২০১৭ সালের শেষের দিক থেকে শুরু হয় ফোনের ডিসপ্লের মধ্যে নচ দেয়ার ট্রেন্ড যার পুরো ২০১৮ সাল জুড়ে দেখা গিয়েছে। স্যামসাং, রেজার ও আসুস ছাড়া প্রায় সব ব্র্যান্ডের মিড রেঞ্জ থেকে হাই প্রিমিয়াম ফোনের মধ্যেই দেখা গিয়েছে কোন না কোন প্রকারের নচ। ২০১৮ সালের শেষের দিকে মেইন্সট্রিম মিডিয়ায় আবির্ভাব ঘটে ফোল্ডেবল ফোন বানানোর কনসেপ্ট। ইতিমধ্যে CES 2019 এ ফোল্ডেবল ফোন এর প্রোটোটাইপ দেখা গেলেও ১৩০০ ডলারের প্রাইস ট্যাগের কারণে তা তেমন প্রভাব ফেলতে পারে নি। বহু বছর ধরে বিভিন্ন ব্র্যান্ড তাদের ফোল্ডেবল ফোন টিজ করে আসলেও খুব সম্ভবত এই বছরের প্রথমার্ধেই Huawei আনতে যাচ্ছে Mate Flex ফোল্ডেবল ফোন।

Huawei Teases ‘Mate Flex’ Foldable Phone

চাইনিজ ফোন কোম্পানি Huawei টিজ করা শুরু করেছে তাদের প্রথম ফোল্ডেবল স্মার্টফোন। Mate Flex ফোনটি দিয়ে Huawei মূলত আপকামিং Samsung Galaxy X লাইন আপের সাথেই কম্পিট করার পরিকল্পনা করছে। ফোল্ডিং ফোন আপনাকে একই সাথে একটি ট্যাব্লেট এবং ফোনের ফিচার দিতে সক্ষম হবে কোন প্রকার পোর্টেবিলিটি এবং সাইজ কম্প্রোমাইজেশন ছাড়াই।

হুয়াওয়ের এই টিজার দেখে অনুমান করা হচ্ছে এটির স্ক্রিন বইয়ের মত ক্লোজ না হয়ে বরং ব্যাক টু ব্যাক ফোল্ড করবে। এর ফলে ফোনটিতে ডুয়াল স্ক্রিন সাপোর্টও থাকতে পারে যার মাধ্যমে একটি মিডিয়া ফাইল দুই পাশের মানুষই উপভোগ করতে পারবে। এখন পর্যন্ত ফোনের অফিসিয়াল নাম না জানা গেলেও আমাদের এনালিস্টদের মতে এটি Mate Flex, Mate Fold বা Mate F বিশিষ্ট নাম নিয়ে রিলিজ হতে পারে।

Huawei এর এই প্রথম ফোল্ডেবল ফোন আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন হবে আগামি ২৪ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ সময় রাত আটটায় Mobile World Congress ইভেন্টে। এই ইভেন্ট অনুষ্ঠিত হচ্ছে স্পেনের বার্সেলোনায় যেখানে সকল ফোন ব্র্যান্ড তাদের লেটেস্ট মডেল ও প্রোটোটাইপ শো কেইস এবং নতুন ফোন লঞ্চ করবে।

Source: Huawei Press Material

Sony 52MP Phone Camera Lens Release