নেক্সট জেনারেশন গ্রাফিক্স কার্ড! আগের থেকে বেশি দেরীতে রিলিজ

আমরা এখন এমন একটি সময়ে এসে গেছি যখন প্রায় সকল গেমারের জীবনেই নতুন জেনারেশনের গ্রাফিক্স কার্ডের প্রয়োজন। দিন দিন যতই নতুন গেম বের হচ্ছে, সগুলোকে হাই রেজোল্যুশনে ভাল মানের গ্রাফিক্স সেটিংসে চালানোর ক্ষমতাও বর্তমান জেনারেশনের জিপিউগুলো হারাচ্ছে। কারণ এক দিকে গেম ডেভেলপাররা কমার্শিয়াল লেভেলে সব ল্যাটেস্ট আর গ্রেটেস্ট টেকনোলোজি সমৃদ্ধ গ্রাফিক্স কার্ড পেলেও গেমারদের গেম খেলার জন্য এখনো নতুন কোন গ্রাফিক্স কার্ড বাজারে ছাড়ে নি গ্রাফিক্স কার্ডের মেজর উৎপাদনকারী দুটি প্রতিষ্ঠান Nvidia এবং AMD। যদিও তাদের আগের জেনারেশনের জিপিউ রিলিজ হয়েছে দুই বছরের উপর হয়ে গেছে, কিন্তু আগের মত দ্বিবার্ষিক ট্রেন্ড ফলো না করে এবার দুটি কোম্পানিই তাদের ল্যাটেস্ট জেনারেশন জিপইউ রিলিজে দেরী করছে। কেন এমন দেরী হচ্ছে সেটা নিয়ে পরবর্তী কোন আর্টিকেলে আপনাদের বিস্তারিত জানানো হবে।

কবে আসতে পারে নেক্সট জেন জিপিউ

তাহলে এত দেরীর মাঝে সকল গেমার, প্রফেশনাল, ইন্থুজিয়াস্ট তথা সকল ধরণের কম্পিউটার ব্যাবহারকারী এবং ভবিষ্যৎ ক্রেতা ও আপগ্রেডকারীদের মনে ও মুখে একটিই প্রশ্ন। ”কখন আসবে নেক্সট জেনারেশনের জিপিউ?” এই প্রশ্নের উত্তর গত মাসেও হয়ত বলা যেত না, কিন্তু রিসেন্ট কিছু ইভেন্ট আমাদের একটি নির্দিষ্ট টাইমলাইন ফিক্স করে দিয়েছে।

Nvidia GeForce

GeForce সিরিজের গ্রাফিক্স কার্ড হচ্ছে Nvidia এর সাধারণ কনজুমার অর্থাৎ গেমারদের জন্য গেমিং সিরিজের জিপিউ। আমরা সাধারণত ২২ মাস বা ২ বছরের মধ্যেই প্রতি জেনারশনের নতুন জিপিউ বাজারে দেখে থাকি। কিন্তু ক্রিপ্টো কয়েন মাইনিংসহ বিভিন্ন কারণে জিপিউর অভাব দেখা দেয় মার্কেটে। যাই হোক জিপিউর দাম বরতমানে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসলেও যদি কেউ জানতে চান কেন জিপিউর দাম ও সাপ্লাইয়ের অবস্থা এত খারাপ হয়েছিল তাহলে পড়ে আসতে পারেন এই আর্টিকেলটি

গত কয়েকদিন আগেই হয়ে গেল কম্পিউটেক্স তাইপেই ২০১৮। সেখানে অনেকেই ধারণা করেছিল এনভিডিয়ার প্রেসিডেন্ট ও সিইও জেনসেন হুয়াং নতুন জেনারেশনের জিপিউর ঘোষণা দেবেন। কিন্তু, সবার আশার গুড়ে বালি দিয়ে তিনি ঘোষণা দেন নতুন জেনারেশন বাজারে আসতে দেরি আছে।

