অ্যানাউন্স হয়ে গেল Redmi লাইনআপের ফ্ল্যাগশিপ ডিভাইস Redmi K20 Pro & Redmi K20। Redmi মূলত শাওমির লো-মিড বাজেট মোবাইলের জন্য সাব-ব্র্যান্ড হলেও তাঁরা এইবার K20 লাইন আপের মাধ্যমে ফ্ল্যাগশিপ ডিভাইস অফার করছে.। যার জন্য শাওমি এর নাম দিয়েছে “The Flagship Killer 2.0”। বর্তমানে একটা ফোনে যেসব লেটেস্ট টেকনোলজি থাকা দরকার তাঁর সবি দেয়া হয়েছে এতে। বলা যায় K Series এর মাধ্যমে তাঁরা “Affordable” ফ্ল্যাগশিপ সেগমেন্টে প্রবেশের চেষ্টা করছে।

 

এক নজরের দেখে নেয়া যাক কি দিচ্ছে তারাঃ

১। Redmi K20 Pro প্রথম ডিভাইস যা $400 এর নিচের ফোনে Snapdragon এর লেটেস্ট ফ্ল্যাগশিপ প্রসেসর 855 অফার করছে।

২।48 মেগাপিক্সেল Sony IMX 586 ক্যামেরা। সামনে 20 মেগাপিক্সেল পপ-আপ সেলফি শুটার।

৩।6/64gb থেকে 8/256gb রেঞ্জে চারটি ভ্যারিয়েন্টে তিনটি কালার বাজারে পাওয়া যাবে।

৪।এই লাইন আপের আরেকটি ফোন Redmi K20 তে Snapdragon 730 যা Snapdragon এর প্রথম ৮ ন্যানোমিটার এর প্রসেসর।

Redmi K20 Pro স্পেক

বডি

Redmi K20 Pro গ্লাস ও মেটাল বডি দিয়ে তৈরি। পিছনের অংশে দেয়া হয়েছে 3D Gradient Design যা রিফ্লেকশনে অনেক রিচ কালার প্রোভাইড করে।

ডিসপ্লে

6.3 ইঞ্চের ডিসপ্লে হচ্ছে  Super AMOLED যা FHD+(2340*1080) রেজ্যুলেশন দিতে সক্ষম। যার এসপেক্ট রেশিও হচ্ছে 19.5:9। ডিসপ্লেতে কোনো নচ না থাকায় ৯১% স্ক্রিন টু বডি পাওয়া যাবে। সাথে রয়েছে In-display fingerprint sensor

ক্যামেরা

পিছনের ঠিক মাঝখানে উপরের দিকে এর ৩টি ক্যামেরা দেলা হয়েছে। যার একদম উপরের টি হচ্ছে ৮ মেগাপিক্সেলের টেলিফোটো লেন্স সাথে ২এক্স জুম। এর নিচে একজোড়া ক্যামেরা যার উপরের টি হচ্ছে 48 মেগাপিক্সেল Sony IMX 586 । অন্যটি ১৩ মেগাপিক্সেলের সেকন্ডারি ক্যামেরা যাতে আল্ট্রা ওয়াইড ১২৪ ডিগ্রি ফিল্ড ও ভিউ পাওয়া যাবে।

ফ্রন্ট ক্যামেরা হচ্ছে মটরাইজড পপ-আপ ক্যামেরা যা ২০ মেগাপিক্সেলের এবং এতে ওয়াইড লেন্স ইউস করা হয়েছে বলে গ্রুপ সেলফি ফটো তোলা যাবে শাওমি দাবি অনুসারে

তাছাড়া ৯৬০এফপিএসে স্লো ম ভিডিও শূট করা সুবিধাও থাকছে।

শাওমির দাবি অনুযায়ী সামনের পপ-আপ ক্যামেরা অপেন হতে সময় লাগবে মাত্র ০.৮ সেকেন্ড।

প্রসেসর/জিপিউ

Redmi K20 Pro তে Snapdragon 855 প্রসেসর থাকে জিপিউ হিসেবে থাকছে Adreno 640 । ৬জিবি/৮জিবি র‍্যামের  পাশাপাশি ৬৪জিবি থেকে ২৬৫ জিবি পর্যন্ত স্টোরেজ অফার করছে ।

