25 C
Dhaka
Tuesday, April 9, 2024

Mi 11X অফিশিয়াল হল দেশের বাজারে

- Advertisement -

সচরাচর Xiaomi Bangladesh কে Redmi ও POCO ব্র্যান্ডের আন্ডারে ঘন ঘন অনেকগুলো ফোন এনাউন্স করলেও সরাসরি Mi লাইন আপের ফ্ল্যাগশিপ অথবা আপার মিড রেঞ্জার গুলোকে তেমন অফিশিয়ালি দেখা যায় না। এবার দীর্ঘদিন পর দেশের বাজারে Xiaomi Bangladesh নিয়ে এল তাঁদের সরাসরি Mi লাইন আপের কোনো ফোন। শাওমি বাংলাদেশের এইবার এনাউন্স করা ফোনটির নাম হচ্ছে Mi 11X। ২০২১ সালের শাওমির Mi 11 সিরিজের আন্ডারে ফ্ল্যাগশিপ ও মিড বাজেটের অনেকগুলো ফোন ইতিমধ্যে বাজারে চলে এসেছে। Mi 11 বাংলাদেশে আসার একটি গুঞ্জন শোনা গেলেও এখনো তা আশার আলো দেখতে পাওয়া যায় নাই। তাই বাংলাদেশে Mi 11 সিরিজের যাত্রা শুরু হল Mi 11X এর মাধ্যমে। আজকের কভার আর্টিকেলে এই ফোনটির স্পেসিফিকেশন, দাম ও এভাইবিলিটি আলোচনা করা হবে-

কিন্তু কথা হচ্ছে এই ফোনটি সরাসরি Mi 11 সিরিজের ফোন না। এটি একটি রিব্র্যান্ডেড ফোন। এটি সর্বপ্রথম Redmi K40 নামে এনাউন্স হল ফেব্রুয়ারিতে। তারপর একই ফোন গ্লোবালি POCO F3 নামে এনাউন্স হওয়ার পর কিছুদিন আগে এটি ইন্ডিয়াতে এনাউন্স হয় Mi 11X নামে অর্থাৎ সচরাচর শাওমি যা করে থাকে। Mi 11 সিরিজের সব ফোনগুলো কোথায় কি নামে এনাউন্স হয়েছে এবং কম্পারাটিভ স্পেসিফিকেশন জানতে পড়ে আসতে পারেন এই আর্টিকেলটিঃ Xiaomi Mi 11 সিরিজের আদ্যপান্ত

- Advertisement -

Specifications:

এই ফোনটি বাংলাদেশে তিনটি কালারে এভাইলেবল হয়েছে। যেগুলো হচ্ছে Celestial Silver, Lunar White & Cosmic Black। POCO F3 এবং Redmi K40 এর সাথে মূলত পার্থক্য হচ্ছে এর কালার ভ্যারিয়েন্টেই এবং ইন্ডিয়াতে ম্যানুফেকচার করা হয়েছে এই ফোনটি। 6.67-inch FHD+ রেজুলেশনের ডিসপ্লের ফোনটিতে রয়েছে Samsung E4 ম্যাটেরিয়ালের তৈরি AMOLED প্যানেল। যাতে রয়েছে বর্তমান স্ট্যান্ডার্ড অনুযায়ী 120Hz রিফ্রেশ রেইট এবং 360Hz টাচ স্যামপ্লিং রেইট। AMOLED প্যানেল ব্যবহার করা হলেও থাকছে না ইন-ডিসপ্লে ফিংগার প্রিন্ট সেন্সর। তার পরিবর্তে থাকছে পাওয়ার বাটনেই অর্থাৎ সাইড মাইউন্টেড ফিংগার প্রিন্ট সেন্সর। ব্রাইটনেস হায়েস্ট উঠতে পারে 1300 nits ও এভারেজে 900 nits পর্যন্ত। Gorilla Glass 5 সামনে ও পিছনে উভয় দিকে দেওয়া হয়েছে প্রোটেকশনের জন্য।

ফোনের চিপসেট হিসেবে থাকছে Snapdragon 870। যা কিনা গত বছর সব ফ্ল্যাগশিপ ফোনে ব্যবহৃত হওয়া Snapdragon 865+ এর রিফ্রেশড অথবা ওভারক্লকড ভার্সন। ক্যাপাবিলিটির কথা চিন্তা করলে এই চিপসেট এখনো যথেষ্ট শক্তিশালী তাই Snapdragon 7xx সিরিজের কোনো চিপসেট ব্যবহারের চেয়ে এই চিপসেটটি ব্যবহারই যথাপোযুক্ত মনে হয়েছে। এই চিপসেটের বিস্তারিত জানতে ঘুরে আসতে পারেনঃ ফ্ল্যাগশিপ কিলারের জন্যই কি Snapdragon 870 এনাউন্স হল? 

- Advertisement -

অনেকেই জানেন যে, শাওমি এইবার আননেসাসারি কোয়াড ক্যামেরা সেটাপের পরিবর্তে ট্রিপল ক্যামেরা দিয়েছে। যাতে রয়েছে 48MP Sony IMX582। অন্যদিকে 8MP এর আল্ট্রা ওয়াইড শুটারটি হচ্ছে Sony IMX335 এবং 5MP টেলিম্যাক্রো সেন্সর। অন্যদিকে ফন্ট্রে 20MP এর Samsung S5K3T2 সেন্সর দেওয়া হয়েছে।

ফোনের পাওয়ার হাউস হিসেবে থাকছে 4520mAh ব্যাটারি। সাথে রয়েছে 33W ফাস্ট চার্জিং যেটি দিয়ে ৫২ মিনিটে ফুল চার্জ হয়ে যাবে আউট অফ দ্য বক্স চার্জার দিয়েই। রয়েছে ডুয়েল স্টেরিও স্পিকার। এছাড়া আরো রয়েছে Dolby Atmos, Hi-Res Audio, and Hi-Res Audio Wireless, Bluetooth 5.1 IR Blaster, NFC, Color Temperature সেন্সর। লাস্টলি IP53 splash resistance দেওয়া হয়েছে টুকটাক ওয়াটার স্প্ল্যাশ থেকে প্রোটেক্ট করার জন্য।

- Advertisement -

এভাইবিলিটিঃ

বাংলাদেশে দুইটি র‍্যামের ভ্যারিয়েন্টে অর্থাৎ 6GB ও 8GB এবং শুধুমাত্র 128GB UFS 3.1 স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্ট এভাইলেবল। যেখানে 6GB/128GB ভ্যারিয়েন্টের মূল্য ধরা হয়েছে  39,999 টাকা অন্যদিকে 8GB/128GB ভ্যারিয়েন্টের মূল্য ধরা হয়েছে 42,999 টাকা। Xiaomi Bangladesh এর অফিশিয়াল ফেইসবুক থেকে জানা গিয়েছে আজ রাত ১০টায় ইভ্যালিতে অফার সহকারে এই ফোনটি এভাইলেবল হবে। তাছাড়া অফলাইন স্টোরে কবে নাগাদ এভাইলেবল তার ব্যাপারে বিস্তারিত জানা যায়নি।

- Advertisement -

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here