অবশ্য গত কয়েকদিনে এনভিডিয়ার কার্যকলাপ দেখে কিছু একটা ঘটার সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে। প্রথমত আমাদের সোর্স মতে বেশ কয়েকদিন যাবত এনভিডিয়ার আরএন্ডডি ও মার্কেটিং ডিপার্টমেন্টের সাথে বিভিন্ন বোর্ড পার্টনারদের সাইলেন্ট সিক্রেট মিটিং হয়ে যাচ্ছে। এছাড়াও প্রতিনিয়ত তাদের সাথে মেইল আদান প্রদান হচ্ছেও বলে খবর পাওয়া যাচ্ছে। এছাড়া বোর্ড পার্টনাররা ল্যাটেস্ট জেনারশনের প্রসেসরের জন্য GDDR6 এবং HBM2 মেমোরির সাপ্লাই নিচ্ছে বলেও নিশ্চিত হওয়া গিয়েছে। মেমোরি মডিউল সাপ্লাইয়ের খবরটি পড়ে আসতে পারেন এখানে

এত এক্টিভিটি দেখে স্পষ্টই বোঝা যাচ্ছে শীঘ্রই, আগস্টের মধ্যে না হলেও সেপ্টেম্বারের মধ্যে আমরা বাজারে এনভিডিয়ার নতুন জেনারেশনের জিপিউ দেখতে যাচ্ছে।

AMD Radeon RX Series

২০১৬ সালের শুরুর দিকে যখন ভাবা হচ্ছিল এ এম ডি আর কোন ভাল ধরণের জিপিউ বাজারে রিলিজ করতে পারবে না তখন সবাইকে অনেকটা চমকে দিয়ে রিলিজ হয় Radeon RX সিরিজের গ্রাফিক্স কার্ড। সাধ্যের মধ্যে ভার্চুয়াল রিয়ালিটি, এই শ্লোগান নিয়ে তখন রিলিজ হয় RX 480 ও 470 সিরিজের মোট ৪ টি জিপিউ। এরপর ২০১৭ সালের শুরুর দিকে সেই কার্ডগুলোর রিফ্রেশ RX 500 সিরিজের জিপিউ বের হয়। এরপর এ এম ডির সো কল্ড রেভলুশনারি ১২ ন্যানো মিটার প্রসেসরের HBM মেমোরি যুক্ত Vega সিরিজের জিপিউ বের হলেও তা আশানুরূপ পারফর্মেন্স না দিতে পারায় বাজারে টিকতে পারে নি। তবে আশার কথা হচ্ছে সব কিছু চেঞ্জ হতে যাচ্ছে এই বছর।

গত প্রায় ২ বছর ধরেই এ এম ডি তাদের ৭ ন্যানোমিটার গ্রাফিক্স প্রসেসরের উপর রিসার্চ করে আসছিল। যেখানে এনভিডিয়া গোপনীয়তা রক্ষারতে তাদের কোন কিছু শো করে নি সেখানে এ এম ডি শো কেইস করল তাদের 7nm প্রসেসর। এই প্রসেসর জিপিউর পাওয়ার এফিসিয়েন্সি এবং কার্যক্ষমতা অনেকটাই বাড়িয়ে তুলবে। অনেক জায়গায় গুজবও আছে নেক্সট জেনারেশনের RX 680 হয়তবা বর্তমান জেনারেশনের GTX 1080 বা 1080 ti এর সমান পারফর্মেন্স দেবে তাও তাদের অর্ধেক দামে।

যদিও কম্পিউটেক্সে কোন ফিজিক্যাল জিপিউ শো কেইস করা হয়নি, এ এম ডির রোডম্যাপ অনুযায়ী Q3 2018 অর্থাৎ সেপ্টেম্বার মাসের মধ্যেই রিলিজ পাবে তাদের নেক্সট জেনারেশনের গ্রাফিক্স কার্ড। যদি এ এম ডি ও এনভিডিয়া একই টাইমলাইনে তাদের জিপিউ রিলিজ করে তাহলে দুই কোম্পানির হাড্ডাহাড্ডি লড়াইটা সত্যিই দেখার মত হবে।