ব্যাটারি

সেটটিকে পাওয়ার আপ করার জন্য ৪০০০ অ্যাম্পায়ারের লিথিয়াম পলিমারের ব্যাটারি যা চার্জ হবে ২৭ওয়াটের ফাস্ট চার্জার দিয়ে। শাওমি ক্লেইম করছে ৩০মিনিটে ৫৮% চার্জ এবং ৭৪মিনিটে ফুল চার্জ হবে।

কানেক্টিভিটি

চার্জিং/ ডাটা কানেক্টিভিটি এর জন্য থাকছে USB Type C.।বাদ যাচ্ছে না 3.5mm হেডফোন জ্যাক যা সাথে কোয়ালকমের হাইরেস অডিও কোডেক।WiFi 802.11ac, Bluetooth 5.0 সাথে NFC এবং Duel GPS.

কুলিং

Redmi K20 Proতে থাকছে ৮ লেয়ারের গ্রাফাইট স্টেরিও কুলিং টেকনোলজি।তাছাড়া শাওমি আরো দাবি করছে এতে দুই সাইডেই দেয়া হয়েছে থ্রি ডাইমেনশনাল হিট ডিসিপিয়েশন স্ট্র্যাকচার যার কেমন পার্ফম করে তা রিভিউ আসলেই বুঝা যাবে।

এন্ড্রয়েন্ড পাইয়ের উপর MIUI10 থাকবে ওস হিসেবে।
যেহেতু ৬৪ জিবি থেকে শুরু করে ২৫৬ জিবি পর্যন্ত বিশাল স্টোরেজ রেঞ্জ থাকছে তাই এতে আর মাইক্রো এসডি কার্ড ইউস করারা অপশন থাকছে নাহ এতে।

দাম এবং মডেল

৬/৬৪জিবির বেস মডেল পাওয়া যাচ্ছে ২৪৯৯ ইয়েনে।

৬/১২৪জিবির  মডেল পাওয়া যাচ্ছে ২৫৯৯ ইয়েনে।

৮/১২৪জিবির  মডেল পাওয়া যাচ্ছে ২৭৯৯ ইয়েনে।

৮/২৫৬জিবির  মডেল পাওয়া যাচ্ছে ২৯৯৯ ইয়েনে।

কালার হিসেবে পাওয়া যাচ্ছে Glacier Blue, Flame Red, Carbon Black এ তিনটি ভ্যারিয়েন্টে।

 

Redmi K20 Pro চিনে পাওয়া যাবে ১জুন থেকে। প্রি-অর্ডার নেয়া শুরু হয়েছে

Redme K20 স্পেক

Redme K20 এর সব স্পেক একই থাকলেও দুয়েকটা জায়গায় ইনফিরিয়র Redmi K20 Pro  থেকে। প্রধান পার্থক্য হচ্ছে প্রসেসরে। এতে ব্যবহার হয়েছে Snapdragon 730 SoC। Redmi K20 Pro এর মত ট্রিপল ক্যামেরার সেটাপ ইউস করলেও এতে Sony IMX 586 না দিয়ে দেওয়া হয়েছে Sony IMX 582। ওয়াটের ফাস্ট চার্জিং সুবিধার পরিবর্তে ১৮ ওয়াটের দেয়া হয়েছে। DC Dimming সাপোর্ট ও থাকছে নাহ ডিসপ্লেতে।

 

৬/৬৪ জিবির বেস মডেলের দাম শুরু হচ্ছে ১৯৯৯ ইয়েন থেকে।

৮/১২৮ জিবির মডলের মূল্য ২০৯৯ ইয়েন।

৬ জুন থেকে চিনে পাওয়া যাবে।

 

বোনাসঃ Redmi K20 Pro এর একটি এভেঞ্জারস লিমিটেড এডিশন বের হবে যাতে একটি লিমিটেড কেস দেওয়া থাকবে। তবে এটি কখন রিলিজ দেওয়া হবে সেই ব্যাপারে শাওমির তরফ থেকে কোন আভাস দেয়া হয়নি।