ড্রয়েড মোবাইলেই মাউস – কিবোর্ড এড করা যায়। আর এখন এই পদ্ধতি ব্যবহার করে গেমে মাউস/কিবোর্ড ব্যবহার করলেই আপনি স্থায়ী ব্যান খেয়ে যাবেন। মাউস কিবোর্ড শুধুমাত্র এমুলেটরে ব্যবহার করে এমুলেটর ইউজারদের জন্যই বৈধ করা হয়েছে।

বোনাস:

UC কেনায় অতিরিক্ত সর্তকতা

পাবজি গেমে UC কেনার সময় আমাদের অধিকাংশই সরাসরি Play Store থেকে না কিনে থার্ড পার্টিদের কাছ থেকে কিনে থাকি। এক্ষেত্রে আমাদের অতিরিক্ত সর্তক থাকতে হবে। কারণ অনেক অসাধু সেলার রয়েছেন যারা UC কিনে নিয়ে আপনার একাউন্টে দিয়ে থাকে, তারপর তারা প্লেস্টোর বা ব্যাংক থেকে রিফান্ডের জন্য আবেদন করে রিফান্ড নিয়ে নেয় কিন্তু ওদিকে UC কিন্তু আপনার একাউন্টে Sync হওয়া থাকে এবং রিফান্ড নেওয়ার আগেই আপনি UC ব্যবহার করে থাকেন আর এ কারণে আপনি ৩ মাসের অস্থায়ী ব্যান খেতে পারেন। এ অবস্থা থেকে বাঁচার জন্য প্লে স্টোর থেকে অফিসিয়াল ভাবে UC কিনুন। এজন্য প্লেস্টোর একাউন্টটি বাংলাদেশ থেকে USA তে কনভার্ট করে নিন, তারপর বাংলাদেশের বিভিন্ন অনলাইন শপ থেকে গুগল প্লে গিফট কার্ড কিনে নিন এবং প্লে স্টোর থেকে শপিং করুন। এ জন্য আমার এই পোষ্টটি দেখতে পারেন

 

Avatar
Fahad is a freelance writer and editor with nearly 10 years' experience in Bangla Technology Blogging who, while not spending every waking minute selling himself to websites around the world, spends his free time writing. Most of it makes no sense, but when it does, he treats each article as if it were his Magnum Opus - with varying results.