ইন্টেল ২০২০ সালের শুরুর দিকে কম্পিউটার বাজারে তাদের প্রথম ডেডিকেটেড জিপিউ আনতে পারে। Intel XE আরকিটেকচারে তৈরি হওয়া এই জিপিউ ডিজাইন গেমার এবং ডাটা সেন্টার দুই ধরণের কাস্টমার বেইজের জন্যই রিলিজ করা হবে। ভিডিও গেমস এবং মোবাইলের ক্ষেত্রে 3D কনসেপ্ট ডিজাইন অনেক পপুলার হলেও গ্রাফিক্স কার্ডের জন্য তেমন একটা পপুলার ফিল্ড নয় এটি। মোবাইলে শুধু মাত্র মাইনর হার্ডওয়্যার চেঞ্জ হয় বলে বডি ডিজাইন নিয়ে তেমন কোন কমপ্লিকেশন থাকে না। কিন্তু প্রতি জেনারেশন, মডেল ও ব্র্যান্ড ভেদে জিপিউর বিভিন্ন অংশ চেঞ্জ করা হয়। তাই একটি জিপিউ ডিজাইন করা অনেকটা চ্যালেঞ্জিং ব্যাপার, হোক সেটি একটি রেফারেন্স মডেল।

এ এম ডি জিপিউর কনসেপ্ট ডিজাইনার ও 3D আর্টিস্ট ক্রিশ্চিয়ানো সিকুয়েরা অবশ্য এই নো কনসেপ্ট ডিজাইন প্রথা থেকে বেরিয়ে এসে নিজের ট্যালেন্ট এর মাধ্যমে জানিয়ে দিচ্ছেন ইন্টেল এর ডেডিকেটেড জিপিউ কেমন দেখতে হতে পারে। তার ডিজাইন অনুযায়ী ইন্টেলের ডেডিকেটেড জিপিউর বডি ডিজাইন, তাদের ল্যাটেস্ট অপ্টেন মেমোরির ডিজাইন ফলো করতে পারে। এই ব্লোয়ার স্টাইল ডিজাইন ফলো করবে ডার্ক সিলভার ও নীল রঙের কম্বো এবং কার্ডের পেছনে থাকবে ফ্যান্সি ডিজাইনের ব্যাকপ্লেট যাতে ইউনিকলি ডিজাইন করা থাকবে Xe লোগো।

এই কনসেপ্ট আর্টে স্পেসিফিক যে ডিজাইন দেয়া হয়েছে তা থেকে বোঝা যাচ্ছে, এটি হতে পারে কনজুমার লেভেলের প্রিমিয়াম মডেলের একটি কার্ড। ছবি থেকে দেখা যাচ্ছে ইন্টেলের এই জিপিউতে একটি ৮ পিন ও একটি ৬ পিনের পিসিআই পাওয়ার কানেক্টর রয়েছে।

তবে এটি শুধুমাত্র একটি কনসেপ্ট আর্ট হলেও এই ইউনিক ডিজাইন বিভিন্ন কম্পিউটার ইউজার ও এন্থুজিয়াস্টদের বেশ ভালো ধরণের পজিটিভ ফিডব্যাক পাচ্ছে। ইন্টেলের উচিত হবে, একেবারে এক্সাক্ট না হলেও সামান্য আইডিয়া এই কনসেপ্ট আর্ট থেকে ধার নেওয়া। এখন শুধু অপেক্ষার পালা, দেখার জন্য এই কার্ড কেমন পারফর্ম করতে পারে আর মূল প্রতিদ্বন্দ্বী এনভিডিয়া এবং এ এম ডিকে কেমন কম্পিটিশন দিতে পারে।

মূল সোর্সঃ videocardz.com

এস এস ডির দাম কমতে পারে ১০%